পরিবেশওঅরণ্যমন্ত্রক

কম কার্বন শিল্পে রূপান্তরে শিল্প মহলের গুরুত্বপূর্ণ স্বেচ্ছা যোগদান জরুরি : শ্রী প্রকাশ জাভড়েকর

Posted On: 01 DEC 2020 5:46PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লী, ১ ডিসেম্বর, ২০২০

       কেন্দ্রীয় পরিবেশ, জলবায়ু পরিবর্তন এবং বনমন্ত্রী শ্রী প্রকাশ জাভড়েকর বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তন রুখতে আমাদের প্রচেষ্টায় মানুষ এবং শিল্প মূল চালক।

       শিল্প রূপান্তর নেতৃত্ব শিখর সম্মেলনে উচ্চতর বিভাগে মন্ত্রী তাঁর ভাষণে বলেন, বিশ্বে সিও২ নিঃসরণে প্রায় ৩০ শতাংশ সরাসরি দেয় শিল্প এবং জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবিলায় কম কার্বনের পথে এগোতে রূপান্তর ঘটাতে হবে শিল্পকে।

       শ্রী জাভড়েকর জানান যে, দেশে সামনের সারির শিল্পগুলি স্বেচ্ছায় সিও২ নিঃসরণ কমিয়েছে কোনরকম নির্দেশ ছাড়াই এবং একাধিক সংস্থা দেশে সক্রিয়ভাবে পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তির ব্যবহারে উৎসাহ দিচ্ছে। তিনি আরও বলেন, ‘এইভাবেই এগোতে হবে এবং আমাদের প্রয়োজন কার্বন নিঃসরণ কমাতে শিল্পগুলিকে স্বেচ্ছায় অংশ নিতে উৎসাহ দেওয়া।’

       অর্থের বিষয়ে বলতে গিয়ে শ্রী জাভড়েকর বলেন, অর্থের ব্যবহার করতে হবে বৃহত্তর মাত্রায় এবং জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়ের কাজে প্রযুক্তির ব্যবহার করতেই হবে।

       তিনি বলেন, সুলভ প্রযুক্তি এবং গবেষণামূলক তথ্য বিকাশশীল দেশগুলির সঙ্গে ভাগ করে নেওয়া প্রয়োজন যাতে তারা পরিবেশ রক্ষার লক্ষ্যে কাজ করতে পারে।

       শ্রী জাভড়েকর এও বলেন, দেশগুলির ভুলে যাওয়া উচিত নয় যে প্রতিটি জলবায়ু কার্যাবলীর খরচ আছে এবং আমরা যদি জলবায়ু পরিবর্তনকে বিপর্যয় হিসেবে বিবেচনা করি তাহলে কারোরই এই বিপর্যয় থেকে লাভ করা উচিত নয়। তিনি বলেন, এমন হলে বিকাশশীল দেশের দরিদ্র মানুষের ওপর দু-বার কর চাপানোর মতো হবে যা জলবায়ু ন্যায় নয়।

       শিখর সম্মেলনে সুইডেনের উপ-প্রধানমন্ত্রী ইসাবেল লেভিন বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়ে ভারত এবং সুইডেনকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, কার্বন নিঃসরণ কমাতে সেরা ব্যবহারিক কাজ এবং অভিজ্ঞতা ভাগ করে নেওয়া প্রয়োজন। সুইডেনের উপ-প্রধানমন্ত্রী কার্বন নিঃসরণে অর্থের ব্যবহারের ওপর জোর দেন এবং বলেন, সুইডেন সরকার এই লক্ষ্যে কাজ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

       এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে লিডারশিপ গ্রুপ ফর ইন্ডাস্ট্রি ট্রানজিশন (লিডআইটি)। ভারত এবং সুইডেন  লিডআইটির সূচনা করে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের সঙ্গে রাষ্ট্রসংঘের ২০১৯এ মহাসচিব জলবায়ু কার্যাবলী শিখর সম্মেলনের সময় স্টকহোম এনভায়রনমেন্ট ইন্সটিটিউটের সহায়তায়। বর্তমানে এই গোষ্ঠীতে ১৩টি দেশের এবং ভারতের ডালমিয়া সিমেন্ট, মাহিন্দ্রা গ্রুপ এবং স্পাইস জেট সহ ১৫টি সংস্থার সদস্যপদ আছে যারা কার্বন কম শিল্প রূপান্তরের লক্ষ্যে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

       লিড আইটি ভার্চুয়াল ইন্ডাস্ট্রি ট্রানজিশন, ইন্ডাস্ট্রি সামিট আয়োজন করে শিল্প রূপান্তর প্রক্রিয়ায় গতি আনতে যখন সারা বিশ্ব প্যারিস চুক্তির পঞ্চম বর্ষ উদযাপন করছে। অনুষ্ঠানে জোর দেওয়া হয় শিল্প রূপান্তরে এবং প্রযুক্তি ব্যবহারের ওপর।

       ভার্চুয়াল এই অনুষ্ঠানে ভারতের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলির প্রধানরা যোগ দেন। অনুষ্ঠানে আন্তর্জাতিক স্তরের চিন্তাবিদ এবং ব্রিটেন, লুক্সেমবুর্গ, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, জামার্নির মন্ত্রী ও প্রতিনিধিরাও অংশ নেন।

***

 

CG/AP/NS



(Release ID: 1677530) Visitor Counter : 5