PIB Headquarters

কোভিড-১৯ সংক্রান্ত পিআইবি’র প্রাত্যহিক সংবাদ

Posted On: 04 JUN 2020 6:27PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ০৪ জুন, ২০২০

 

 

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ তথ্য

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় কোভিড-১৯ আক্রান্ত ৩ হাজার ৮০৪ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। এর ফলে, কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত রোগীদের সুস্থ হওয়ার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৪ হাজার ১০৭। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থতার হার ৪৭.৯৯ শতাংশ। বর্তমানে ১ লক্ষ ৬ হাজার ৭৩৭ জন নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং এরা সকলেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সংক্রামিত ব্যক্তিদের মধ্যে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি নিরূপণের জন্য ভারতীয় চিকিৎসা গবেষণা পরিষদ নমুনা পরীক্ষার হার আরও বাড়াতে উদ্যোগ নিয়েছে। সরকারি নমুনাগারের সংখ্যা বাড়িয়ে ৪৯৮ এবং বেসরকারি নমুনাগারের সংখ্যা বাড়িয়ে ২১২ করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ১ লক্ষ ৩৯ হাজারেরও বেশি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। দেশে এখনও পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৪২ লক্ষ ৪২ হাজার ৭১৮। স্বাস্থ্য মন্ত্রক কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে ইএনটি চিকিৎসা পদ্ধতির নতুন নীতি-নির্দেশিকা জারি করেছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1629347 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

ড হর্ষ বর্ধন দিল্লির উপ-রাজ্যপাল ও স্বাস্থ্য মন্ত্রীর সঙ্গে কোভিড-১৯ মোকাবিলা ও প্রস্তুতি পর্যালোচনা করলেন

দিল্লিতে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষিতে নমুনা পরীক্ষার পাশাপাশি, নিবিড় নজরদারি এবং সংক্রামিত এলাকাগুলিতে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আজ দিল্লির উপ-রাজ্যপাল ও স্বাস্থ্য মন্ত্রীর সঙ্গে বর্তমান কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে এক উচ্চ পর্যায়ের পর্যালোচনা বৈঠকে একথা জানান ড হর্ষ বর্ধন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1629348 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

ভারত – অস্ট্রেলিয়া ভার্চ্যুয়াল শীর্ষ বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর প্রারম্ভিক বক্তব্য

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1629296 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

মোজাম্বিকের রাষ্ট্রপতি ফিলিপ জ্যাকিনটো নায়ুসির সঙ্গে টেলিফোনে কথা নরেন্দ্র মোদীর

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মোজাম্বিকের রাষ্ট্রপতি ফিলিপ জ্যাকিনটো নায়ুসির সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন। দুই নেতাই কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে উভয় দেশে যে চ্যালেঞ্জ দেখা দিয়েছে, সে বিষয়ে কথা বলেন। মোজাম্বিকে স্বাস্থ্য সঙ্কটের সময় সেদেশকে সাহায্য করতে ভারতের আগ্রহের কথা পুনরায় জানান শ্রী মোদী। দুই দেশের মধ্যে স্বাস্থ্য পরিচর্যা ও ওষুধপত্র সরবরাহে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতার জন্য ভারতের ভূমিকার প্রশংসা করেন সেদেশের রাষ্ট্রপতি।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1629116 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

জর্জিয়ার রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ভারতের রাষ্ট্রপতির টেলিফোনে কথা

ভারতের রাষ্ট্রপতি শ্রী রাম নাথ কোবিন্দ টেলিফোনে জর্জিয়ার রাষ্ট্রপতি মিসেস সালোমি জৌরা বিকভিলি’র সঙ্গে কথা বলেন। দুই রাষ্ট্র প্রধান দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কগুলির পাশাপাশি, কোভিড-১৯ মহামারীর ফলে সারা বিশ্ব যে চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে, তা নিয়ে কথা বলেন। কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে জর্জিয়ার প্রচেষ্টার প্রশংসা করে শ্রী কোবিন্দ সেদেশের রাষ্ট্রপতিকে কোভিড-১৯ সংক্রমণ মোকাবিলায় ভারতে যে প্রয়াস গ্রহণ করা হয়েছে, সে সম্পর্কে অবহিত করেন। শ্রী কোবিন্দ জানান, বন্ধুত্ব ও সৌজন্যের নিদর্শন হিসাবে ভারত ১৫০টিরও বেশি দেশকে অত্যাবশ্যক ওষুধপত্র সরবরাহ করেছে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1629120 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

আরপিএফ – এর এক আধিকারিকের কর্তব্যনিষ্ঠা ও উদ্যম সকলের মন জয় করে নিয়েছে

রেল সুরক্ষা বাহিনীর কন্সটেবল শ্রী ইন্দর সিং যাদবের কাজের প্রশংসা করে রেল মন্ত্রী শ্রী পীযূষ গোয়েল তাঁর আন্তরিকতার নিদর্শন-স্বরূপ নগদ পুরস্কারের কথা ঘোষণা করেছেন। শ্রী যাদব চার মাস বয়সী এক শিশুর দুধ যোগানোর জন্য চলন্ত ট্রেনের পেছনে দৌড়ে কর্তব্য পালনে নজির সৃষ্টি করেছেন। বেলগ্রাম থেকে গোরখপুরগামী শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনে শ্রীমতী শরিফ হাসমি তাঁর চার মাস বয়সী শিশুকে সঙ্গে নিয়ে ফিরছিলেন। সদ্য এই শিশুটি মায়ের কাছ থেকে দুধ না পেয়ে অবিরাম কাঁদতে থাকে। সেই সময়, শিশুটির মা ভোপাল স্টেশনে আরপিএফ কন্সটেবল শ্রী যাদবের কাছে সাহায্যের আর্জি জানান। এই আবেদনে সাড়া দিয়ে শ্রী যাদব স্টেশনের বাইরে দোকান থেকে দুধ আনতে যান। কিন্তু ট্রেনটি স্টেশন ছেড়ে রওনা দেয়। এই পরিস্থিতিতে মানবতার নিদর্শন রেখে এবং সাহসী উদ্যম নিয়ে শ্রী যাদব ট্রেনের পেছনে দুধের প্যাকেট নিয়ে দৌড়তে থাকেন।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1629340 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

শহরাঞ্চলীয় স্থানীয় প্রশাসনগুলির সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে ইন্টার্নশিপ কর্মসূচি ‘টিউলিপ’ – এর সূচনা করলেন কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী ও আবাসন ও নগরোন্নয়ন বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী

কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী শ্রী রমেশ পোখরিয়াল ‘নিশাঙ্ক’ এবং আবাসন ও শহরাঞ্চল বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী শ্রী হরদীপ সিং পুরী আজ নতুন দিল্লিতে শহরাঞ্চলীয় স্থানীয় প্রশাসন এবং স্মার্টসিটিগুলির উদ্যোগে ‘দ্য আর্বান লার্নিং ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রাম বা টিউলিপ’ – এর সূচনা করেছেন। এই উপলক্ষে এক পোর্টালেরও সূচনা হয়। এই উদ্যোগ প্রসঙ্গে শ্রী পোখরিয়াল বলেন, দেশ গঠনে যুবসম্প্রদায়ের সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে প্রধানমন্ত্রী শ্রী মোদীর দূরদৃষ্টিকে ভিত্তি করেই টিউলিপ কর্মসূচির সূচনা করা হ’ল। এই কর্মসূচি এক নতুন ভারতের মজবুত ভিত্তি গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে। সেই সঙ্গে, শহরাঞ্চলীয় স্থানীয় প্রশাসন এবং স্মার্ট সিটিগুলির কাজকর্মে অভিনব চিন্তাভাবনা যোগাতে সাহায্য করবে। শ্রী নিশাঙ্ক আরও বলেন, দেশে মেধার কোনও অভাব নেই। তাই, স্মার্ট ইন্ডিয়া হ্যাকাথনের মতো অভিযানের মাধ্যমে পড়ুয়াদের সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে হবে। অভিনব টিউলিপ কর্মসূচির ব্যাপারে বলতে গিয়ে শ্রী পুরী বলেন, প্রথম বছর প্রায় ২৫ হাজার সদ্য স্নাতক ডিগ্রিধারী পড়ুয়ারা এই ইন্টার্নশিপ কর্মসূচির সুযোগ পাবেন। এই কর্মসূচির ফলে, শিক্ষানবিশ ছাত্রছাত্রীরা না কেবল শহরাঞ্চলীয় স্থানীয় প্রশাসনগুলির কাজকর্ম সম্পর্কে অবহিত হবেন, সেই সঙ্গে শিল্প সংস্থাগুলির জন্য এমন সম্পদ সৃষ্টিতেও সাহায্য করবে, যা সহজে বিভিন্ন শিল্প সংস্থা গ্রহণ করতে পারবে।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1629314 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

জম্মু ও কাশ্মীর পুরসভার প্রতিনিধিদের সঙ্গে কোভিড মোকাবিলায় গৃহীত ব্যবস্থাগুলি নিয়ে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠক করলেন ড জিতেন্দ্র সিং

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ডঃ জিতেন্দ্র সিং জম্মু ও কাশ্মীর পুরসভার প্রতিনিধিদের সঙ্গে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে গৃহীত ব্যবস্থাগুলি নিয়ে ভিডিও কনফারেন্সে বৈঠক করেন। ডঃ সিং বলেন, কোভিড মহামারীর গত দুটি পর্যায়ে দেশে ঘরবন্দী হয়ে পড়া মানুষের জন্য অত্যাবশ্যক সামগ্রী সরবরাহ ও যোগানে গুরুত্ব দেওয়া হয়। পরবর্তী পর্যায়ে দেশের বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়া ব্যক্তিদের বাড়ি ফেরৎ পাঠানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়। অবশ্য, মহামারীর বর্তমান পর্যায়ে যে দুটি বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে, তা হ’ল সংক্রমণ প্রতিরোধ ও সচেতনতা বৃদ্ধির ওপর।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1629190 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

এনসিভিটিসি কোভিড-১৯ এর অ্যান্টিভাইরাল উদ্ভাবনে সাহায্য করবে

ন্যাশনাল সেন্টার ফর ভেটেনারি টাইপ কালচার প্রতিষ্ঠানের একটি সমীক্ষায় সহায়তা দেবে সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ পর্ষদ।

বিস্তারিত বিবরণের জন্য https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1629275 – এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

 

 

 

পিআইবি’র আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

 

· কেরল : পালাক্কড জেলায় আরও ১ জনের কোভিড-১৯ এ মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১২। চেন্নাই থেকে ফেরার পর কোয়ারেন্টাইনে থাকা ৭৩ বছর বয়সী এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। আগামী সোমবার থেকে উপাসনালয়গুলি খুলে দেওয়ার ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী ধর্মীয় নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। রাজ্যে গতকাল আরও ৮২ জনের আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। এর ফলে, রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ হাজার ৪৯৪।

 

· তামিলনাডু : কেন্দ্রশাসিত পন্ডিচেরীর একটি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের ৬ জন নিরাপত্তা কর্মীর নমুনা পরীক্ষায় ভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ মেলায় কেন্দ্রশাসিত এই অঞ্চলটিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬৩। তামিলনাডুর মুখ্যসচিব কোভিড নিয়ন্ত্রণমূলক ব্যবস্থাগুলি কঠোরভাবে পালনের মেয়াদ আরও তিন মাস বাড়ানোর কথা ঘোষণা করেছেন। এদিকে রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ হাজারের সীমা ছাড়িয়েছে। রাজ্যে এখন করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ হাজার ৮৭২। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১১ হাজার ৩৪৫ জন। মৃত্যু হয়েছে ২০৮ জনের। কেবল চেন্নাইয়েই আক্রান্তের সংখ্যা ৮ হাজার ৪০৫।

 

· কর্ণাটক : রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দাবি-দাওয়া মেটানোর আশ্বাস দেওয়ায় স্বাস্থ্য দপ্তরের চুক্তি-ভিত্তিক কর্মীরা তাঁদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। এদিকে বেসরকারি হাসপাতাল সংগঠনগুলির পক্ষ থেকে রাজ্য সরকারকে জেনারেল ওয়ার্ডে কোভিড-১৯ চিকিৎসার জন্য প্রতিদিন ১০ হাজার টাকা এবং আইসিইউ বেড সহ স্পেশাল ওয়ার্ডে চিকিৎসার জন্য ২০ হাজার টাকা খরচের প্রস্তাব দিয়েছে। রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ হাজার ৬৩। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৪৯৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫৩ জনের।

 

· অন্ধ্রপ্রদেশ : রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বাহন মিত্র কর্মসূচির সূচনা করেছেন। এই কর্মসূচির ফলে অটো ও ট্যাক্সি মালিকরা ১০ হাজার টাকা করে সাহায্য পাবেন। রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৩৭৭। নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৩৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৭১ জনের।

 

· তেলেঙ্গানা : রাজ্যে জুনিয়র ডক্টর অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ওসমানিয়া মেডিকেল কলেজের স্বীকৃত হাসপাতালগুলিতে ৩২ জন চিকিৎসকের নমুনা পরীক্ষায় কোভিড-১৯ এর উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে। রাজ্যে গতকাল পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ২০। ৪৪৮ জন প্রবাসী শ্রমিক ও বিদেশ ফেরৎ ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষায় ভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে।

 

· মহারাষ্ট্র : রাজ্যে আরও ২ হাজার ৫৬০ জনের নতুন করে সংক্রমণের খবর মেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭৪ হাজার ৮৬০। এর মধ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯ হাজার ৯৩৫ জন। সংক্রমণের অন্যতম উৎস কেন্দ্র মুম্বাইয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৩ হাজার ৪৯২। বুধবার যে ১২২ জনের মৃত্যু হয়েছে, তার মধ্যে ৪৯ জনই মারা গেছেন মুম্বাই থেকে।

 

· গুজরাট : রাজ্যে নতুন করে ৪৮৫ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৮ হাজার ১০০। এর মধ্যে নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৭৬৬ জন। বুধবার ৩০ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। এর ফলে, রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ১২২ জনের।

 

· মধ্যপ্রদেশ : রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখযা ৮ হাজার ৫৮৮। এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩৭১ জনের। এর মধ্যে গত ২৪ ঘন্টাতেই মৃত্যু হয়েছে ২২৪ জন রোগীর।

 

· রাজস্থান : রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৯ হাজার ৭২০। এর মধ্যে ৬ হাজার ৮১৯ জন সুস্থ হয়েছেন।

 

· ছত্তিশগড় : বুধবার রাত্রি পর্যন্ত আরও ৮৬ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় রাজ্যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৬৮। এর মধ্যে ৪৮৯ জন নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

 

· গোয়া : রাজ্যে এখনও পর্যন্ত ১ দিনে সর্বাধিক ৪৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। এর ফলে, আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১২৬। এদের মধ্যে ৬৯ জন নিশ্চিতভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

 

· অরুণাচল প্রদেশ : দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় ৯ হাজার ৫০০ জন রাজ্যে ফিরেছেন। এছাড়াও, বিভিন্ন রাজ্যের ২ হাজার জন মানুষ অরুণাচল প্রদেশ থেকে নিজেদের রাজ্যের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন।

 

· আসাম : কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসায় ২৯ জন রোগীকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা ১ হাজার ৪২৮।

 

· মণিপুর : রাজ্যে আরও ১৩ জনের সংক্রমণের খবর মেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১২১।

 

· মিজোরাম : রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন আগামী ১৫ই জুলাই থেকে বিদ্যালয়গুলি খুলতে পারে।

 

· নাগাল্যান্ড : কোহিমার নাগা হসপিটাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট হাসপাতালটি কোভিড-১৯ হাসপাতাল হিসাবে কাজ করবে। এই হাসপাতালে এখন ৪ জন কোভিড-১৯ রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদিকে রাজ্য বিদ্যালয় শিক্ষা পর্ষদের অনলাইন মূল্যায়ন পরীক্ষায় ২০ হাজারেরও বেশি ছাত্রছাত্রী অংশ নেয়। কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষিতে পঠন-পাঠন ব্যবস্থাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে এই উদ্যোগ।

 

· ত্রিপুরা : হাপানিয়া এক্সিবিশন হল – এ টিআইডিসি এবং পশ্চিম ত্রিপুরা জেলা প্রশাসন কোভিড কেয়ার সেন্টার গড়ে তুলেছে। এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ৪০০টি শয্যা রয়েছে। বর্তমানে ৫ জন রোগীর এখানে চিকিৎসা চলছে।

 

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1629477) Visitor Counter : 17