প্রতিরক্ষামন্ত্রক

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী শ্রী রাজনাথ সিংহ ‘সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষ থেকে করোনা যোদ্ধাদের সম্মান প্রদান' এর জন্য সশস্ত্র বাহিনীকে প্রশংসা জানান

Posted On: 03 MAY 2020 7:33PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ৩ মে,২০২০

 



প্রতিরক্ষা মন্ত্রী শ্রী রাজনাথ সিং আজ  করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে নিরবিচ্ছিন্নভাবে লড়াই করে আসা করোনার যোদ্ধাদের সম্মান  জানাতে স্থলে, জলে ও আকাশ পথে দেশজুড়ে বিভিন্ন স্থানে শতাধিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সশস্ত্র বাহিনীর প্রয়াসের    উচ্ছ্বসিত প্রশংসা জানিয়েছেন।


 তিনি বলেছিলেন, “সশস্ত্র বাহিনী আজ মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াই করছে এমন করোনার যোদ্ধাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে বিভিন্ন কার্যক্রমের আয়োজন করেছে।  এই সামনের সারির যোদ্ধারা কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে ভারতের লড়াইয়ে জড়িত সকলের মনোবলকে শক্তিশালী করতে প্রশংসনীয় কাজ করছেন। ”


 হাসপাতালগুলির ওপর ভারতীয় বিমানবাহিনী, নৌ বাহিনী  এবং উপকূল রক্ষীবাহিনীর হেলিকপ্টারগুলি উড়ান পথে ফুলের পাপড়ি ঝরানোর কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন যে, তারা প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে কোভিড-১৯ ফলে উদ্ভূত সমস্যা কাটিয়ে ওঠার ক্ষেত্রে দেশের সংকল্প ও একতাকে অভিবাদন জানিয়েছে।


 শ্রী রাজনাথ সিং চিকিৎসা পেশার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তি , পুলিশ এবং অন্যান্য সামনের সারি যোদ্ধাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে বেশ কয়েকটি কর্মসূচির মাধ্যমে সশস্ত্র বাহিনী যে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে,তার   জন্য তাদের ধন্যবাদ জানান এবং তিনি বলেন যে, এই সঙ্কটের সময়ে পুরো দেশ ঐক্যবদ্ধ রয়েছে।


 চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্য ও স্যানিটেশন কর্মী, পুলিশ কর্মী, মিডিয়া এবং বেশ কয়েকটি প্রয়োজনীয় পরিষেবা এবং সরবরাহ রক্ষণাবেক্ষণ ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত অন্যান্য ব্যক্তিদের মতো এই করোনার যোদ্ধারা দেশের স্বার্থে কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধে অবিচলভাবে অবদান রেখে চলেছেন।  যাতে বিদ্যুৎ এবং জলের মতো প্রাথমিক সুযোগ সুবিধাগুলি সবার কাছে পৌঁছে যায় , রাস্তাগুলি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকে , প্রাথমিক খাদ্য- খাবারের জিনিসগুলি পাওয়া যায়, কোনও রোগীকে বিনা চিকিৎসায় ফিরে যেতে না হয় , আইন শৃঙ্খলা বজায় থাকে এবং বিদেশে আটকা পড়া ভারতীয়রাদের  ফিরিয়ে আনা ও সেবা যত্ন করা যায়,তা সুনিশ্চিত করার জন্য এই যোদ্ধারা প্রতিদিন তাদের জীবন ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে চলেছেন।



 সশস্ত্র বাহিনী আজ অনন্য সামরিক উপায়ে ভারতের করোনা যোদ্ধাদের  শ্রদ্ধা জানিয়েছে। শ্রীনগর থেকে তিরুবনন্তপুরম এবং ডিব্রুগড় থেকে কচ্ছ পর্যন্ত বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। যেমন সেনাবাহিনী পুলিশ স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেছে, স্বাস্থ্য পেশা ও জরুরী সরবরাহকারী কর্মীদের সম্মান জানিয়েছে। দেশ জুড়ে সমস্ত রাজ্যের কয়েক শতাধিক শহরে সেনাবাহিনীর ব্যান্ডের সঙ্গে, সেনাবাহিনী ছোট, বড় দলে ভাগ হয়ে করোনার বিরুদ্ধে সামনের সারি যোদ্ধাদের সম্মান জানাতে দেশাত্মবোধক গানের সুর বাজিয়েছে।


 দিল্লি, কলকাতা, চেন্নাই, বেঙ্গালুরু, ভোপাল, আগ্রা, অমৃতসর, বেলগাঁও, রানীক্ষেত পিথোরাগড়ের মতো  অনেক শহর, ছোট এবং বড় শহরাঞ্চলে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী এবং ভারতীয় বিমানবাহিনী (আইএএফ) ও ভারতীয় উপকূল রক্ষীবাহিনী (আইসিজি) হাসপাতালে গিয়ে অভিনন্দন জানিয়েছে।  স্থানীয় পুলিশ স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে এই কার্যক্রম শুরু হয়।এটি এমন একটি ঘটনা যা সত্যই নজিরবিহীন এবং বাহিনীকে তাদের ইউনিফর্মভুক্ত সহকর্মীদের নিকটে নিয়ে আসে। পুরো দেশ এবং সমস্ত দেশবাসী এই সম্মান প্রদানকে উপভোগ করেছেন এবং বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সাহায্যে সশস্ত্র বাহিনীর  প্রতি শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা জানিয়েছেন।


 সশস্ত্র বাহিনী দেশের  দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ জুড়ে ভারতীয় বায়ুসেনা (আইএএফ)র ফাইটার এবং ট্রান্সপোর্ট এয়ারক্রাফটসের সাহায্যে ফ্লাই পাস্ট ছাড়াও আরও একাধিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল।  ভারতীয় বায়ুসেনা, নৌ বাহিনী এবং উপকূল রক্ষীবাহিনীর হেলিকপ্টারগুলি কোভিড রোগীদের চিকিৎসা করা হাসপাতাল গুলির ওপর ফুলের পাপড়ি ছড়িয়েছে। সেনাবাহিনী এবং ভারতীয় বায়ুসেনার ব্যান্ডগুলি কোভিড  হাসপাতালগুলি পরিদর্শন করেছে এবং করোনা যোদ্ধাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশের জন্য গানের সুর বাজিয়েছে।


 সুখোই-৩০ এমকেআই, মিগ -২৯ এবং জাগুয়ার এর মতো যুদ্ধবিমান গুলি যখন রাজপথের ওপর দিয়ে যখন উড়ে যায় এবং দিল্লি প্রদক্ষিণ করে,তখন ছাদের শীর্ষ থেকে বাসিন্দাদের কাছে তা  দৃশ্যমান হয়। এছাড়াও, সি ১৩০ জে হারকিউলিস বিমানটি জাতীয় রাজধানী অঞ্চলের ওপর দিয়ে উড়ে যায়।


 নৌবাহিনী এবং উপকূল রক্ষীবাহিনী  জাহাজগুলি নির্দিষ্ট স্থানে উপকূলের কাছাকাছি সাজিয়ে তোলা হয়েছিল।  আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ, লক্ষদ্বীপ এবং মিনিকয় দ্বীপপুঞ্জের প্রত্যন্ত অঞ্চল এবং দূরবর্তী অঞ্চলগুলি সহ দেশের পুরো উপকূলরেখা জুড়ে ২৫ টি স্থানে জাহাজগুলিকে আজ আলোকিত করা হয়।

 

 


CG/SS



(Release ID: 1620784) Visitor Counter : 109