শ্রমওকর্মসংস্থানমন্ত্রক

পেনশন-প্রাপকদের জন্য জীবন প্রমাণপত্র জমা দেওয়ার সময়সীমা বাড়িয়ে ২০২১ – এর ২৮শে ফেব্রুয়ারি; ইপিএফও-র ৩৫ লক্ষ পেনশন-প্রাপক উপকৃত হবেন

Posted On: 28 NOV 2020 3:26PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২৮ নভেম্বর,  ২০২০

 

বর্তমান কোভিড-১৯ মহামারী এবং করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের প্রেক্ষিতে বয়স্ক ব্যক্তিদের সর্বাধিক ঝুঁকির বিষয়টিকে বিবেচনায় রেখে কর্মচারী ভবিষ্যনিধি তহবিল সংগঠন (ইপিএফও) পেনশন-প্রাপকদের সুবিধার্থে জীবন শংসাপত্র জমা দেওয়ার সময়সীমা বাড়িয়ে ২০২১ – এর ২৮শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত করেছে। বর্তমানে একজন পেনশন-প্রাপক বছরের ৩০শে নভেম্বর পর্যন্ত যে কোনও সময় জীবন প্রমাণপত্র জমা করতে পারেন। তবে, জীবন প্রমাণপত্র জারি হওয়ার তারিখ থেকে তার বৈধতা থাকে ১ বছর। 

ইপিএফও-র এই সিদ্ধান্তের ফলে পেনশন-প্রাপকরা আগামী বছরের ২৮শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত জীবন শংসাপত্র জমা করতে পারবেন। জীবন শংসাপত্র জমা করার জন্য ৩ লক্ষ ৬৫ হাজার অভিন্ন পরিষেবা কেন্দ্র, পেনশন বন্টনকারী ব্যাঙ্কের অগণিত শাখা, ১ লক্ষ ৩৬ হাজার ডাকঘর, ডাক বিভাগের ১ লক্ষ ৯০ হাজার পোস্টম্যান ও গ্রামীণ ডাক সেবকের সঙ্গে জীবন প্রমাণপত্র জমা দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করা যেতে পারে। 

পেনশন-প্রাপকরা নিকটবর্তী অভিন্ন পরিষেবা কেন্দ্রের ভৌগোলিক অবস্থান জানার জন্য https://locator.csccloud.in লিঙ্কে ক্লিক করতে পারেন। এছাড়াও, বাড়িতে থেকেই জীবন প্রমাণপত্র জমা দেওয়ার জন্য ডাকঘরে অনলাইন মারফৎ যোগাযোগ করা যেতে পারে। ডাকঘরগুলিতে যোগাযোগের অনলাইন লিঙ্ক হ’ল - http://ccc.cept.gov.in/covid/request.aspx

ইপিএফও-র এই প্রয়াসের প্রশংসা করে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রী শ্রী সন্তোষ গাঙ্গোয়ার বলেছেন, জীবন প্রমাণপত্র জমা দেওয়ার প্রক্রিয়ায় সরলীকরণ করে ভবিষ্যনিধি তহবিল সংগঠন পেনশন-প্রাপকদের সুবিধার্থে অসাধারণ কাজ করেছে। এর ফলে, একদিকে যেমন ডিজিটাল ইন্ডিয়া কর্মসূচির প্রসার ঘটবে, অন্যদিকে, ৩৫ লক্ষ পেনশন-প্রাপক আগামী বছরের ২৮শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তাঁদের জীবন প্রমাণপত্র জমা করার সুবিধা পাবেন। জীবন প্রমাণপত্র জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে সময়সীমা বাড়ানোর ফলে ৩৫ লক্ষ পেনশন-প্রাপকের পেনশনের টাকা আটকাবে না বলেও আশ্বাস দেন শ্রী গাঙ্গোয়ার।  

***

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1676830) Visitor Counter : 117