প্রধানমন্ত্রীরদপ্তর
azadi ka amrit mahotsav

চেন্নাইতে উন্নয়নমূলক একগুচ্ছ প্রকল্পের শিলান্যাস অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের বায়ান

Posted On: 26 MAY 2022 8:58PM by PIB Kolkata
নতুন দিল্লি, ২৬ মে, ২০২২
 
তামিলনাড়ুর রাজ্যপাল শ্রী আর এন রবি, তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী শ্রী এম কে স্টালিন, কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সহকর্মীরা, তামিলনাড়ু সরকারের মন্ত্রীরা, সাংসদরা, তামিলনাড়ু বিধানসভার সদস্যরা, তামিলনাড়ুর বোন ও ভাইয়েরা, ভানাক্কাম! তামিলনাড়ুতে আসতে সবসময়ই খুব ভালো লাগে। এই জায়গাটি অসাধারণ। এই রাজ্যের মানুষ, সংস্কৃতি ও ভাষা অসামান্য। ভারতিয়ার এটি সুন্দরভাবে প্রকাশ করেছিলেন :
 
সেন্টমিলনাড়ু এননুম পোথিনেলে ইনবা টেন বান্টু পায়ুতু কাদিনিলে।
 
বন্ধুরা, 
 
প্রতিটি ক্ষেত্রেই তামিলনাড়ু থেকে কেউ না কেউ উঠে আসছে। সম্প্রতি আমি আমার বাসভবনে ভারতীয় বধির অলিম্পিক দলের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করেছিলাম। আপনারা হয় তো জানেন, এবারের প্রতিযোগিতায় ভারত নজিরবিহীন ভালো ফলাফল করেছে। কিন্তু আপনারা কি জানেন, আমরা যে ১৬টি পদক জিতেছি তার মধ্যে ৬টিতেই তামিলনাড়ুর তরুণদের ভূমিকা ছিল। দলের জন্য তাঁরা তাদের সেরাটা দিয়েছিলেন। তামিল ভাষা চিরন্তন এবং তামিল সংস্কৃতি বিশ্বব্যাপী। চেন্নাই থেকে কানাডা, মাদুরাই থেকে মালয়েশিয়া, নামাক্কাল থেকে নিউউয়র্ক, সালেম থেকে দক্ষিণ আফ্রিকা – সর্বত্রই পোঙ্গল ও পুথান্ডু উৎসব প্রবল উৎসাহ উদ্দীপনার সঙ্গে পালন করা হয়। ফ্রান্সের কানে যে চলচ্চিত্র উৎসব চলছে, সেখানে মহান তামিলনাড়ুর সন্তান থিরু এল মুরুগান ঐতিহ্যবাহী তামিল পোষাক পরে রেড কার্পেটের উপর হেঁটেছেন। এটা সারা বিশ্বের তামিলদের গর্বিত করেছে। 
 
বন্ধুরা, 
 
তামিলনাড়ুর উন্নয়ন যাত্রার আরেকটি গৌরবময় অধ্যায় উদযাপন করতে আমরা আজ এখানে সমবেত হয়েছি। এখানে ৩১ হাজার কোটি টাকারও বেশি প্রকল্পের উদ্বোধন অথবা ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হচ্ছে। এই প্রকল্পগুলির বিশদ বিবরণ থেকে আমি কয়েকটি বিষয় আপনাদের জানাতে চাই। সড়ক নির্মাণের উপর যে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে, তা স্পষ্টতই বোঝা যাচ্ছে। আমরা এক্ষেত্রে বিশেষ মনোযোগ দিয়েছি কারণ, এটি সরাসরি অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির সঙ্গে যুক্ত। বেঙ্গালুরু-চেন্নাই এক্সপ্রেসওয়ে, বিকাশের দুই প্রধান কেন্দ্রকে সংযুক্ত করবে। চেন্নাই বন্দর থেকে মাদুরাভয়ালের সঙ্গে সংযোগকারী ৪ লেনের এলিভেটেড রাস্তা চেন্নাই বন্দরের দক্ষতা আরও বাড়াবে এবং শহরের যানজট কমাতে সাহায্য করবে। নেরালুরু থেকে ধর্মপুরী এবং মীনসুরুত্তি থেকে চিদম্বরম অংশের সম্প্রসারণে বহু মানুষ উপকৃত হবেন। ৫টি রেল স্টেশনের সংস্কারের কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে বলে আমি বিশেষভাবে খুশী। ভবিষ্যতের চাহিতার কথা মাথায় রেখে এই আধুনিকীকরণ ও উন্নয়ন করা হচ্ছে। স্থানীয় শিল্প ও সংস্কৃতির সঙ্গেও এটি সাযুজ্যপূর্ণ হবে। মাদুরাই এবং থেনির মধ্যে গেজ রূপান্তর আমার কৃষক ভাই বোনদের উপকারে আসবে, তাদের সামনে আরও বাজার খুলে দেবে।
 
বন্ধুরা, 
 
যাঁরা প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার আওতায় ঐতিহাসিক চেন্নাই লাইট হাউস প্রকল্পের অংশ হিসেবে বাড়ি পাবেন, আমি তাঁদের সবাইকে অভিনন্দন জানাই। এই প্রকল্প রূপায়ণ করতে পেরে আমরা খুব খুশী। আমরা সাশ্রয়ী, টেকসই এবং পরিবেশবান্ধব বাড়ি তৈরি করার জন্য বিশ্বের সর্বোত্তম পদ্ধতি অনুসরণ করেছি। রেকর্ড সময়ের মধ্যে এই ধরণের প্রথম লাইট হাউস প্রকল্পটি চেন্নাইতে রূপায়িত হয়েছে। তুরুভাল্লুর থেকে বেঙ্গালুরু এবং এন্নোর থেকে চেঙ্গলপাট্টু পর্য্ত প্রাকৃতিক গ্যাস পাইপলাইন উদ্বোধনের সঙ্গে সঙ্গে তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ ও কর্ণাটকের মানুষ সহজে তরল প্রাকৃতিক গ্যাস পাবেন। দেশের অর্থনৈতিক বিকাশ এবং চেন্নাই বন্দরকে অর্থনৈতিক উন্নয়নের কেন্দ্রে পরিণত করার লক্ষ্যে চেন্নাইয়ে আজ মাল্টি মোডাল লজিস্টিক পার্কের শিলান্যাস করা হচ্ছে। দেশের অন্যান্য অংশেও এই ধরণের পার্ক গড়ে তুলতে আমাদের সরকার বদ্ধপরিকর। এই মাল্টি মোডাল লজিস্টাক পার্কগুলি আমাদের দেশের পণ্য পরিবহণ ব্যবস্থায় যুগান্তকারী পরিবর্তন আনবে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে এইসব প্রকল্পগুলি একদিকে যেমন কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করবে, তেমনি আত্মনির্ভরতার লক্ষ্য পূরণে সহায়ক হবে। 
 
বন্ধুরা, 
 
আমি নিশ্চিত যে, আপনারা প্রত্যেকেই চান আপনাদের সন্তানরা আপনাদের থেকে আরও ভালোমানের জীবনযাপন করুক। আপনারা প্রত্যেকেই আপনাদের সন্তানদের জন্য গৌরবময় ভবিষ্যৎ চান। এই স্বপ্ন বাস্তবায়িত করার সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ পূর্বশর্তগুলির একটি হল শীর্ষ স্তরের পরিকাঠমো নির্মাণ। ইতিহাস আমাদের শিখিয়েছে, যেসব জাতি পরিকাঠামোকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছে, তারাই উন্নয়নশীল থেকে উন্নত দেশে রূপান্তরিত হতে পেরেছে। ভারত সরকার সর্বোচ্চ মানের সুস্থিত পরিকাঠামো নির্মাণের প্রতি সম্পূর্ণ মনোযোগী। আমি যখন পরিকাঠামোর কথা বলছি, তখন আমি সামাজিক ও ভৌত দু’ধরণের পরিকাঠামোর কথাই বোঝাতে চাইছি। সামাজিক পরিকাঠামো উন্নয়নের মাধ্যমে আমরা গরিব কল্যাণের লক্ষ্য অর্জন করতে চাই। সামাজিক পরিকাঠামোর উপর আমাদের জোর, ‘সর্বজন হিতায়, সর্বজন সুখায়’ নীতির প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতাকে নির্দেশ করে। আমাদের সরকার প্রধান প্রকল্পগুলি যতদূর সম্ভব প্রসারিত করার চেষ্টা চালাচ্ছে। শৌচাগার, আবাসন, আর্থিক অন্তর্ভুক্তি, - প্রতিটি ক্ষেত্রেই আমরা যত বেশি সম্ভব মানুষের কাছে পৌঁছবার চেষ্টা করছি। প্রতিটি পরিবারে পানীয় জল পৌঁছে দিতে আমরা – নল সে জল প্রকল্প হাতে নিয়েছি। এক্ষেত্রে বর্জন বা বৈষম্যের কোনো জায়গা নেই। অন্যদিকে, ভৌত পরিকাঠামোর উপর জোর দেওয়ায় সব থেকে বেশি উপকৃত হবে ভারতের যুব সমাজ। এটি যুব সমাজের আশা আকাঙ্খা পূরণ এবং তাদের সম্পদ এবং মূল্য সৃষ্টিতে সাহায্য করবে।
 
বন্ধুরা, 
 
প্রচলিত অর্থে পরিকাঠামো বলতে যা ভাবা হত, আমাদের সরকার তাকে অতিক্রম করে গেছে। কয়েক বছর আগেও পরিকাঠামো বলতে সড়ক, বিদ্যুৎ আর জলের কথা ভাবা হত। আজ আমরা ভারতের গ্যাস পাইপলাইন নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের কাজ করছি। আই-ওয়ে তৈরির কাজ চলছে। প্রতিটি গ্রামে উচ্চ গতি সম্পন্ন ইন্টারনেট পৌঁছে দেওয়া আমাদের লক্ষ্য। এই রূপান্তরের অসীম সম্ভাবনাটা একবার ভেবে দেখুন। কয়েক মাস আগে আমরা প্রধানমন্ত্রী গতিশক্তি কর্মসূচি চালু করেছি। আগামী দিনে ভারতে শীর্ষ মানের পরিকাঠামো নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এই কর্মসূচির মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট সব পক্ষ ও মন্ত্রককে সংযুক্ত করা হয়েছে। লালকেল্লা থেকে আমি একটি জাতীয় পরিকাঠামো পাইপলাইনের কথা বলেছিলাম। এটি ১০০ লক্ষ কোটি টাকারও বেশি মূল্যের একটি প্রকল্প। এই স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দেওয়ার কাজ চলছে। চলতি বছরের বাজেটে মূলধনী ব্যয়ের জন্য সাড়ে সাত লক্ষ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে, যা নজিরবিহীন। এই পরিকাঠামো প্রকল্পগুলি যাতে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে স্বচ্ছভাবে সম্পন্ন হয়, সেদিকেও আমরা নজর রাখছি। 
 
বন্ধুরা, 
 
ভারত সরকার তামিল ভাষা ও সংস্কৃতিকে আরও জনপ্রিয় করে তুলতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। চলতি বছরের জানুয়ারিতে চেন্নাইতে সেন্ট্রাল ইনস্টিটিউট অফ ক্লাসিক্যাল তামিলের নতুন ক্যাম্পাসের উদ্বোধন করা হয়েছে। এর সম্পূর্ণ খরচ বহন করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এখানে একটি প্রশস্ত পাঠাগার, ই-লাইব্রেরি, সেমিনার হল এবং মাল্টিমিডিয়া হল রয়েছে। বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয় সম্প্রতি তামিল চর্চায় ‘সুব্রামনিয়া ভারতী চেয়ার’-এর ঘোষণা করা হয়েছে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ে আমার নির্বাচনী কেন্দ্রে অবস্থিত হওয়ায় আমি আরও বেশি আনন্দ পেয়েছি। জাতীয় শিক্ষানীতিতে ভারতীয় ভাষাগুলির প্রসারের উপর বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। জাতীয় শিক্ষানীতিতে কারিগরি ও মেডিকেল কোর্স স্থানীয় ভাষায় পড়ার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এর থেকে তামিলনাড়ুর তরুণ প্রজন্ম উপকৃত হবে।
 
বন্ধুরা, 
 
শ্রীলঙ্কা এখন অত্যন্ত কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। আমি জানি আপনারা সবাই সেখানকার পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন। ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও প্রতিবেশী হিসেবে ভারত, শ্রীলঙ্কাকে সবরকমের সহায়তা করছে। এর মধ্যে আর্থিক সাহায্য, জ্বালানি সহায়তা, খাবার, ওষুধ, অন্যান্য নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী – সবই রয়েছে। অনেক ভারতীয় সংস্থা ও ব্যক্তি শ্রীলঙ্কায় তাদের ভাই বোনেদের জন্য সহায়তা পাঠাচ্ছে। শ্রীলঙ্কাকে অর্থনৈতিক সহায়তা দেওয়ার জন্য আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভারত দৃঢ়ভাবে সওয়াল করেছে। ভারত শ্রীলঙ্কার মানুষের পাশে রয়েছে। সেখানে গণতন্ত্র, সুস্থিতি এবং অর্থনৈতিক পুনরুজ্জীবনের লক্ষ্যে ভারতের সহায়তা বজায় থাকবে। 
 
বন্ধুরা, 
 
কয়েক বছর আগে আমার জাফনা সফর আমি কখনোই ভুলতে পারব না। আমি জাফনা সফরকারী প্রথম প্রধানমন্ত্রী। শ্রীলঙ্কার তামিল গোষ্ঠীভুক্ত মানুষজনের সহায়তার জন্য ভারত সরকার স্বাস্থ্য পরিষেবা, পরিবহণ, আবাসন ও সংস্কৃতি সংক্রান্ত বহু প্রকল্প চালু করেছে। 
 
বন্ধুরা, 
 
আমরা এখন আজাদি কা অমৃত মহোৎসব পালন করছি। ৭৫ বছর আগে আমরা স্বাধীন জাতি হিসেবে আমাদের যাত্রা শুরু করেছিলাম। আমাদের দেশকে নিয়ে স্বাধীনতা সংগ্রামীদের অনেক স্বপ্ন ছিল। সেগুলি পূরণ করা আমাদের দায়িত্ব। আমি নিশ্চিত যে আমরা সেই কাজ করার যোগ্য হয়ে উঠবো। আমরা সবাই মিলে ভারতকে আরও মজবুত ও সমৃদ্ধশালী করে তুলবো। উন্নয়নের যে কর্মযজ্ঞ শুরু হয়েছে, তার জন্য আবারও অভিনন্দন।
 
ভানাক্কাম!
 
ধন্যবাদ!
 
CG/SD/SKD/


(Release ID: 1828857) Visitor Counter : 45