প্রধানমন্ত্রীরদপ্তর

এফআইপিআইসি-র তৃতীয় শিখর সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর সমাপ্তি ভাষণ

Posted On: 22 MAY 2023 2:32PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২২ মে, ২০২৩


মাননীয়গণ,

আপনাদের মতামতের জন্য ধন্যবাদ। আমাদের আলোচনার মাধ্যমে যে বিষয় ফুটে উঠেছে নিঃসন্দেহে তা নিয়ে আমরা বিচার-বিবেচনা করব। প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জের চাহিদাসমূহ এবং আমাদের অভিন্ন কিছু অগ্রাধিকারের ক্ষেত্র রয়েছে। এই মঞ্চে আমাদের প্রয়াস হবে এই উভয় বিষয়কে মাথায় রেখে এগিয়ে যাওয়া। এফআইপিআইসি-র সঙ্গে সহযোগিতা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি করা ছাড়াও আমি কয়েকটি ঘোষণা করতে চাই :

(১) প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকায় স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রসারের লক্ষ্যে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে ফিজি-তে একটি সুপার স্পেশালিটি কার্ডিওলজি হাসপাতাল তৈরি করার। এই হাসপাতালে প্রশিক্ষিত কর্মীবৃন্দ, অত্যাধুনিক সরঞ্জাম এবং পরিকাঠামো থাকবে। এই হাসপাতাল এই এলাকার প্রয়োজন মেটাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে। এই বৃহৎ গ্রিনফিল্ড প্রকল্পের যাবতীয় ব্যয়ভার বহন করবে ভারত সরকার।

(২) ভারত ১৪টি প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশে ডায়ালিসিস ইউনিট স্থাপনে সাহায্য করবে।

(৩) এই ১৪টি প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশেই সি-অ্যাম্বুলেন্স প্রদান করা হবে।

(৪) ২০২২ সালে ফিজি-তে জয়পুর ফুট (কৃত্রিম পা) শিবির আয়োজন করা হয়। এই শিবিরে ৬০০-রও বেশি মানুষকে নিখরচায় কৃত্রিম পা প্রদান করা হয়। বন্ধুগণ, এই উপহার যাঁরা পেয়েছেন তাঁদের মনে হয়েছে যে তাঁরা যেন এক নতুন জীবন উপহার পেলেন।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জ এলাকার পাপুয়া নিউ গিনি-তে এ বছর আমরা জয়পুর ফুট (কৃত্রিম পা) শিবিরের আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ২০২৪ থেকে শুরু হয়ে প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলিতে প্রতি বছর দুটি করে এই জাতীয় শিবিরের আয়োজন করা হবে।

(৫) ভারতে জনঔষধি প্রকল্পে ১,৮০০-টিরও বেশি উচ্চমানের জেনেরিক ওষুধ সাশ্রয়ী মূল্যে সাধারণ মানুষকে দেওয়া হয়ে থাকে। উদাহরণ হিসেবে মধুমেহ প্রতিরোধক ওষুধ জনঔষধি কেন্দ্রে বাজার মূল্যের তুলনায় ৯০ শতাংশ সাশ্রয়ী মূল্যে পাওয়া যায়। অন্যান্য ওষুধগুলিও বাজার মূল্যের ৬০-৯০ শতাংশ কম দামে পাওয়া যায়। আমি প্রস্তাব করছি, অনুরূপ জনঔষধি কেন্দ্র আপনাদের দেশেও চালু করার জন্য।

(৬) বৈজ্ঞানিক সমীক্ষায় দেখা গেছে যে মধুমেহ-র মতো জীবনশৈলী রোগ প্রতিরোধে যোগচর্চা উচ্চ ফলপ্রদ ভূমিকা নিতে পারে। এই সুবিধা প্রসারের জন্য আমি প্রস্তাব করছি যে আপনাদের দেশগুলিতে অনুরূপ যোগচর্চা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার।

(৭) পাপুয়া নিউ গিনি-তে তথ্যপ্রযুক্তির জন্য সেন্টার অফ এক্সলেন্স-কে আরও আধুনিক করে তুলে তাকে ‘রিজিওনাল ইনফরমেশন টেকনলজি অ্যান্ড সাইবার সিকিউরিটি হাব’-এ রূপান্তরিত করা হবে।

(৮) ফিজি-র নাগরিকদের জন্য ২৪ ঘন্টা ৭ দিনের এক জরুরি হেল্পলাইন চালু করা হবে এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলিতে অনুরূপ সুবিধা গড়ে তোলার ক্ষেত্রে সাহায্য করতে পারলে আমরা আনন্দিত হব।

(৯) প্রত্যেক প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশে এসএমই ক্ষেত্রের বিকাশের জন্য একটি প্রকল্পের আমি প্রস্তাব করছি। এই প্রকল্পে যন্ত্রসামগ্রী ও প্রযুক্তি সরবরাহ করা হবে এবং সক্ষমতা বৃদ্ধির কর্মসূচি দক্ষতা বিকাশের লক্ষ্যে পরিচালিত হবে।

(১০) প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপ রাষ্ট্রের প্রধানদের বাসস্থানগুলি সৌরশক্তির সঙ্গে যুক্ত করার একটি প্রকল্প আপনারা সাদরে গ্রহণ করেছেন। এখন আমরা সমস্ত এফআইপিআইসি দেশগুলিতে অন্ততপক্ষে একটি সরকারি ভবনকে সৌরশক্তি পরিচালিত করতে চাই।

(১১) জলসঙ্কট নিরসনে প্রত্যেক প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশের জনগণের জন্য আমরা লবণমুক্ত জল সরবরাহ ইউনিট গড়ে তোলার অঙ্গীকার করছি।

(১২) দক্ষতা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে আমাদের দীর্ঘস্থায়ী সঙ্কল্পকে এগিয়ে নিয়ে যেতে আমি প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলির জন্য আজ ‘সাগর অম্রুত স্কলারশিপ’ ঘোষণা করছি। এই কর্মসূচির আওতায় ১ হাজার আইটিইসি সংক্রান্ত প্রশিক্ষণের সুবিধা আগামী পাঁচ বছরের জন্য প্রদান করা হবে।

মাননীয়গণ,

আজ এখানে আমি আমার ভাষণ সমাপ্ত করছি। এই মঞ্চের প্রতি আমার বিশেষ নৈকট্য রয়েছে।মানব সহযোগের সমন্বয়ে অসীম সম্ভাবনার সুযোগ সমস্ত সীমাকে অতিক্রম করে যায়। আরও একবার আজকে আপনাদের এখানে উপস্থিতির জন্য আমি আমার আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

আমি আশা করছি আগামীবার ভারতে আপনাদেরকে আমন্ত্রণ জানানোর সুযোগ আমাদের হবে।

ধন্যবাদ!

প্রধানমন্ত্রীর তাঁর মূল ভাষণ হিন্দিতে দিয়েছিলেন

 


PG/AB/DM/



(Release ID: 1926697) Visitor Counter : 112