PIB Headquarters

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পিআইবি’র প্রাত্যহিক সংবাদ

Posted On: 18 APR 2020 6:48PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১৮ এপ্রিল, ২০২০

 

 

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের সর্বশেষ তথ্য

দেশে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৪ হাজার ৩৭৮। মোট আক্রান্তের মধ্যে ১ হাজার ৯৯২ জন বা ১৩.৮২ শতাংশ ব্যক্তি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। ২৩টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ৪৭টি জেলায় কোভিড-১৯ সংক্রান্ত কর্মপরিকল্পনাগুলি কার্যকর করার পর থেকে ভালো পরিণাম আসা শুরু হয়েছে। নতুন জেলা হিসাবে কর্ণাটকের কোডাগগু তাকিলাভুক্ত হয়েছে। এদিকে বিগত ২৮ দিনে পন্ডীচেরীর মাহী জেলা থেকে আক্রান্তের কোনও খবর নেই। ১২টি রাজ্যের ২২টি জেলা থেকে বিগত ১৪ দিনে আক্রান্তের কোনও খবর মেলেনি।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615787এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

ডঃ হর্ষ বর্ধন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দিল্লির উপ-রাজ্যপাল, দিল্লির স্বাস্থ্য মন্ত্রী, বিভিন্ন মেডিকেল কলেজের সুপারিন্টেন্ডেন্ট এবং স্বাস্থ্য আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করলেন

ডঃ হর্ষ বর্ধন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দিল্লির উপ-রাজ্যপাল, দিল্লির স্বাস্থ্য মন্ত্রী, বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সুপারিন্টেন্ডেন্ট এবং স্বাস্থ্য আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকের সময় কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সকলের প্রয়াসের জন্য অভিনন্দন জানান। ডঃ হর্ষ বর্ধন বলেন, কোভিড-১৯ নয়, এমন ক্ষেত্রে অন্যান্য জটিল রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া হচ্ছে না বলে সোশ্যাল মিডিয়া এবং ফোনে তিনি অভিযোগ পাচ্ছেন। এই প্রেক্ষিতে ডঃ হর্ষ বর্ধন ঐ সমস্ত রোগীদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পরিষেবা প্রদানে আরও গুরুত্ব দেওয়ার নির্দেশ দেন। কিছু কিছু ক্ষেত্রে একজন রোগীকে একাধিক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যাওয়া-আসা করতে হয়েছে বলেও তাঁর কাছে খবর এসেছে। তিনি হাসপাতাল ও মেডিকেল কলেজগুলির সুপারিন্টেন্ডেন্টদের কোভিড-১৯ বহির্ভূত রোগীদের চিকিৎসার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার নির্দেশ দেন। লকডাউন চলাকালীন সময় যে সমস্ত রোগীর প্রকৃত পক্ষে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পরিষেবা প্রয়োজন, তাঁদের হাসপাতালে পৌঁছনোর পর তাঁকে কোনও সমস্যায় পড়তে না হয়, তা সুনিশ্চিত করারও নির্দেশ দেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615491এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

বিদেশি নাগরিকদেরকে জারি করা সমস্ত ভিসা এবং কয়েকটি নির্দিষ্ট ক্যাটাগরি ছাড়া অভিভাসন চেকপোস্ট দিয়ে ভারত আগত সমস্ত যাত্রীদের ভিসা আগামী তেসরা মে পর্যন্ত বাতিল করা হয়েছে

কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক কূটনীতিক, রাষ্ট্রসংঘ বা অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংগঠনের আধিকারিক, কর্মী এবং কর্মসূচির সঙ্গে যুক্ত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদেরকে বাদ দিয়ে বাকি সমস্ত বিদেশি নাগরিকদের দেওয়া বর্তমান ভিসা আগামী তেসরা মে পর্যন্ত বাতি করা হয়েছে। মন্ত্রকের তরফে আরও জানানো হয়েছে, ১০৭টি অভিভাসন চেকপোস্টগুলি দিয়ে ভারতে আগত সমস্ত যাত্রীর ভিসা আগামী তেসরা মে পর্যন্ত বাতিল থাকছে। তবে, অত্যাবশ্যক বা অত্যাবশ্যক নয়, এমন পণ্য পরিবহণ ও সরবরাহের সঙ্গে যুক্ত যানবাহন, বিমান, জাহাজ, ট্রেন প্রভৃতির ক্ষেত্রে এই নিষধাজ্ঞা কার্যকর হচ্ছে না।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615787এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

ভারতে বর্তমানে বসবাসকারী বিদেশি নাগরিকদের দূতাবাস পরিষেবা সংক্রান্ত সুবিধা কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে যাতায়াতের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞাগুলি তেসরা মে পর্যন্ত কার্যকর থাকছে

ভারতে বর্তমানে বসবাসকারী বিদেশি নাগরিকদের দূতাবাস পরিষেবা সংক্রান্ত সুবিধা কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে যাতায়াতের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞাগুলি ৩০শে এপ্রিল পর্যন্ত কার্যকর করা হয়েছে। বিষয়টি বিবেচনা করে দেখার পর যাতায়াতের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়িয়ে তেসরা মে করা হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615496এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

গ্রামীণ ডাকসেবক সহ ডাকবিভাগের সমস্ত কর্মীকে ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে

কোভিড-১৯ পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে সিদ্ধান্ত হয়েছে যে, গ্রামীণ ডাকসেবক সহ সমস্ত ডাক কর্মীকে কর্তব্যরত অবস্থায় অসুস্থতাজনিত কারণে মৃত্যু হলে ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতি পূরণ দেওয়া হবে। এই নির্দেশিকা অবিলম্বে এবং কোভিড-১৯ পরিস্থিতি চলাকালীন সময় পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615633এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে জিএসটি করদাতাদের সাহায্য করতে কেন্দ্রীয় পরোক্ষ কর এবং উৎপাদন শুল্ক পর্ষদ অঙ্গীকারবদ্ধ

কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে জিএসটি করদাতাদের সম্ভাব্য সবরকম সাহায্য করতে কেন্দ্রীয় পরোক্ষ কর এবং উৎপাদন শুল্ক পর্ষদ অঙ্গীকারবদ্ধ। পর্ষদ গত ৩০শে মার্চ থেকে ৫ হাজার ৫৭৫ কোটি টাকার সঙ্গে যুক্ত ১২ হাজার ৯৩০টি রিফান্ড সংক্রান্ত আবেদনের নিষ্পত্তি করেছে। কেবল গত সপ্তাহে পর্ষদ ৭ হাজার ৮৭৩টি রিফান্ডের দাবি-দাওয়া সম্বলিত ৩ হাজার ৮৫৪ কোটি টাকা মিটিয়ে দিয়েছে। পর্ষদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, জিএসটি রিটার্ন দাখিলকারীদের সাহায্য করতে পর্ষদ একটি বাণিজ্য-বান্ধব ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এই ব্যবস্থার মাধ্যমে প্রয়োজনীয় তথ্য হাতে না থাকলে আয়কর রিটার্ন সংক্রান্ত দাবি-দাওয়াগুলি কোনোভাবেই নিষ্পত্তি করা সম্ভব হবে না। এক শ্রেণীর সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরের প্রেক্ষিতে পর্ষদের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়েছে, প্রাসঙ্গিক যাবতীয় তথ্য রিফান্ড সংক্রান্ত আবেদন দাখিলের জন্য প্রয়োজন হয়ে থাকে।তাই, ভুল তথ্য বা তথ্যের ঘাটতি রিফান্ড দাখিলের সময়ে সহজেই ধরা পড়ে যায়।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615508এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সংস্থাগুলিকে সুবিধা দিতে বিগত ১০ দিনে ৫ হাজার ২০৪ কোটি টাকার আয়কর রিফান্ড মেটানো হয়েছে : সিবিডিটি

কেন্দ্রীয় প্রত্যক্ষ কর পর্ষদ (সিবিডিটি) গত ৮ই এপ্রিল থেকে ১০ দিনে প্রায় ৮ লক্ষ ২০ হাজার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সংস্থাগুলিকে আয়কর রিফান্ড বাবদ ৫ হাজার ২০৪ কোটি টাকা মেটানো হয়েছে। কোভিড-১৯ মহামারীজনিত পরিস্থিতিতে আয়কর রিফান্ড বাবদ এই অর্থ ক্ষুদ্র ও মাঝারি সংস্থাগুলিকে তাদের কর্মচারীদের বেতনে কোনও রকম কাটছাট করা ছাড়াই ব্যবসায়িক কাজকর্ম অব্যাহত রাখতে সাহায্য করবে। সিবিডিটি-র পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়েছে, আয়কর দপ্তর করদাতাদের সুবিধার্থে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত প্রায় ১৪ লক্ষ ক্ষেত্রে রিফান্ড মিটিয়ে দিয়েছে। ক্ষুদ্র ব্যবসা ক্ষেত্রের সুবিধার বিষয়টিকে বিবেচনায় রেখে সিবিডিটি শীঘ্রই আরও ৭ হাজার ৭৬০ কোটি টাকার রিফান্ড মিটিয়ে দেবে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615506এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে ভারতীয় সংস্থাগুলির অধিগ্রহণ বা মালিকানা গ্রহণের সুযোগ হ্রাস করতে প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ নীতিতে সংশোধন

বর্তমান কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে ভারতীয় সংস্থাগুলির অধিগ্রহণ বা মালিকানা গ্রহণের সুযোগ ঠেকাতে সরকার বর্তমান প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ নীতি পর্যালোচনা করে দেখে তাতে কয়েকটি সংশোধন করেছে। এখন থেকে একটি দেশের কোনও সংস্থা ভারতে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সরকারি নীতি-নির্দেশিকা অনুসরণ করে বিনিয়োগ করতে পারবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615711এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দক্ষিণ আফ্রিকার রাষ্ট্রপতির টেলিফোনে কথা

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী টেলিফোনে দক্ষিণ আফ্রিকার রাষ্ট্রপতি মিঃ সিরিল রামাফোসার সঙ্গে কথা বলেন। দুই নেতাই কোভিড মহামারীর প্রেক্ষিতে উদ্ভূত আঞ্চলিক ও বিশ্বব্যাপী সমস্যাগুলির বিষয়ে মতবিনিময় করেন। কঠিন এই সময়ে অত্যাবশ্যক ওষুধ সামগ্রী সরবরাহে ভারতের পক্ষ থেকে দক্ষিণ আফ্রিকাকে সম্ভাব্য সবরকম সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615500এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে টেলিফোনে মিশরের রাষ্ট্রপতির কথা

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী টেলিফোনে মিশরের রাষ্ট্রপতি মিঃ আব্দেল ফাতাহ্‌ এল-সিসি’র সঙ্গে কথা বলেন। দুই নেতাই কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে বিশ্বব্যাপী উদ্ভূত চ্যালেঞ্জগুলি নিয়ে মতবিনিময় করেন। দুই দেশ এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় কি পদক্ষেপ নিচ্ছে, সে ব্যাপারেও পরস্পরকে অবহিত করেন। প্রধানমন্ত্রী কঠিন এই সময়ে ভারতের পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণে ওষুধপত্র সরবরাহে সেদেশের রাষ্ট্রপতিকে সম্ভাব্য সবরকম সহায়তার আশ্বাস দেন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615485এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

লকডাউন চলাকালীন সময় কৃষি ক্ষেত্রের সুবিধার্থে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা করলেন

কেন্দ্রীয় সরকার ট্রাক্টর, টিলার এবং কৃষি কাজে ব্যবহৃত ৫১ ধরনের যন্ত্রপাতির গুণমান ও কার্যকরি ক্ষমতা যাচাই করে দেখার পরীক্ষা-নিরীক্ষার মেয়াদ বাড়িয়ে চলতি বছরের শেষ পর্যন্ত করেছে। বীজ সরবরাহকারী ডিলারদের লাইসেন্সের মেয়াদ এবং বীজ বপণ যন্ত্রপাতির আমদানির অনুমতির মেয়াদও বাড়িয়ে আগামী সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত করা হয়েছে। এছাড়াও, কৃষিজ পণ্য প্যাকেটজাত করা, প্রক্রিয়াকরণ ইউনিট এবং ট্রিটমেন্ট ফেসিলিটি কেন্দ্রগুলির মেয়াদ ৩০শে জুন থেকে এক বছর বাড়ানো হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615490এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি ডালশস্য ও তৈলবীজ সংগ্রহ অভিযান

নাফেড এবং এফসিআই – এর মতো কেন্দ্রীয় নোডাল এজেন্সিগুলির মাধ্যমে কেন্দ্রীয় সরকার কৃষকদের ভালো দাম পাইয়ে দেওয়ার বিষয়টি সুনিশ্চিত করার চেষ্টা করছে। ২০২০-২১ – এর রবি মরশুমে বিভিন্ন রাজ্যে সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে নির্দিষ্ট কয়েকটি শস্য সংগ্রহ ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে। লকডাউনের সময় কৃষকদের সময় মতো বিপণনের সুবিধার চেষ্টা হচ্ছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=16157756এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

দেশে শ্রমিকদের অভিযোগ নিষ্পত্তিতে সমন্বয়মূলক প্রয়াস গ্রহণে নোডাল আধিকারিক নিয়োগের ব্যাপারে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে চিঠি দিলেন শ্রী সন্তোষ গাঙ্গোয়ার

কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবিলায় লকডাউন চলাকালীন সময় দেশে শ্রমিক ও কর্মী শ্রেণীর বিভিন্ন সমস্যা নিরসনে কেন্দ্রীয় সরকার যে ২০টি কন্ট্রোল রুম স্থাপন করেছে, তার সঙ্গে সমন্বয় বজায় রেখে কাজকর্ম করার জন্য রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির শ্রম দপ্তর থেকে একজন নোডাল আধিকারিক নিয়োগের জন্য কেন্দ্রীয় শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রকের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615657এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

কোভিড-১৯ মোকাবিলায় পিপিই এবং অন্যান্য সামগ্রী উৎপাদন সংক্রান্ত ওয়েবইনার

কোভিড-১৯ উদ্ভূত পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় সুরক্ষা সামগ্রী ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে দেশীয় সংস্থাগুলির উৎপাদন ক্ষমতা আরও বাড়ানো প্রয়োজন। এই প্রেক্ষিতে সরকারি ও অ-সরকারি ক্ষেত্রগুলি উৎপাদন ক্ষমতা বাড়ানোর বিভিন্ন দিক নিয়ে ডিআরডিও-র সহযোগিতায় সোস্যাইটি অফ ইন্ডিয়ান ডিফেন্স ম্যানুফ্যাকচারার এক ওয়েবইনারের আয়োজন করে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615437এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

শ্রী নীতিন গড়করি শিল্প সংস্থাগুলিকে প্রতিযোগিতার বাজারে টিকে থাকার জন্য আমদানির বিকল্প পদ্ধতি এবং উদ্ভাবনমূলক প্রযুক্তি গ্রহণের আহ্বান জানালেন

শ্রী গড়করি শিল্প সংস্থাগুলির সঙ্গে ২০শে এপ্রিলের পর কিছু কিছু এলাকায় লকডাউন শিথিল করার ঘোষণার প্রেক্ষিতে আর্থিক কর্মকান্ডের পুনরুজ্জীবন নিয়ে আলোচনা করেছেন। ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ক্ষেত্রের পুনরুজ্জীবন প্রসঙ্গে মন্ত্রী জোর দিয়ে বলেন, রপ্তানি বৃদ্ধির ওপর গুরুত্ব দিতে হবে এবং বিশ্ব বাজারে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার জন্য উৎপাদন খরচ কমিয়ে আধুনিক প্রযুক্তি গ্রহণ করতে হবে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615415এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

দেশের বিভিন্ন জায়গায় অত্যাবশ্যক চিকিৎসা সামগ্রী পৌঁছে দিতে লাইফলাইন উড়ান কর্মসূচির আওতায় ২৭৪টি বিমান পরিষেবা দিয়েছে

কোভিড-১৯ মোকাবিলায় গৃহীত প্রয়াসগুলিতে মদত যোগাতে দেশের প্রত্যন্ত এলাকাগুলিতে অত্যাবশ্যক চিকিৎসা সামগ্রী পৌঁছে দিতে অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক লাইফলাইন উড়ান কর্মসূচির আওতায় বিমান পরিষেবা দিচ্ছে। এয়ার ইন্ডিয়া, অ্যালায়েন্স এয়ার, ভারতীয় বিমান বাহিনী এবং বেসরকারি বিমান সংস্থাগুলির ২৭৪টি বিমান অত্যাবশ্যক চিকিৎসা সামগ্রী দেশের বিভিন্ন এলাকায় পৌঁছে দিয়েছে। আজ পর্যন্ত পণ্যবাহী বিমানে করে ৪৬৩.১৫ টন অত্যাবশ্যক চিকিৎসা সামগ্রী বিভিন্ন জায়গায় পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615637এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

ভারতীয় রেল কোভিড-১৯ লকডাউন চলাকালীন সময় একাধিক উদ্ভাবনমূলক পন্থা গ্রহণ করেছে এবং রেকর্ড পরিমাণ পণ্য পরিবহণ করেছে

দেশের উত্তর থেকে অন্নপূর্ণা ট্রেনগুলি এবং দক্ষিণ থেকে জয় কিষাণ স্পেশাল ট্রেনগুলি দীর্ঘ যাত্রাপথ পাড়ি দেওয়া শুরু করেছে। প্রায় ৫ হাজার টন এবং ৮০টিরও বেশি দূরপাল্লার খাদ্যশস্য বোঝাই ট্রেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করছে। গত ১৬ই এপ্রিল পর্যন্ত এই ট্রেনগুলিতে ৩.২ মিলিয়ন টনেরও বেশি খাদ্যশস্য বোঝাই করা হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615417এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

গণবন্টন ব্যবস্থার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে খাদ্যশস্যের যোগান সুনিশ্চিত করতে রেল দ্বিগুণেরও বেশি খাদ্যশস্য সরবরাহের জন্য ট্রেনে বোঝাই করেছে

লকডাউন চলাকালীন সময় গত ২৫শে মার্চ থেকে ১৭ই এপ্রিল পর্যন্ত ১ হাজার ৫০০-রও বেশি পণ্যবাহী ট্রেনে করে ৪.২ মিলিয়ন টনেরও বেশি খাদ্যশস্য পরিবহণ করা হয়েছে। গত বছরের আলোচ্য সময়ের তুলনায় এই পরিবহণের পরিমাণ দ্বিগুণেরও বেশি। কৃষিজ পণ্য সময় মতো সংগ্রহ করে সরবরাহ-শৃঙ্খল অব্যাহত রাখার জন্য নিরন্তর কাজ করে চলেছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615704এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

শ্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ খাদ্যের জরুরি চাহিদা রয়েছে, এমন বিষয়গুলিতে ডাকবিভাগ-কে গুরুত্ব দেওয়ার নির্দেশ দিলেন

কোভিড-১৯ সঙ্কটের সময় ডাকবিভাগ দেশ জুড়ে তার সুবিস্তৃত নেটওয়ার্কের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে সহায়তা করছে। শ্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ দুর্গত ও দুস্থ মানুষ, যাঁদের খাদ্য সামগ্রীর জরুরি চাহিদা রয়েছে, তাঁদের দ্রুত সহায়তার জন্য বিশেষ নজর দিতে ডাকবিভাগকে নির্দেশ দিয়েছে। বিগত কয়েকদিনে ১ লক্ষ খাদ্য সামগ্রী বা শুকনো খাবার প্যাকেট দুর্গতদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615752এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

দিল্লির রোটারি ক্লাবের পক্ষ থেকে ৫০ হাজার পুনর্ব্যবহারযোগ্য ফেস মাস্ক সরবরাহ করা হয়েছে

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615409এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবিলায় প্রতিরক্ষা রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা এবং অর্ডন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ডগুলি তাদের সম্পদের পূর্ণ সদ্ব্যবহারে উদ্যোগী হয়েছে

কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবিলায় অসামারিক প্রশাসনগুলিকে সাহায্য করতে প্রতিরক্ষা রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ও অর্ডন্যান্স ফ্যাক্টরি বোর্ডগুলি তাদের কর্তব্য পালন করছে। প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত এই প্রতিষ্ঠানগুলি মারাত্মক এই ভাইরাসের প্রভাব মোকাবিলায় দেশবাসীকে সাহায্য করার জন্য তাদের যাবতীয় সম্পদ, প্রযুক্তিগত জ্ঞান এবং মানবসম্পদের পূর্ণ সদ্ব্যবহার করছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615596এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

সিএসআইআর – এর ন্যাশনাল অ্যারোস্পেস ল্যাবরেটরি কোভিড-১৯ মোকাবিলায় পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ কভারঅল স্যুট আবিষ্কার করেছে

সিএসআইআর – এর বেঙ্গালুরু-স্থিত ন্যাশনাল অ্যারোস্পেস ল্যাবরেটরি পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ কভারল স্যুট আবিষ্কার করেছে। বহুস্তরবিশিষ্ট নন-ওভেন ফ্যাবরিক-ভিত্তিক পলিপ্রোপাইলিন ল্যামিনেটেড এই স্যুট চিকিৎসক, নার্স, আধা-চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা কোভিড-১৯ সংক্রমণের প্রভাব হ্রাস করতে ব্যবহার করতে পারবেন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615625এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সরকারের প্রয়াসগুলিতে মদত যোগাতে খাদ্য ও ওষুধপত্রের মতো অত্যাবশ্যক সামগ্রী সরবরাহ করে ন্যাশনাল ফার্টিলাইজার লিমিটেড সক্রিয় ভূমিকা নিচ্ছে

জাতীয় স্তরের অগ্রণী সার উৎপাদক সংস্থা ন্যাশনাল ফার্টিলাইজার লিমিটেড কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সরকারের প্রয়াসগুলিকে আরও জোরদার করতে খাদ্য ও ওষুধপত্রের মতো অত্যাবশ্যক সামগ্রী সরবরাহ করে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। সংস্থার ভাতিন্ডা ইউনিট করোনা মহামারী মোকাবিলায় জেলা প্রশাসনকে ৩ হাজার মাস্ক সরবরাহ করেছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615747এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

পর্যটন মন্ত্রক ‘দেখো আপনা দেশ’ ওয়েবইনার সিরিজের মাধ্যমে আজ বিশ্ব ঐতিহ্য দিবস উদযাপন করলো

কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রক ‘দেখো আপনা দেশ’ ওয়েবইনার সিরিজের মাধ্যমে আজ বিশ্ব ঐতিহ্য দিবস উদযাপন করেছে। এই উপলক্ষে পর্যটন মন্ত্রী শ্রী প্রহ্লাদ সিং প্যাটেল আমাদের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি যে কেবল প্রাচীণ-ই নয়, বরং অমূল্য সেকথাও তুলে ধরেন। তিনি আরও বলেন, বর্তমান সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে বিশ্বের পাশাপাশি, আমাদের দেশও কোভিড-১৯ মোকাবিলা করছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1615762এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

 

 

পিআইবি’র আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

 

· মহারাষ্ট্র : কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩ হাজার ৩২৩ হয়েছে। মুম্বাইয়ে নৌ-সেনার অন্তত ২০ জন কর্মী নমুনা পরীক্ষার পরিণাম পজিটিভ এসেছে। এই নৌ-কর্মীরা পশ্চিমাঞ্চলীয় নৌ-কমান্ডের লজিস্টিক ও সাপোর্ট ফেসিলিটি বিভাগের সঙ্গে যুক্ত।

 

· গুজরাট : রাজ্যে শনিবার আরও ১৭৬ জনের নমুনায় করোনা ভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ মেলায় পজিটিভ কেসের সংখ্যা বেড়ে হ’ল ১ হাজার ২৭২। রাজ্যে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

 

· রাজস্থান : রাজ্যে নতুন করে ৯৮ জন আক্রান্ত হওয়ার ফলে ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ১ হাজার ২২৯। আজ পর্যন্ত আক্রান্তদের মধ্যে ১৮৩ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন এবং ১১ জন মারা গেছেন।

 

· কেরল : রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রী কে কে শৈলজা জানিয়েছেন, মালাপ্পুরমে মৃত্যু হওয়া ব্যক্তির সঙ্গে কোভিড-১৯ এর কোনও সম্পর্কে নেই। বিগত তিনটি পরীক্ষাতে প্রয়াত ঐ ব্যক্তির নমুনায় করোনার উপস্থিতির প্রমাণ মেলেনি। গতকাল রাজ্যে কেবল একজনের নিশ্চিত করোনায় আক্রান্তের খবর মিলেছে। ১০ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

 

· তামিলনাডু : রাজ্যের করোনা উৎস কেন্দ্রগুলিতে ৩৬ হাজার র‍্যাপিড টেস্ট কিট সরবরাহ করা হয়েছে। হুন্ডাই সংস্থা একটি বেসরকারি মেডিকেল সংস্থার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়ে তামিলনাডু ও অন্যান্য রাজ্যে আইসিইউ ভেন্টিলেটর তৈরি করবে। রাজ্যে প্লাজমা থেরাপি পদ্ধতি ব্যবহারের অনুমতি মিলেছে। নিশ্চিত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এখনও পর্যন্ত ১ হাজার ৩২৩। মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের। ২৮৩ জনকে সুস্থ হওয়ার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

 

· কর্ণাটক : রাজ্যে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি এবং ২০শে এপ্রিলের পর কি ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হবে, তা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বরিষ্ঠ মন্ত্রীদের সঙ্গে পর্যালোচনা বৈঠক করলেন। রাজ্যে নিশ্চিত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩৭১। মৃত্যু হয়েছে ১৩ জনের। ৯২ জনকে সুস্থ হওয়ার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

 

· অন্ধ্রপ্রদেশ : রাজ্যে বিগত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরও ৩১ জনের আক্রান্তের খবর মিলেছে। কৃষ্ণা জেলা থেকে আরও ১ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় এই জেলায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হ’ল ১৫। রাজ্যে নিশ্চিত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৬০৩। সুস্থ হওয়ার পর ৪২ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রেড জোন এলাকাগুলিতে বাড়ি বাড়ি গিয়ে সমীক্ষা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছে।

 

· তেলেঙ্গানা : হায়দরাবাদে একজন পুলিশ কর্মী এবং নারায়ণপেতে এক নবজাতকের নমুনা পরীক্ষায় করোনা ভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে। রাজ্যে লকডাউন পরিস্থিতি শিথিল করা হবে কিনা, তা নিয়ে রবিবার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। গতকাল পর্যন্ত নিশ্চিত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৭৬৬ হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ১৮ জনের।

 

· অরুণাচল প্রদেশ : রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আসাম – অরুণাচল সীমান্ত লাগোয়া ভান্দেরদেওয়া চেক গেট পরিদর্শন করেছেন এবং রাজ্যে আগতদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার ব্যবস্থাগুলি খতিয়ে দেখেছেন।

 

· আসাম : রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রী ট্যুইটে জানিয়েছেন, শিলচর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল থেকে ১ জন কোভিড-১৯ রোগীকে সুস্থ হওয়ার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যে ১২ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

 

· মেঘালয় : রাজ্যের এনআইসি আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্ট রিসোর্স ডিভিশনের সঙ্গে সহযোগিতায় এনআইসি কোভিড-১৯ সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দিতে বাণী – কোভিড-১৯ শীর্ষক এক বহুভাষা-ভিত্তিক চ্যাট বোর্ড গড়ে তুলেছে।

 

· মণিপুর : রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর হাস্যরস সংক্রান্ত পুস্তক-পুস্তিকাগুলির ইলেক্ট্রনিক সংস্করণের সূচনা করেছে। বাড়িতে থেকেই শিশুদের মনরঞ্জনের জন্য রাজ্য শিক্ষা দপ্তরের ওয়েবসাইট থেকে এই হাস্যরসাত্মক বইগুলি ডাউনলোড করা যাবে।

 

· মিজোরাম : বেঙ্গালুরুতে আটকে পড়া মিজোরামবাসীদের ত্রাণ সহায়তা প্রদানের জন্য কর্ণাটকের উপ-মুখ্যমন্ত্রীর প্রচেষ্টার জন্য ধন্যবাদ জানালেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

 

· চন্ডীগড় : শহরের বিভিন্ন এলাকায় দুর্গত ও সহায়-সম্বলহীন মানুষের মধ্যে ৬৮ হাজার ৫২৫টি রান্না করা খাবারের প্যাকেট বন্টন করা হয়েছে। বিভিন্ন শিল্প সংস্থার ২০ হাজার কর্মীর মধ্যে ১৭ হাজার কর্মী মার্চ মাসের মজুরি পেয়েছেন।

 

· পাঞ্জাব : রাজ্যে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার সূচনা হয়েছে। এই যোজনার আওতায় স্মার্ট কার্ড কর্মসূচির সমস্ত সুফলভোগী বিনামূল্যে গম ও ডালশস্য দেওয়া হবে। রাজ্যের এক ক্যাবিনেট মন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছেন, কৃষকদের কাছ থেকে প্রতিটি দানাশস্য সংগ্রহ করা হবে।

 

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1615913) Visitor Counter : 38