PIB Headquarters

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পিআইবি’র প্রাত্যহিক সংবাদ

Posted On: 23 JUL 2020 6:37PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২৩ জুলাই, ২০২০

 

 

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ তথ্য; একদিনেই ৩০,০০০ রোগী আরোগ্য লাভ করেছেন, যা যাবৎ সর্বাধিক; মোট সুস্থ হয়েছেন লক্ষ ৮২ হাজারের বেশি
পর পর দুদিন কোভিড সংক্রমিতদের সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা উর্দ্ধমুখী। গত ২৪ ঘন্টার হিসেবে একদিনে সবথেকে বেশি সংক্রমিত আরোগ্য লাভ করেছেন- ২৯,৫৫৭ জন। এরফলে এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭,৮২,৬০৬ জন। আরোগ্য লাভের হার ৬৩.১৮ শতাংশ। দেশে বেশি সংখ্যায় সংক্রমিতরা সুস্থ হয়ে উঠছেন এবং চিকিৎসাধীন ব্যক্তিদের থেকে সংক্রমিতদের সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৩,৬৬,৪৩৯ জন। কেন্দ্র কোভিড-১৯ মহামারীর মোকাবিলায় যেসব কৌশল অবলম্বন করেছে, রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি সেগুলি যথাযথভাবে পালন করছে। এরমধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে নমুনা পরীক্ষা, দ্রুত সংক্রমিতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের উদ্যোগে যুগ্ম নজরদারী গোষ্ঠী পুরো ব্যবস্থাকে পরিচালনা করছে। নতুন দিল্লীর এইমস এবং বিভিন্ন রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের উৎকর্ষ চিকিৎসা কেন্দ্রগুলির পরামর্শের পাশাপাশি আইসিএমআর এবং এনসিডিসি-র বিশেষজ্ঞরা নানা পরামর্শ দিচ্ছেন। বিভিন্ন রাজ্য নতুন দিল্লীর এইমস-এ টেলিফোনের মাধ্যমে পরামর্শমূলক কর্মসূচিতে যুক্ত হয়েছে। যেসব রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে সংক্রমনের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে সেখানে কেন্দ্রীয় বিশেষজ্ঞ দল পাঠানো হয়েছে। এই সমন্বিত উদ্যোগে ফলে দেশে সংক্রমিতদের মৃত্যুর হার ক্রমশ কমছে। আজকের হিসেবে যা ২.৪১ শতাংশ। এরফলে বর্তমানে চিকিৎসাধীন সংক্রমিতের সংখ্যা মাত্র ৪,২৬,১৬৯ জন।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1640629 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

ইন্ডিয়া আইডিয়াজ শিখর সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর মূল ভাষণ
প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আজ ইন্ডিয়া আইডিয়াজ সম্মেলনে মুল ভাষণ দিয়েছেন। ইউএস-ইন্ডিয়া বিজনেস কাউন্সিল (ইউএসআইবিসি) এই সম্মেলনের আয়োজক। এ বছরের সম্মেলনের বিষয় ছিল ‘উন্নত ভবিষ্যৎ গড়া’। ইউএসআইবিসি-র বর্তমান বছরে ৪৫তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী এই সংস্থাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। ভারত-মার্কিন বাণিজ্য অংশীদারিত্বকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার বিষয়ে ইউএসআইবিসি নেতৃত্বের অঙ্গীকারকে তিনি ধন্যবাদ জানিয়েছেন। দেশের শক্তিশালী অর্থনৈতিক ক্ষমতার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অর্থনীতির স্থিতাবস্থা - প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আমাদের উন্নয়নের মুল লক্ষ্য হবেন দরিদ্র এবং সমাজের পেছনের সারিতে থাকা মানুষরা। সহজ জীবনশৈলীর ওপর গুরুত্ব দিয়ে তিনি মনে করেন সহজে ব্যবসা-বাণিজ্য করার মতোই এটি গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেছেন, বিশ্ব জুড়ে মহামারী আমাদের মনে করিয়ে দিয়েছে আন্তর্জাতিক অর্থনীতির বাইরে থেকে আঘাত সহ্য করার ক্ষমতা কতটা দৃঢ় হওয়া প্রয়োজন, যা আসলে দেশের শক্তিশালী অর্থনৈতিক ক্ষমতার মাধ্যমে অর্জিত হয়। তিনি জোর দিয়ে বলেছেন, সমৃদ্ধ ও আত্মনির্ভর বিশ্ব গড়ার জন্যই ভারত, ‘আত্মনির্ভর ভারত’গড়ার ডাক দিয়েছে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1640501 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।


ইন্ডিয়া আইডিয়াজ শিখর সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের মূল অংশ
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1640502 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।


প্রধানমন্ত্রী মণিপুরে জল সরবরাহ প্রকল্পের শিলান্যাস করলেন
প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মণিপুরে জল সরবরাহ প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছেন। এই উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সারা দেশ নিরলসভাবে কোভিড-১৯ মহামারীর বিরুদ্ধে লড়ছে। পূর্ব এবং উত্তরপূর্ব ভারত এর সঙ্গে আরো দু’ধরণের চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা করছে- প্রচন্ড বৃষ্টিপাত ও বন্যা౼যার ফলে বহু প্রাণহানির ঘটনা ঘটছে এবং অনেকে গৃহহীন হয়ে পড়ছেন। শ্রী মোদী বলেছেন, লকডাউন এবং পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরে আসার বিষয়ে মনিপুর সরকার সব রকমের ব্যবস্থা করেছে। তিনি জানিয়েছেন, মনিপুরে ২৫ লক্ষ দরিদ্র মানুষ প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনায় বিনামূল্যে খাদ্য শস্য পাচ্ছেন। একইভাবে রাজ্যের দেড় লক্ষেরও বেশি মহিলা উজ্জ্বলা প্রকল্পের আওতায় বিনামূল্যে গ্যাসের সিলিন্ডার পাচ্ছেন। এই জল প্রকল্পের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, ৩ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে এই প্রকল্পটি তৈরি করা হবে। এরফলে রাজ্যে জলের সমস্যা কমবে এবং বিশেষ করে মহিলারা অনেক সুবিধা পাবেন। শ্রী মোদী জানিয়েছেন বৃহত্তর ইমফল ছাড়াও রাজ্যের ২৫টি ছোট শহর এবং ১৭০০ গ্রামের মানুষ এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। পরবর্তী দুই দশকের চাহিদার কথা বিবেচনা করে এই প্রকল্পর পরিকল্পনা করা হয়েছে। শ্রী মোদী বলেন, এই প্রকল্পের মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ মানুষ তাঁদের বাড়িতে বিশুদ্ধ পানীয় জল পাবেন। এছাড়াও হাজার হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1640616 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

লেহ্ দিহারে ডিআরডিও-কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষা কেন্দ্র স্থাপন
প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা (ডিআরডিও) লেহ্-ভিত্তিক ডিফেন্স ইন্সটিটিউট পফ হাই অলটিটিউট রিসার্চ প্রতিষ্ঠানে একটি কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষা কেন্দ্র গড়ে তুলেছে। কেন্দ্রশাসিত লাদাখে চিহ্নিত করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের নমুনা পরীক্ষার হার বাড়াতে এই কেন্দ্রটি সাহায্য করবে। এছাড়াও, সংক্রমিত ব্যক্তিদের ওপর তীক্ষ্ণ নজর রাখার ক্ষেত্রেও এই কেন্দ্রটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে। ভারতীয় চিকিৎসা গবেষণা পরিষদে সুরক্ষা মান ও নীতি-নির্দেশিকা মেনে এই নমুনা পরীক্ষা কেন্দ্রটি গড়ে তোলা হয়েছে। লাদাখের উপ-রাজ্যপাল শ্রী আর কে মাথুর গতকাল এই কেন্দ্রটি উদ্বোধন করেন। দিহারের এই নমুনা পরীক্ষাগারে দৈনিক ৫০টি কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষা করা সম্ভব। এছাড়াও, এই নমুনা পরীক্ষাগারকে কোভিড নমুনা পরীক্ষার জন্য প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজেও ব্যবহার করা যেতে পারে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1640600 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

কেন্দ্রীয় রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলির মূলধনী ব্যয় নিয়ে দ্বিতীয় পর্যালোচনা বৈঠকে অর্থমন্ত্রী
কেন্দ্রীয় অর্থ তথা কর্পোরেট বিষয়ক মন্ত্রী শ্রীমতী নির্মলা সীতারমন আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চলতি অর্থবর্ষে মূলধনী ব্যয় সম্পর্কিত বিষয়ে অসামরিক বিমান পরিবহণ ও ইস্পাত মন্ত্রকের সচিবরা সহ রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান এবং উক্ত মন্ত্রকগুলির ৭টি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার সিএমডি-দের সঙ্গে পর্যালোচনা বৈঠকে মিলিত হন। কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে আর্থিক গতি ত্বরান্বিত করতে সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষকে নিয়ে অর্থমন্ত্রীর এটি চলতি বৈঠকের দ্বিতীয় পর্যালোচনা বৈঠক। ঐ ৭টি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার ২০২০-২১ অর্থবর্ষে সম্মিলিত মূলধনী ব্যয়ের পরিমাণ ২৪ হাজার ৬৩৬টি টাকা স্থির হয়েছে। ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে ঐ ৭টি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার মূলধনী ব্যয় স্থির হয়েছিল ৩০ হাজার ৪২০ কোটি টাকা। ২০১৯-২০ অর্থবর্ষের প্রথম ত্রৈমাসিকে ৭টি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার মোট মূলধনী ব্যয় ৩০ হাজার ৪২০ কোটি টাকার মধ্যে ২৫ হাজার ৯৭৪ কোটি টাকা অর্থাৎ ৮৫ শতাংশই খরচে সফল হয়েছে। ২০২০-২১ অর্থবর্ষের প্রথম ত্রৈমাসিকে ঐ ৭টি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার মূলধনী ব্যয়ের পরিমান ৩ হাজার ৫৫৭ কোটি টাকা।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1640694 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

গণমাধ্যম শিল্পে কোভিডের কারণে আর্থিক বিরূপ প্রভাবে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন উপ-রাষ্ট্রপতি
উপ-রাষ্ট্রপতি শ্রী এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু গণমাধ্যম শিল্পে কোভিড জনিত আর্থিক বিরূপ প্রভাবে উদ্বেগ প্রকাশ করে এই শিল্পের সঙ্গে যুক্ত কর্মচারীদের সঙ্গে সহমর্মিত ও করুণা দেখানোর জন্য সকলের প্রতি আবেদন জানিয়েছেন। কঠিন এই সময়ে তাঁদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে শ্রী নাইডু নাগরিকদের প্রতি আরও করুণাপূর্ণ মনোভাব গ্রহণের ক্ষেত্রে প্রয়াত শ্রী এম পি বীরেন্দ্র কুমারের আদর্শ থেকে অনুপ্রাণিত হওয়ার আহ্বান জানান। শ্রী নাইডু গতকাল প্রয়াত শ্রী এম পি বীরেন্দ্র কুমারের স্মৃতিতে আয়োজিত এক ভার্চ্যুয়াল স্মরণ সভায় অংশগ্রহণ করে একথা বলেন। উপ-রাষ্ট্রপতি গণমাধ্যমকে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, কোভিড-১৯ সংক্রান্ত অসত্য এবং বিভ্রান্তিকর দাবির ব্যাপারে রুখে দাঁড়াতে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1640481 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

দেশের সার্বভৌমত্বের ব্যাপারে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মগুলিকে আরও বেশি জবাবদিহি দায়বদ্ধ হতে হবে : শ্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ
জি-২০ দেশগুলির ডিজিটাল অর্থনীতি বিষয়ক মন্ত্রীদের ভার্চ্যুয়াল বৈঠক গতকাল অনুষ্ঠিত হয়। এই বৈঠকে ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন কেন্দ্রীয় ইলেক্ট্রনিক্স ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী শ্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ। কোভিড-১৯ এর মতো বিশ্ব মহামারীর প্রেক্ষিতে শ্রী প্রসাদ বিশ্বব্যাপী এক সুদৃঢ় সরবরাহ-শৃঙ্খল গড়ে তোলার প্রয়োজনীয়তার প্রতি জোড়ালো সওয়াল করে বিনিয়োগের আকর্ষণীয় গন্তব্য হিসাবে ভারতে গড়ে তোলার জন্য প্রধানমন্ত্রীর পরিকল্পনাগুলির কথা উল্লেখ করেন। শ্রী প্রসাদ আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর সুদক্ষ নেতৃত্বে ভারত কিভাবে কোভিড-১৯ জনিত সমস্যার মোকাবিলা করেছে, তা সমগ্র বিশ্ব দেখেছে। প্রধানমন্ত্রীর সাহসী সিদ্ধান্তের ফলেই দেশ জুড়ে লকডাউনের ঘোষণা ভাইরাস সংক্রমণ দমনে সাহায্য করেছে। সেই সঙ্গে, উদ্ভূত চ্যালেঞ্জগুলির মোকাবিলাতেও দেশকে প্রস্তুত করে তুলেছে বলেও শ্রী প্রসাদ অভিমত প্রকাশ করেন।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1640482 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনার দ্বিতীয় পর্বে রাজ্য কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি ১৯.৩২ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য সংগ্রহ করেছে
লকডাউন কার্যকর হওয়ার সময় থেকেই ১ কোটি ৩৯ লক্ষ মেট্রিক টনের বেশি খাদ্যশস্য সংগ্রহ করে তা প্রায় ৫ হাজারটি পণ্যবাহী ট্রেনের মাধ্যমে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে সরবরাহ করা হয়েছে। গত ৩০শে জুন পর্যন্ত ২ কোটি ৮৫ লক্ষ মেট্রিক টনের বেশি খাদ্যশস্য সরবরাহ করা হয়েছে। রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি গত পয়লা জুলাই থেকে ২৬ লক্ষ ৬৯ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য সংগ্রহ করেছে। রেল পরিষেবা ছাড়াও সড়ক ও জলপথে খাদ্যশস্য সরবরাহ করা হয়েছে। গত পয়লা জুলাই থেকে উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে ১ লক্ষ ৬৩ হাজার মেট্রিক টন পাঠানো হয়েছে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1640451 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।


 


পিআইবি’আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

পাঞ্জাব : রাজ্যের ৩টি সরকারি মেডিকেল কলেজে ভাইরাল টেস্টিং ল্যাবগুলির জন্য ৭টি স্বয়ংক্রিয় আরএনএ নিষ্কাশন যন্ত্র সংগ্রহের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়েছে। এর ফলে, রাজ্যে কোভিড নমুনা পরীক্ষার ক্ষমতা আরও বৃদ্ধি পাবে।

হিমাচল প্রদেশ : রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব জানিয়েছেন, করোনা মহামারী সংক্রমণ রুখতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়ে আসছে। তিনি আরও বলেন, অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় মাপকাঠির বিচারে হিমাচল প্রদেশের অবস্থা তুলনামূলক ভালো। রাজ্যে নিয়মিতভাবে কোভিড-১৯ পরীক্ষা হচ্ছে বলেও অতিরিক্ত স্বাস্থ্য সচিব জানান।

কেরল : রাজ্যে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণের হার ক্রমাগত বৃদ্ধি পাবার প্রেক্ষিতে ২৭শে জুলাই থেকে পূর্বনির্ধারিত বিধানসভার অধিবেশন বাতিল করা হয়েছে। রাজ্যে পুনরায় লকডাউনের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে কিনা তা স্থির করতে আগামী সোমবার মন্ত্রিসভার বিশেষ বৈঠক ডাকা হয়েছে। এদিকে রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হার ৪৮ হয়েছে। বর্তমানে ৮ হাজার ৮১৮ জন রোগীর চিকিৎসা চলছে।

তামিলনাডু : কেন্দ্রশাসিত পন্ডিচেরীতে আরও ৩ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৩। আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৪২০। তামিলনাডুর স্বাস্থ্য মন্ত্রী রাজীব গান্ধী গভর্নমেন্ট জেনারেল হাসপাতালে ২ কোটি ৩৪ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত একটি প্লাজমা ব্যাঙ্কের উদ্বোধন করেছেন। এদিকে রাজ্যে গতকাল আরও ৭৪ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩ হাজার ১৪৪। আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৮৬ হাজার ছাড়িয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫১ হাজার ৭৬৫ জন।

কর্ণাটক : রাজ্যে প্রতিদিন কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার দরুণ আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হওয়ার দিক থেকে কর্ণাটক অন্ধ্রপ্রদেশ ও মেঘালয়ের সঙ্গে একসারিতে উঠে এসেছে। রাজ্যে গতকাল পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৭৫ হাজার ৮৩৪। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭ হাজার ৬৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৫১৯ জনের।

অরুণাচল প্রদেশ : রাজধানী ইটানগরের বিভিন্ন এলাকায় কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষার জন্য র্যা পিড অ্যান্টিজেন টেস্ট পদ্ধতি কাজে লাগানো হচ্ছে। এই পদ্ধতিতে নমুনা পরীক্ষার জন্য ২০টি দল নিরন্তর কাজ করে চলেছে। এদিকে রাজধানী অঞ্চলের ৩টি প্রধান হাসপাতালকে জীবাণুমুক্তকরণের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

মণিপুর : রাজ্যে সপ্তাহব্যাপী লকডাউন কার্যকর করার নীতি-নির্দেশিকা জারি হয়েছে। অবশ্য, অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবাকে নিষেধাজ্ঞার বাইরে রাখা হয়েছে।

নাগাল্যান্ড : রাজ্যে আরও ৯০ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ হাজার ১৭৪। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৪৮৬ জন।

মিজোরাম : রাজ্যে আজ আরও ৫ জন কোভিড-১৯ রোগী সুস্থ হয়েছেন। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৪২। এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৮৪ জন।

অন্ধ্রপ্রদেশ : বিশাখাপত্তনমের কিং জর্জ হাসপাতাল কোভ্যাকসিন টিকার চিকিৎসা সংক্রান্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করার জন্য ডায়রেক্টরেট অফ মেডিকেল এডুকেশনের কাছ থেকে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। উল্লেখ করা যেতে পারে, আইসিএমআর যে ১২টি হাসপাতালকে এই টিকার পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য চিহ্নিত করেছে কিং জর্জ হাসপাতাল তার মধ্যে অন্যতম একটি। রাজ্য সড়ক পরিবহণ নিগমের আন্তঃরাজ বাস পরিষেবা আজ থেকে শুরু হয়েছে। এদিকে গতকাল আরও ৬৫ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা ৮২৩। আক্রান্তের সংখ্যা ৬৪ হাজার ৭১৩। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩১ হাজার ৭৬৩ জন।

তেলেঙ্গানা : রাজ্যে দৈনিক ২৫ হাজার নমুনা পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে সরকারি ও বেসরকারি পরীক্ষাগারগুলিতে দৈনিক ১৫ হাজার নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে। রাজ্যে গতকাল আরও ৯ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৩৮। আক্রান্তের সংখ্যা ৪৯ হাজার ছাড়িয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১১ হাজার ১৫৫ জন।

মহারাষ্ট্র : রাজ্যে গতকাল এ যাবৎ ১ দিনেই সর্বোচ্চ ১০ হাজার ৫৭৬ জন আক্রান্ত হওয়ায় করোনা সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা ৩ লক্ষ ৩৭ হাজার ছাড়িয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ১ লক্ষ ৩৭ হাজার মানুষ। মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১২ হাজার ৫৫৬। এদিকে রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রী জানিয়েছেন, ব্যবসায়িক ও পরিষেবা সংক্রান্ত কাজকর্ম পুনরায় শুরু করতে রাজ্য সরকার আদর্শ কার্যপরিচালন বিধি প্রণয়নের লক্ষ্যে কাজ করছে।

গুজরাট : রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৫১ হাজার ছাড়িয়েছে। সুরাটে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাওয়ায় তা উদ্বেগের কারণ হয়ে উঠেছে। হীরা শিল্পের জন্য খ্যাত এই জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ১১ হাজার এবং মৃতের সংখ্যা ৫০০ ছাড়িয়েছে।

রাজস্থান : রাজ্যে গতকাল আরও ৯৬১ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩২ হাজার ছাড়িয়েছে। অবশ্য, নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা কেবল ৮ হাজার ৩৮৭।

মধ্যপ্রদেশ : রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। এদিকে আজ আরও ৭৪৭ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৪ হাজার ৮৪২। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৭ হাজার ২৩৬।

ছত্তিশগড় : রাজ্যে গতকাল আরও ২৩০ জনের করোনায় সংক্রমণের খবর মিলেছে। এদের মধ্যে ৭০ জন রাইপুর এবং ৩৬ জন সুকমা জেলার। এদিকে রাইপুর সহ অন্য ৭টি শহরে লকডাউন নিষেধাজ্ঞা পুলিশি নজরদারি ব্যবস্থার আওতায় আরও কঠোর করা হয়েছে।

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1640771) Visitor Counter : 8