অর্থমন্ত্রক

প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ প্যাকেজ : এপর্যন্ত গৃহীত উদ্যোগ

Posted On: 13 APR 2020 4:11PM by PIB Kolkata

নতুনদিল্লি, ১৩ এপ্রিল, ২০২০

 

 


v₪  প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ প্যাকেজের আওতায় ৩২ কোটির বেশি দরিদ্র মানুষের ২৯,৩৫২ কোটি টাকা আর্থিক সাহায্য লাভ।

v₪  প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ অন্ন যোজনার আওতায় ৫ কোটি ২৯ লক্ষ সুবিধাভোগীকে বিনামূল্যে খাদ্যশস্য প্রদান।

v₪  উজ্জ্বলা যোজনার আওতায় ২৭ লক্ষ ৮০ হাজার বিনামূল্যে রান্নার গ্যাস সিলিন্ডার বন্টন।

v₪  কর্মচারী ভবিষ্যনিধি সংগঠনের ২ লক্ষ ১০ হাজার সদস্য অনলাইনের মাধ্যমে অগ্রিম অফেরৎযোগ্য ৫১০ কোটি টাকা পেয়েছেন।

v₪  পিএম – কিষাণের প্রথম কিস্তি : ৭ কোটি ৪৭ লক্ষ কৃষকের অ্যাকাউন্টে ১৪,৯৪৬ কোটি টাকা জমা পড়েছে।

v₪  জনধন অ্যাকাউন্ট আছে এরকম ১৯ কোটি ৮৬ লক্ষ মহিলাকে ৯৯৩০ কোটি টাকা বন্টন।

v₪  প্রবীণ নাগরিক, বিধবা এবং ভিন্নভাবে সক্ষম ২ কোটি ৮২ লক্ষ সুবিধাভোগীর অ্যাকাউন্টে মোট ১৪ হাজার কোটি টাকা জমা পড়েছে।

v₪    ২ কোটি ১৭ লক্ষ নির্মাণকর্মী ৩০৭১ কোটি টাকা আর্থিক সহায়তা পেয়েছেন।

দেশজুড়ে কোভিড – ১৯ মোকাবিলায় লকডাউনের পরিস্থিতিতে যাতে দরিদ্র মানুষের স্বার্থ সুরক্ষিত থাকে সেই কারণে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ, ২৬ মার্চ, ১ কোটি ৭০ লক্ষ কোটি টাকার প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ প্যাকেজ (পিএমজিকেপি) ঘোষণা করেন।


এই প্যাকেজে সরকার, দরিদ্র মহিলা ও প্রবীণ নাগরিক এবং কৃষকদের বিনামূল্যে খাদ্যশস্যের বন্দোবস্ত করেছে। এই প্যাকেজের দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারগুলি অত্যন্ত সক্রিয়। ফিনটেক এবং ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে সুবিধাভোগীদের অ্যাকাউন্টে দ্রুত অর্থ পাঠানো গেছে। উপভোক্তাদের এই টাকা নেওয়ার জন্য সশরীরে ব্যাঙ্কে যেতে হচ্ছে না।
১৩ এপ্রিল পর্যন্ত ২৯,৩৫২ কোটি টাকা ৩২ কোটি ৩২ লক্ষ উপভোক্তার অ্যাকাউন্টে সরাসরি টাকা চলে গেছে।

প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ অন্ন যোজনাঃ-

এপর্যন্ত ৩১টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল বরাদ্দকৃত ৪০ লক্ষ মেট্রিকটন খাদ্যশস্যের মধ্যে ২০ লক্ষ মেট্রিকটনের বেশি খাদ্যশস্য সংগ্রহ করেছে। ৩৯৮৫ মেট্রিকটন দানাশস্য বিভিন্ন রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের জন্য পাঠানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনার আওতায় বিনামূল্যে গ্যাস প্রাপকরাঃ—

এপর্যন্ত ৯৭ লক্ষ ৮০ হাজার গ্যাস সিলিন্ডার সুবিধাভোগীদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

প্রভিডেন্ট ফান্ডের থেকে অর্থ প্রাপ্তি

প্রভিডেন্ট ফান্ডের নিয়মের সংশোধনের মাধ্যমে ২ লক্ষ ১০ হাজার কর্মচারীর আবেদনের প্রেক্ষিতে ৫১০ কোটি টাকা বন্টন করা হয়েছে। এই ব্যবস্থায় ফেরৎযোগ্য নয় এমন ক্ষেত্রে কর্মচারীরা তাদের ৩ মাসের মূল বেতন ও মহার্ঘ্য ভাতা অথবা ইপিএফ তহবিলে জমা পড়া অর্থের ৭৫ শতাংশ, যেটি কম হবে, সেটি পাবেন। প্রাপ্ত অর্থ আয়করযোগ্য হবে না।

এমএনআরইজিএ

১ এপ্রিল থেকে বর্তমান অর্থবছরের জন্য ১৯ লক্ষ ৫৬ হাজার কর্মদিবস তৈরির নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। এছাড়া এই খাতে রাজ্যগুলির বকেয়া ৭১০০ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে।


সরকারী হাসপাতালে এবং স্বাস্থ্য কেন্দ্রে কর্মরত ২২ লক্ষ ১২ হাজার স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য নিউ ইন্ডিয়া অ্যাসুরেন্স কোম্পানি বীমা চালু হয়েছে।


পিএম কিষাণ যোজনার আওতায় ৮ কোটি সুবিধাভোগীর মধ্যে ৭ কোটি ৪৭ লক্ষ সুবিধাভোগীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে প্রথম কিস্তির ২০০০ টাকা জমা পড়েছে।


১৯ কোটি ৮৬ লক্ষ মহিলাকে তাদের জনধন অ্যাকাউন্টে ৫০০ টাকা আর্থিক সহায়তাবাবদ টাকা জমা দেবার কাজ শুরু হয়েছে। আজ পর্যন্ত ৯,৯৩০ কোটি টাকা বন্টন করা হয়েছে। 


প্রবীণ নাগরিক, বিধবা এবং ভিন্নভাবে সক্ষমদের জন্য ন্যাশন্যাল সোশ্যাল অ্যাসিস্টেন্স প্রোগ্রামে মোটা ১ হাজার ৪০০ কোটি টাকা বন্টন করা হয়েছে। এই প্রকল্পের ২ কোটি ৮২ লক্ষ সুবিধাভোগীরা ইতিমধ্যেই ৫০০ টাকা করে পেয়েছেন। আগামী মাসে তাঁরা আরো ৫০০ টাকা পাবেন।


বিল্ডিং এন্ড কনস্ট্রাকশন ওয়ার্কার ফান্ড  থেকে ২ কোটি ১৭ লক্ষ নির্মাণকর্মীকে ৩,০৭১ কোটি টাকা  দেওয়া হয়েছে।
 

 

 


CG/CB



(Release ID: 1614098) Visitor Counter : 288