স্বাস্থ্যওপরিবারকল্যাণমন্ত্রক

কোভিড – ১৯ ভাইরাসের টিকার নিয়ন্ত্রিত আপৎকালীন ব্যবহারের অনুমোদন সংক্রান্ত ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার (ডিসিজিআই) এর সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

Posted On: 03 JAN 2021 11:23AM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ৩রা জানুয়ারী, ২০২১

 

সেন্ট্রাল ড্রাগস স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশনের (সিডিএসসিও) বিশেষজ্ঞ কমিটি  পয়লা ও দোসরা জানুয়ারী বৈঠকে বসে। কমিটি মেসার্স সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া এবং মেসার্স ভারত বায়োটেকের কোভিড – ১৯ ভাইরাসের টিকার নিয়ন্ত্রিত আপৎকালীন ব্যবহারের বিষয়ে সুপারিশ করেছে। একই সঙ্গে মেসার্স ক্যাডিলা হেল্থ কেয়ার লিমিটেডের তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার অনুমতি দিয়েছে।

বিশেষজ্ঞ কমিটি ফুসফুস, রোগ – প্রতিরোধ, মাইক্রো বায়োলজি, ফার্মাকোলজি,  শিশুরোগ, অভ্যন্তরীণ ওষুধ ইত্যাদি বিভিন্ন শাখার বিশেষজ্ঞদের নিয়ে গঠিত। পুণের মেসার্স সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া রিকমবিন্যান্ট শিম্পাঞ্জি অ্যাডেনো ভাইরাস ভেক্টর ভ্যাকসিন – কোভিশিল্ড, কমিটির কাছে জমা দিয়েছিল। অ্যাস্ট্রাজেনেকা / অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সার্স – কোভ – ২ এর গ্লাইকোপ্রোটিন বিশ্লেষণের প্রযুক্তি এই সংস্থাটিকে হস্তান্তরিত করা হয়েছে। সেরাম, সুরক্ষা, রোগ – প্রতিরোধ এবং দক্ষতা সংক্রান্ত তথ্য জমা দিয়েছে। বিদেশে ১৮ বছর বা তার উপরের বয়সী ২৩,৭৪৫ জনের উপর এই টিকা প্রয়োগ করা হয়েছিল। সেই তথ্যই সংস্থাটি জমা দিয়েছে। দেখা গেছে এই টিকার ক্ষমতা ৭০.৪২ শতাংশ। মেসার্স সেরামকে দেশে ১৬০০ ব্যক্তির উপর দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্তরের পরীক্ষামূলক প্রয়োগের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষামূলক প্রয়োগের থেকে প্রাপ্ত সুরক্ষা ও রোগ – প্রতিরোধ সংক্রান্ত তথ্য সংস্থাটি, কমিটির কাছে জমা দিয়েছে। বিশেষজ্ঞ কমিটি সব তথ্য যাচাই করে বিভিন্ন শর্তসাপেক্ষে নিয়ন্ত্রিতভাবে আপৎকালীন পরিস্থিতিতে এই টিকা প্রয়োগের অনুমতি দিয়েছে। এই সংস্থার চিকিৎসা সংক্রান্ত পরীক্ষা – নিরীক্ষা অব্যহত থাকবে। 

মেসার্স ভারত বায়োটেক, ভিরিওন ইনঅ্য়াক্টিভেটেড করোনা ভাইরাস টিকা  - কোভ্যাক্সিন, আইসিএমআর এবং পুণের এনআইভি-র সঙ্গে উদ্ভাবন করেছে। এনআইভি থেকে ভারত বায়োটেক এই ভাইরাসের স্ট্রেন সংগ্রহ করেছিল। এই টিকা ভেরোসেল প্ল্যাটফর্মের উপর প্রয়োগ করা হয় এবং দেশে – বিদেশে এর দক্ষতা প্রমাণিত হয়েছে। 

এই সংস্থা, ইঁদুর, খরগোশ, সিরিয়ান হ্যামস্টারের মতো বিভিন্ন প্রাণীর শরীরে টিকা প্রয়োগ করে, তার থেকে সুরক্ষা ও রোগ – প্রতিরোধ সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করেছে এবং মানুষ ছাড়া অন্যান্য শ্রেষ্ঠ বর্গভুক্ত প্রাণীদের উপরও পরীক্ষা – নিরীক্ষা চালিয়েছে। এর পর এই সংস্থা, সমস্ত তথ্যাদি সিডিএসসিও-র কাছে জমা দেয়। এর পর চিকিৎসা সংক্রান্ত পরীক্ষা – নিরীক্ষার প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায় সম্পন্ন হয়। এই পর্বে ৮০০ জনের উপর এই টিকা প্রয়োগ করা হয়। তৃতীয় পর্বে ভারতে ২৫,৮০০ জন স্বেচ্ছাসেবকের উপর টিকা প্রয়োগের পরিকল্পনা করা হয়। এ পর্যন্ত ২২,৫০০ জনের উপর এটি প্রয়োগ করা হয়েছে এবং এই টিকা আজকের তারিখ পর্যন্ত নিরাপদ বলে বিবেচিত হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞ কমিটি, সুরক্ষা ও রোগ – প্রতিরোধ সংক্রান্ত টিকার সমস্ত তথ্য বিশ্লেষণ করে জনস্বার্থে  নিয়ন্ত্রিত আপৎকালীন পরিস্থিতিতে টিকা প্রয়োগের সুপারিশ করেছে। বর্তমানে এই ভাইরাসের বিবর্তিত স্ট্রেনের সন্ধান পাওয়া গেছে। এই সংস্থা, টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ আরো করবে।

মেসার্স ক্যাডিলা হেলথ কেয়ার লিমিডেট, ডিএনএ প্রযুক্তি ব্যবহার করে নোভেল করোনা ভাইরাস – ২০১৯ এর টিকা উদ্ভাবন করেছে। ইতিমধ্যেই এই সংস্থা প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায় ১০০০ জনের উপর পরীক্ষামূলক প্রয়োগ চালাচ্ছে। অন্তবর্তী তথ্যের উপর ভিত্তি করে দেখা যাচ্ছে, ৩ ফোঁটা এই টিকা ইনজেকশনের মাধ্যমে প্রয়োগ করলে, সুরক্ষা ও রোগ – প্রতিরোধের ক্ষমতার বিষয়ে প্রাপ্ত তথ্য সন্তোষজনক। বর্তমানে ২৬,০০০ জন ভারতীয়র উপর তৃতীয় পর্যায় এই টিকা প্রয়োগের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

মেসার্স সেরাম, ও মেসার্স ভারত বায়োটেকের টিকা দুটি ফোঁটা দেওয়া হবে। এই তিনটি টিকাই ২ – ৮ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেটেডের মধ্যে রাখতে হবে।

যথাযথ পরীক্ষা – নিরীক্ষার পর মেসার্স সেরাম ও মেসার্স ভারত বায়োটেকের টিকা দুটিকে নিয়ন্ত্রিতভাবে আপৎকালীন পরিস্থিতিতে প্রয়োগের উপর সিডিএসসিও, অনুমতি দিয়েছে এবং মেসার্স ক্যাডিলা হেলথ কেয়ারের টিকার তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার অনুমতিও দেওয়া হয়েছে।

***

 

 

CG/CB/SFS



(Release ID: 1685814) Visitor Counter : 728