বিজ্ঞানওপ্রযুক্তিমন্ত্রক

মাইল্যাবের নমুনা পরীক্ষার কিট উপাদন বৃদ্ধির উদ্যোগে জৈব প্রযুক্তি দপ্তরের সহায়তা

Posted On: 25 JUL 2020 12:00PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লী, ২৫ জুলাই, ২০২০

 

 


কোভিড-১৯এর নমুনা পরীক্ষার জন্য পুনা ভিত্তিক মাইল্যাব ডিসকভারি সলিউশন একটি টেস্টিং কিট- “প্যাথোডিকেক্ট”-এর উৎপাদন বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে। জৈব প্রযুক্তি দপ্তর (ডিপার্টমেন্ট অফ বায়োটেকনোলজি-ডিবিটি) এবং জৈবপ্রযুক্তি গবেষণা সহায়তা পরিষদ (বায়োটেকনোলজি ইন্ডাস্ট্রি রিসার্চ অ্যাসিসট্যান্স কাউন্সিল౼বিআইআরএসি) এই উদ্যোগে কৌশলগত সহায়তার জন্য অর্থের যোগান দিচ্ছে। 


মাইল্যাবের এমডি শ্রী হাসমুখ রাওয়াল বলেছেন, তাঁরা বিআইআরএসি-র এই সহায়তার জন্য অত্যন্ত কৃতজ্ঞ। কারণ এরফলে তাঁরা উৎপাদন বাড়াতে পেরেছেন।


ডিবিটি-র সচিব এবং বিআইআরএসি-র চেয়ারপার্সন ডঃ রেনু স্বরূপ জানিয়েছেন, এই মহামারীর বিরুদ্ধে আমাদের লড়াইতে উন্নতমানের আরটি-পিসিআর টেস্ট কিট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই কিটের চাহিদা মেটাতে মাইল্যাবের প্যাথোডিটেক্ট অত্যন্ত কার্যকরী। সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এই কিট আমাদের প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর আত্মনির্ভর ভারতের ভাবনার সঙ্গে মিলে যায়।


বর্তমানে মাইল্যাব ২ লক্ষ আরটি-পিসিআর এবং ৫০ হাজার আরএনএ টেস্ট কিট তৈরি করতে পারে। এই সংস্থাটি সিডিএসসিও এবং ইন্ডিয়া এফডিএ-র থেকে বরাত পেয়েছে। আইসিএমআর, এই সংস্থাটিকে নোভেল করোনা ভাইরাস ছাড়াও এনএটি, এইচআইভি, এইচবিভি এবং এইচসিভি নমুনা পরীক্ষার কিট তৈরির অনুমতি দিয়েছে।


মাইল্যাব সম্প্রতি মলিকিউলার ল্যাবরেটরি মেশিন কমপ্যাক্ট এক্সএল মেশিন বাজারে এনেছে। এর সাহায্যে নানা নমুনা পরীক্ষার বিভিন্ন বিক্রিয়ক তৈরি করা যাবে এবং আণবিক পদ্ধতিতে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষাও করা সম্ভব। এই মেশিনটি ভারতের গ্রামাঞ্চলে আণবিক পদ্ধতিতে নমুনা পরীক্ষার কাজে সাহায্য করবে, কারণ এটি ব্যবহারের জন্য পরিকাঠামোগত এবং অন্যান্য খরচ খুব কম হয়। যেহেতু এই মেশিনটি থেকে অনেক রকমের পরীক্ষা করা যায় তাই কম কর্মীর সাহায্যেই এটিকে চালানো সম্ভব।

 


ডিবিটি প্রসঙ্গে


জৈব প্রযুক্তি দপ্তর অর্থাৎ ডিবিটি কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের অধীনস্থ একটি দপ্তর। ভারতে জৈব প্রযুক্তির উন্নয়ন এবং কৃষি, স্বাস্থ্য পরিষেবা, প্রাণী বিজ্ঞান, পরিবেশ ও শিল্পে এই প্রযুক্তির প্রয়োগ নিয়ে এই দপ্তর কাজ করে।

 


বিআইআরএসি প্রসঙ্গেঃ-


জৈব প্রযুক্তি দপ্তরের অধীনস্থ রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থা জৈবপ্রযুক্তি গবেষণা সহায়তা পরিষদ (বায়োটেকনোলজি ইন্ডাস্ট্রি রিসার্চ অ্যাসিসট্যান্স কাউন্সিল౼বিআইআরএসি)  একটি অলাভজনক সংস্থা। জৈব প্রযুক্তি সংক্রান্ত বিভিন্ন সংস্থার গবেষণা ও উদ্ভাবনী কাজকর্মে এই পরিষদ সাহায্য করে থাকে।
 


ন্যাশনাল বায়ো ফার্মা মিশন : 

কেন্দ্রের জৈব প্রযুক্তি দপ্তরের (ডিপার্টমেন্ট অফ বায়ো টেকনোলজি-ডিবিটি)শিল্প সংস্থা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির যৌথ প্রয়াসে বিভিন্ন গবেষণামূলক কাজে গতি আনার জন্য উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা একাজে ২৫ কোটি মার্কিন ডলারের সমতুল একটি তহবিল তৈরি করেছে। জৈব প্রযুক্তি গবেষণা সহায়তা পরিষদ একাজে সাহায্য করছে। ভারতের জনসাধারণকে উন্নতমানের এবং আয়ত্বাধীন খরচে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া এই কর্মসূচির উদ্দেশ্য। টিকা, চিকিৎসা সরঞ্জাম, রোগ নির্ণয়ের যন্ত্রপাতি উদ্ভাবনের কাজে এই প্রকল্প সাহায্য করে থাকে।

 



CG/CB/NS



(Release ID: 1641200) Visitor Counter : 268