PIB Headquarters

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পিআইবি’র প্রাত্যহিক সংবাদ

Posted On: 25 AUG 2020 7:11PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২৫ অগাস্ট, ২০২০

 

 

গত চব্বিশ ঘন্টায় ৬৬,৫৫০ জন সুস্থ হয়ে ওঠার নতুন রেকর্ড; দেশে মোট করোনা মুক্ত ২৪ লক্ষর বেশী; গত ২৫ দিনে ১০০%-বেশী আরোগ্য লাভ করেছেন
কেন্দ্রের সমন্বিত কৌশলগুলি রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলি বাস্তবায়িত করায় ইতিবাচক ফল পাওয়া যাচ্ছে। দেশে গত চব্বিশ ঘন্টায় ৬৬,৫৫০ জন সংক্রমিত সুস্থ হয়ে উঠেছেন, যা একটি রেকর্ড। প্রচুর নমুনা পরীক্ষা করে সংক্রমিতদের শনাক্তকরণ এবং যথাযথ ভাবে চিকিৎসার ব্যবস্থা করায় এ পর্যন্ত মোট ২৪,০৪,৫৮৫ জন করোনা মুক্ত হয়েছেন। বর্তমানে ৭৫.৯২% সংক্রমিত আরোগ্য লাভ করেছেন। সংক্রমিতদের মধ্যে ৭,০৪,৩৪৮জন চিকিৎসাধীন। চিকিৎসাধীন সংক্রমিতের থেকে ৩.৪১ গুণ বেশী সংক্রমিত সুস্থ হয়ে ওঠায় এই সংখ্যার ব্যবধান ১৭ লক্ষের বেশী হয়েছে। গত ২৫ দিনে ১০০%-র বেশী সংক্রমিত করোনা মুক্ত হয়েছেন। এর ফলে বর্তমানে ২২.২৪% জন সংক্রমিত চিকিৎসাধীন। কনটেনমেন্ট এলাকার উপর নজরদারী এবং যারা সংক্রমিতদের সংস্পর্শে এসেছেন, তাদের নিভৃতাবাসে থাকার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। বর্তমানে কোভিড কেয়ার কেন্দ্র, কোভিড নির্ধারিত স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও কোভিড নির্ধারিত হাসপাতালগুলিতে যথাযথ চিকিৎসার ফলে সংক্রমিতদের মৃত্যুর হার ১.৮৪% হয়েছে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1648421 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।


টেস্ট, ট্র্যাক, ট্রিট' কৌশল অবলম্বন করে ভারতে প্রায় কোটি ৭০ লক্ষ নমুনা পরীক্ষা হয়েছে; প্রতি ১০ লক্ষ জনসংখ্যায় নমুনা পরীক্ষার হার বেড়ে ২৬,৬৮৫
‘টেস্ট, ট্র্যাক, ট্রিট' কৌশল গ্রহণ করে ভারতে এখনও পর্যন্ত প্রায় ৩ কোটি ৭০ লক্ষ কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। দৈনিক ভিত্তিতে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়াতে ভারতের দৃঢ় সঙ্কল্প গ্রহণের দরুণ আজ পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৩ কোটি ৬৮ লক্ষ ২৭ হাজার ৫২০-তে পৌঁছেছে। দেশে গত ২৪ ঘন্টায় ৯ লক্ষ ২৫ হাজার ৩৮৩টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। প্রতি ১০ লক্ষ জনসংখ্যায় নমুনা পরীক্ষার হার উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়ে হয়েছে ২৬,৬৮৫। সংক্রমণ প্রতিরোধের ক্ষেত্রে প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে সময়মতো আক্রান্তদের চিহ্নিতকরণ, তাঁদের দ্রুত আইসোলেশনে পাঠানো এবং উপযুক্ত চিকিৎসা পরিষেবা তথা ব্যাপক সংখ্যায় নমুনা পরীক্ষার ফলে এই সাফল্য অর্জিত হয়েছে। এ বছরের গোড়ার দিকে কেবল একটি নমুনা পরীক্ষাগার থেকে আজ পর্যন্ত দেশে নমুনা পরীক্ষাগারের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১,৫২৪। এর মধ্যে সরকারি পরীক্ষাগারের সংখ্যা ৯৮৬ এবং বেসরকারি পরীক্ষাগারের সংখ্যা ৫৩৮।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1648431 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

পাটনায় ডিআরডিও-৫০০ শয্যাবিশিষ্ট কোভিড হাসপাতাল
কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শ্রী নিত্যানন্দ রাই গতকাল পাটনায় প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা (ডিআরডিও)-র ১২৫টি আইসিইউ বেড সহ ৫০০ শয্যাবিশিষ্ট কোভিড হাসপাতালের উদ্বোধন করেছেন। পাটনার দিহাতায় নিবনির্মিত ইএসআইসি হাসপাতালে এই কোভিড হাসপাতালটি গড়ে তোলা হয়েছে। হাসপাতাল নির্মাণের জন্য পিএম কেয়ার ট্রাস্ট থেকে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়েছে। মুজাফফরপুরেও এ ধরনের একটি হাসপাতাল গড়ে তোলা হবে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1648263 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

কাঠামোগত সংস্কার সরকারের অগ্রাধিকার : অর্থমন্ত্রী
ভারতীয় শিল্প সংস্থার অগ্রণী শিল্পপতিদের উদ্দেশে কেন্দ্রীয় অর্থ তথা কর্পোরেট বিষয়ক মন্ত্রী শ্রীমতী নির্মলা সীতারমন জোর দিয়ে বলেছেন, কাঠামোগত সংস্কার সরকারের অন্যতম অগ্রাধিকারের বিষয় এবং এ ধরনের সংস্কারের ক্ষেত্রে গৃহীত উদ্যোগগুলি কোভিড-১৯ মহামারীর সময় ঘোষিত বিভিন্ন ব্যবস্থা ও নীতি-পরিকল্পনার মাধ্যমে প্রতিফলিত হয়েছে। কাঠামোগত সংস্কারের ফলে অর্থ ব্যবস্থার পুনরুদ্ধারে গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব পড়েছে, যা এখন সর্বত্রই স্পষ্ট লক্ষ্য করা যাচ্ছে।
অর্থ ব্যবস্থার পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক পক্ষ থেকে পণ্য ও পরিষেবার আন্তঃরাজ্য বিনিময়ে কোনরকম বিঘ্ন না ঘটানোর জন্য রাজ্যগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সরকার এবং নিয়ন্ত্রণমূলক কর্তৃপক্ষগুলির মধ্যে দৃষ্টান্তমূলক সহযোগিতার ক্ষেত্রে এর থেকে ভালো সময় আর হতে পারে না বলে মন্তব্য করে শ্রীমতী সীতারমন বলেন, একইসঙ্গে শিল্প সংস্থাগুলিকেও এটা সুনিশ্চিত করতে হবে যে, বর্তমান সঙ্কট থেকে দেশকে কিভাবে উদ্ধার করা যায়।
করোনা মহামারীর দরুণ পর্যটন, হোটেল ও আতিথেয়তা, রিয়েল এস্টেট ও নির্মাণ তথা বিমান পরিবহণ ক্ষেত্র নির্বিশেষ যে অভিন্ন প্রভাব পড়েছে তা স্বীকার করে নিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, গুরুত্বপূর্ণ এই ক্ষেত্রগুলির সঙ্গে অর্থনীতির গভীর সম্পর্ক রয়েছে। তাই এই ক্ষেত্রগুলির সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন বাধা-বিপত্তি দূর করতে হোটেল, রেস্তোরাঁ, ব্যাঙ্কোয়েট প্রভৃতি ক্ষেত্রের জন্য আদর্শ কার্যপরিচালন বিধি জারি করা হবে। কৌশলগত বিলগ্নিকরণ প্রসঙ্গে শ্রীমতী সীতারমন জানান, বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় দ্রুত প্রস্তাব আনার পরিকল্পনা রয়েছে।
কর্পোরেট কর ক্ষেত্রে গত সেপ্টেম্বর মাসে কর হার হ্রাস করার ফলে বেসরকারি বিনিয়োগ প্রবাহ প্রসঙ্গে শ্রীমতী সীতারমন বলেন, কোভিড পরবর্তী বিশ্বে বেসরকারি বিনিয়োগ উন্নয়নের গতি সচল রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1648487 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

কেন্দ্রীয় জাহাজ চলাচল মন্ত্রক ভারতীয় বন্দরে লক্ষেরও বেশি জাহাজ পরিচালন ক্ষেত্রের সহায়ককারী সদস্য পরিবর্তন এবং চার্টার্ড ফ্লাইটে বিশেষ সহায়তা প্রদান করেছে
কেন্দ্রীয় জাহাজ চলাচল মন্ত্রক ভারতীয় বন্দরে ১ লক্ষেরও বেশি জাহাজ চালচল ক্ষেত্রের সহায়ককারী সদস্য পরিবর্তন এবং চার্টার্ড ফ্লাইটে বিশেষ সহায়তা প্রদান করেছে। বিশ্বের মধ্যে ভারতে সর্বাধিক জাহাজ চলাচল ক্ষেত্রে সহায়ককারী সদস্য বা ক্রু সদস্যদের পরিবর্তন সবচেয়ে বেশি হয়েছে। এই ক্রু সদস্যদের পরিবর্তনের একজনের সঙ্গে অন্যজনের ডিউটি বদলের সময় এই কাজ সম্পন্ন হয়েছে। জাহাজ চলাচল ক্ষেত্র করোনা মহামারীর সময়ে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। মহামারীর সময়কালে প্রয়োজনীয় পরিষেবা প্রদান করা, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে পণ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া এবং সরবরাহ-শৃঙ্খল বজায় রাখার ক্ষেত্রে দায়িত্বের সঙ্গে ভূমিকা পলন করেছে। একই সঙ্গে, বিদেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের দেশে ফিরিয়ে আনতে বিশেষভাবে সাহায্য করেছে। জাহাজ চলাচল মন্ত্রকের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী শ্রী মনসুখ মান্ডভিয়া সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে আলাপচারিতায় জাহাজ চলাচল মন্ত্রকের অতিরিক্ত মহানির্দেশকের ভূমিকার উচ্ছসিত প্রশংসা করেছেন। তিনি বলেছেন, কঠিন এই সময়ে জাহাজ চলাচল মন্ত্রক যেভাবে কাজ করেছে তা প্রশংসনীয়। ভারতীয় যাত্রীদের দেশে ফিরিয়ে আনতে এবং জাহাজ ক্রু সদস্যদের সুবিধার্থে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তিনি আরও বলেছেন, মহামারী পরিস্থিতি চলাকালীন সমুদ্রপথে পণ্য পরিবহণ বজায় রাখার জন্য জাহাজ চলাচল মন্ত্রকের মহানির্দেশক উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেছেন। এর পাশাপাশি, অনলাইন ই-পাসের সুবিধা প্রদান সহ একাধিক ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1648478 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে এক দিনে ৫১,৯৬০ বোতল ফিনাইল তৈরি করে রেকর্ড গড়ল বেঙ্গল কেমিক্যাল অ্যান্ড ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেড; কোভিড মহামারীর পর থেকে ফিনাইল বিক্রি বেড়ে প্রতি মাসে ৪.থেকে ছয় কোটি টাকায় পৌঁছেছে
কেন্দ্রীয় সার ও রসায়ন মন্ত্রকের অধীনস্থ রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থা বেঙ্গল কেমিক্যাল অ্যান্ড ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেড (বিসিপিএল) কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে বিপুল চাহিদা পূরণে ফিনাইলের উৎপাদন বাড়িয়েছে। বিসিপিএল-এর পশ্চিমবঙ্গে পাটিহাটি কারখানায় এক দিনে ৫১,৯৬০ বোতল ফিনাইল উৎপাদন করে রেকর্ড গড়েছে। এই বিপুল উৎপাদনের জন্য কেন্দ্রীয় সার ও রসায়ন মন্ত্রী শ্রী ডি ভি সদানন্দ গৌড়া সংস্থার পরিচালক ও কর্মচারীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন। বিসিপিএল-এর অর্থ দপ্তরের ডিরেক্টর শ্রী পি এম চন্দ্রাইয়া বলেছেন, ১২০ বছরের এই সংস্থার এটি একটি রেকর্ড। জুলাই মাসে একদিনে ৩৮হাজার বোতল ফিনাইল তৈরি করা হয়েছিল। একমাসে উৎপাদন ক্ষমতা বাড়িয়ে দৈনিক ৫০ হাজার বোতল করা হয়েছে। ২৩শে আগস্ট ৫১,৯৬০ বোতল ফিনাইল উৎপাদন করা হয়েছে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1648430 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

লকডাউনের পর অশোক হোটেল খোলার প্রথম দিনে প্রস্তুতি পর্যালোচনায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী
দিল্লির বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর জারি করা নির্দেশের পরে পর্যটন মন্ত্রকের আওতাধীন আইটিডিসি হোটেলগুলি পুনরায় খোলার বিষয়ে প্রস্তুতি খতিয়ে দেখার অঙ্গ হিসেবে পর্যটন ও সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী শ্রী প্রহ্লাদ সিং প্যাটেল সোমবার (২৪ আগস্ট) দিল্লীতে অশোক হোটেল পরিদর্শন করেন। ইন্ডিয়া ট্যুরিজম ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন সোমবার থেকে দেশের রাজধানীতে পুনরায় হোটেল খোলার কথা ঘোষণা করেছে।
পুনরায় হোটেল খোলার বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, দেশের রাজধানীতে হোটেল এবং রেস্তোরাঁ পর্যটন শিল্পের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে। এই সিদ্ধান্ত দেশের পর্যটন ক্ষেত্রকে এগিয়ে নিয়ে যেতে এবং এই শিল্পে স্বস্তি প্রদানের ক্ষেত্রে সহায়তা করবে। জাতীয় রাজধানী অঞ্চলে পর্যটন এবং আতিথেয়তার কথা মাথায় রেখে দিল্লীর জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাকে স্বাগতও জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1648424 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ ওপেন স্কুলিং প্রতিষ্ঠানের কাজকর্ম পর্যালোচনায় কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রী
কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রী শ্রী রমেশ পোখরিয়াল ‘নিশাঙ্ক’ গতকাল নতুন দিল্লিতে ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ ওপেন স্কুলিং – এর কাজকর্ম পর্যালোচনা করেছেন। এই উপলক্ষে মন্ত্রী বলেন, এই প্রতিষ্ঠানের সিলেবাসকে এনসিইআরসি – এর সঙ্গে সাযুজ্য রেখে প্রণয়ন করতে হবে, যাতে ছাত্রছাত্রীরা বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে আরও ভালোভাবে অবগত হতে পারে। শ্রী নিশাঙ্ক কোভিড-১৯ সঙ্কটের সময়ে প্রতিষ্ঠানটির কাজকর্ম খতিয়ে দেখেন। উল্লেখ করা যেতে পারে, প্রতিষ্ঠানের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে অদূর ভবিষ্যতে আরও ৬টি নতুন কোর্স চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1648219 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।



পিআইবি’আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

চন্ডীগড় : কেন্দ্রশাসিত এই অঞ্চলের প্রশাসক স্বাস্থ্য পরিষেবা বিষয়ক অধিকার্তাকে নির্দেশ দিয়ে বলেছেন, রক্তের নমুনা সংগ্রহের জন্য মোবাইল টিম বা ভ্রাম্যমাণ দল সর্বাদা প্রস্তুত রাখতে।

পাঞ্জাব : হোম আইসোলেশনে থাকা স্বল্প ও মাঝারি উপসর্গ বিশিষ্ট ৬০ বা তার বেশি বয়সী রোগীদের মেডিকেল ফিটনেস পরীক্ষার ব্যাপারে রাজ্য সরকার নতুন নীতি-নির্দেশিকা জারি করেছে।

হরিয়ানা : রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সির্সা ও রিওয়ারি-তে কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষার জন্য ২টি আরটিপিসিআর নমুনা পরীক্ষাগারের উদ্বোধন করেছেন। এর ফলে, রাজ্যে নমুনা পরীক্ষাগারের সংখ্যা বেড়ে ২৩ হয়েছে। এ ধরনের আরও ৪টি নমুনা পরীক্ষাগার শীঘ্রই গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

কেরল : কেরল হাইকোর্ট রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দিয়ে বলেছে, কোভিড-১৯ রোগীদের ফোন কল ডিটেল পুলিশ অন্য কোনও উদ্দেশ্যে ব্যবহার করতে পারবে না। এদিকে রাজ্যে আজ দুপুর পর্যন্ত ২৩৭ জনের করোনায় মৃত্যুর খবর মিলেছে। বর্তমানে ২০ হাজার ৩২৩ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

তামিলনাডু : কেন্দ্রশাসিত পন্ডিচেরীতে গত ২৪ ঘন্টায় ৫৭১ জনের সংক্রমিত হওয়ার খবর মিলেছে। এর ফলে, নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৩ হাজার ৯০০ ছাড়িয়েছে। মৃতের সংখ্যা ১৬৪। এদিকে তামিলনাডুতে সোমবার ৯৭ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে এবং ৫ হাজার ৯৬৭ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন।

কর্ণাটক : আন্তঃরাজ্য যাতায়াতকারীদের কর্ণাটকে এলে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে না বলে রাজ্য সরকার সংশোধিত সার্কুলার জারি করেছে। এদিকে রাজ্য সরকার স্পোর্টস কমপ্লেক্স স্টেডিয়াম ও সোস্যাল ক্লাবগুলিকে নীতি-নির্দেশিকা মেনে খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে, তবে বড় জমায়েতের অনুমতি দেওয়া হয়নি।

অন্ধ্রপ্রদেশ : রাজ্যে গতকাল আরও ৮৬ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩ হাজার ৩৬৮ হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৬১ হাজার ছাড়িয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৯০ হাজার।

তেলেঙ্গানা : রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ২ হাজার ৫৭৯ জন নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন এবং ৯ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১ লক্ষ ৮ হাজার ছাড়িয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত ২৩ হাজার ৭৩৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৭৭০ জনের। রাজ্যের সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালগুলিতে কোভিড-১৯ রোগীদের জন্য ১৮ হাজারেরও বেশি খালি শয্যা রয়েছে।

আসাম : রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রী জানিয়েছেন, ২০ লক্ষেরও বেশি কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

মণিপুর : রাজ্যে আরও ১১৬ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১ হাজার ৬২৭ হয়েছে। সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৬৯ শতাংশ।

মেঘালয় : রাজ্যে কোভিড-১৯ এ আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ১৭৯। এর মধ্যে ৪৫৯ জন বিএসএফ এবং সশস্ত্র বাহিনীর জওয়ান রয়েছেন। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৭৮৯ জন।

মিজোরাম : রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯৫৩। এর মধ্যে ৪৮৯ জন নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

নাগাল্যান্ড : রাজ্যে কোভিড-১৯ এ সুস্থতার হার ৬৪.৫১ শতাংশে পৌঁছেছে। নাথান হস্টেল কোয়ারেন্টাইন সেন্টারটিকে সংক্রমিত এলাকা হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। কারণ, এখানকার একজন নিরাপত্তা কর্মী নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

মহারাষ্ট্র : রাজ্যের মন্ত্রী আদিত্য ঠাকরে নিট/জেইই পরীক্ষা আগামী মাসে গ্রহণ করার যে সিদ্ধান্ত কেন্দ্রীয় সরকার নিয়েছে, তা পুনর্বিবেচনার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, রাজ্য সরকার জানুয়ারি মাস থেকে শুরু করার কথা চিন্তাভাবনা করছে।

গুজরাট : আমেদাবাদ রেল ভিডিশন আমেদাবাদ রেল স্টেশনে সাফল্যের সঙ্গে ব্যাগেজ স্যানিটাইজেশন অ্যান্ড র্যা পিং মেশিন চালু করেছে। দেশে কোনও রেল স্টেশনে এ ধরনের যন্ত্র স্থাপন এই প্রথম। এদিকে রাজ্যে করোনায় আরোগ্যলাভের হার ৮০ শতাংশে পৌঁছেছে।

মধ্যপ্রদেশ : রাজ্যে পর পর ৫ দিন রেকর্ড সংখ্যায় করোনায় আক্রান্তের খবর মিলেছে। কেবল গতকালই ১ হাজার ২৯২ জন নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন। রাজ্যে কেবল চলতি মাসে ৫৪ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনার শিকার। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৬৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২৪৬ জনের। এদিকে রাজ্যে প্রতি ১০ লক্ষ জনসংখ্যায় নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা প্রায় ১৪ হাজার।

ছত্তিশগড় : করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে যাবতীয় আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে রাজ্য বিধানসভার বর্ষাকালীন অধিবেশন আজ থেকে শুরু হচ্ছে। কোভিড-১৯ সংক্রান্ত স্বাস্থ্য নিরাপত্তা বিধি মেনে সদস্যদের বসার ব্যবস্থা হয়েছে। প্রত্যেক বিধায়কের বসার চেয়ারকে কাঁচের আবরণ দিয়ে পাশের আসন থেকে পৃথক করা হয়েছে। বিধায়করা যাতে যত কম সম্ভব একে অপরের সংস্পর্শে আসেন, তা নিশ্চিত করতেই বিধানসভায় এই উদ্যোগ।

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1648635) Visitor Counter : 6