রাষ্ট্রপতিরসচিবালয়

রাষ্ট্রপতি ভূমি সম্মান ২০২৩ প্রদান করেছেন

Posted On: 18 JUL 2023 2:19PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি,  ১৮ জুলাই, ২০২৩

 

রাষ্ট্রপতি শ্রীমতী দ্রৌপদী মুর্মু আজ নতুন দিল্লিতে কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ভূমি সম্মান ২০২৩ প্রদান করেছেন। ডিজিটাল ভারত ভূমি সংক্রান্ত নথি আধুনিকীকরণ কর্মসূচির (ডিআইএলআরএমপি) সর্বাত্মক রূপায়ণের ক্ষেত্রে সাফল্যের স্বীকৃতি স্বরূপ রাজ্যসচিব এবং জেলা শাসকরা তাদের সহকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে এই সম্মান গ্রহণ করেন। 

অনুষ্ঠানে ভাষণ দিতে গিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, দেশের সর্বাত্মক উন্নয়নের স্বার্থেই গ্রামোন্নয়নের কাজ ত্বরান্বিত হওয়া দরকার। এই গ্রামোন্নয়নের প্রয়োজনেই প্রাথমিক দরকার ভূমি সংক্রান্ত নথির আধুনিকীকরণ। তার কারণ গ্রামীণ জনসংখ্যার বেশিরভাগ মানুষের জীবন এই ভূমি সম্পদের ওপরই নির্ভরশীল। সার্বিক গ্রামোন্নয়নের স্বার্থে সর্বাত্মক এবং সুসংহত ভূমি পরিচালন ব্যবস্থাপনা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। 

রাষ্ট্রপতি বলেন, ডিজিটালিকরণ স্বচ্ছতা নিয়ে আসে। ফলে ভূমি সংক্রান্ত তথ্যের আধুনিকীকরণ এবং ডিজিটালিকরণ দেশের বিকাশের ক্ষেত্রে গভীরভাবে প্রভাব ফেলতে পারে। ভূমি সংক্রান্ত তথ্যের ডিজিটালিকরণ এবং সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের সঙ্গে তার সংযোগ সাধন কল্যাণ মূলক কর্মসূচির সফল রূপায়ণেও সাহায্য করে। বন্যা এবং অগ্নিকান্ডের মতো বিপর্যয়ের ক্ষেত্রে কোনো নথির ক্ষয়ক্ষতি হলে বা তা হারিয়ে গেলে এই ডিজিটাল ব্যবস্থা এক বড় সাহায্যকারীর ভূমিকায় দেখা দেয়। 

ডিজিটাল ভারত ভূমি তথ্য পরিচালন ব্যবস্থার ক্ষেত্রে ভূমি চিহ্নিতকরণে অনন্য সংখ্যা প্রদানের যে ব্যবস্থা করা হয়েছে তা দেখে রাষ্ট্রপতি সন্তোষ প্রকাশ করেন, কারণ এটা আধার কার্ডের মতোই সার্বিক সহায়ক ব্যবস্থা হিসেবে পরিগণিত হতে পারে। রাষ্ট্রপতি বলেন, এই অনন্য সংখ্যা ভূমির যথাযথ ব্যবহার এবং নতুন কল্যাণমূলক কর্মসূচি তৈরি ও রূপায়ণের ক্ষেত্রে বিশেষভাবে সাহায্য করতে পারে। ভূমি সংক্রান্ত নথিকে এবং নথিভুক্ত তথ্য ই-আদালতের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ায় নানাবিধ সুবিধা রয়েছে। ডিজিটালিকরণের ফলে যে স্বচ্ছতা আসবে তাতে ভূমিকে ঘিরে অনৈতিক এবং বেআইনী কার্যকলাপ বন্ধ করা সম্ভব হবে। 

রাষ্ট্রপতি বলেন, বিনামূল্যে এবং সুবিধাজনক পদ্ধতিতে জমি সংক্রান্ত তথ্য পাওয়ার নানাবিধ সুবিধা রয়েছে। উদাহরণ স্বরূপ, জমির সত্ত্বাধিকার নিয়ে আদালতে মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি এর মাধ্যমে সম্ভব। তিনি বলেন, আমাদের দেশের জনসংখ্যার একটা বিরাট অংশ এই জমি সংক্রান্ত মামলার সঙ্গে যুক্ত। এর ফলে প্রশাসন এবং বিচার ব্যবস্থার একটা বিরাট সময় এই মামলা-মকদ্দমা নিষ্পত্তিতেই ব্যয় হয়ে যায়। ডিজিটালিকরণের মাধ্যমে এবং তথ্যের সংযুক্তিকরণের ফলে জনসাধারণ এবং প্রাতিষ্ঠানিক উদ্যমকে মামলা-মকদ্দমায় সময় খরচের পরিবর্তে প্রকৃত উন্নয়নের কাজে ব্যবহার করা সম্ভব হবে।

অনুষ্ঠান পর্বে রাষ্ট্রপতির ভাষণ দেখতে  

 https://static.pib.gov.in/WriteReadData/specificdocs/documents/2023/jul/doc2023718224301.pdf-

এই লিঙ্কে ক্লিক করুন। 

CG/AB/NS



(Release ID: 1940646) Visitor Counter : 139