PIB Headquarters

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পিআইবি’র প্রাত্যহিক সংবাদ

Posted On: 16 JUN 2020 6:22PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১৬ জুন, ২০২০

 

 

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ তথ্য; সুস্থতার হার বেড়ে ৫২.৪৭ শতাংশ; কোভিড-১৯ সম্পর্কিত কলঙ্ক দূর করতে নির্দেশিকা জারি মন্ত্রকের

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় ১০ হাজার ২৫১ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়েছেন। এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১ লক্ষ ৮০ হাজার ১২ জন। সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৫২.৪৭ শতাংশ, যা থেকে প্রমাণিত হয় আক্রান্ত রোগীদের অর্ধেকেরও বেশি আরোগ্য লাভ করেছেন। বর্তমানে ১ লক্ষ ৫৩ হাজার ১৭৮ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী, তাঁর পরিবারের সদস্য এবং স্বাস্থ্য পরিষেবার অগ্রভাগে থাকা কর্মীরা যে সামাজিক কলঙ্কের মুখোমুখী হয়েছেন, তা দূর করতে মন্ত্রকের পক্ষ থেকে এক বিস্তারিত দিশা-নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1631880 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

নমুনা পরীক্ষার হার বেড়ে দৈনিক ৩ লক্ষ হয়েছে

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক শয্যা সংখ্যা বাড়াতে, গুরুতর অসুখের ক্ষেত্রে উপযুক্ত স্বাস্থ্য পরিষেবা পৌঁছে দিতে এবং পরিষেবা প্রদানকারীদের জন্য ন্যায্য ও স্বচ্ছ মাশুল নির্ধারণ করার জন্য বেসরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদানকারীদের সঙ্গে রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে ঘনিষ্ঠ সমন্বয় বজায় রাখার নির্দেশ দিয়েছে। এই প্রেক্ষিতে তামিলনাডু, ওডিশা, মহারাষ্ট্র, গুজরাট প্রভৃতি রাজ্য পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এই রাজ্যগুলি কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার জন্য বেসরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদানকারী ক্ষেত্রগুলির সঙ্গে সমঝোতা বা চুক্তি করেছে। একই সঙ্গে রাজ্যগুলিকে বলা হয়েছে, সরকারি ও বেসরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবার সুযোগ সকলের কাছে পৌঁছে দিতে, যাতে কোভিড-১৯ রোগীদের গুণগতমানের স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদান করা যায়।

এদিকে সংক্রামিত ব্যক্তিদের নমুনা পরীক্ষার হার বাড়ানোর জন্য পরীক্ষাগারগুলির ক্ষমতা বাড়ানো হচ্ছে। দেশে এখন দৈনিক ৩ লক্ষ নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত ৫৯ লক্ষ ২১ হাজার ৬৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ১ লক্ষ ৫৪ হাজার ৯৩৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। দেশে সরকারি ও বেসরকারি পরীক্ষাগারের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯০৭। এর মধ্যে ৬৫৯টি সরকারি এবং ২৪৮টি বেসরকারি পরীক্ষাগার রয়েছে।

দিল্লিতে নমুনা পরীক্ষার হার বাড়াতে ১১টি জেলার সবকটিতেই স্বীকৃত পরীক্ষাগারগুলিকে নমুনা পরীক্ষার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেকটি জেলা থেকে সংগৃহীত নমুনা জেলাস্তরীয় পরীক্ষাগারগুলিতে অবিলম্বে পাঠানো হচ্ছে। বর্তমানে দিল্লিতে ৪২টি পরীক্ষাগার রয়েছে। এই পরীক্ষাগারগুলির দৈনিক নমুনা পরীক্ষার ক্ষমতা প্রায় ১৭ হাজার।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1631869 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

প্রথম পর্যায়ের আনলক পরবর্তী সময়ে উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রথম পর্যায়ে আনলক পরবর্তী সময়ে উদ্ভূত পরিস্থিতি এবং কোভিড-১৯ মহামারী রুখতে পরবর্তী পরিকল্পনার বিভিন্ন কৌশল নিয়ে রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, মহামারী সংক্রমণ রুখতে সময় মতো গৃহীত সিদ্ধান্তগুলির দরুণ ভালো পরিণাম পাওয়া গেছে। তিনি আরও বলেন, আমরা যখন পিছনের দিকে তাকাবো, মানুষ মনে রাখবেন যে, আমরা সমগ্র বিশ্বের কাছে সহযোগিতামূলক যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত রেখেছে। প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, গত কয়েক সপ্তাহের বিভিন্ন প্রয়াসের ফলে অর্থনীতিতে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসছে বলে লক্ষ্য করা গেছে। তিনি আরও বলেন, আত্মনির্ভর অভিযানের আওতায় অংশগ্রহণকারী রাজ্যগুলিতে কৃষি, উদ্যান পালন, মৎস্য চাষ এবং খুচরো ও মাঝারি শিল্প ক্ষেত্রের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ।

মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর দু’দিনের বৈঠকের অঙ্গ হিসাবে আজকের সভা ছিল প্রথম। আজকের এই সভায় পাঞ্জাব, আসাম, কেরল, উত্তরাখন্ড, ঝাড়খন্ড, ছত্তিশগড়, ত্রিপুরা, কেন্দ্রশাসিত লাদাখ ও পন্ডিচেরী প্রভৃতি রাজ্য অংশগ্রহণ করে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1631923 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

মুখমন্ত্রীদের সঙ্গে কোভিড-১৯ সম্পর্কিত মতবিনিময় সভায় প্রধানমন্ত্রীর প্রারম্ভিক ভাষণ

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1631905 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

স্বাস্থ্য পরিকাঠামো পরিষেবা সম্প্রসারণের জন্য রাজ্যগুলিকে বেসরকারি ক্ষেত্রের সঙ্গে সামিল হওয়ার নির্দেশ দিল কেন্দ্র

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক রোগী শয্যা বাড়ানো এবং জটিল অসুখের চিকিৎসার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য পরিষেবা বাড়ানোর জন্য বেসরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদানকারীদের সামিল করতে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছে। মন্ত্রকের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়েছে, পরিষেবাদাতাদের জন্য ন্যায্য ও স্বচ্ছ মাশুল ব্যবস্থা নির্ধারণ করতে। রোগীরা যাতে দ্রুত ও ন্যায্য মূল্যের গুণগতমানের পরিষেবা পান, তার জন্য স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত স্থানীয় পরিষেবাদাতাদের নিয়ে আলাপ-আলোচনা করতে। আরও বলা হয়েছে, পরিষেবা বাবদ যে মাশুল স্থির হবে, সে সম্পর্কে ব্যাপক প্রচার চালাতে, যাতে রোগীরা ও পরিষেবা দাতা উভয়ই স্বাস্থ্য পরিষেবার বিষয়গুলিতে সম্পূর্ণ সচেতন হতে পারেন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1631776 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত চিকিৎসা পরিষেবা পর্যালোচনা করতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অকষ্মাৎ লোকনায়ক জয় প্রকাশ নারায়ণ হাসপাতাল পরিদর্শন করলেন

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী শ্রী অমিত শাহ কোভিড-১৯ সংক্রান্ত স্বাস্থ্য পরিষেবাগুলি পর্যালোচনা করে দেখতে গতকাল হঠাৎ লোকনায়ক জয় প্রকাশ নারায়ণ হাসপাতাল পরিদর্শনে যান। শ্রী শাহ দিল্লির মুখ্যসচিবকে প্রতিটি করোনা হাসপাতালের করোনা চিকিৎসা ওয়ার্ডে সিসি টিভি ক্যামেরা বসানোর নির্দেশ দেন। উদ্দেশ্য, চিকিৎসা পরিষেবা ব্যবস্থায় নিরন্তর নজরদারি বজায় রাখা এবং রোগীদের সমস্যাগুলি সমাধান করা। শ্রী শাহ করোনা রোগীদের চিকিৎসার কাজে যুক্ত চিকিৎসক ও নার্সদের মনস্তাত্বিক পরামর্শ দেওয়ার জন্য দিল্লির মুখ্যসচিবদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1631723 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

প্রধানমন্ত্রী বন ধন যোজনার পরিধি বর্তমানে ১৮ হাজার স্বনির্ভর গোষ্ঠী থেকে বাড়িয়ে ৫০ হাজার বন স্বনির্ভর গোষ্ঠীতে সম্প্রসারণের প্রস্তাব করা হয়েছে

প্রকৃতির অপ্রত্যাশিত সঙ্কট মোকাবিলায় এবং কোভিড-১৯ মহামারী জনিত চ্যালেঞ্জগুলির মোকাবিলায় সম্পূর্ণ পৃথক ও উদ্ভাবনমূলক প্রয়াস গ্রহণের প্রয়োজন। সমাজের এক শ্রেণীর মানুষ যাঁরা চলতি সঙ্কটের সময় ব্যাপকভাবে প্রভাবিত হয়েছেন, তাঁরা হলেন আদিবাসী মানুষ। এই প্রেক্ষিতে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ট্রাইফেডের উদ্যোগে বন ধন স্টার্ট আপ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এই কর্মসূচির আওতায় বনজ সামগ্রী সংগ্রাহক আদিবাসী মানুষ এবং অরণ্যবাসীরা কর্মসংস্থানের সুযোগ পাচ্ছেন। ইতিমধ্যেই ১ হাজার ২০০-রও বেশি আদিবাসী শিল্পোদ্যোগ গঠন করা হয়েছে, যার মাধ্যমে ২২টি রাজ্যের ১৮ হাজারেরও বেশি স্বনির্ভর গোষ্ঠী এবং বনজ সামগ্রী সংগ্রাহক ৩ লক্ষ ৬০ হাজারেরও বেশি আদিবাসী মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1631790 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

বাড়িতে থেকেই যোগচর্চা, পরিবারের সঙ্গে যোগাভ্যাস অভিযানের ব্যাপারে আয়ুষ মন্ত্রক আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপনে প্রস্তুত হচ্ছে

বর্তমান কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে দৈনন্দিন কাজকর্ম বিঘ্নিত হয়েছে এবং মানুষের যাতায়াতেও নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তাই, এবারের আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপনে সুস্থ-সবল দেহ ও মানসিক চাপ কমাতে যোগচর্চার বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হবে। আয়ুষ মন্ত্রক ইতিমধ্যেই যোগ প্রশিক্ষকদের নিয়ে বিশেষ সভার আয়োজন করছে। আগামী ২১শে জুন সকাল ৬টা ৩০ মিনিটে দূরদর্শনে আয়ুষ মন্ত্রকের এই যোগ সংক্রান্ত বিশেষ সভাটি সম্প্রচারিত হবে। বিশ্ব জুড়ে নতুন পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপনের অঙ্গ হিসাবে বাড়িতে থেকেই যোগচর্চার ব্যাপারে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। আয়ুষ মন্ত্রকও বাড়িতে থেকে পরিবারের সঙ্গে যোগাভ্যাসের বিষয়টিকে উৎসাহিত করছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1631870 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

 

 

পিআইবি’র আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

 

· চন্ডীগড় : কেন্দ্রশাসিত চন্ডীগড়ের প্রশাসক বাইরে থেকে আসা ব্যক্তিদের ওপর নজর রাখার জন্য স্বাস্থ্য আধিকারিকদের নির্দেশ দিয়েছেন। এর মধ্যে যাঁদের বিভিন্ন ধরনের উপসর্গ রয়েছে, তাঁদের ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। সাধারণ মানুষকে দৈহিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং প্রকাশ্য-স্থানে মাস্ক ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

 

· পাঞ্জাব : কোভিড-১৯ মহামারীর দরুণ রাজ্যে ব্যাপক আর্থিক ক্ষতির ফলে মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি পাঠিয়েছেন। এই স্মারকলিপিতে কেন্দ্রের কাছ থেকে ৮০ হাজার ৮৪৫ কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা চাওয়া হয়েছে।

 

· হরিয়ানা : কোভিড-১৯ সংক্রান্ত এক পর্যালোচনা বৈঠকে আধিকারিকদের প্রকৃত কর্তব্যের মনোভাব নিয়ে মানবজাতির সহায়তার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি জোর দিয়ে বলেছেন, কোভিড-১৯ থেকে সুরক্ষার জন্য আরও বেশি পরিমাণে ফেস মাস্ক বন্টন করতে হবে। অন্য এক প্রসঙ্গে সাধারণ মানুষকে রোগ-প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়ানোর পরামর্শ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আয়ুর্বেদিক ও হোমিওপ্যাথি ওষুধে কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই।তাই, মানুষ যদি এ ধরনের ওষুধ সেবন করে থাকেন, তাতে কোনও ক্ষতির আশঙ্কা নেই।

 

· মহারাষ্ট্র : রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ১০ হাজার ৭৪৪। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজার ৫৫৪। মুম্বাইয়ে আরও ১ হাজার ৬৬ জনের সংক্রমণের খবর মিলেছে।

 

· গুজরাট : রাজ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজার ৮৮৬। সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা ২৪ হাজার ৫৫।

 

· রাজস্থান : রাজ্যে আজ আরও ১১৫ জনের সংক্রমণের খবর মিলেছে। এর ফলে, আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৩ হাজার ৯৬। আজ পর্যন্ত এই মারণ ভাইরাসের বলি ৩০২ জন। রাজ্যে সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৭৫ শতাংশ, যা দেশের মধ্যে সর্বোচ্চ। কোভিড-১৯ সম্পর্কে সচেতনতা গড়ে তোলার জন্য আগামী ২১শে জুন থেকে রাজ্যে ১০ দিনের বিশেষ অভিযানের সূচনা হচ্ছে।

 

· মধ্যপ্রদেশ : রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১০ হাজার ৯৩৫। এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪৬৫ জনের। রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হওয়ার সময় বেড়ে হয়েছে ৩৪ দিন ১ ঘন্টা এবং সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৭১.১ শতাংশ, যা দেশের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

 

· ছত্তিশগড় : রাজ্যে নতুন করে ৪৪ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ হাজার ৭১৫। এর মধ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮৭৫।

 

· গোয়া : রাজ্যে গতকাল আরও ২৮ জনের সংক্রমণের খবর মিলেছে। এর ফলে, আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫৯২। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫০৭।

 

· অরুণাচল প্রদেশ : আসামের ধেমাজি থেকে রাজ্যের পূর্ব সিয়াঙ ও অন্যান্য জেলায় অত্যাবশ্যক সামগ্রী সরবরাহের জন্য ট্রাক পরিষেবা শুরু হয়েছে। এক সপ্তাহ আগে এই পরিষেবা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

 

· আসাম : রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ হাজার ৩১৯। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ১০৩ এবং মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের।

 

· মণিপুর : রাস্তার শতাধিক হকারদের ঋণ সহায়তার ব্যাপারে বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনার জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলির আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

 

· মিজোরাম : রাজ্যে ৮ হাজার ৮০০ জনেরও বেশি কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। রাজ্য সরকার নমুনা পরীক্ষার হার বাড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছে।

 

· নাগাল্যান্ড : ডিমাপুরে সংশোধিত লকডাউন নীতি-নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। যাত্রীবাহী যানবাহনের চলাচল ৩০শে জুন পর্যন্ত বন্ধ থাকছে।

 

· কেরল : রাজ্য সরকার বন্দে ভারত মিশনের জন্য নেগেটিভ সার্টিফিকেট বাধ্যতামূলক করতে কেন্দ্রকে বলেছে। কোভিড প্রাইমারী নমুনা পরীক্ষাগারগুলির জন্য রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে নতুন নীতি-নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। এদিকে রাজ্যে ১ হাজার ৩৪৮ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এছাড়াও, বিভিন্ন জেলায় ১ লক্ষ ২০ হাজারেরও বেশি মানুষের ওপর নজর রাখা হচ্ছে।

 

· তামিলনাডু : রাজ্যে ১৩ লক্ষেরও বেশি বিশেষভাবে সক্ষম ব্যক্তি চলতি লকডাউনের সময় ১ হাজার টাকা করে সহায়তা পাবেন। এদিকে রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৬ হাজার ৫০৪। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২০ হাজার ৬৭৮। মৃত্যু হয়েছে ৪৭৯ জনের। কেবল চেন্নাইয়েই আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ হাজার ৩৭৫।

 

· কর্ণাটক : রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আজ ব্যাঙ্গালোরে জানিয়েছেন, ৫০ লক্ষ কৃষকের প্রত্যেককে ২ হাজার টাকা সাহায্য দেওয়ার জন্য রাজ্য সরকার ১ হাজার কোটি টাকা মঞ্জুর করেছে। রাজ্য পরিবহণ নিগমের আন্তঃরাজ্য বাস পরিষেবা আগামীকাল থেকে শুরু হবে। এদিকে রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭ হাজার ২১৩। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৯৮৭। মৃত্যু হয়েছে ৮৮ জনের।

 

· অন্ধ্রপ্রদেশ : ২০২০-২১ অর্থবর্ষের জন্য রাজ্যের অর্থমন্ত্রী বাজেট পেশ করেছেন। এই বাজেটে ২ লক্ষ ২৪ হাজার ৭৮৯ কোটি টাকা ব্যয়ের এবং ১ লক্ষ ৮০ হাজার ৩৯২ কোটি টাকা রাজস্ব বাবদ ব্যয়ের প্রস্তাব করা হয়েছে। এবারের বাজেটে বিভিন্ন খাতে ব্যয় বরাদ্দের পরিমাণ গতবারের বাজেটের তুলনায় ১.৪ শতাংশ হ্রাস করা হয়েছে। কোভিড মহামারীর দরুণ অর্থ ব্যবস্থায় মন্দার জন্য বাজেটে এই হ্রাসের প্রস্তাব করা হয়েছে। এদিকে রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ২ জনের মৃত্যু খবর মিলেছে। আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ২৮০। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৩৪১ এবং মৃত্যু হয়েছে ৮৮ জনের।

 

· তেলেঙ্গানা : কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে রাজ্য সরকারের পরিকল্পনা খতিয়ে দেখা প্রয়োজন বলে বিশেষজ্ঞরা অভিমত প্রকাশ করেছেন। স্বাস্থ্য ক্ষেত্রের বিশেষজ্ঞদের নিয়ে কমিটি গঠনের প্রয়োজনীয়তার ব্যাপারে বিশেষজ্ঞরা মত প্রকাশ করেছেন। রাজ্যে আজ পর্যন্ত ৫ হাজার ১৯৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ২৪০ এবং মৃত্যু হয়েছে ১৮৭ জনের।

 

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1631988) Visitor Counter : 14