PIB Headquarters

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পিআইবি’র প্রাত্যহিক সংবাদ

Posted On: 06 OCT 2020 6:26PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ০৬ অক্টোবর, ২০২০

 

 

শতাংশের নিরিখে ভারতে প্রতিদিনই কোভিড আক্রান্ত থেকে সুস্থতার সংখ্যা বাড়ছে, মোট পজিটিভ রোগীর সংখ্যা মাত্র ১৩.৭৫ শতাংশ, ১০টি রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ৭৪ শতাংশেরও বেশি রোগী নতুন করে সুস্থ হয়ে উঠেছেন,২৫টি রাজ্য কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে নতুন সংক্রমিত রোগীর সংখ্যার থেকে সুস্থতার সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে

ভারতে সক্রিয় রোগীর থেকে সুস্থতার সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে। প্রতিদিনই দেশে করোনা সংক্রমণ থেকে বহু সংখ্যক রোগী সুস্থ হয়ে উঠছেন। বর্তমানে মোট সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১৩.৭৫ শতাংশ। অর্থাৎ, দেশে এখন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লক্ষ ১৯ হাজার ২৩। প্রতিদিনই সুস্থতার সংখ্যা বাড়তে থাকায় দেশে মোট করোনা থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ৫৬ লক্ষ ৬২ হাজার ৪৯০ জন। আক্রান্ত এবং সুস্থ রোগীর মধ্যে ব্যবদান ৪৭ লক্ষেরও কিছু বেশি। দেশে করোনায় আরোগ্য লাভের হার ৮৪.৭০ শতাংশ। গত ২৪ ঘন্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭৫ হাজার ৭৮৭ জন। নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬১ হাজার ২৬৭। ২৫টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে নতুন করে করোনা আক্রান্ত রোগীর থেকে করোনায় সুস্থতার হার বেশি। অন্ধ্রপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, তামিলনাডু, কেরল, উত্তর প্রদেশ, ওডিশা, দিল্লি ও পশ্চিমবঙ্গে নতুন করে করোনা থেকে আরোগ্য লাভের হার ৭৪ শতাংশ। মহারাষ্ট্রে ১ দিনে ১৩ হাজার রোগী করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। মহারাষ্ট্রে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এরপরই রয়েছে কর্ণাটকের স্থান। মহারাষ্ট্রে নতুন করে ২৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1661969 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

কোভিড-১৯ প্রতিরোধের জন্য আয়ুর্বেদ এবং যোগ-নির্ভর চিকিৎসাগত ব্যবস্থাপনার জাতীয় খসড়া প্রকাশ করেছেন ডঃ হর্ষবর্ধন

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডঃ হর্ষবর্ধন আজ কোভিড-১৯ প্রতিরোধের জন্য আয়ুর্বেদ ও যোগ-নির্ভর চিকিৎসা পদ্ধতির ব্যবস্থাপনার একটি জাতীয় খসড়া প্রকাশ করেছেন। ভার্চ্যুয়াল এই অনুষ্ঠানে আয়ুষ দপ্তরের একাধিক দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী শ্রী শ্রীপাদ যশো নায়েক, নীতি আয়োগের ভাইস চেয়ারম্যান ডঃ রাজীব কুমার এবং নীতি আয়োগের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বিভাগের সদস্য ডঃ ভি কে পাল উপস্থিত ছিলেন। আয়ুর্বেদ ও যোগ চিকিৎসার মাধ্যমে কোভিড-১৯ রোগ প্রতিরোধের জন্য একটি আন্তঃবিষয়ক কমিটি গঠন করা হয়। আইসিএমআর – এর প্রাক্তন মহানির্দেশিক ডঃ ভি এম কাটোচ এই কমিটির প্রধানের দায়িত্ব পালন করেছেন। চিকিৎসা সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য, যেগুলি পরীক্ষা-নিরীক্ষায় সাফল্য পাওয়া গেছে – সেগুলির ওপর ভিত্তি করে একটি প্রতিবেদন তৈরি করা হয়। এই প্রতিবেদনে বিভিন্ন ওষুধের উপকারিতা এবং সেগুলি রোগীদের ওপর প্রয়োগ করলে তার কোনও বিরূপ প্রভাব দেখা যায় কিনা – এসব তথ্য ঐ প্রতিবেদনে স্থান পেয়েছে। কোভিড-১৯ জন্য জন্য গঠিত জাতীয় টাস্কফোর্সের কাছে এই প্রতিবেদন পেশ করার পর সেটি যৌথ নজরদারি গোষ্ঠীর কাছে পাঠানো হয়। পরবর্তীতে নীতি আয়োগের সুপারিশক্রমে এই খসড়াটি তৈরি করা হয়।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1662002 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

ডাঃ হর্ষবর্ধনের পৌরহিত্যে হু কার্যকরি পর্ষদের পঞ্চম বিশেষ বৈঠক

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডাঃ হর্ষবর্ধনের পৌরহিত্যে হু’র কার্যকরি পর্ষদের পঞ্চম বিশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই বৈঠকে হু’র আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে কোভিড-১৯ প্রতিরোধ সম্পর্কিত একটি প্রস্তাব তুলে ধরা হয়ছে। এই প্রস্তাবে ১৩০টিরও বেশি দেশ সহমত জানিয়েছে। মহামারী নিয়ন্ত্রণে সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সমস্ত প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য প্রযুক্তি ও অন্যান্য সামগ্রী সুষ্ঠুভাবে বিতরণের জন্য সকল দেশের কাছে আহ্বনা জানানো হয়। এই বৈঠকে স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেন,সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে সকলকে একজোট হতে বাধ্য করেছে।তাই জনস্বাস্থ্য ক্ষেত্রে দায়বদ্ধতার সঙ্গে কার্যকরি পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য বিশ্বের সকল সম্প্রদায়কে একযোগে কাজ করা প্রয়োজন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1661847 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

কোভিড-১৯ টিকা মূল্যায়নের জন্য ডিবিটিটিএইচএসটিআইকে একটি বিশ্ব মানের বায়োসাই পরীক্ষাগার হিসাবে স্বীকৃতি প্রদান সিইপিআই-এর

এখন থেকে কোভিড-১৯ টিকার মূল্যায়নে একটি বিশ্ব মানের পরীক্ষাগার ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলার জন্য জৈব প্রযুক্তি বিভাগের অন্তর্গত একটি স্বশাসিত প্রতিষ্ঠান ট্র্যান্সলেশন হেলথ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি ইন্সটিটিউট (টিএইচএসটিআই)কে কোয়ালিশন অফ এপিডেমিক প্রিপিয়ার্ডনেস ফর ইনোভেশন (সিইপিআই) স্বীকৃতি প্রদান করেছে। এখানে কোভিড-১৯ এর টিকাগুলি পরীক্ষা করে দেখা হবে।

 

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1661807 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

রাইজে ২০২০ভার্চ্যুয়ালি বৃহৎ কৃত্রিম মেধার ওপর সম্মেলনের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আজ রাইজে ২০২০ – ভার্চ্যুয়ালি বৃহৎ কৃত্রিম মেধার ওপর সম্মেলনের উদ্বোধন করেছেন। সামাজিক সংস্কার, সমন্বয় এবং স্বাস্থ্য পরিষেবা, কৃষি, শিক্ষা ও এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যাওয়া সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের ক্ষমতায়নের বিষয়ে কৃত্রিম মেধার ব্যবহার নিয়ে এই সম্মেলনে আলাপ-আলোচনা হবে। প্রধানমন্ত্রী কৃত্রিম মেধার ওপর আলোচনার জন্য আয়োজকদের প্রশংসা করেছেন। তিনি বলেছেন, প্রযুক্তি আমাদের কর্মক্ষেত্রের সংস্কার ঘটিয়েছে এবং এর ফলে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি হয়েছে। তিনি আশা করেন, সামাজিক দায়িত্ববোধ এবং কৃত্রিম মেধার মিশ্রণের সঙ্গে মানবিক ছোঁয়া যুক্ত হলে তাতে সমাজের উপকার হবে। মানুষের সঙ্গে কৃত্রিম মেধা একযোগে কাজ করলে আমাদের গ্রহের অনেক অসম্ভবকে সম্ভব করে তোলা যাবে। প্রধানমন্ত্রী এই প্রসঙ্গে বলেন, ভারত এক সময়ে জ্ঞান ও বিদ্যাচর্চায় বিশ্বকে নেতৃত্ব দিত এবং ডিজিটাল প্রক্রিয়ার উৎকর্ষতার মধ্য দিয়ে ভবিষ্যতে আবারও বিশ্বকে ভারত পথ দেখাবে। শ্রী মোদী বলেছেন, কিভাবে প্রযুক্তি স্বচ্ছতার বিকাশ ঘটায় এবং এর মধ্য দিয়ে বিভিন্ন পরিষেবাকে পৌঁছে দেওয়া যায়, ভারত সেই অভিজ্ঞতার সাক্ষী।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1661859 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

রেসপন্সেবল এআই ফর সোস্যাল এমপাওয়ারমেন্ট ২০২০সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1661885 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী মিঃ বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু- সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর টেলিফোনে কথা

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আজ ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী মিঃ বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু-র সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন। প্রধানমন্ত্রী ইহুদি নববর্ষ এবং সুক্কোত উৎসব উপলক্ষে মিঃ নেতানিয়াহু এবং ইজরায়েলের জনসাধারণকে উষ্ণ অভিনন্দন জানিয়েছেন। কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে বিশেষ করে, গবেষণা, বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা এবং সংক্রমণ নির্ধারণের যন্ত্র ও টিকার বিষয়ে উভয় নেতা দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা করেছেন। এইসব গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে নিবিড় সহযোগিতার ওপর তাঁরা গুরুত্ব আরোপ করেছেন। এর মাধ্যমে শুধু দুটি দেশের নাগরিকরাই উপকৃত হবেন না, সার্বিকভাবে তা গোটা মানবজাতির পক্ষেই সেটি লাভজনক হবে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1661828 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর জন্য এসওপি প্রকাশ করেছেন শ্রী প্রকাশ জাভড়েকর

কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী শ্রী প্রকাশ জাভড়েকর আজ চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর জন্য সাধারণ পরিচালনবিধি বা এসওপি প্রকাশ করেছেন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের পরামর্শক্রমে চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর জন্য সতর্কতামূলক ব্যবস্থা সম্পর্কিত এই এসওপি প্রস্তুত করা হয়েছে। এসওপি প্রকাশ করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সিদ্ধান্ত অনুসারে, আগামী ১৫ই অক্টোবর থেকে দেশের সিনেমা হলগুলি পুনরায় চালু হচ্ছে। তাই, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক এই এসওপি প্রস্তুত করেছে বলেও তিনি জানান। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক পরামর্শ অনুযায়ী সমস্ত দর্শক/কর্মীদের শারীরিক তাপমাত্রা মাপা, পর্যাপ্ত শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা, মাস্ক ব্যবহার, ঘন ঘন হাত ধোওয়া, স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করার মতো বিষয়গুলি এই এসওপি-র মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এর পাশাপাশি, মন্ত্রক আন্তর্জাতিক পদ্ধতিগুলি বিবেচনায় রেখে সিনেমা হলে দর্শকদের মধ্যে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা, সুনির্দিষ্ট চিহ্নিত স্থান ব্যবহার করে দর্শকদের প্রবেশ ও প্রস্থানের ব্যবস্থা করা, স্যানিটাইজেশন করা, কর্মীদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ইত্যাদি বিষয়গুলিকেও এসওপি-র মধ্যে রাখা হয়েছে। সিনেমা হলের ভেতর মোট আসন সংখ্যার ৫০ শতাংশ আসনে দর্শকরা বসতে পারবেন। মাল্টিপ্লেক্স শোয়ের মধ্যে সময়ের ব্যবধান রাখতে হবে। সিনেমা হলের ভেতর তাপমাত্রা ২৪-৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে রাখতে হবে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1661973 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

পণ্য পরিষেবা কর পরিষদের ৪২তম বৈঠকে প্রস্তাব

কেন্দ্রীয় অর্থ ও কর্পোরেট বিষয়ক মন্ত্রী শ্রীমতী নির্মলা সীতারমনের পৌরহিত্যে পণ্য পরিষেবা কর পরিষদের ৪২তম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই বৈঠক করা হয়। বৈঠকে প্রতিমন্ত্রী শ্রী অনুরাগ ঠাকুর ছাড়াও রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির অর্থমন্ত্রী এবং অর্থ মন্ত্রকের শীর্ষ আধিকারিকরাও উপস্থিত ছিলেন। এই বৈঠকে রাজ্যগুলিকে পণ্য পরিষেবা করের ক্ষতিপূরণ বাবদ ২০ হাজার কোটি টাকা বন্টন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। এছাড়া, যে সমস্ত রাজ্য আইজিএসটি বাবদ কম টাকা পেয়েছে, তাদেরকে এক সপ্তাহের মধ্যে ২৫ হাজার কোটি টাকা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1661827 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রকের আওতাধীন বিদ্যালয় শিক্ষা স্বাক্ষরতা দপ্তর পুনরায় বিদ্যালয় খোলার বিষয়ে স্টান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিওর/নির্দেশিকা জারি করেছে

কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রকের আওতাধীন বিদ্যালয় শিক্ষা ও স্বাক্ষরতা দপ্তর বিদ্যালয় খোলার বিষয়ে এসওপি/নির্দেশিকা জারি করেছে। গতকাল এই নির্দেশিকার কথা ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রী শ্রী রমেশ পোখরিয়াল ‘নিশাঙ্ক’। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের গত ৩০শে সেপ্টেম্বর জারি করা নির্দেশিকা অনুসারে এই এসওপি জারি করা হয়েছে। ১৫ই অক্টোবরের পর রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের সরকারগুলি বিদ্যালয় ও কোচিং প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে। তবে, সব ক্ষেত্রেই স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টিকে যথাযথভাবে মেনে চলতে হবে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র ও স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের নির্দেশ মেনে আঞ্চলিক পরিস্থিতি বিচার করে বিদ্যালয় খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে। তবে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, সময়সূচি নির্ধারণ ইত্যাদি বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1661806 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

 

 

পিআইবি আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

 

মহারাষ্ট্র : ৫ই অক্টোবর থেকে মহারাষ্ট্রে রেস্তোরাঁ, পানশালা খুলে গেছে। তবে, রাজ্যের নির্দেশিকা মেনেই রেস্তোরাঁগুলিতে ৫০ শতাংশ আসনে গ্রাহকরা বসতে পারবেন। এই প্রক্রিয়াকে স্বাগত জানিয়েছে শিল্প মহল। এই রাজ্যে গত সোমবারে ১০ হাজার ২৪ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১২ হাজার ৯৮২ জন করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

 

গুজরাট : সোমবারে এ রাজ্যে ১ হাজার ৩২৭ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ঐ দিনে করোনা থেকে আরোগ্য লাভ করেছেন ১ হাজার ৪০৫ জন। রাজ্যে আরোগ্য লাভের হার ৮৫.৯৪ শতাংশ।

 

রাজস্থান : সাহারা বিধানসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস বিধায়ক কৈলাশ ত্রিবেদী করোনায় প্রয়াত হয়েছেন। রাজস্থান সরকার তাঁর চিকিৎসার জন্য ৫ দিন আগে বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছিল। এই রাজ্যে এ পর্যন্ত ১ হাজার ৫৫৯ জনের করোনায় মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২১ হাজার ২১৫ জন।

 

ছত্তিশগড় : নতুন করে ২ হাজার ৬৮১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ৩৬ জনেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার পর্যন্ত এ রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৮১। মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ লক্ষ ২৬ হাজার ৫ জন।

 

গোয়া : এই রাজ্যে সম্ভাব্য করোনা সংক্রমিত রোগীদের হোম আইসোলেশনের জন্য কোভিড-১৯ কিট বিতরণ শুরু করা হয়েছে আজ থেকে। এই কিটের মধ্যে রয়েছে – এন-৯৫ মাস্ক, শরীরে অক্সিজেন মাপার যন্ত্র, ডিজিটাল থার্মোমিটার, ভিটামিন সহ অন্যান্য ওষুধ।

 

কেরল : মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানিয়েছেন, রাজ্যে কোভিড সংক্রমণ প্রতিরোধে কার্যকরি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। কোভিড মহামারীর মধ্যে সবরীমালা মন্দির পরিদর্শনে দর্শনার্থীদের জন্য সুনির্দিষ্ট নির্দেশিকা তৈরি করতে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি সরকারের কাছে এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন জমা করেছে। এই মন্দির পরিদর্শনের সময় ভক্তদের সেই নির্দেশিকা অনুসরণ করতে হবে। গতকাল কেরলে নতুন করে ৫ হাজার ৪২ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ৮৪ হাজার ৮৭৩ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এছাড়াও বিভিন্ন জেলায় ২ লক্ষ ৫৮ হাজার মানুষ পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। এ রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৫৯।

 

তামিলনাডু : কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে এনইইটি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের চিকিৎসা শাখায় ভর্তিতে সংরক্ষণের বিষয় নিয়ে সোমবার রাজভবনে বৈঠক করেছেন রাজ্যপাল ও মুখ্যমন্ত্রী। যে সকল শিক্ষক দশম, একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রছাত্রীদের জন্য অনলাইনে ক্লাস নিচ্ছেন তাঁদের পাঠ্যসূচি কমিয়ে আনার জন্য বলা হয়েছে। সংশোধিত পাঠ্যসূচি খুব শীঘ্রই ঘোষণা করা হবে, যাতে শিক্ষার্থীরা পরবর্তী পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত হতে পারে।

 

অন্ধ্রপ্রদেশ : সোমবার এই রাজ্যে ৫ হাজার জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩৮ জনেরও বেশি।

 

তেলেঙ্গানা : গত ২৪ ঘন্টায় ১ হাজার ৯৮৩ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ হাজার ৩৮১ জন। মৃত্যু হয়েছে ১০ জনের।

 

অরুণাচল প্রদেশ : গতকাল নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৩৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। এ নিয়ে রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯।

 

মণিপুর : ২৫০ জনের নতুন করে করোনা সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে। ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭৫। রাজ্যে করোনায় আরোগ্যের হার ৭৭ শতাংশ।

 

মেঘালয় : মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ২১৭ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৪৯১ জন।

 

মিজোরাম : গতকাল নতুন করে ৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ১২৮।

 

নাগাল্যান্ড : সোমবার নতুন করে ৪২ জন কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ৩০ জন ডিমাপুর ৮ জন মন এবং ৪ জন কোহিমার বাসিন্দা।

 

 

CG/SS/SB



(Release ID: 1662190) Visitor Counter : 221