PIB Headquarters

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পিআইবি’র প্রাত্যহিক সংবাদ

Posted On: 17 AUG 2020 6:26PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১৭ অগাস্ট, ২০২০

 

 

ভারতে যাবৎ একদিনে সর্বাধিক ৫৭ হাজার ৫৮৪ জন আরোগ্য লাভ করেছেন; সুস্থতার হার ৭২ শতাংশ ছাড়িয়েছে; সুস্থতার সংখ্যা শীঘ্রই ২০ লক্ষ অতিক্রম করবে
ভারত করোনায় সুস্থতার দিক থেকে দৈনিক সংখ্যা নিরন্তর বেড়ে চলেছে। আজ দেশে এ যাবৎ একদিনেই সর্বাধিক ৫৭ হাজার ৫৮৪ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী আরোগ্য লাভ করেছেন। সুস্থতার হার ক্রমাগত বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশে সুস্থতার হার বেড়ে ৭২ শতাংশের মাইলফলক ছুঁয়েছে। সংক্রমণ প্রতিরোধে উপযুক্ত কৌশল গ্রহণ, নমুনা পরীক্ষায় আগ্রাসী নীতি এবং উপযুক্ত চিকিৎসা পরিষেবা প্রদানের মাধ্যমে সুস্থতার হারে এই সাফল্য। কার্যকর চিকিৎসা পরিষেবা কৌশল গ্রহণের ফলে সুস্থতার হারে ইতিবাচক পরিণাম পাওয়া যাচ্ছে। অধিক সংখ্যায় আরোগ্য লাভের হার বৃদ্ধি পাওয়া এবং হাসপাতাল থেকে আরোগ্য লাভের পর রোগীদের ছাড়া পাওয়ার সংখ্যা বৃদ্ধির দরুণ দেশে কোভিড-১৯ এ সুস্থতার সংখ্যা প্রায় ২০ লক্ষে পৌঁছেছে। এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯ লক্ষ ১৯ হাজার ৮৪২ জন। এর ফলে, সুস্থতা ও আক্রান্তের সংখ্যার মধ্যে ফারাক ১২ লক্ষ ৪২ হাজার ৯৪২ – এ পৌঁছেছে। দেশে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আজ পর্যন্ত ৬ লক্ষ ৭৬ হাজার ৯০০। এই সংখ্যা মোট আক্রান্তের সংখ্যার তুলনায় ২৫.৫৭ শতাংশ। এদিকে সুস্থতার হার ক্রমশ বৃদ্ধি পাওয়া এবং আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমাগত হ্রাস পাওয়ার দরুণ করোনায় মৃত্যু হার আরও কমে ১.৯২ শতাংশ হয়েছে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1646394 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।


দেশে কোটির বেশি কোভিডের জন্য নমুনা পরীক্ষা হয়েছে; প্রতি ১০ লক্ষ পিছু নমুনা পরীক্ষার পরিমাণ ২১,৭৬৯-পৌঁছেছে
রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির সঙ্গে কেন্দ্রের প্রতিনিয়ত ও সমন্বিত উদ্যোগের ফলে দেশে কোভিড নমুনা পরীক্ষা ৩ কোটিতে গিয়ে পৌঁছেছে। দেশজুড়ে নমুনা পরীক্ষার সুবিধা বৃদ্ধি করার ফলে এটি সম্ভব হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ৭,৩১,৬৯৭টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। দেশে দৈনিক ১০ লক্ষ নমুনা পরীক্ষা করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। আজকের হিসেব অনুযায়ী প্রতি ১০ লক্ষ জন পিছু ২১,৭৬৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। ১৪ই জুলাই যেখানে মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল ১ কোটি ২০ লক্ষ, ১৬ই জুলাই তা বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৩ কোটি। এই একই সময়ে সংক্রমিতের হার ৭.৫ শতাংশ থেকে বেড়ে ৮.৮১ শতাংশ হয়েছে। যদিও নমুনা পরীক্ষা বৃদ্ধি করলে সংক্রমিতের হার প্রাথমিকভাবে বেশি হয়, কিন্তু দিল্লীর উদাহরণ অনুযায়ী এই হার পরবর্তীতে ক্রমশ হ্রাস পেতে থাকে। সংক্রমিতদের শনাক্ত করার পর তাদের দ্রুত নিভৃতাবাসে পাঠানো এবং চিকিৎসার ব্যবস্থা করার ফলে সংক্রমনের হারও হ্রাস পায়। এই উদ্যোগের ফলে সংক্রমিতদের মৃত্যুর হারও কমে যায়। অর্থাৎ নমুনা পরীক্ষার পরিমান বৃদ্ধি করার ফলে পরবর্তীতে সংক্রমিতের হার-ই শুধু কমেনা, মৃত্যুর ঘটনাও হ্রাস পায়। দেশজুড়ে নমুনা পরীক্ষার জন্য পরীক্ষাগারের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ানো হচ্ছে। জানুয়ারী মাসে পুনেতে যেখানে মাত্র একটি পরীক্ষাগারে নমুনা পরীক্ষার সুযোগ ছিল, আজ সেই সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ১৪৭০। এরমধ্যে ৯৬৯টি সরকারি পরীক্ষাগার এবং ৫০১টি বেসরকারী পরীক্ষাগার। ৪৫০টি সরকারি ও ৩০১টি বেসরকারী অর্থাৎ মোট ৭৫৪টি পরীক্ষাগারে রিয়েল টাইম আরটি পিসিআর-এর মাধ্যমে, ৪৮৫টি সরকারি ও ১১৪টি বেসরকারী অর্থাৎ মোট ৫৯৯টি পরীক্ষাগারে ট্রুন্যাটের মাধ্যমে এবং ৩৪টি সরকারি ও ৮৩টি বেসরকারী অর্থাৎ মোট ১১৭টি পরীক্ষাগারে সিবিন্যাটের মাধ্যমে নমুনা পরীক্ষার কাজ চলছে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1646405 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

সিআইআই – এর জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত সম্মেলনের উদ্বোধনী সভায় ডঃ হর্ষ বর্ধনের ভাষণ
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডঃ হর্ষবর্ধন আজ বণিকসভা সিআইআই-এর জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত দু’দিনের ভার্চ্যুয়াল অধিবেশনের উদ্বোধনী সভায় পৌরহিত্য করেন। কোভিড মহামারীর মধ্যেই জনস্বাস্থ্য ক্ষেত্র নিয়ে এ ধরনের গুরুত্বপূর্ণ সম্মেলন আয়োজনের জন্য ডঃ হর্ষবর্ধন সিআইআই-কে অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, কোভিড মহামারী আমাদেরকে দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামোয় ঘাটতি ও প্রয়োজনীয়তার দিকগুলি সম্পর্কে পদক্ষেপ গ্রহণের আশু প্রয়োজনীয়তাকে তুলে ধরেছে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ, প্রতিরোধ ও দমনে ভারতের সফল প্রয়াসগুলির কথা উল্লেখ করে ডঃ হর্ষবর্ধন সরকারের কর্মসূচিগুলিকে আরও ব্যাপকভাবে সামাজিক আন্দোলনে পরিণত করেছে বলে অভিমত প্রকাশ করেন।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1646435 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

আইআইটি এবং উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিকে সামাজিক সমস্যা নিয়ে গবেষণা করার আহ্বান উপ-রাষ্ট্রপতির
উপ-রাষ্ট্রপতি শ্রী এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু আইআইটি এবং অন্যান্য উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিকে গবেষণার মাধ্যমে সমাজের সঙ্গে যুক্ত সমস্যাগুলির সমাধানের আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তন থেকে স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সমস্যা সমাধানে মানবজাতির কল্যাণে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দিল্লি আইআইটি-র হীরক জয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করে তিনি বলেন, ভারতীয় প্রতিষ্ঠানগুলি তখনই বিশ্বের সেরা হিসেবে গণ্য হবে যখন তারা সামাজিক, পারিপার্শ্বিক সমস্যা মোকাবিলায় অনুকূল এবং সুস্থায়ী সমাধানের পথ বিকশিত করতে পারবে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1646383 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

আদিবাসীদের স্বাস্থ্য পুষ্টি সংক্রান্ত স্বাস্থ্য পোর্টাল এবং ন্যাশনাল ওভারসীজ পোর্টাল তথা ন্যাশনাল ট্রাইবাল ফেলোশিপ পোর্টালের সূচনা
কেন্দ্রীয় আদিবাসী বিষয়ক মন্ত্রক আজ একগুচ্ছ উদ্যোগের কথা ঘোষণা করেছে। এর মধ্যে রয়েছে – আদিবাসী মানুষের স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সংক্রান্ত স্বাস্থ্য পোর্টাল এবং স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সংক্রান্ত ই-নিউজ লেটার। এছাড়াও, ন্যাশনাল ওভারসীজ পোর্টাল ন্যাশনাল ট্রাইবাল ফেলোশিপ পোর্টালেরও আজ সূচনা হয়েছে। এই উপলক্ষে বিভাগীয় মন্ত্রী শ্রী অর্জুন মুন্ডা বলেন, সকলের কাছে স্বাস্থ্য পরিচর্যা পৌঁছে দেওয়ার বিষয়টি আমাদের সরকারের কাছে সর্বাধিক অগ্রাধিকার পেয়ে থাকে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে জনস্বাস্থ্য ক্ষেত্রের মান বৃদ্ধি পেলেও আদিবাসী ও আদিবাসী বহির্ভূত মানুষের মধ্যে বিভেদ থেকেই গেছে। মন্ত্রক এই বিভেদ দূর করতে সেতু-বন্ধনের কাজে অঙ্গীকারবদ্ধ বলে শ্রী মুন্ডা অভিমত প্রকাশ করেন।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1646440 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

মুখতার আব্বাস নাকভি : মহামারীর বিপদ ভারতীয়দের কাছে যত্ন, প্রতিশ্রুতি আত্মবিশ্বাসের ইতিবাচক সময় হিসাবে প্রমাণিত হয়েছে, যা বিশ্ব জুড়ে সমগ্র মানবতার জন্য একটি উদাহরণ তৈরি করেছে
কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রী শ্রী মুখতার আব্বাস নাকভি আজ বলেছেন, মহামারীর বিপদ ভারতীয়দের কাছে যত্ন, প্রতিশ্রুতি ও আত্মবিশ্বাসের ইতিবাচক সময় হিসাবে প্রমাণিত হয়েছে, যা বিশ্ব জুড়ে সমগ্র মানবতার জন্য একটি উদাহরণ তৈরি করেছে। একটি ভ্রাম্যমাণ ক্লিনিকের উদ্বোধন করে শ্রী নাকভি আরও বলেন, মহামারীর সময় মানুষের জীবনশৈলী ও কর্মসংস্কৃতির ক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে। মানুষ এখন সমাজের প্রতি সেবা ও দায়বদ্ধতার ব্যাপারে অনেক বেশি অঙ্গীকারবদ্ধ। উল্লেখ করা যেতে পারে, জাতীয় সংখ্যালঘু উন্নয়ন ও অর্থ সহায়তা নিগমের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমাণ এই ক্লিনিকটি নতুন দিল্লির হোলি ফ্যামিলি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1646380 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।



পিআইবি’আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

হরিয়ানা : রাজ্যে কৃষি কাজকে ঝুঁকিমুক্ত করে তুলতে রাজ্য সরকার ‘মেরি ফসল মেরা বাইওরা’ পোর্টালের সূচনার কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানান, কোভিড মহামারীর সময় রবিশস্যের প্রতিটি দানা কৃষকদের কাছ থেকে এই পোর্টালের মাধ্যমে সংগ্রহ করা হয়েছে।

অরুণাচল প্রদেশ : রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৪৩ জনের সংক্রমণের ও ৩৭ জনের আরোগ্য লাভের খবর মিলেছে। রাজ্যে বর্তমানে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮৮৮।

আসাম : রাজ্য সরকার দারিদ্র্য দূরীকরণের জন্য ‘অরুণোদয়’ কর্মসূচি রূপায়ণের নীতি-নির্দেশিকা জারি করেছে। এই কর্মসূচির আওতায় ১৯ লক্ষেরও বেশি দরিদ্র পরিবার প্রতি মাসে ৮৩০ টাকা সাহায্য পাবেন।

মণিপুর : রাজ্যে আরও ১৭৯ জনের সংক্রমিত হওয়ার খবর মিলেছে। এদের মধ্যে ১১১ জন কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ান। রাজ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ৯২১ এবং সুস্থতার হার ৫৭ শতাংশ।

মিজোরাম : রাজ্যে গতকাল আরও ১৯ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৭৮৯ হয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৪১৮।

নাগাল্যান্ড : রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রী জানিয়েছেন, করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য ২৬১টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি করা হয়েছে। এর মধ্যে ২০৬টি সরকারি বাকি ৫৫টি বেসরকারি।

সিকিম : রাজ্যে আরও ১৯ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১ হাজার ১৬৭ হয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৯৩ জন। সুস্থ হয়েছেন ৬৭৩ জন রোগী।

কেরল : রাজ্যে আজ দুপুর পর্যন্ত আরও ৯ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৬৫ হয়েছে। রাজধানী শহরে কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে আরও ১১০ জন কারাবন্দী ও ৪ জন আধিকারিক নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। রাজ্যে ৪৭৭ জন কারাবন্দী এখনও পর্যন্ত করোনার শিকার। রাজ্যে গতকাল আরও ১ হাজার ৫৩০ জনের সংক্রমণের খবর মিলেছে। হাসপাতালগুলিতে ১৫ হাজারেরও বেশি রোগীর চিকিৎসা চলছে।

তামিলনাডু : কেন্দ্রশাসিত পন্ডিচেরীতে হাসপাতালের তুলনায় হোম আইসোলেশনে থাকা কোভিড আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা ৮ হাজারেরও বেশি। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ৫৯৬। এদিকে তামিলনাডুতে গতকাল আরও ১২৫ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনাতয় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫ হাজার ৭৬৬ হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৩৮ হাজার ছাড়িয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫৪ হাজার ১০৯।

কর্ণাটক : রাজ্য কোভিড-১৯ নজরদারি কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী, উপসর্গ রয়েছে, এমন ব্যক্তিদের মধ্যে নিশ্চিত করোনায় আক্রান্তের হার ৩৪.৮ শতাংশ, অন্যদিকে স্বল্প উপসর্গবিশিষ্ট রোগীদের মধ্যে ১৩.৪ শতাংশ মারণ এই ভাইরাসের বাহক। রাজ্যে গতকাল আরও ১২৪ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩ হাজার ৯৪৭ হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২ লক্ষ ২৭ হাজার।

অন্ধ্রপ্রদেশ : রাজ্য পর্যটন উন্নয়ন নিগমের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ক্রমবর্ধমান করোনা ভাইরাসের প্রোকোপের দরুণ রাজ্যের পর্যটন কেন্দ্রগুলি বন্ধ থাকছে। এদিকে কাদাপা জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৬ হাজার ছাড়িয়েছে। সারা রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২ লক্ষ ৯০ হাজার। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৮৬ হাজার। এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৬৫০ জনের।

তেলেঙ্গানা : হায়দরাবাদে ভেন্টিলেশন উদ্ভাবনের একাধিক প্রচেষ্টার মধ্যে শীঘ্রই এখন থেকে ভেন্টিলেটর রপ্তানি শুরু হবে। এদিকে রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ১০ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭০৩ হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ৯২ হাজার ছাড়িয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২১ হাজার ৪২০ জন এবং আরোগ্য লাভ করেছেন ৭০ হাজার ১৩২ জন।

মহারাষ্ট্র : রাজ্যের বেশ কিছু প্রত্যন্ত জেলায় কোভিড সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। রাজ্য সরকার মানকাপুরে ১ হাজার শয্যাবিশিষ্ট আরও একটি হাসপাতাল স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত ৫ লক্ষ ৯৫ হাজার জনের মধ্যে ৪ লক্ষ ১৭ হাজার আরোগ্য লাভ করেছেন। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৫৮ হাজার।

রাজস্থান : রাজস্থান হাইকোর্ট যাবতীয় কাজকর্ম বুধবার পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির করোনায় আক্রান্ত হওয়ার প্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ হাজার ৪৫১ জন।

মধ্যপ্রদেশ : রাজ্যে গতকাল আরও ১ হাজার ২২ জনের সংক্রমিত হওয়ার এবং ৬৮৫ জন রোগীর আরোগ্য লাভের খবর মিলেছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা এখনও পর্যন্ত ১০ হাজার ৩১২।

ছত্তিশগড় : রাজ্যে গতকাল আরও ৫৭৬ জনের সংক্রমিত হওয়ার খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৫ হাজার ৬২১ হয়েছে। গতকাল আরও ৮ জন রোগীর মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে এখনও পর্যন্ত মারণ এই ভাইরাসের বলি ১৪২ জন।

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1646554) Visitor Counter : 12