PIB Headquarters

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পিআইবি’র প্রাত্যহিক সংবাদ

Posted On: 10 JUN 2020 6:10PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১০ জুন, ২০২০

 

 

 

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের সর্বশেষ তথ্য; সুস্থ হওয়া ব্যক্তির সংখ্যা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে; আইসিএমআর ৫০ লক্ষেরও বেশি নমুনা পরীক্ষা করেছে; কোভিড-১৯ মোকাবিলায় রাজ্যগুলিকে সহায়তার জন্য ৬টি শহরে কেন্দ্রীয় দল মোতায়েন

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় ৫ হাজার ৯৯১ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এর ফলে, করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির সুস্থতার সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ৩৫ হাজার ২০৫। অন্যদিকে, করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা এখন ১ লক্ষ ৩৩ হাজার ৬৩২। এই প্রথমবার সুস্থ হওয়া ব্যক্তির সংখ্যা আক্রান্তের সংখ্যাকে ছাড়িয়ে গেল। দেশে সুস্থতার হার দাঁড়িয়েছে ৪৮.৮৮ শতাংশ।

ভারতীয় চিকিৎসা গবেষণা পর্ষদের পরিচালনায় নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৫০ লক্ষ ছাড়িয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ১ লক্ষ ৪৫ হাজার ২১৬টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এদিকে পর্ষদ সংক্রামিত ব্যক্তিদের মধ্যে করোনা ভাইরাসের নমুনা চিহ্নিতকরণের জন্য নমুনা যাচাই ক্ষমতা আরও বাড়িয়েছে। দেশে সরকারি নমুনা পরীক্ষাগারের সংখ্যা ৫৯০ এবং বেসরকারি নমুনা পরীক্ষাগারের সংখ্যা ২৩৩। দেশে এখন সরকারি ও বেসরকারি মিলিয়ে নমুনা পরীক্ষাগারের সংখ্যা ৮২৩। কোভিড-১৯ সংক্রমণ মোকাবিলা ও প্রতিরোধে জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত পদক্ষেপগুলির পর্যালোচনায় রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর ও পুর স্বাস্থ্য আধিকারিকদের টেকনিক্যাল সহায়তার জন্য কেন্দ্রীয় দলগুলি কলকাতা সহ দেশের ৬টি শহরে মোতায়েন করা হচ্ছে। এই দলগুলি সংশ্লিষ্ট রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরে গৃহীত পদক্ষেপগুলি সম্পর্কে দৈনিক-ভিত্তিতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের কাছে প্রতিবেদন পাঠাবে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1630666 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

সিজিএইচএস – এর সুফলভোগীদের চিকিৎসা সুবিধা প্রদানে সিজিএইচএস – এর নথিভুক্ত সমস্ত হাসপাতালকে রাজ্য সরকারগুলি কোভিড হাসপাতাল হিসাবে ঘোষণা করেছে

সিজিএইচএস – এর আওতায় নথিভুক্ত সমস্ত স্বাস্থ্য পরিচর্যা সংগঠনগুলিকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে নির্দেশ জারি করা হয়েছে। সিজিএইচএস – এর অধীন সমস্ত বেসরকারি হাসপাতাল/ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলিতে চিকিৎসা পরিষেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে সিজিএইচএস – এর সুফলভোগীরা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন বলে জানা গেছে। এই প্রেক্ষিতে সমগ্র পরিস্থিতি পর্যালোচনার পর মন্ত্রকের পক্ষ থেকে এই নির্দেশ জারি করা হয়েছে।

মন্ত্রকের নির্দেশ অনুযায়ী, সিজিএইচএস – এর নথিভুক্ত সমস্ত হাসপাতাল, যেগুলিতে আগে সংশ্লিষ্ট রাজ্য সরকার কোভিড হাসপাতাল হিসাবে ঘোষণা করেছে, সেখানে সিজিএইচএস – এর সুফলভোগীরাও আগের মতোই চিকিৎসার সুযোগ পাবেন। মন্ত্রকের নির্দেশে আরও বলা হয়েছে, যে সমস্ত নথিভুক্ত সিজিএইচএস হাসপাতালগুলি কোভিড হাসপাতাল হিসাবে ঘোষিত হয়নি, সেখানেও সিজিএইচএস – এর সুফলভোগীদের চিকিৎসা পরিষেবা বা ভর্তি হওয়ার ক্ষেত্রে উপেক্ষা করা যাবে না। নীতি-নির্দেশিকা লঙ্ঘিত হলে সংশ্লিষ্ট হাসপাতালগুলির বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও মন্ত্রকের পক্ষ থেকে স্পষ্ট উল্লেখ করা হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1630602 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

লকডাউন ধীরে ধীরে প্রত্যাহারের সঙ্গে সঙ্গে রেলের পণ্য পরিবহণ আগের মতোই অব্যাহত রয়েছে

কোভিড-১৯ এর দরুণ দেশ জুড়ে লকডাউনের সময় ভারতীয় রেল পণ্যবাহী ট্রেন পরিষবার মাধ্যমে অত্যাবশ্যক পণ্য সামগ্রীর যোগান সুনিশ্চিত রেখে চলেছে। সাধারণ মানুষের জন্য অত্যাবশ্যক সামগ্রীর সময়মতো সরবরাহ সুনিশ্চিত করতে এবং পরিকাঠামো শিল্প ক্ষেত্রের বিভিন্ন ধরনের কাঁচামালের যোগান অব্যাহত রাখতে ভারতীয় রেল কোভিড-১৯ লকডাউন সত্ত্বেও পণ্যবাহী ট্রেন পরিষেবা পুরো দমেই চালু রেখেছে। রেলের এই পরিষেবার ফলে সাধারণ মানুষ সহ শিল্প ক্ষেত্রের চাহিদা মেটানো সম্ভব হয়েছে।

ভারতীয় রেল পয়লা মে থেকে ৩১শে মে পর্যন্ত ৮২.২৭ মিলিয়ন টন অত্যাবশ্যক সামগ্রী পরিবহণ করেছে, যা পূর্ববর্তী এপ্রিল মাসের তুলনায় ২৫ শতাংশ বেশি। এছাড়াও, ভারতীয় রেল গত পয়লা এপ্রিল থেকে ৯ই জুন পর্যন্ত সারা দেশে দিবারাত্রি ২৪ ঘন্টা নিরবচ্ছিন্ন পণ্যবাহী ট্রেন পরিষেবার মাধ্যমে ১৭৫.৪৬ মিলিয়ন টন অত্যাবশ্যক পণ্য সামগ্রী পরিবহণ করেছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1630647 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

কেদারনাথ পুনর্নির্মাণ প্রকল্প পর্যালোচনায় প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উত্তরাখন্ড সরকারের সঙ্গে কেরদারনাথ ধাম উন্নয়ন ও পুনর্নির্মাণ প্রকল্পগুলির কাজকর্মের অগ্রগতি খতিয়ে দেখেছেন। কেদারনাথ মন্দিরের পুনর্নির্মাণে তাঁর পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, রাজ্য সরকার কেদারনাথ ও বদ্রীনাথের মতো পবিত্র স্থানগুলির উন্নয়নমূলক কর্মসূচিগুলি এমনভাবে প্রণয়ন করবে, যা কালোত্তীর্ণ হবে এবং সেই এলাকার পরিবেশের অনুকূল হয়ে উঠে পরিবেশ-বান্ধব হিসাবে পরিগণিত হবে। বর্তমান পরিস্থিতির কথা বিবেচনায় রেখে এবং আগত পর্যটকদের চাপ কম থাকার বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে এই পবিত্র স্থানগুলি প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্তমান নির্মাণ কাজের মরশুমটিকে এমনভাবে সদ্ব্যবহার করতে হবে, যাতে বাকি থাকা দ্রুত শেষ করা যায়, সেই সঙ্গে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়টিও যথাযথভাবে মেনে চলা যায়। বর্তমান মরশুমকে বাকি থাকা নির্মাণ কাজ শেষ করার জন্য সদ্ব্যবহার করে আগামী বছরগুলিতে পর্যটকদের জন্য প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো ও সুযোগ-সুবিধা গড়ে তোলার কাজ শেষ করা যায়।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1630620 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

বেসরকারি ক্ষেত্রগুলিকে ইসরোর সুযোগ-সুবিধা ব্যবহারে অনুমতি দেওয়া হবে : ডঃ জিতেন্দ্র সিং

কেন্দ্রীয় আণবিক শক্তি ও মহাকাশ দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী ডঃ জিতেন্দ্র সিং আজ বলেছেন, বেসরকারি ক্ষেত্রগুলিকেও তাদের সক্ষমতার মানোন্নয়নে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (ইসরো)-র যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হবে। দ্বিতীয় মোদী সরকারের প্রথম বছরে মহাকাশ প্রযুক্তি ক্ষেত্রে ভারতের সাফল্য সম্পর্কে বলতে গিয়ে ডঃ জিতেন্দ্র সিং জানান, ভারতকে স্বনির্ভর করে তুলতে ‘আত্মনির্ভর ভারত পরিকল্পনা উদ্দেশ্যই হল মহাকাশ কর্মসূচিগুলিতে বেসরকারি ক্ষেত্রের অংশগ্রহণ বাড়ানো। তিনি সুস্পষ্টভাবে জানান, ভারতের মহাকাশ যাত্রাপথে বেসরকারি ক্ষেত্রগুলিও সঙ্গী হয়ে উঠতে পারে। বেসরকারি ক্ষেত্রগুলি কৃত্রিম উপগ্রহ, উৎক্ষেপণ এবং মহাকাশ-ভিত্তিক পরিষেবা প্রদানের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। মহাকাশ অনুসন্ধান সহ বহির্বিশ্বে গবেষণামূলক কাজকর্মে বেসরকারি ক্ষেত্রের অংশগ্রহণকে খুলে দেওয়া হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1630524 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

ফিলিপিন্সের রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর টেলিফোনে কথা

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী টেলিফোনে ফিলিপিন্সের রাষ্ট্রপতি মিঃ রডরিগো দুর্তেতের সঙ্গে কথা বলেন এবং কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে উদ্ভূত চ্যালেঞ্জগুলি মোকাবিলায় দু’দেশের সরকার যে সমস্ত পদক্ষেপ নিচ্ছে, তা নিয়ে আলোচনা করেন। উভয় নেতাই একে অপরের দেশে নাগরিকদের কল্যাণে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার প্রচেষ্টার প্রশংসা করেন। সেদেশে ভারতের পক্ষ থেকে অত্যাবশ্যক ওষুধ সামগ্রীর সরবরাহ অব্যাহত রাখার জন্য যে সমস্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে, ফিলিপিন্সের রাষ্ট্রপতি তার প্রশংসা করেন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1630515 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

 

 

 

পিআইবি’র আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

 

· চন্ডীগড় : কেন্দ্রশাসিত এই অঞ্চলের প্রশাসক আক্রান্তের সংখ্যা কমানোর জন্য করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যাঁরা কঠোর পরিশ্রম করে চলেছেন, সেই সমস্ত স্বাস্থ্য কর্মী, পুর কর্মী, পুলিশ এবং প্রশাসনিক আধিকারিকদের প্রচেষ্টার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি অন্য রাজ্য থেকে আসা ব্যক্তিদের ওপর নজরদারি বজায় রাখার জন্য জেলা কর্তৃপক্ষগুলিকে নির্দেশ দিয়েছেন। এর পাশাপাশি, কেন্দ্রশাসিত এই অঞ্চলের সমস্ত হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলিকে রোগীদের চিকিৎসার জন্য প্রস্তুত রাখার কথা বলেছেন।

 

· হরিয়ানা : রাজ্য সরকার বর্তমান পরিস্থিতি পর্যালোচনা এবং কোভিড-১৯ সংক্রমণের হার বিশ্লেষণের ওপর ভিত্তি করে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা প্রণয়নের জন্য উচ্চ পদস্থ আধিকারিকদের বিভিন্ন জেলায় দু’দিন দু’রাত্রি সফরের নির্দেশ দিয়েছেন। এই আধিকারিকরা জেলা সফরে গিয়ে কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জেলা কর্তৃপক্ষগুলিকে উদ্বুদ্ধ করবে।

 

· মহারাষ্ট্র : রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৯০ হাজার ৭৮৭। এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ২৮৯ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৪২ হাজার ৬৩৮ জন। এদিকে মুম্বাইয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়িয়ে ৫০ হাজার ৮৭৮ হয়েছে। এই শহরেই মারা গেছেন ১ হাজার ৭৫৮ জন। চীনে করোনা ভাইরাসের উৎস-স্থল উহানে আক্রান্তের সংখ্যাকেও মুম্বাই ছাড়িয়ে গেছে। গত ৭ দিনে সংক্রমণের উৎস-স্থল ধারাবি থেকে মৃত্যুর কোনও খবর নেই।

 

· গুজরাট : রাজ্যে নতুন করে ৪৭০ জন আক্রান্ত হওয়ায় সংক্রমণের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২১ হাজার ৪৪। এর মধ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ হাজার ৩৩৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৩১৩ জনের।

 

· রাজস্থান : রাজ্যে আজ সকাল পর্যন্ত আরও ১২৩ জনের সংক্রমণের খবর মিলেছে। এর ফলে, আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১১ হাজার ৩৬৮। আজ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৮ হাজার ৫০২ জন। রাজ্যে সুস্থতার হার দেশের মধ্যে সর্বোচ্চ। করোনা সংক্রমণের ঘটনা ক্রমাগত বাড়তে থাকায় আন্তঃরাজ্য সীমান্তগুলি সীল করে দেওয়া হয়েছে।

 

· মধ্যপ্রদেশ : রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৯ হাজার ৮৪৯। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৭০০ জন। সুস্থ হয়েছেন ৬ হাজার ৭২৯ জন। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৪২০ জনের। রাজ্যে করোনা সংক্রমণের হার জাতীয় গড় হার ৫.৪ শতাংশের তুলনায় অনেকটা কমে হয়েছে ২.৭৪ শতাংশ।

 

· ছত্তিশগড় : রাজ্যে মঙ্গলবার আরও ৪৩ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ হাজার ২৫১। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮৫৯।

 

· গোয়া : রাজ্যে মঙ্গলবার আরও ২৯ জনের সংক্রমণের ফলে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৫৯। এদের মধ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৯২ জন। এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৬৭ জন রোগী।

 

· অরুণাচল প্রদেশ : রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রী জানিয়েছেন, অন্যান্য রাজ্য থেকে ১১ হাজার ৫০০ জনেরও বেশি ব্যক্তি এ রাজ্যে ফিরেছেন। রাজ্যের বাইরে থেকে আসা প্রত্যেক ব্যক্তিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

 

· আসাম : রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ৯২। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৯৮৭ জন। সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৯৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের।

 

· মণিপুর : রাজ্যে আরও ৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ মেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩০৯। এরা সকলেই বাইরে থেকে রাজ্যে ফিরেছিলেন।

 

· মিজোরাম : লকডাউন সংক্রান্ত নীতি-নির্দেশিকা আংশিক সংশোধন করে জারি করা হয়েছে। রাজ্যের লিঙপুই বিমানবন্দর চালু থাকছে।

 

· নাগাল্যান্ড : রাজ্যের নাগরিক সংগঠনগুলি আজ সন্ধ্যা ৭টায় বাড়ি থেকেই প্রার্থনা কর্মসূচির পরিকল্পনা করেছে। এই কর্মসূচির অঙ্গ হিসাবে মোমবাতি ও মোবাইল ফোনের আলো জ্বালানোর জন্য সাধারণ মানুষের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। রাজ্যে বর্তমানে ৫ হাজার ৯২২ জন ব্যক্তি কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

 

· কেরল : ত্রিবান্দ্রম মেডিকেল কলেজ থেকে পালিয়ে যাওয়া কোভিড-১৯ আক্রান্ত এক রোগীকে পুনরায় হাসপাতালে নিয়ে আসার পর তিনি আইসোলেশন ওয়ার্ডে আত্মহত্যা করেছেন। যদিও তাঁর দ্বিতীয় নমুনা পরীক্ষার পরিণাম নেগেটিভ এসেছিল। জনৈক ঐ ব্যক্তির পারিবারের সদস্য ও বন্ধুবান্ধবদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। রাজ্য মন্ত্রিসভা কোভিড-১৯ এর কমিউনিটি সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ আরও জোরদার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এদিকে উপসাগরীয় দেশগুলিতে আরও ৪ জন কেরলবাসীর মৃত্যু সঙ্গে মোট ২০৭ জন মালয়ালি এই ভাইরাসের বলি হয়েছেন। রাজ্যে পর পর দু’দিন ৯১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ পাওয়া গেছে। কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তির সংখ্যা ২ লক্ষ ছাড়িয়েছে।

 

· তামিলনাডু : রাজ্য সরকার স্বীকার করে নিয়েছে, কোভিড-১৯ এর মৃত্যু পরিসংখ্যানে সম্ভবত ত্রুটি রয়েছে। চেন্নাইয়ে কোভিড-১৯ এ মৃত্যুর ঘটনাগুলি খতিয়ে দেখার জন্য ৯ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। ডিএমকে – এর এক বিধায়ক চেন্নাইয়ের এক বেসরকারি হাসপাতালে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪ হাজার ৯১৪। মৃত্যু হয়েছে ৩০৭ জনের। কেবল চেন্নাইয়েই আক্রান্তের সংখ্যা ১২ হাজার ৫৭০।

 

· কর্ণাটক : রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর মৃতদের কোভিড পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত অব্যাহত রাখার কথা জানিয়েছে। রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজার ২৯১। সুস্থতার হার ৪৪ শতাংশেই দাঁড়িয়ে রয়েছে। রাজ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ২৪৮। মৃত্যু হয়েছে ৬৬ জনের।

 

· অন্ধ্রপ্রদেশ : মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের ২ লক্ষ ৪৭ হাজার ৪০ জন সুফলভোগীকে বার্ষিক ১০ হাজার টাকা অর্থ সহায়তা দেওয়ার জন্য এক কর্মসূচির সূচনা করেছেন। রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় আরও ১৩৬ জনের আক্রান্তের খবর মিলেছে এবং মৃত্যু হয়েছে ১ জনের। এর ফলে, করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ হাজার ১২৬। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৫৭৩ জন। সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৪৭৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৭৮ জনের।

 

· তেলেঙ্গানা : গান্ধী হাসপাতালে গতকাল এক জন চিকিৎসককে আক্রমণের ঘটনার প্রেক্ষিতে রাজ্য জুড়ে চিকিৎসকরা আজ প্রতিবাদ বিক্ষোভে সামিল হন। রাজ্য সরকার বিদ্যালয়গুলিতে দশম শ্রেণীর ছাত্রছাত্রীদের অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নের ভিত্তিতে পরবর্তী শ্রেণীতে উত্তীর্ণ করার কথা ঘোষণা করেছে। রাজ্যে আজ পর্যন্ত প্রবাসী ব্যক্তি ও বিদেশ ফেরৎ মিলিয়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৪৪৮।

 

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1630754) Visitor Counter : 20