PIB Headquarters

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ তথ্য; করোনায় ভারতে মৃত্যু হার ধারাবাহিকভাবে কমছে এবং এই হার ২.২৮ শতাংশ; সুস্থতার সংখ্যা ৯ লক্ষের বেশি; পরপর চারদিন দৈনিক ৩০ হাজারের বেশি রোগী সুস্থ হয়েছেন ব্যাপক হারে নমুনা পরীক্ষা এবং হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের উপযুক্ত চিকিৎসা পরিষেবা প্রদানের মাধ্যমে আক্রান্তদের আগাম চিহ্নিতকরণ তথা আইসোলেশন কৌশল গ্রহণ করে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলির নিরন্তর প্রচেষ্টার ফলে দেশে করোনায় মৃত্যু হার ধারাবাহিকভাবে কমছে। সংক্রমিত এলাকাগুলিতে বিশেষ কৌশল গ্রহণ, ব্যাপক হারে নমুনা পরীক্ষা এবং আদর্শ চিকিৎসা পদ্ধতি অনুসরণ করে মৃত্যু হার দৈনিক কমে আসছে। ভারতে মৃত্যু হার কমে বর্তমানে দাঁড়িয়েছে ২.২৮ শতাংশ। বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতে মৃত্যু হার অনেক কম। দেশে পরপর চারদিন দৈনিক ভিত্তিতে ৩০ হাজারের বেশি মানুষ সুস্থ হয়েছেন। গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩১,৯৯১ জন। এর ফলে, সুস্থতার সংখ্যা ৯ লক্ষ ছাড়িয়ে বর্তমানে ৯ লক্ষ ৭০ হাজার ৫৬৭ হয়েছে। সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৬৪ শতাংশ। মৃত্যু হার ক্রমশ হ্রাস পাওয়ায় এবং অধিক সংখ্যায় সুস্থতার ফলে সুস্থতার সংখ্যা আক

Posted On: 27 JUL 2020 6:51PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২৭ জুলাই, ২০২০

 

 

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ তথ্য; করোনায় ভারতে মৃত্যু হার ধারাবাহিকভাবে কমছে এবং এই হার ২.২৮ শতাংশ; সুস্থতার সংখ্যা লক্ষের বেশি; পরপর চারদিন দৈনিক ৩০ হাজারের বেশি রোগী সুস্থ হয়েছেন
ব্যাপক হারে নমুনা পরীক্ষা এবং হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের উপযুক্ত চিকিৎসা পরিষেবা প্রদানের মাধ্যমে আক্রান্তদের আগাম চিহ্নিতকরণ তথা আইসোলেশন কৌশল গ্রহণ করে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলির নিরন্তর প্রচেষ্টার ফলে দেশে করোনায় মৃত্যু হার ধারাবাহিকভাবে কমছে। সংক্রমিত এলাকাগুলিতে বিশেষ কৌশল গ্রহণ, ব্যাপক হারে নমুনা পরীক্ষা এবং আদর্শ চিকিৎসা পদ্ধতি অনুসরণ করে মৃত্যু হার দৈনিক কমে আসছে। ভারতে মৃত্যু হার কমে বর্তমানে দাঁড়িয়েছে ২.২৮ শতাংশ। বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতে মৃত্যু হার অনেক কম।
দেশে পরপর চারদিন দৈনিক ভিত্তিতে ৩০ হাজারের বেশি মানুষ সুস্থ হয়েছেন। গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩১,৯৯১ জন। এর ফলে, সুস্থতার সংখ্যা ৯ লক্ষ ছাড়িয়ে বর্তমানে ৯ লক্ষ ৭০ হাজার ৫৬৭ হয়েছে। সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৬৪ শতাংশ।
মৃত্যু হার ক্রমশ হ্রাস পাওয়ায় এবং অধিক সংখ্যায় সুস্থতার ফলে সুস্থতার সংখ্যা আক্রান্তের সংখ্যার (৪ লক্ষ ৮৫ হাজার ১১৪) তুলনায় আজ পর্যন্ত বেড়ে হয়েছে ৪ লক্ষ ৩২ হাজার ৪৫৩। হাসপাতাল ও হোম আইসোলেশনে থাকা নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত সমস্ত রোগীকে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া হচ্ছে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1641486 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

করোনার সময় আয়ুষ্মান ভারত – স্বাস্থ্য রোগী কল্যাণ কেন্দ্রগুলির গুরুত্ব অনেক বেশি অনুভূত হয়েছে
কোভিড-১৯ মহামারীর সময় ভারতের জনস্বাস্থ্য ক্ষেত্রের সহজাত ক্ষমতা, বিশেষ করে গ্রামীণ প্রত্যন্ত এলাকাগুলিতে আয়ুষ্মান ভারত স্বাস্থ্য ও রোগী কল্যাণ কেন্দ্র চালু হওয়ার মাধ্যমে প্রতিফলিত হয়েছে। এই কেন্দ্রগুলি কোভিড-১৯ প্রতিরোধ ও মোকাবিলার মতো গুরু দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি, কোভিড বহির্ভূত জরুরি স্বাস্থ্য পরিষেবা অব্যাহত রেখেছে। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুলাই পর্যন্ত করোনা মহামারীর সময় অতিরিক্ত ১৩ হাজার ৬৫৭টি স্বাস্থ্য ও রোগী কল্যাণ কেন্দ্র চালু হয়েছে। গত ২৪শে জুলাই পর্যন্ত দেশে ৪৩ হাজার ২২টি এ ধরনের কেন্দ্র চালু হয়েছে। এমনকি, ১৮-২৪শে জুলাই পর্যন্ত সপ্তাহটিতে এই কেন্দ্রগুলির মাধ্যমে মানুষ স্বাস্থ্য পরিষেবা পেয়েছেন।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1641512 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।


বাল্ক ড্রাগ পার্ক এবং মেডিকেল ডিভাইসেস পার্ক স্থাপনের পথ সুগম করতে শ্রী সদানন্দ গৌড়া প্রয়োজনীয় কর্মসূচি নীতি-নির্দেশিকার ঘোষণা করলেন
কেন্দ্রীয় রসায়ন ও সার মন্ত্রী শ্রী পি ভি সদানন্দ গৌড়া আজ এখানে বাল্ক ড্রাগ এবং মেডিকেল ডিভাইসেস পার্ক গড়ে তুলে দেশেই আরও বেশি পরিমাণে ওষুধপত্র তথা চিকিৎসা সরঞ্জাম উৎপাদনের প্রসারে ফার্মাসিউটিকাল দপ্তরের ৪টি কর্মসূচির সূচনা করেছেন। তিনি বলেন, ভারতকে প্রায়শই বিশ্বের ফার্মসি হিসাবে উল্লেখ করা হয়। কোভিড-১৯ মহামারীর সময় ভারতের এই স্বীকৃতি আরও বেশি করে প্রতিফলিত হয়েছে। মহামারীর সময় ভারত লকডাউন সত্ত্বেও জীবনদায়ী ওষুধপত্র বিভিন্ন দেশে রপ্তানি করেছে। এমনকি, কিছু কিছু দেশে বিনামূল্যে ওষুধপত্র যোগান দিয়েছে। অবশ্য, ফার্মাসিউটিকাল ক্ষেত্রে এই সাফল্য সত্ত্বেও কিছু কাঁচামালের ওপর দেশে এখনও আমদানির ওপর নির্ভর করতে হয়। এটা নিঃসন্দেহে বড় উদ্বেগের কারণ। ওষুধ প্রস্তুত ক্ষেত্রে কাঁচামালের যোগানে ঘাটতি দূর করতে দেশে বাল্ক ড্রাগ পার্ক গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এ ধরনের পার্কগুলিতে সর্বাধিক ১৩৬টি ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম নির্মাতা সংস্থাকে বিশেষ আর্থিক উৎসাহভাতা দেওয়া হবে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1641517 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

ভারতীয় রেল ১০টি ব্রডগেজ লোকোমোটিভস বাংলাদেশের হাতে তুলে দিল
ভারতের বিদেশ মন্ত্রী ডঃ এস জয়শঙ্কর এবং রেলমন্ত্রী শ্রী পীযূষ গোয়েল আজ এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের হাতে ১০টি ব্রডগেজ লোকোমোটিভস বা রেল ইঞ্জিন তুলে দিয়েছেন। রেল ইঞ্জিন হস্তান্তরের জন্য ভার্চ্যুয়ালি আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে রেল প্রতিমন্ত্রী শ্রী সুরেশ সি অঙ্গাদি, বাংলাদেশের রেল মন্ত্রী মহম্মদ নরুল ইসলাম সুজন এবং সেদেশের বিদেশ মন্ত্রী ডঃ আবুল কালাম আব্দুল মোমেন বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে এই রেল ইঞ্জিনগুলি গ্রহণ করেন। ভারত সরকারের পক্ষ থেকে বিশেষ অনুদান সহায়তার অঙ্গ হিসাবে এই রেল ইঞ্জিনগুলি বাংলাদেশের হাতে তুলে দেওয়া হ’ল। ২০১৯ সালের অক্টোবরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের সময় সেদেশকে সহায়তার ব্যাপারে যে অঙ্গীকার করা হয়েছিল, আজ এই ইঞ্জিনগুলি তুলে দেওয়ার মাধ্যমে তা পূর্ণ হ’ল। বাংলাদেশ রেলের চাহিদার বিষয়টিকে বিবেচনায় রেখে ভারতের পক্ষ থেকে রেল ইঞ্জিনগুলি যথাযথভাবে তৈরি করা হয়েছে। এই রেল ইঞ্জিনগুলি বাংলাদেশে ক্রমবর্ধমান যাত্রী ও পণ্যবাহী ট্রেন পরিষেবার চাহিদা মেটাতে সাহায্য করবে।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1641503 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

পঠন-পাঠন ক্ষেত্রে কোভিড জনিত সমস্যায় চিন্তিত না হওয়ার জন্য ছাত্রছাত্রীদের পরামর্শ দিলেন উপ-রাষ্ট্রপতি
উপ-রাষ্ট্রপতি শ্রী এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু আজ জোর দিয়ে বলেছেন, গণমাধ্যম ক্ষেত্রে, বিশেষ করে নতুন ধরনের গণমাধ্যম ব্যবস্থায় আজকাল যে বিভ্রান্তিকর ও প্রতারণাপূর্ণ সংবাদ প্রকাশিত হচ্ছে, তা থেকে শিশুদের দূরে রাখা প্রয়োজন। উপ-রাষ্ট্রপতি আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে টাইমস্ স্কলার্স ইভেন্টে যোগ দিয়ে ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেন, সত্যকে মেনে নেওয়ার এবং সত্যকে দূরে সরিয়ে রাখার সহজাত ক্ষমতা ও বিশ্লেষণমূলক মানসিকতা গড়ে তুলতে হবে। শিক্ষা ক্ষেত্রে কোভিড জনিত বিপত্তির কথা উল্লেখ করে উপ-রাষ্ট্রপতি বলেন, এই মহামারী বহু ছাত্রছাত্রীর মধ্যে উদ্বেগ ও মানসিক চাপ তৈরি করেছে। কিন্তু, এসবে বিচলিত না হয়ে মানসিক সংযম কায়েম করা অত্যন্ত জরুরি। প্রসঙ্গত, তিনি ছাত্রছাত্রীদের নিয়মিতভাবে যোগচর্চার পরামর্শ দেন, যাতে দৈহিক ভারসাম্য বজায় রাখার পাশাপাশি, মানসিক চাপ ও উদ্বেগ নিয়ন্ত্রণ করার ক্ষমতা গড়ে তোলা যায়।
বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1641527 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।





পিআইবি’আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

পাঞ্জাব : কোভিড-১৯ সামগ্রীর সরবরাহ-শৃঙ্খলে তাৎক্ষণিক নজরদারি চালাতে রাজ্য সরকার এক কার্যকর ভ্যাকসিন ইন্টেলিজেন্স নেটওয়ার্ক ব্যবহার করছে। এই ব্যবস্থা প্রয়োগ করার ফলে অত্যাবশ্যক সামগ্রীর চাহিদা ও সরবরাহের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে বড় সাফল্য মিলেছে।

হিমাচল প্রদেশ : আন্তঃরাজ্য যাতায়াতের ক্ষেত্রে জারি করা নির্দেশে রাজ্য সরকার আংশিক সংশোধন করেছে। এই সংশোধনের ফলে ছাত্রছাত্রী বা পরীক্ষার্থী এবং তাঁদের সঙ্গে থাকা অভিভাবকরা প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষাগুলিতে বসার জন্য রাজ্যের বাইরে যেতে পারবেন।

মহারাষ্ট্র : রাজ্য মন্ত্রিসভার আরও একজন সদস্য, যিনি পরিবেশ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী তাঁর করোনায় সংক্রমণের খবর মিলেছে। এদিকে বৃহন মুম্বাই পুর এলাকায় কোভিড-১৯ সংক্রান্ত নমুনা পরীক্ষার জন্য রক্তের উপাদান সংগ্রহের প্রথম পর্যায়ের সমীক্ষা শেষ হয়েছে। রাজ্যে আজ পর্যন্ত নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৪৮ হাজার।

গুজরাট : রাজ্যে গতকাল আরও ১ হাজার ১১০ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫৫ হাজার ৮২২। এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৪০ হাজার ৩৬৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৩২৬ জনের।

রাজস্থান : রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৭ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬৩১। আক্রান্তের সংখ্যা ৩৬ হাজার ছাড়িয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ১২৪ জন। সুস্থ হয়েছেন ২৬ হাজার ১২৩ জন।

মধ্যপ্রদেশ : রাজ্যে গতকাল আরও ৮৭৪ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭ হাজার ৮৫৭। এমনকি, গতকাল আরও ১২ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে।

অরুণাচল প্রদেশ : সংশোধিত আদর্শ কর্মপরিচালন বিধি অনুযায়ী রাজ্য সরকার স্বীকৃত ঠিকাদারদের বড় মাপের প্রকল্পগুলিতে সর্বাধিক ৫০ জন শ্রমিককে কাজে লাগানোর অনুমতি দিয়েছে।

আসাম : জোরহাট মেডিকেল কলেজে আজ থেকে আরও একটি ভাইরাল রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ল্যাবরোটরিজ চালু হয়েছে। এর ফলে, রাজ্যে এ ধরনের পরীক্ষাগারের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ১৭।

মণিপুর : রাজ্যের কোভিড-১৯ কমন কন্ট্রোল রুমের মুখপাত্র জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত কোনও এলাকা থেকে গোষ্ঠী সংক্রমণের খবর নেই।

নাগাল্যান্ড : কোহিমা জেলা প্রশাসন কোভিড-১৯ আক্রান্ত এক ব্যক্তির হদিশ মেলায় মিমা গ্রামকে সীল করে দিয়েছে।

সিকিম : রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পরিকল্পনা পর্যালোচনায় টাস্কফোর্সের সঙ্গে আজ উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করেছে।

কেরল : রাজ্য মন্ত্রিসভার বিশেষ বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, রাজ্যব্যাপী পুনরায় লকডাউন কার্যকর করা যুক্তিগ্রাহ্য হবে না। এদিকে গতকাল আরও ৯২৭ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ হাজার ছাড়িয়েছে। বর্তমানে ৯ হাজার ৬৫৫ জন রোগীর চিকিৎসা চলছে।

তামিলনাডু : কেন্দ্রশাসিত পন্ডিচেরীর আরও একজন বিধায়কের করোনায় সংক্রমণের খবর মেলায় বিধানসভা ভবন আজ ও কাল বন্ধ থাকছে। মাদুরাইয়ে সরকারি রাজাজী হাসপাতালে ২৯ জন নার্স ও চিকিৎসকের নমুনা পরীক্ষায় কোভিডের উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে। এদিকে তামিলনাডুতে গতকাল আরও ৮৫ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩ হাজার ৪৯৪। রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ ১৩ হাজার ছাড়িয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৩ হাজার ৭০৩ জন।

কর্ণাটক : স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের সমীক্ষা অনুযায়ী, দেশের সমস্ত মধ্যে কর্ণাটক কোভিড সংক্রান্ত যথপোযুক্ত তথ্য প্রদানের ক্ষেত্রে সবচেয়ে ভালো কাজ করেছে। এদিকে রাজ্যের অরণ্য মন্ত্রীর কোভিড-১৯ সংক্রমণ হয়েছে। রাজ্যে গতকাল করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৯৬ হাজার ১৪১ হয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫৮ হাজার ৪১৭।

অন্ধ্রপ্রদেশ : রাজ্য সরকার কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষা সংক্রান্ত নীতি-নির্দেশিকা জারি করে বলেছে, কেবল আইসিএমআর স্বীকৃত নমুনা পরীক্ষাগারগুলি থেকে করোনা ভাইরাসের নমুনা যাচাই করা যাবে। রাজ্যে গতকাল আরও ৫৬ জনের মৃত্যুর খবর মেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১ হাজার ৪১ হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ৯৬ হাজার ছাড়িয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮ হাজার ৯৫৬ জন।

তেলেঙ্গানা : হায়দরাবাদ-ভিত্তিক আরও একটি সংস্থা কোভিড-১৯ সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। আভরা ল্যাবরেটরিজ নামে এই সংস্থাটি শীঘ্রই কোভিড-১৯ প্রতিষেধক সিপ্লেঞ্জা নিয়ে আসতে চলেছে। এদিকে রাজ্যে রবিবার আরও ১ হাজার ৪৭৩ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৫৫ হাজার ৫০০ ছাড়িয়েছে। নিশ্চিতভাবে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১২ হাজার ৯৫৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪৭১ জনের।

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1641671) Visitor Counter : 33