স্বাস্থ্যওপরিবারকল্যাণমন্ত্রক

ভারতে কোভিড টিকাকরণ প্রায় ৮ কোটি আটটি রাজ্যে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যায় লাগাতার বৃদ্ধি ১৫টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে প্রতি ১০ লক্ষে নমুনা পরীক্ষার হার জাতীয় গড়ের তুলনায় কম

Posted On: 05 APR 2021 11:48AM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ৫ এপ্রিল, ২০২১

 

কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আরও একটি তাৎপর্যপূর্ণ সাফল্য হিসেবে দেশে আজ টিকাকরণ ৭ কোটি ৯০ লক্ষ ছাড়িয়েছে। প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী আজ সকাল ৭টা পর্যন্ত ৭ কোটি ৯১ লক্ষ ৫ হাজার ১৬৩টি টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৯০ লক্ষ ৯ হাজার ৩৫৩ জন স্বাস্থ্যকর্মী প্রথম ডোজ, ৫৩ লক্ষ ৪৩ হাজার ৪৯৩ জন স্বাস্থ্যকর্মী দ্বিতীয় ডোজ, করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অগ্রভাগে থাকা ৯৭ লক্ষ ৩৭ হাজার ৮৫০ জন কর্মী প্রথম ডোজ এবং ৪১ লক্ষ ৩৩ হাজার ৯৬১ জন কর্মী দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন। অন্যদিকে, ৪৫ বছরের বেশি বয়সী ৪ কোটি ৯৯ লক্ষ ৩১ হাজার ৬৩৫ জন প্রথম ডোজ এবং ৯ লক্ষ ৪৮ হাজার ৮৭১ জন সুফলভোগী দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন। 

দেশে কোভিড টিকাকরণ অভিযানের ৭৯তম দিনে (৪ এপ্রিল) ১৬ লক্ষ ৩৮ হাজার ৪৬৪টি টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১৫ লক্ষ ৪০ হাজার ৬৭৬ জন সুফলভোগী প্রথম ডোজ এবং ৯৭ হাজার ৭৮৮ জন সুফলভোগী দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন।

আটটি রাজ্যে দেশে মোট টিকাকরণের ৬০ শতাংশই দেওয়া হয়েছে। তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, টিকাকরণের হার বৃদ্ধির পাশাপাশি দেশে দৈনিক করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমবর্ধমান। পরিসংখ্যান অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় ১ লক্ষ ৩ হাজার ৫৫৮ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। আটটি রাজ্যে – মহারাষ্ট্র, ছত্তিশগড়, কর্ণাটক, উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি, তামিলনাড়ু, মধ্যপ্রদেশ ও পাঞ্জাবে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। এই আটটি রাজ্যে মোট আক্রান্তের হার ৮১.৯০ শতাংশ। কেবল মহারাষ্ট্রেই একদিনেই আক্রান্ত হয়েছেন ৫৭ হাজার ৭৪ জন। অন্যদিকে ছত্তিশগড়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজার ২৫০। কর্ণাটকে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৫৫৩ জন। 

উপরোক্ত আটটি রাজ্য বাদে হরিয়ানা, রাজস্থান, কেরল ও গুজরাটেও দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমবর্ধমান। 

দেশে সুস্পষ্টভাবে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লক্ষ ৪১ হাজার ৮৩০। এই সংখ্যা মোট আক্রান্তের প্রায় ৫.৮৯ শতাংশ। অবশ্য, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্পষ্টভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজার ২৩৩টি কমেছে। দেশে পাঁচটি রাজ্যে – মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, ছত্তিশগড়, কেরল ও পাঞ্জাবে সামগ্রিকভাবে আক্রান্তের হার ৭৫.৮১ শতাংশ। শুধুমাত্র মহারাষ্ট্রেই আক্রান্তের হার প্রায় ৫৮.২৩ শতাংশ। 

দেশে ১৫টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে প্রটি ১০ লক্ষে নমুনা পরীক্ষার হার জাতীয় গড়ের (১ লক্ষ ৮০ হাজার ৪৪৯) তুলনায় কম। অন্যদিকে, দেশে আজ করোনায় সুস্থতার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ১৬ লক্ষ ৮২ হাজার ১৩৬। জাতীয় স্তরে সুস্থতার হার ৯২.৮ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় আরোগ্যলাভ করেছেন ৫২ হাজার ৮৪৭ জন। 

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪৭৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে আটটি রাজ্যে মৃত্যু হার ৮৪.৫২ শতাংশ। মহারাষ্ট্রে একদিনেই মারা গেছেন ২২২ জন। পাঞ্জাবে মৃত্যু হয়েছে ৫১ জনের। 

দেশে ১২টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যুর খবর নেই। এই রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির মধ্যে রয়েছে – পণ্ডিচেরী, লাদাখ, নাগাল্যান্ড, মেঘালয়, মণিপুর, ত্রিপুরা, সিকিম, লাক্ষাদ্বীপ, মিজোরাম, আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ, অরুণাচল প্রদেশ প্রভৃতি। 

 

CG/BD/DM/

 



(Release ID: 1709660) Visitor Counter : 5