বৈদ্যুতিন ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রক

উপযুক্ত প্রযুক্তি ও প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ সহ মূলধন এবং দক্ষ মানবসম্পদ নিয়ে এক অগ্রণী দেশ হিসাবে ভারত বিশ্ব অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে : শ্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ

Posted On: 02 JUN 2020 1:01PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ০২ জুন, ২০২০

 

 


প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় সরকার ডিজিটাল ইন্ডিয়া হোক বা মেক ইন ইন্ডিয়া অথবা স্টার্ট আপ ইন্ডিয়া - সর্বক্ষেত্রেই আমূল পরিবর্তনে বিশ্বাসী। এই উদ্যোগগুলি সাধারণ মানুষের ক্ষমতায়ন ঘটিয়েছে, ডিজিটাল অন্তর্ভুক্তিকরণে অগ্রণী ভূমিকা নিয়েছে, উদ্ভাবনে উৎসাহ যুগিয়েছে। সেই সঙ্গে, ডিজিটাল ক্ষেত্রে বিশ্বের অগ্রণী দেশ হিসাবে ভারতের মর্যাদা বেড়েছে।


মেক ইন ইন্ডিয়া কর্মসূচির গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হ’ল বৈদ্যুতিন সামগ্রী উৎপাদনে উৎসাহদান। ইলেক্ট্রনিক্স সংক্রান্ত জাতীয় নীতি, ২০১৯; সংশোধিত বিশেষ উৎসাহদান কর্মসূচি; ইলেক্ট্রনিক্স ম্যানুফ্যাকচারিং ক্লাস্টার এবং ইলেক্ট্রনিক্স ডেভেলপমেন্ট তহবিল গঠনের মাধ্যমে ভারতের বৈদ্যুতিন সরঞ্জামের উৎপাদন ২০১৪’র ২৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার থেকে বেড়ে ২০১৯ – এ ৭০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার হয়েছে। এই সময়েই মোবাইল ফোন উৎপাদন লক্ষ্যণীয় হারে বেড়েছে। ২০১৪-তে ভারতে যেখানে ২টি মোবাইল ফোন উৎপাদন ইউনিট ছিল, সেখান থেকে ভারত এখন বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফোন উৎপাদনকারী দেশ হয়ে উঠেছে। ২০১৮-১৯ এ মোবাইল ফোন উৎপাদন বেড়ে হয়েছে ২৯ কোটি। ২০১৪-তে এই উৎপাদন পরিমাণ ছিল ৬ কোটি। একইভাবে, বৈদ্যুতিন সরঞ্জামের রপ্তানি ২০১৪-১৫’র ৩২ হাজার ২৬৩ কোটি টাকা থেকে ২০১৮-১৯ এ বেড়ে হয়েছে ৬১ হাজার ৯০৮ কোটি টাকা। বিশ্ব বৈদ্যুতিন সরঞ্জাম উৎপাদনের ক্ষেত্রে ভারতের অংশ ২০১২’র ১.৩ শতাংশ থেকে বেড়ে ২০১৮’তে ৩ শতাংশ হয়েছে।


প্রধানমন্ত্রী শ্রী মোদী এক আত্মনির্ভর ভারত গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন। তার প্রেক্ষিতে ইলেক্ট্রনিক্স ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী শ্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ বলেন, আত্মনির্ভর ভারতের উদ্দেশ্য হ’ল – অন্যদের থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়া নয়, বরং যথাযথ প্রযুক্তি, প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ সহ মূলধন, প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়ানো ও সুদক্ষ মানবসম্পদকে কাজে লাগিয়ে বিশ্ব অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাগ্রহণ।


ভারতে এক সহায়ক বাতাবরণ গড়ে তুলে বিশ্ব অর্থনীতিতে ভারসাম্য রাখা প্রয়োজন, যাতে মূল্য-শৃঙ্খল ব্যবস্থাকে বিশ্ব মূল্য-শৃঙ্খল ব্যবস্থায় সঙ্গে যুক্ত করা যায়। এই লক্ষ্যে সরকার তিনটি কর্মসূচি রূপায়ন করছে। এগুলি হ’ল – উৎপাদন সংযুক্ত উৎসাহ ভাতা, ইলেক্ট্রনিক্স সরঞ্জাম ও সেমি-কন্ডাক্টারের উৎপাদন বাড়াতে উৎসাহ দান এবং সংশোধিত ইলেক্ট্রনিক্স ম্যানুফ্যাকচারিং ক্লাস্টার।


এই তিনটি কর্মসূচিতে খরচ ধরা হয়েছে ৫০ হাজার কোটি টাকা। এর ফলে, দেশীয় ইলেক্ট্রনিক্স ম্যানুফ্যাকচারিং ক্ষেত্রের উৎপাদনশীলতা আরও বৃদ্ধি পাবে। নতুন এই কর্মসূচির ফলে, বিনিয়োগ লক্ষ্যণীয় হারে বাড়বে। সেই সঙ্গে, সংস্থাগুলি ২০২৫ সাল নাগাদ ১ লক্ষ কোটি টাকা লেনলেন করবে এবং ৫ লক্ষ প্রত্যক্ষ ও ২৫ লক্ষ পরোক্ষ কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। 


 


CG/BD/SB



(Release ID: 1628649) Visitor Counter : 11