PIB Headquarters

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পিআইবি’র প্রাত্যহিক সংবাদ

Posted On: 20 JUN 2020 7:00PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২০ জুন, ২০২০

 

 

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ তথ্য; এখনও পর্যন্ত লক্ষ ১৩ হাজার ৮৩০ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন; সুস্থতার হার বেড়ে ৫৪.১৩ শতাংশ

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় ৯ হাজার ১২০ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়েছেন। এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ২ লক্ষ ১৩ হাজার ৮৩০ জন। সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৫৪.১৩ শতাংশ। বর্তমানে ১ লক্ষ ৬৮ হাজার ২৬৯ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বর্তমানে ৭১৫টি সরকারি এবং ২৫৯টি বেসরকারি মিলিয়ে মোট ৯৭৪টি নমুনা পরীক্ষাগারে নিরন্তর কাজ চলছে। গত ২৪ ঘন্টায় ১ লক্ষ ৮৯ হাজার ৮৬৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৬৬ লক্ষ ১৬ হাজার ৪৯৬।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1632879 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে গ্রামে ফিরে আসা প্রবাসী শ্রমিকদের কর্মসংস্থান জীবিকার সুযোগ বৃদ্ধির জন্য প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানের সূচনা করলেন

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আজ ব্যাপক কর্মসংস্থানমূলক তথা গ্রামীণ মানুষকে নিয়ে কর্মসূচি রূপায়ণের জন্য গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানের সূচনা করেন। এই অভিযানের উদ্দেশ্য হ’ল – কোভিড-১৯ এর দরুণ ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী শ্রমিকদের কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দেওয়ার পাশাপাশি, জীবন-জীবিকার মানোন্নয়ন ঘটানো। বিহারে খাগাড়িয়া জেলার তেলিহার গ্রাম থেকে এই অভিযানের সূচনা হয়। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আয়োজিত এই অভিযানের সূচনা অনুষ্ঠানে ৬টি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ও প্রতিনিধিরা ছাড়াও একাধিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1632861 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানের সূচনা অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের মূল অংশ

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1632864 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

প্রবাসী শ্রমিক যাঁরা নিজের গ্রামে ফিরে এসেছেন তাঁদের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে সরকার পদক্ষেপ নিচ্ছে : শ্রী নরেন্দ্র সিং তোমর

কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন ও পঞ্চায়েতি রাজ মন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র সিং তোমর বলেছেন, কোভিড-১৯ মহামারীর দরুণ ভারত সহ সমগ্র বিশ্ব কঠিন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন। লকডাউন ঘোষণার সময় থেকেই গ্রামবাসী, দরিদ্র মানুষ, কৃষক ও শ্রমিকরা যে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন তার দূর করতে প্রধানমন্ত্রী শ্রী মোদী বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন। এই লক্ষ্যে মানুষের সমস্যা কিছুটা লাঘব করতে ১ লক্ষ ৭০ হাজার কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে। শ্রী তোমর আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সুদক্ষ নেতৃত্বে ও তাঁর কৌশলগত পরিকল্পনার দরুণ ভারত করোনা মহামারীর সময় উদ্ভূত চ্যালেঞ্জগুলিকে সুযোগে পরিণত করতে পেরেছে। তিনি প্রধানমন্ত্রীর দূরদৃষ্টির প্রশংসা করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযান এই দূরদৃষ্টির একটি উদাহরণ। দেশের যে ছয়টি রাজ্যের ১১৬টি জেলায় এই অভিযান গ্রহণ করা হয়েছে, সে প্রসঙ্গে শ্রী তোমর বলেন, ২৫টি ভিন্ন ভিন্ন ক্ষেত্রের শ্রমিকরা ১২৫ দিনের কাজের সুযোগ পাবেন। এই অভিযানের আওতায় শ্রমিক শ্রেণীর ১২৫ দিনের কর্মসংস্থান হবে এবং বিভিন্ন কর্মকাণ্ড মিশন মোড ভিত্তিতে রূপায়িত হবে। শ্রমিক শ্রেণীর মানুষের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে এ এক গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1632878 - এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ প্যাকেজ - পর্যন্ত অগ্রগতি

পিএম কিষাণ কর্মসূচির প্রথম কিস্তি বাবদ ৮ কোটি ৯৪ লক্ষ সুফলভোগীকে ১৭ হাজার ৮৯১ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে। জন ধন অ্যাকাউন্টধারী ২০ কোটি ৬৫ লক্ষ মহিলার অ্যাকাউন্টে প্রথম কিস্তি বাবদ ১০ হাজার ৩২৫ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে। জন ধন যোজনার মহিলা অ্যাকাউন্টধারী ২০ ৬২ লক্ষ সুফলভোগীর অ্যাকাউন্টে দ্বিতীয় কিস্তি বাবদ ১০ হাজার ৩১৫ কোটি টাকা এবং তৃতীয় কিস্তি বাবদ ১০ হাজার ৩১২ কোটি টাকা জমা করা হয়েছে। ২০ কোটি ৮১ লক্ষ বয়স্ক ব্যক্তি, বিধবা ও ভিন্নভাবে সক্ষম ব্যক্তিদের দ্বিতীয় কিস্তি বাবদ ২ হাজার ৮১৪ কোটি ১৫ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে। ২ কোটি ৩০ লক্ষ ভবন ও নির্মাণ শ্রমিক ৪ হাজার ৩১২ কোটি ৮২ লক্ষ টাকা আর্থিক সহায়তা পেয়েছেন। এখনও পর্যন্ত এপ্রিল মাসের জন্য ৩৬টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ১ কোটি ১৩ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য সংগ্রহ করেছে। এই রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির পক্ষ থেকে এপ্রিল মাসে ৭৪ কোটি ৩ লক্ষ সুফলভোগীকে ৩৭ লক্ষ ১ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য সরবরাহ করা হয়েছে। মে মাসে ৩৬টি রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ৭২ কোটি ৮৩ লক্ষ সুফলভোগীকে ৩৬ লক্ষ ৪২ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য বিতরণ করেছে। একইভাবে, জুন মাসে ২৯টি রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের পক্ষ থেকে ২৭ কোটি ১৮ লক্ষ সুফলভোগীকে ১৩ লক্ষ ৫৯ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য সরবরাহ করা হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1632863  – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

যথাযথভাবে হোম আইসোলেশন মেনে চলার জন্য জারি করা নীতি-নির্দেশিকাগুলি রাজ্যগুলিকে অনুসরণ করতে কেন্দ্রের চিঠি

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক হোম আইসোলেশন সংক্রান্ত সংশোধিত নীতি-নির্দেশিকা গত ১০ই মে জারি করে। এই নীতি-নির্দেশিকায় বলা হয়, স্বল্প উপসর্গ ও উপসর্গের আগাম লক্ষণ দেখা দিয়েছে এমন কোভিড-১৯ রোগীরা নিজে থেকেই হোম আইসোলেশনে থাকার সুবিধা নিতে পারেন। তবে, এ ধরনের সুবিধা গ্রহণের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির জন্য পৃথক শৌচাগারের ব্যবস্থা বা তার পরিচর্যাকারী থাকতে হবে। একইসঙ্গে, সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের তাঁর স্বাস্থ্য সংক্রান্ত পরিস্থিতি জেলাস্তরীয় নজরদারি আধিকারিককে নিয়মিতভাবে জানাতে হবে। মন্ত্রকের পক্ষ থেকে কোভিড-১৯ মহামারী সংক্রমণ প্রতিরোধে হম আইসোলেশন সংক্রান্ত নীতি-নির্দেশিকাগুলি কঠোরভাবে রূপায়ণের জন্য রাজ্যগুলিকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1632764 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

ব্যাঙ্কিং ক্ষেত্রগুলির রেপো রেট কমানো এবং ভারতের অগ্রগতির ক্ষেত্রে সম্পদ সৃষ্টির প্রচেষ্টাগুলিতে সরকার তীক্ষ্ণ নজর রাখছে : অর্থমন্ত্রী

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী শ্রীমতী নির্মলা সীতারমন পিএইচডি চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় বলেন, সরকার সর্বদাই সম্পদ সৃষ্টির গুরুত্বের বিষয়গুলিকে স্বীকৃতি দেয়। কারণ, এর ফলে দেশে আর্থ-সামাজিক অগ্রগতির পাশাপাশি, সম্পদ সৃষ্টির মাধ্যমে কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হয়। আমরা ব্যাঙ্কগুলির সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে রেপো রেট হ্রাস করার যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, সে ব্যাপারে তীক্ষ্ণ নজর রাখছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1632656 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

কোভিড-১৯ মোকাবিলার জন্য ভারত সরকার এবং এশীয় পরিকাঠামো বিনিয়োগ ব্যাঙ্কের মধ্যে ৭৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের ঋণ চুক্তি স্বাক্ষর

দরিদ্র ও নিপীড়িত মানুষদের ওপর কোভিড-১৯ মহামারীর বিরূপ প্রভাব মোকাবিলায় ভারতকে সাহায্য করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার ও এশীয় পরিকাঠামো বিনিয়োগ ব্যাঙ্কের মধ্যে ৭৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এই চুক্তি স্বাক্ষরের ফলে, কোভিড-১৯ এর আর্থ-সামাজিক প্রভাব মোকাবিলায় ভারত সরকারকে বাজেট সহায়তা যোগানো সম্ভব হবে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1632652 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

বলিউডের বহু প্রখ্যাত ব্যক্তি ২০২০- আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে সামিল হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন

২০২০-র আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের আর বাকি মাত্র একদিন। বর্তমান পরিস্থিতির কারণে বড় জমায়েত না করার যে পরামর্শ রয়েছে তার প্রেক্ষিতে মন্ত্রক এবারের যোগ দিবসের অনুষ্ঠান বাড়িতে থেকেই পরিবারের সঙ্গে পালন করার ব্যাপারেই উৎসাহিত করছে। লক্ষ লক্ষ মানুষ ইতিমধ্যেই এবারের যোগ দিবসের অনুষ্ঠানে সামিল হওয়ার জন্য নিজেদের আগ্রহের কথা জানিয়েছে। এর মধ্যে বলিউডের বহু প্রখ্যাত ব্যক্তিও রয়েছেন যাঁরা যোগ দিবসের অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন্য মানুষকে উৎসাহিত করতে বার্তা দিয়েছেন। সিনে জগতের এই প্রখ্যাত ব্যক্তিরা হলেন – চলচ্চিত্রাভিনেতা অক্ষয় কুমার, অনুষ্কা শর্মা, মিলিন্দ সোমন্দ এবং শিল্পা শেট্টি কুন্দ্রা।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1632913 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

প্রাইভেট চিকিৎসকদের কাছ থেকে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত ফিডব্যাক পেলেন ডঃ জিতেন্দ্র সিং

চিকিৎসা বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখার বিশেষজ্ঞ ও চিকিৎসকরা দেড় ঘন্টারও বেশি এক ওয়েবইনারে কোভিড-১৯ সম্পর্কে নিজেদের মতামত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ডঃ জিতেন্দ্র সিং-কে জানিয়েছেন। এর প্রেক্ষিতে ডঃ সিং বলেন, চিকিৎসক মহল ও ভারতের বর্তমান পরিকাঠামো চলতি মহামারীর সময় নিজেদের সক্ষমতার পরিচয় বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে পেরেছেন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1632686 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

ইন্ডিয়ান টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকনোমিক কো-অপারেশনন্যাশনাল সেন্টার ফর গুড গভর্ন্যান্স আয়োজিত সমাপ্তি অনুষ্ঠানে প্রশাসনিক সংস্কার গণঅভিযোগ দপ্তরের সচিবের ভাষণ

বিভিন্ন দেশের সিভিল সার্ভেন্টদের নিয়ে মহামারীর সময় সুপ্রশাসনের নিয়ম-নীতি অনুসরণে কোভিড-১৯ সম্পর্কিত দু’দিনের কর্মশিবিরের সমাপ্তি অনুষ্ঠানে ভাষণ দিলেন কেন্দ্রীয় প্রশাসনিক সংস্কার ও গণঅভিযোগ দপ্তরের সচিব ডঃ কে শিবাজী।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1632778 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

 

 

পিআইবি আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

 

    অরুণাচল প্রদেশ : রাজ্যে আরও ৩২ জনের নতুন করে করোনায় সংক্রমণের খবর মিলেছে। এঁদের মধ্যে অধিকাংশই রাজধানী এলাকার।

 

    মণিপুর : রাজ্যে নতুন করে আক্রান্তদের অধিকাংশই উখরুল জেলা থেকে। সর্বাধিক ৯৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন চুরাচাঁদপুর জেলা থেকে। এঁদের অধিকাংশই রাজ্যের বাইরে থেকে আসা।

 

    মিজোরাম : ১৮৪ জনের নমুনা পরীক্ষার পরিণাম এখনও আসেনি। রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ১৪০ এবং নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৩১ জন।

 

    নাগাল্যান্ড : রাজ্য সরকার নাগাল্যান্ডে প্রবেশ করার জন্য আদর্শ পরিচালন বিধি জারি করেছে। এই বিধি রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হবে। এখনও পর্যন্ত ৬,৯৭৯টি নমুনার পরিণাম জানা গেছে। বাকি ১,১৮৫টি নমুনার পরিণাম এখনও আসেনি।

 

    সিকিম : রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের বার্তায় স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন এবং সৌহার্দ্যপূর্ণ সমাজের জন্য সাধারণ মানুষকে নিয়মিত যোগচর্চার আবেদন জানিয়েছেন।

 

    চণ্ডীগড় : স্বাস্থ্য দপ্তরের আয়ুষ বিষয়ক নির্দেশালয়ের পক্ষ থেকে আগামীকাল ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উদযাপনের আয়োজন করা হয়েছে। অনলাইনে এই অনুষ্ঠানে আয়োজিত হবে।

 

    পাঞ্জাব : রাজ্যে কোভিড-১৯ আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসা পরিষেবার স্বার্থে সর্বশেষ চিকিৎসা পদ্ধতি সহ চিকিৎসকদের সবরকম সহায়তায় রাজ্যের চিকিৎসা-শিক্ষা ও গবেষণা দপ্তর চণ্ডীগড় পিজিআই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সমন্বয় বজায় রেখে কাজ করছে। কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসা-তত্ত্বাবধানের জন্য একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

 

    হরিয়ানা : ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের প্রাক্কালে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সাধারণ মানুষকে বাড়িতে থেকেই পরিবারের সঙ্গে যোগচর্চা অনুষ্ঠানে সামিল হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। এক বার্তায় মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, কোভিড-১৯ মহামারীর দরুণ আমাদের প্রত্যেককেই বাড়িতে থেকে এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে হবে।

 

    কেরল : রাজ্যের এক পুলিশ আধিকারিকের নমুনা পরীক্ষায় কোভিড-১৯-এর উপস্থিতির প্রমাণ মেলায় হাইকোর্টের এক বিচারপতি যিনি ওই পুলিশ আধিকারিকের সংস্পর্শে এসেছিলেন, তিনি নিজে সেলফ আইসোলেশন বেছে নিয়েছেন। রাজ্যে গতকাল আরও ১১৮ জনের সংক্রমণের খবর মিলেছে। এখনও পর্যন্ত ১,৩৮০ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এছাড়াও, ১ লক্ষ ৩২ হাজারের বেশি মানুষের ওপর নজর রাখা হচ্ছে।

 

    তামিলনাড়ু : রাজ্য সরকার দশম শ্রেণীর পড়ুয়াদের পরবর্তী শ্রেণীতে উত্তীর্ণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রাজ্যে গতকাল ২,১১৫ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪১ জনের। এর ফলে, আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫৪,৪৪৯। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৩,৫০৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬৬৬ জনের। কেবল চেন্নাইয়েই আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১৭ হাজার।

 

    কর্ণাটক : রাজ্যের ৮,২৮১ জন রোগীর মধ্যে কেবল ৩৬ জন ভেন্টিলেশনে রয়েছেন। রাজ্যে গতকাল আরও ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর ফলে, মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১২৪। রাজ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২,৯৪৩।

 

    অন্ধ্রপ্রদেশ : রাজ্যপাল বিশ্বভূষণ হরিচন্দন মানসিক শান্তি ও সুস্বাস্থ্যের জন্য বাড়িতে থেকেই যোগচর্চার আহ্বান জানিয়েছেন। রাজ্যে গতকাল আরও ৩৭৬ জনের করোনায় সংক্রমণের খবর মিলেছে। এর ফলে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬,২৩০। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩,০৬৯। এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৯৬ জনের।

 

    তেলেঙ্গানা : রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর আগামী পাঁচদিনে ৫০ হাজার নমুনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এদিকে গতকাল পর্যন্ত রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৫২৬। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২,৯৭৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৯৮ জনের।

 

    মহারাষ্ট্র : রাজ্যে কোভিড-১৯-এ আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ২৪ হাজার ৩৩১। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৫,৬৫১ জন। কেবল মুম্বাইয়েই মৃত্যু হয়েছে ১১৪ জনের। বৃহন্মুম্বাই পুর নিগম ১ হাজার শয্যা সহ একটি বিশেষ কোভিড-১৯ হাসপাতাল গড়ে তুলেছে।

 

    গুজরাট : রাজ্যে কোভিড-১৯-এ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৬,১৯৮। গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৫৪০ জনের আক্রান্তের খবর মিলেছে। রাজ্যে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১,৬১৯ জনের।

 

    রাজস্থান : রাজ্যে আজ সকাল পর্যন্ত আরও ১৭৮ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৪,৩১৪। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১১,১২১। এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩৩৩ জনের।

 

    মধ্যপ্রদেশ : রাজ্যে আরও ১৫৬ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১১,৫৮৩। মৃত্যু হয়েছে ৪৯৫ জনের। ভোপালে সপ্তাহের শেষে লকডাউন মেনে চলা হচ্ছে। অত্যাবশ্যক জিনিসপত্রের দোকান বাদে বাকি সমস্ত দোকান-প্রতিষ্ঠান শনিবার ও রবিবার বন্ধ থাকছে।

 

    ছত্তিশগড় : রাজ্যে গতকাল আরও ৭০ জনের করোনায় সংক্রমণের খবর মিলেছে। এর ফলে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২,০১৮। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৭০৩।

 

    গোয়া : রাজ্যে আরও ২০ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭২৫। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬০৭।

 

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1633036) Visitor Counter : 11