আবাসনএবংশহরাঞ্চলেরদারিদ্র্যদূরীকরণমন্ত্রক
azadi ka amrit mahotsav

আজাদি কা অমৃত মহোৎসবের অঙ্গ হিসেবে আবাসন ও শহরাঞ্চল বিষয়ক মন্ত্রক ৩০টি কর্মসূচির আয়োজন করছে

Posted On: 11 JAN 2022 4:13PM by PIB Kolkata
নয়াদিল্লি, ১১ জানুয়ারি, ২০২২
 
প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী স্বাধীনতার ৭৫তম বার্ষিকীতে আজাদি কা অমৃত মহোৎসব উদযাপনের জন্য যে আন্তরিক আহ্বান জানিয়েছিলেন সেই অনুসারে কেন্দ্রীয় আবাসন ও শহরাঞ্চল বিষয়ক মন্ত্রক লাগাতার ৩০টি কর্মসূচি আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শ্রী মোদী ২০২২ সালে স্বাধীনতার ৭৫তম বার্ষিকী উপলক্ষে ৭৫ সপ্তাহ ধরে অমৃত মহোৎসব উদযাপনের সূচনা করেছিলেন ২০২১-এর মার্চে। এই উদযাপন ২০২৩-এর আগস্ট পর্যন্ত চলবে।
 
কেন্দ্রীয় আবাসন ও শহরাঞ্চল বিষয়ক মন্ত্রী শ্রী হরদীপ সিং পুরী আজ ভার্চ্যুয়াল পদ্ধতিতে ‘স্মার্ট সিটি, স্মার্ট আরবানাইজেশন’ শীর্ষক এক সচিত্র পুস্তিকার আনুষ্ঠানিক প্রকাশ করেন। এই উপলক্ষে শ্রী পুরী বলেন, স্বাধীনতার ঐতিহাসিক ৭৫তম বছর পূর্তিতে আজাদি কা অমৃত মহোৎসব উদযাপনে সমগ্র দেশ একজোট হয়েছে। এটি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। তিনি জানান, স্বাধীনতার সময় কেবল ১৭ শতাংশ ভারতীয় শহরে বাস করতেন। আজ এই সংখ্যা শতাংশের নিরিখে দ্বিগুণেরও বেশি বেড়েছে। এই প্রেক্ষিতে মন্ত্রক আবহমান নগরোন্নয়নে সুসংবদ্ধ প্রয়াস গ্রহণে শুরু থেকেই নেতৃত্ব দিয়ে এসেছে। তিনি আরও বলেন, মন্ত্রকের নাগরিক-কেন্দ্রিক কৌশল শহরাঞ্চলীয় জীবনযাপন, আর্থিক স্বচ্ছলতা এবং স্থায়ীত্বের ক্ষেত্রে সুদূরপ্রসারী ভূমিকা নিয়েছে। সরকার নাগরিকদের বসবাসের পর্যাপ্ত সুযোগ করে দিতে অঙ্গীকারবদ্ধ। এই প্রেক্ষিতে মন্ত্রকের নাগরিক-কেন্দ্রিক উদ্যোগগুলি অনেক বেশি কার্যকর হয়ে উঠেছে।
 
মন্ত্রী আরও বলেন, আজাদি কা অমৃত মহোৎসব উদযাপনে মন্ত্রক এক সামগ্রিক প্রয়াস গ্রহণ করেছে। এই প্রয়াসের মূল ভিত্তিই হল সরকার ও সাধারণ মানুষের ব্যাপক অংশগ্রহণ। এই মহোৎসবের মধ্য দিয়ে দেশের সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য, ভবিষ্যৎ প্রত্যাশা এবং উদ্ভাবনের মানসিকতা তুলে ধরা হবে। ইতিমধ্যেই মন্ত্রকের পক্ষ থেকে মহোৎসবের অঙ্গ হিসেবে যে সমস্ত কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে তা সাধারণ মানুষের স্বতঃপ্রণোদিত সাড়া মিলেছে। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি নাগরিক প্রতিনিধি, সামুদায়িক সংগঠন, শিল্প সংস্থা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং স্টার্ট-আপগুলিও অংশগ্রহণ করেছে। 
 
মন্ত্রকের পক্ষ থেকে আজ যে সচিত্র পুস্তিকা প্রকাশিত হয়েছে তাতে বর্ণময় সচিত্রের মাধ্যমে ৩০টি অনুষ্ঠানের বিভিন্ন আঙ্গিক ফুঁটে উঠেছে। গত ১ জানুয়ারি থেকে আজাদি কা অমৃত মহোৎসবের অঙ্গ হিসেবে এই অনুষ্ঠানের সূচনা হয়েছে। আগামী ৪ ও ৫ ফেব্রুয়ারি সুরাটে ‘স্মার্ট সিটি, স্মার্ট আরবানাইজেশন’ সম্মেলন আয়োজনের মধ্য দিয়ে এই অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হবে। অবশ্য মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সমাপ্তি অনুষ্ঠানের জন্য প্রাথমিকভাবে এই দুটি দিন স্থির হয়েছে। দেশে উদ্ভূত কোভিড-১৯ পরিস্থিতির বিষয়টিকে বিবেচনায় রেখে তারিখে পরিবর্তন হতেও পারে। 
 
সারা দেশে মন্ত্রকের পক্ষ থেকে আজাদি কা অমৃত মহোৎসবের অঙ্গ হিসেবে যে ৩০টি ‘আইকনিক’ বা বর্ণময় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে তাতে ৩ লক্ষের বেশি সাধারণ মানুষ অংশ নেবেন বলে মনে করা হচ্ছে। বর্তমান মহামারীজনিত পরিস্থিতিকে বিবেচনায় রেখে মন্ত্রক হাইব্রিড বা ভার্চ্যুয়াল পদ্ধতিতে অনুষ্ঠান আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই অনুষ্ঠানগুলিতে হ্যাকাথন, ফ্রিডম টু ওয়াক অ্যান্ড সাইকেল ক্যাম্পেন প্রভৃতি অভিনব কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। স্মার্ট সিটি রূপায়ণের পাশাপাশি, মন্ত্রক গত ২৭ ডিসেম্বর জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কে সচেতনতা গড়ে তুলতে এক বিশেষ অভিযানের সূচনা করেছে। এই অভিযানে দেশের ১০০টি স্মার্ট শহরে ১ লক্ষ নাগরিককে সচেতন করে তোলার কাজ চলছে। 
 
উল্লেখ করা যেতে পারে, প্রগতিশীল ভারতের ৭৫ বর্ষ ও তার গৌরবময় ইতিহাস জনসমক্ষে তুলে ধরতেই সরকার আজাদি কা অমৃত মহোৎসব আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আত্মনির্ভর ভারত গঠনের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর দূরদৃষ্টির অঙ্গ হিসেবে দেশে উন্নয়নের যাত্রাপথে সাধারণ মানুষকে সামিল করে এক কার্যকর পরিবর্তন নিয়ে আসাই এই মহোৎসব আয়োজনের অন্যতম উদ্দেশ্য। গত বছরের ১২ মার্চ ৭৫ সপ্তাহব্যাপী আজাদি কা অমৃত মহোৎসবের সূচনা হয়। আগামী বছর ১৫ আগস্ট স্বাধীনতার ৭৫তম বার্ষিকীতে এই মহোৎসবের সমাপ্তি ঘটবে।
 
CG/BD/DM/


(Release ID: 1789219) Visitor Counter : 81