অর্থমন্ত্রক

প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ প্যাকেজ এ পর্যন্ত অগ্রগতি

Posted On: 20 JUN 2020 2:17PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২০ জুন, ২০২০

 

 


১ লক্ষ ৭০ হাজার কোটি টাকার প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ প্যাকেজের অঙ্গ হিসাবে কেন্দ্রীয় সরকার মহিলা, দরিদ্র, প্রবীণ নাগরিক এবং কৃষকদের জন্য বিনামূল্যে খাদ্যশস্য ও নগদ আর্থিক সুবিধার কথা ঘোষণা করেছে। এই প্যাকেজের রূপায়ণের ওপর কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলি নিরন্তর নজর রাখছে। এই প্যাকেজের আওতায় ৪২ কোটি দরিদ্র মানুষ ৬৫ হাজার ৪৫৪ কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা পেয়েছেন।


প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ প্যাকেজের বিভিন্ন উদ্যোগের আওতায় এ যাবৎ অগ্রগতি নিম্নরূপ –

১) পিএম কিষাণ কর্মসূচির প্রথম কিস্তি বাবদ ৮ কোটি ৯৪ লক্ষ সুফলভোগীকে ১৭ হাজার ৮৯১ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে।

২) জন ধন অ্যাকাউন্টধারী ২০ কোটি ৬৫ লক্ষ মহিলার অ্যাকাউন্টে প্রথম কিস্তি বাবদ ১০ হাজার ৩২৫ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে। জন ধন যোজনার মহিলা অ্যাকাউন্টধারী ২০ ৬২ লক্ষ সুফলভোগীর অ্যাকাউন্টে দ্বিতীয় কিস্তি বাবদ ১০ হাজার ৩১৫ কোটি টাকা এবং তৃতীয় কিস্তি বাবদ ১০ হাজার ৩১২ কোটি টাকা জমা করা হয়েছে।

৩) ২০ কোটি ৮১ লক্ষ বয়স্ক ব্যক্তি, বিধবা ও ভিন্নভাবে সক্ষম ব্যক্তিদের দ্বিতীয় কিস্তি বাবদ ২ হাজার ৮১৪ কোটি ১৫ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে।

৪) ২ কোটি ৩০ লক্ষ ভবন ও নির্মাণ শ্রমিক ৪ হাজার ৩১২ কোটি ৮২ লক্ষ টাকা আর্থিক সহায়তা পেয়েছেন।

৫) এখনও পর্যন্ত এপ্রিল মাসের জন্য ৩৬টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ১ কোটি ১৩ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য সংগ্রহ করেছে। এই রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির পক্ষ থেকে এপ্রিল মাসে ৭৪ কোটি ৩ লক্ষ সুফলভোগীকে ৩৭ লক্ষ ১ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য সরবরাহ করা হয়েছে। মে মাসে ৩৬টি রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ৭২ কোটি ৮৩ লক্ষ সুফলভোগীকে ৩৬ লক্ষ ৪২ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য বিতরণ করেছে। একইভাবে, জুন মাসে ২৯টি রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের পক্ষ থেকে ২৭ কোটি ১৮ লক্ষ সুফলভোগীকে ১৩ লক্ষ ৫৯ হাজার মেট্রিক টন খাদ্যশস্য সরবরাহ করা হয়েছে।

৬) আত্মনির্ভর ভারত অভিযানের আওতায় কেন্দ্রীয় সরকার প্রবাসী শ্রমিকদের দু’মাসের জন্য বিনামূল্যে খাদ্যশস্য ও ছোলা সরবরাহের কথা ঘোষণা করেছে।

৭) প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনার আওতায় এপ্রিল ও মে মাসে ৮ কোটি ৫২ লক্ষ রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডার বুক ও সরবরাহ করা হয়েছে। জুন মাসে এই যোজনার আওতায় ২ কোটি ১০ লক্ষ সিলিন্ডার বুক করা হয়েছে এবং ১ কোটি ৮৭ লক্ষ সিলিন্ডার সরবরাহ করা হয়েছে।

৮) কর্মচারী ভবিষ্যনিধি তহবিল সংগঠনের ২০ লক্ষ ২২ হাজার সদস্য অফেরৎযোগ্য অ্যাডভান্স হিসাবে অনলাইনের সাহায্যে ৫ হাজার ৭৫৭ কোটি টাকা তুলেছেন।

৯) ২৪ শতাংশ হারে ৬৫ লক্ষ ৭৪ হাজার কর্মচারীর অ্যাকাউন্টে ইপিএফ কন্ট্রিবিউশন জমা করা হয়েছে, যার পরিমাণ ৯৯৬ কোটি ৪৬ লক্ষ টাকা।

১০) জেলা খনিজ তহবিলের আওতায় রাজ্যগুলিকে ৩০ শতাংশ পর্যন্ত খরচের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এখনও পর্যন্ত এই তহবিল থেকে ১৮৩ কোটি ৬৫ লক্ষ টাকা খরচ করা হয়েছে।

১১) সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য পরিষেবা কেন্দ্রগুলিতে গত ৩০শে মার্চ থেকে স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য বিমা কর্মসূচি চালু হয়েছে। নিউ ইন্ডিয়া অ্যাস্যুরেন্স এই কর্মসূচি রূপায়ণের দায়িত্বে রয়েছে।

 

 



CG/BD/SB



(Release ID: 1632921) Visitor Counter : 120