PIB Headquarters

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পিআইবি’র প্রাত্যহিক সংবাদ

Posted On: 19 MAY 2020 6:34PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১৯ মে, ২০২০

 

 

বিশ্বে প্রতি লক্ষে ৪.১টি মৃত্যুর ঘটনার তুলনায় ভারতে লক্ষ প্রতি মৃত্যু হার প্রায় ০.২ : এখনও পর্যন্ত ২৪ লক্ষেরও বেশি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় ২ হাজার ৩৫০ জন কোভিড আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়েছেন। এর ফলে, এখনও পর্যন্ত ৩৯ হাজার ১৭৪ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। দেশে সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৮.৭৩ শতাংশ ধীরে ধীরে সুস্থতার হার বাড়ছে। ভারতে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৮ হাজার ৮০২ জন। এরা সকলেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে ২.৯ শতাংশ আইসিইউ-তে আছেন। প্রতি লক্ষে মৃত্যু হারের দিক থেকে ভারতে প্রতি লক্ষে মৃত্যুর ঘটনা প্রায় ০.২। অন্যদিকে, সামগ্রিকভাবে সারা বিশ্বে প্রতি লক্ষ জনসংখ্যায় মৃত্যু হার প্রায় ৪.১ শতাংশ।

দেশে গতকাল রেকর্ড ১ লক্ষ ৮ হাজার ২৩৩টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২৪ লক্ষ ২৫ হাজার ৭৪২টি। গত জানুয়ারি মাসে দেশে কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষাগারের সংখ্যা ১টি থেকে দ্রুত বেড়ে সরকারি পরীক্ষাগারের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৮৫ এবং বেসরকারি পরীক্ষাগারের সংখ্যা ১৫৮।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক কোভিড-১৯ সংক্রান্ত নমুনা পরীক্ষার নীতি-নির্দেশিকা সংশোধন করেছে। আগের শর্তাবলীগুলির সঙ্গে আরও কিছু অতিরিক্ত বিষয় সংযোজন করে নমুনা পরীক্ষার কৌশল সম্প্রসারিত করা হয়েছে। সংশোধিত নমুনা পরীক্ষার নীতি অনুযায়ী, কোভিড-১৯ চিকিৎসা পরিষেবায় অগ্রভাগে থাকা কর্মীদের সামিল করা হয়েছে। এছাড়াও, হাসপাতালে ভর্তি সমস্ত রোগী এবং ফিরে আসা প্রবাসী শ্রমিকদের উপসর্গ দেখা দিলেই ৭ দিনের মধ্যে নমুনা পরীক্ষার কথা বলা হয়েছে। জারি করা এই সংশোধিত নীতি-নির্দেশিকায় কর্মক্ষেত্রে কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বলা হয়েছে। মন্ত্রকের পক্ষ থেকে কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে দন্ত চিকিৎসকদের জন্যও নির্দেশ জারি করা হয়েছে। বলা হয়েছে, দন্ত চিকিৎসক, তাঁদের ব্যবহৃত চিকিৎসা উপকরণ, এমনকি রোগীদের মধ্য থেকেও সংক্রমণ ছড়ানোর ঝুঁকির ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1625096 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

প্রবাসী শ্রমিকদের সুষ্ঠু যাতায়াতে আরও বেশি সংখ্যক ট্রেন চালাতে রেল ও রাজ্যগুলির মধ্যে সক্রিয় সহযোগিতা প্রয়োজন; জেলা কর্তৃপক্ষগুলিকে অবশ্যই তাদের চাহিদা রেলের কাছে পাঠাতে হবে

রাজ্যগুলিকে পাঠানো এক চিঠিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক বলেছে, প্রবাসী শ্রমিকদের নিজ রাজ্যে পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ভয়ের কারণ হ’ল – কোভিড-১৯ এ সংক্রামিত হওয়ার সম্ভাবনা এবং জীবন-জীবিকায় ক্ষতির শঙ্কা। প্রবাসী শ্রমিকদের দূরাবস্থা লাঘব করার জন্য ঐ চিঠিতে একাধিক ব্যবস্থা গ্রহণের ওপর রাজ্যগুলিকে জোর দিতে বলা হয়েছে। আরও বলা হয়েছে, কেন্দ্রের সঙ্গে সক্রিয় সমন্বয় বজায় রাখার পাশাপাশি, আন্তঃরাজ্য সীমান্তে সুষ্ঠুভাবে পরিবহন, মানুষের মৌলিক সুবিধা সহ যাত্রাপথে বিশ্রামের উপযুক্ত জায়গা গড়ে তুলতে হবে।একই সঙ্গে, বিভিন্ন ধরনের গুজব দূর করে রাজ্যগুলিকে ট্রেন বা বাসের সূচনার ব্যাপারে তথ্য সরবরাহ করতে হবে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1625046 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

আটকে পড়া শ্রমিকদের ট্রেনে যাতায়াতের ব্যাপারে আদর্শ কার্যপরিচালন প্রণালী

লকডাউন সম্পর্কিত সংশোধিত পুনর্বিন্যস্ত নীতি-নির্দেশিকা কার্যকর করা অব্যাহত রেখে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক ট্রেনে করে আটকে পড়া শ্রমিকদের যাতায়াতে সংশোধিত আদর্শ কার্য পরিচালন প্রণালী জারি করেছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1625069 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

ডঃ হর্ষ বর্ধন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ৭৩তম বিশ্ব স্বাস্থ্য অধিবেশনে অংশ নিলেন

কোভিড-১৯ সংক্রমণ মোকাবিলা ও প্রতিরোধে ভারত সময়োপযোগী যে সমস্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে, সে প্রসঙ্গ উল্লেখ করে স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেন, সংক্রমণ প্রতিরোধে নজরদারির পাশাপাশি, বিদেশে আটকে পড়া নাগরিকদের উদ্ধারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে এবং দেশে আগমনের প্রবেশ পথগুলিতে নজরদারি জোরদার করা হয়েছে। রোগ সংক্রমণ প্রতিরোধে মজবুত স্বাস্থ্য পরিকাঠামো ব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়েছে। চিকিৎসা পরিষেবায় অগ্রভাগে থাকা ২০ লক্ষেরও বেশি স্বাস্থ্য কর্মীর দক্ষতা বাড়ানো হয়েছে। সেই সঙ্গে, তাঁদের ঝুঁকি কমাতেও উপযুক্ত পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেন, আমি মনে করি, আমরা সেরা কাজ করেছি এবং ভালো পরিণাম পেয়েছি।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1624956 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রীর পরামর্শ অনুযায়ী ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি ২০২০’র জেইই (মেন) পরীক্ষার জন্য অনলাইনে আবেদন জমা দেওয়ার শেষ আরেকটি সুযোগ দিতে চলেছে

একাধিক ভারতীয় ছাত্রছাত্রী, যাঁরা বিদেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হওয়ার পরিকল্পনা করেছেন, তাঁদের কাছ থেকে আরও একবার দেশেই পঠন-পাঠনের আগ্রহ প্রকাশ করার প্রেক্ষিতে এবং বর্তমান কোভিড-১৯ জনিত উদ্ভূত পরিস্থিতির কারণে সাময়িক বিদেশ যাওয়া আটকে গেছে, তাঁরা এখন ২০২০’র জেইই (মেন) পরীক্ষায় বসার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এর ভিত্তিতে কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী শ্রী রমেশ পোখরিয়াল ‘নিশাঙ্ক’ ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সিকে সেই সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের সংশ্লিষ্ট পরীক্ষায় বসার জন্য অনলাইনে আবেদন জানানোর আরও একটি সুযোগ দেওয়ার অনুরোধ করেন। যে সমস্ত ছাত্রছাত্রী এখনও অনলাইনে আবেদন করেননি, তাঁরাও শেষবার এই সুযোগ পেতে চলেছেন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1625132 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

উত্তর-পূর্ব তথা জম্মু ও কাশ্মীরে কোভিড সংক্রান্ত সহায়তার জন্য সেনা চিকিৎসা বিভাগের প্রশংসা করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ডঃ জিতেন্দ্র সিং

কেন্দ্রীয় উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী ডঃ জিতেন্দ্র সিং উত্তর-পূর্ব তথা জম্মু ও কাশ্মীরে কোভিড মোকাবিলায় সহায়তার জন্য সেনা চিকিৎসা বিভাগের প্রশংসা করেছেন। সংক্রমণের গোড়াতেই প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সামগ্রী ও নমুনা পরীক্ষার কিট পৌঁছে দেওয়ার ক্ষেত্রেও তিনি সেনা চিকিৎসা পরিষেবা বিভাগের ভূমিকার প্রশংসা করেন। এই প্রেক্ষিতে সেনা চিকিৎসা বিভাগের লেঃজেঃ অনুপ ব্যানার্জী উত্তর-পূর্বাঞ্চলে সর্বশেষ পরিস্থিতি এবং অগ্রগতি সম্পর্কে ডঃ সিং-কে অবহিত করেন। আসাম সহ উত্তর-পূর্বের সমস্ত রাজ্যেই সেনা চিকিৎসা বিভাগের পক্ষ থেকে চিকিৎসা পরিষেবায় সাহায্যের পাশাপাশি প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সরঞ্জাম পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1624975 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

কেন্দ্রীয় আবাসন ও শহরাঞ্চল বিষয়ক মন্ত্রক জঞ্জালমুক্ত শহরগুলির স্টার রেটিং সংক্রান্ত ফলাফল ঘোষণা করেছে

বিভাগীয় মন্ত্রী শ্রী হরদীপ সিং পুরী জানিয়েছেন, ২০১৯-২০ অ্যাসেসমেন্ট বর্ষে দেশের ৬টি শহরকে জঞ্জালমুক্ত হিসাবে পরিণত করার জন্য ফাইভ স্টার শংসাপত্র দেওয়া হয়েছে। এই শহরগুলি হ’ল – অম্বিকাপুর, রাজকোট, সুরাট, মাইশোর, ইন্দোর এবং নবী মুম্বাই। ৬৫টি শহরকে থ্রি স্টার এবং ৭০টি শহরকে ওয়ান স্টার হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। কোভিড-১৯ সঙ্কটের প্রেক্ষিতে মন্ত্রক সার্বজনীন স্থান পরিচ্ছন্ন রাখা সহ কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রগুলি থেকে বায়োমেডিকেল বর্জ্য পদার্থ সংগ্রহ ও তার বিনাশের জন্য সমস্ত রাজ্যের কাছে নীতি-নির্দেশিকা পাঠিয়েছে। এছাড়াও, মন্ত্রক এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহে নাগরিক অভিযোগ নিষ্পত্তি ব্যবস্থা সংক্রান্ত স্বচ্ছতা অ্যাপটি পুনর্বিন্যস্ত করেছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1625076 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

লকডাউনের মধ্যে বিদর্ভ ও মারাঠওয়াড়া অঞ্চলে ডেয়ারি সরবরাহ-শৃঙ্খল স্থিতিশীল রাখতে মাদার ডেয়ারি উদ্যোগ নিয়েছে

লকডাউনের মধ্যে সমগ্র দেশ যখন কোভিড-১৯ মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াই চালাচ্ছে, তখন খাদ্য ও স্বাস্থ্য পরিষেবার মতো অত্যাবশ্যক বিষয়গুলি মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া অত্যন্ত জরুরি হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে, গ্রাহকদের কাছে খাদ্য সামগ্রীর সরবরাহ বজায় রাখা অত্যন্ত জরুরি। কৃষকদের স্বার্থে মূল্য-শৃঙ্খল অব্যাহত রাখতে এবং তাঁদের উৎপাদিত ফসল বাজারে পৌঁছে দেওয়া অত্যন্ত আবশ্যক। এই প্রেক্ষিতে জাতীয় ডেয়ারি উন্নয়ন পর্ষদের সম্পূর্ণ মালিকাধীন সংস্থা মাদার ডেয়ারি লকডাউনের মধ্যেও বিদর্ভ ও মারাঠওয়াড়া অঞ্চলে ডেয়ারি পণ্য সরবরাহ-শৃঙ্খল অব্যাহত রাখতে সর্বাত্মক প্রয়াস গ্রহণ করেছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1625040 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রকের পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক সংগ্রহালয় দিবসে সংগ্রহালয় ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রগুলির পুনরুজ্জীবন নিয়ে ওয়েবইনার অনুষ্ঠান

কোভিড-১৯ মহামারীর ফলে সংস্কৃতি ও সৃজনশীল শিল্পে ব্যাপক আর্থ-সামাজিক প্রভাব পড়তে চলেছে। অগ্রণী ভারতীয় এবং আন্তর্জাতিক সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান, সৃজনশীল ক্ষেত্র, স্টার্ট আপ সংস্থা, নীতি প্রণেতা এবং গণমাধ্যমের জন্য আয়োজিত এই ওয়েবইনার অনুষ্ঠানে বিশেষজ্ঞরা সংস্কৃতি ও সৃজনশীল শিল্প ক্ষেত্রের ভবিষ্যৎ পন্থা-পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করেন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1624975 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

 

 

পিআইবি’র আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

 

· চন্ডীগড় : লকডাউনের কারণে কিছু প্রবাসী শ্রমিক, পুণ্যার্থী, পর্যটক ও ছাত্রছাত্রী চন্ডীগড়ে আটকে পড়েছেন। এদের নিজ রাজ্যে সুষ্ঠুভাবে ফেরৎ পাঠাতে চন্ডীগড় প্রশাসন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। গতকাল একটি শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনে করে ১ হাজার ২৯৬ জন ব্যক্তি গন্তব্যের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন। এই শ্রমিকদের মধ্যে ১০ জন পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার।

 

· পাঞ্জাব : মুখ্যমন্ত্রী একটি টেলিমেডিসিন কর্মসূচির সূচনা করেছেন। উদ্দেশ্য, কোভিড-১৯ সহ একাধিক চিকিৎসাগত সমস্যার সমাধান পৌঁছে দেওয়া। এই কর্মসূচিতে চিকিৎসকরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রোগীদের সঙ্গে কথা বলেন। রাজ্যে গণপরিবহণ ব্যবস্থার ওপর নিষেধাজ্ঞা শিথিল করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। রাজ্য পরিবহণ নিগমের বাসগুলি বুধবার থেকে পরিষেবা দেবে। গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলি থেকে জেলা সদরগুলিতে এই পরিষেবা মিলবে। তবে, বাসগুলিতে মোট আসন সংখ্যার ৫০ শতাংশ যাত্রী পরিবহণ করা হবে। ডিপোগুলি থেকে বাস ছাড়ার আগে সমস্ত যাত্রীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। যাত্রী সহ বাসের সকলকে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে এবং বাসের চালক যাত্রীদের হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেবেন।

 

· হরিয়ানা : রাজ্য সরকার প্রাইভেট চিকিৎসকদের সরকারি মূল্যে উৎকৃষ্ট মানের পিপিই কিট, এন-৯৫ মাস্ক এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এছাড়াও, কোনও প্রাইভেট চিকিৎসক যদি কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হন, তা হলে তাঁর চিকিৎসার যাবতীয় খরচ রাজ্য সরকার বহন করবে। করোনা পরবর্তী সময়ে রাজ্যে স্বাস্থ্য পরিষেবা, জনস্বাস্থ্য ও চিকিৎসা গবেষণা ক্ষেত্রে বিনিয়োগ বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। রাজ্য সরকার সরকারি স্কুলগুলিকে তাদের প্রশাসনিক কার্যালয় চালু করার অনুমতি দিয়েছে। উল্লেখ করা যেতে পারে, বেসরকারি বিদ্যালয়গুলির প্রশাসনিক কার্যালয় খোলার অনুমতি আগেই দেওয়া হয়েছিল।

 

· হিমাচল প্রদেশ : রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যে একটি বাল্ক ড্রাগ পার্ক গড়ে তোলার অনুমতি দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় রসায়ন ও সার মন্ত্রীকে আর্জি জানিয়েছেন। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার দেশে অ্যাক্টিভ ফার্মাসিউটিক্যাল ইনগ্রিডিয়েন্ট উৎপাদনের প্রসারে একটি বিশেষ কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেছে।

 

· কেরল : রাজ্য পরিবহণ নিগমের বাস পরিষেবা আগামীকাল শুরু হবে। কুন্নুরে পুলিশ ১০০ জন প্রবাসী শ্রমিককে আটক করেছে, যাঁরা রেলপথে উত্তর প্রদেশ যাওয়ার জন্য যাত্রা শুরু করেছিলেন। গত রাতে উপসাগরীয় দেশগুলি থেকে আসা ৭ জনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। উপসাগরীয় দেশগুলিতে আটকে পড়া আরও ৭০০-রও বেশি মানুষকে নিয়ে ৪টি বিমান রাজ্যে এসে পৌঁছবে।

 

· তামিলনাডু : পন্ডিচেরীতে মদের দোকান খোলায় অনুমতি দেওয়া হয়েছে। আধার কার্ড ছাড়া মদ ক্রয় করা যাবে না। মহারাষ্ট্রে আটকে পড়া বিপুল সংখ্যক প্রবাসী শ্রমিক তামিলনাডু এসে পৌঁছেছেন। রাজ্যের গ্রামাঞ্চলে সেলুনগুলি আজ থেকে খুলেছে। দশম শ্রেণীর বোর্ড পরীক্ষার সময় সূচি সংশোধন করা হয়েছে। এই পরীক্ষা ১৫-২৫শে জুন পর্যন্ত গ্রহণ করা হবে। রাজ্যে গতকাল পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১১ হাজার ৭৬০। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭ হাজার ২৭০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৮১ জনের।

 

· কর্ণাটক : রাজ্যে একদিনে সর্বাধিক ১২৭টি সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে। মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ৩৭৩। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮০২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪০ জনের। ইন্টারসিটি বিশেষ ট্রেন পরিষেবা চালু করার জন্য রাজ্যের পক্ষ থেকে কেন্দ্রের কাছে অনুমতি চাওয়া হয়েছে।

 

· অন্ধ্রপ্রদেশ : রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, কোভিড-১৯ সংক্রমণ মোকাবিলা থেকে নজর না সরিয়েও আর্থিক কর্মকান্ড শুরু করার ওপর গুরুত্ব দেওয়া হবে। রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সুস্থতার হার ৫৩.৪৪ শতাংশ, যা জাতীয় গড় ৩২.৯ শতাংশের তুলনায় অনেক বেশি। গত ২৪ ঘন্টায় ৫৭ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন এবং ২ জন মারা গেছেন। রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২ হাজার ৩৩৯। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৯১ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫২ জনের।

 

· তেলেঙ্গানা : রাজ্যে লকডাউন নিষেধাজ্ঞা শিথিল করার সঙ্গে সঙ্গে আঞ্চলিক পরিবহণ নিগমের বাস পরিষেবা আজ সেকেন্দ্রাবাদ থেকে বিভিন্ন জেলায় শুরু হয়েছে। রাজ্যে গতকাল পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ৫৯২। হায়দরাবাদে গতকাল আরও ২৬ জন আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় রাজ্য সরকার এখনও উদ্বিগ্ন। হাসপাতালগুলিতে ৫ হাজার শয্যা কোভিড আক্রান্ত রোগীদের জন্য বন্দোবস্ত করা হয়েছে।

 

· আসাম : আঞ্চলিক স্ক্রিনিং সেন্টার চালু করার জন্য রাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রী বারপেতা জেলার পুলিশ প্রধান ও ডেপুটি কমিশনারদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষার হার বাড়ানোর জন্যই এই উদ্যোগ।

 

· মণিপুর : দিল্লি ফেরৎ ৬৪ বছর বয়সী এক মহিলা ও তাঁর ২৩ বছর বয়সী কন্যার নমুনা পরীক্ষায় কোভিড-১৯ এর উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে। রাজ্যে মোট আক্রান্ত ৯ জনের মধ্যে ২ জন সুস্থ হয়েছেন এবং বাকিদের চিকিৎসা চলছে।

 

· মিজোরাম : রাজ্যে কোলাসিব কলেজের এনএসএস স্বেচ্ছাসেবকরা সব্জি বিক্রেতাদের মধ্যে হাতে তৈরি মাস্ক ১৫০টি বিতরণ করেছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় অসত্য তথ্য প্রচার করার জন্য পুলিশ ১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

 

· নাগাল্যান্ড : রাজ্যের মুসলিমরা বাড়িতে থেকেই পবিত্র রমজান পালন করবেন এবং লকডাউনের জন্য বাড়িতেই ঈদ উৎসবে সামিল হবেন।

 

· সিকিম : বেঙ্গালুরুতে আটকে পড়া প্রায় ১ হাজার ৭৪ জন সিকিমবাসীকে কর্ণাটক সরকারের সহযোগিতায় উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়েছে।

 

· মহারাষ্ট্র : রাজ্যে কোভিড-১৯ এ নতুন করে ২ হাজার ৩৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে, আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৫ হাজার ৫৮। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৫ হাজার ৩৯২ জন। আজ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৮ হাজার ৪৩৭ জন। রাজ্য সরকার দারিদ্র্য সীমার ওপরে থাকা ৩ কোটিরও বেশি অরেঞ্জ কার্ডধারীদের মে ও জুন মাসে ভর্তুকি মূল্যে ব্যক্তি পিছু ৫ কিলোগ্রাম খাদ্যশস্য দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কোভিড-১৯ মহামারীর মধ্যেও রাজ্য সরকার ৫২ হাজার ৪৪২টি রেশন দোকান থেকে খাদ্যশস্য বন্টন শুরু করেছে।

 

· গুজরাট : রাজ্যে কোভিড-১৯ এ আরও ৩৬৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে, আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১১ হাজার ৭৪৬। এর মধ্যে ৪ হাজার ৮০৪ জন সুস্থ হয়েছেন। রাজ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬ হাজার ২৪৮। এর মধ্যে ভেন্টিলেটরে রয়েছেন ৩৮। ৫০ দিনেরও বেশি সময়ের পর অসংক্রামিত এলাকাগুলিতে দোকান, অফিস, পরিবহণ ও বাজার খুলেছে।

 

· রাজস্থান : রাজ্যে আজ বেলা ২টো পর্যন্ত নতুন করে ২৫০ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে, আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫ হাজার ৭৫৭। আজ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ২৩২ জন।

 

· মধ্যপ্রদেশ : রাজ্যে নতুন করে ২৫৯ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫ হাজার ৩২৬। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী রাজ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৫৪৯।

 

· গোয়া : নতুন করে ৯ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩১।

 

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1625227) Visitor Counter : 29