স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক

কোভিড – ১৯ মহামারীর সংক্রমণ রোধে, পরিস্থিতি পর্যালোচনা এবং রাজ্যগুলির তৎপরতায় সহায়তার জন্য ৬টি আন্তঃমন্ত্রক দল গঠন করল কেন্দ্রীয় সরকার

Posted On: 20 APR 2020 1:47PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ২০ এপ্রিল, ২০২০

 

 


কোভিড-১৯ মোকাবিলায়, এলাকায় গিয়ে পরিস্থিতি পর্যালোচনা  এবং রাজ্যগুলিকে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দেবার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার  ৬টি আন্তঃমন্ত্রক কেন্দ্রীয় দল (ইন্টার-মিনিস্টেরিয়াল সেন্ট্রাল টিম – আইএমসিটি) গঠন করেছে। এই ৬টি দলের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গ ও মহারাষ্ট্রের জন্য ২টি করে  এবং মধ্যপ্রদেশ ও রাজ্যস্থানের জন্য একটি করে দল কাজ করবে। এই দলের সদস্যরা  কোভিড সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যার নিষ্পত্তি করবে এবং  বৃহত্তর জনস্বার্থে কেন্দ্রের কাছে  তাঁদের রিপোর্ট  জমা দেবে। মধ্যপ্রদেশের ইন্দোর, মহারাষ্ট্রের মুম্বাই এবং পুণে, রাজস্থানের জয়পুর এবং পশ্চিমবঙ্গের কোলকাতা, হাওড়া, পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ২৪ পরগণা, দার্জিলিং, কালিম্পং এবং জলপাইগুড়ি জেলার পরিস্থিতি অত্যন্ত বিপদজনক। এই এলাকাগুলিতে নীতি – নির্দেশিকা মেনে লকডাউন ঠিকমতো কার্যকর হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠেছে। এছাড়াও অত্যাবশক পণ্য সরবরাহ, শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা, স্বাস্থ্য পরিকাঠামো, স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা এবং শ্রমিক ও দরিদ্র মানুষদের জন্য ত্রাণ শিবিরগুলির অবস্থা নিয়েও নানা অভিযোগ উঠেছে।   


হটস্পট ঘোষিত জেলাগুলিতে অথবা যে সব জেলার হটস্পট হবার সম্ভাবনা রয়েছে, কিংবা যে সব অঞ্চলে ব্যাপকভাবে সংক্রমণ হতে পারে, সেই সব জায়গায় নিয়মভঙ্গ হলে সেখান থেকে বড় আকারের স্বাস্থ্যজনিত বিপর্যয় ঘটতে পারে। যার ফলে শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট জেলাগুলি নয় দেশেরও অন্যান্য অংশেও এর  বিরূপ প্রভাব পড়বে। এইসব হটস্পট জেলাগুলির  নিয়মভঙ্গের অভিযোগের বিষয়টিকে কেন্দ্র, অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করছে এবং প্রয়োজন হলে এক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞদের মতামত নেওয়া হবে।


২০০৫ সালে বিপর্যয় ব্যবস্থাপনা আইনের ৩৫(১), ৩৫ (২) (এ), ৩৫ (২) (ই), ৩৫ (২) (আই) ধারাগুলি অনুসারে কেন্দ্র, এই দলগুলিকে গঠন করেছে। লকডাউনের ফলে নীতি – নির্দেশিকাগুলিকে পালন করার জন্য সমস্ত রাজ্য সরকার এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


এই প্রসঙ্গে উল্লেখযোগ্য ৩১শে মার্চ সুপ্রিমকোর্ট এক নির্দেশে জানিয়েছে, কেন্দ্রের সমস্ত নীতি – নির্দেশিকাগুলিকে রাজ্য সরকার, স্থানীয় প্রশাসন এবং দেশের নাগরিকদের যথাযথভাবে মেনে চলতেই হবে। 


২০০৫ সালের বিপর্যয় মোকাবিলা আইন অনুসারে লকডাউন, যথাযথভাবে মেনে চলা, নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীগুলির সরবরাহ বজায় রাখা, শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে বাড়ির বাইরে বেরোনো, স্বাস্থ্য পরিকাঠামো, জেলাগুলিতে নমুনা সংক্রান্ত পরিসংখ্যান, স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা, টেস্ট কিট,  পিপিই, মাস্ক সহ অন্যান্য সুরক্ষা সামগ্রীর সহজলভ্যতা এবং শ্রমিক ও দরিদ্র মানুষদের জন্য শিবিরগুলির বিষয়ে আইএমসিটি পর্যালোচনা করবে। এই দলগুলি সংশ্লিষ্ট এলাকাতে খুব শীঘ্রই সফর করবেন। 

 



CG/CB/SFS



(Release ID: 1616383) Visitor Counter : 68