আদিবাসীবিষয়কমন্ত্রক

উন্নত ভারত অভিযানের জন্য আইআইটি দিল্লির সঙ্গে ট্রাইফেডের মউ স্বাক্ষর

Posted On: 25 JUL 2020 4:25PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২৫ জুলাই, ২০২০

 

 


আদিবাসী মানুষের সার্বিক কল্যাণ ও অগ্রগতিতে এক গুরুত্বপূর্ণ সংগঠন হিসাবে ট্রাইফেড প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। কেন্দ্রীয় আদিবাসী বিষয়ক মন্ত্রকের অধীন ট্রাইফেড আদিবাসী মানুষকে উন্নয়নের মূলস্রোতে যুক্ত করতে সর্বদাই প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে চালু কর্মসূচি ও উদ্যোগগুলি রূপায়ণের পাশাপাশি, ট্রাইফেড আইআইটি দিল্লির সঙ্গে উন্নত ভারত অভিযানের জন্য অংশীদারিত্ব গড়ে তুলেছে। উল্লেখ করা যেতে পারে, উন্নত ভারত অভিযান কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের একটি জাতীয় স্তরের ফ্ল্যাগশিপ কর্মসূচি।


এই অংশীদারিত্বকে আরও মজবুত ও সুদৃঢ় করতে ট্রাইফেড আইআইটি দিল্লি এবং বিজনানা ভারতীর মধ্যে গতকাল দিল্লিতে একটি ত্রিপাক্ষিক সমঝোতাপত্র স্বাক্ষরিত হয়েছে। ট্রাইফেডের বন ধন কর্মসূচির আওতায় আদিবাসী শিল্পোদ্যোগগুলি এই সমঝোতার ফলে উন্নত ভারত অভিযানের অঙ্গ হিসাবে দেশের ২ হাজার ৬০০টিরও বেশি শিক্ষা তথা গবেষণাধর্মী প্রতিষ্ঠানের বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে যোগসূত্র স্থাপন করে প্রয়োজনীয় পরামর্শ গ্রহণ করতে পারবেন। দিল্লি আইআইটি-র সঙ্গে অংশীদারিত্ব গড়ে তুলে উন্নত ভারত অভিযানের অঙ্গ হিসাবে ট্রাইফেড আদিবাসী মানুষের জীবন-যাপনের মানোন্নয়ন তথা উপার্জন বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন মন্ত্রক, জেলা প্রশাসন, স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রতিষ্ঠান, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এবং সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষের সঙ্গে সমন্বয় বজায় রেখে উপযুক্ত কর্মসূচি গ্রহণ করতে পারবে। এই সমঝোতা চুক্তি বিশেষভাবে আদিবাসী মানুষের জীবনযাপনের মান বাড়াতে সাহায্য করবে। এই কাজে বন ধন যোজনার আওতায় স্থাপিত বন ধন বিকাশ কেন্দ্রগুলি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে।


আইআইটি দিল্লির সঙ্গে এই চুক্তির তাৎপর্য ব্যাখ্যা করতে গিয়ে ট্রাইফেডের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর শ্রী প্রবীণ কৃষ্ণ বলেন, আদিবাসী মানুষের সার্বিক উন্নয়নে এই উদ্যোগ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। আদিবাসী মানুষের জীবনযাপনের মানোন্নয়নে এবং তাঁদের কর্ম দক্ষতা বাড়াতে ট্রাইফেড বিভিন্ন মন্ত্রকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সমন্বয় বজায় রেখে কাজ করছে। ট্রাইফেডের পক্ষ থেকে এ ধরনের অভিনব উদ্যোগ গ্রহণের উদ্দেশ্য হ’ল – সারা বছর ধরে আদিবাসী মানুষের উপার্জনের সুবিধা সুনিশ্চিত করা। শ্রী কৃষ্ণ আরও বলেন, মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের উন্নত ভারত অভিযানের আওতায় শিক্ষা ও গবেষণাধর্মী প্রতিষ্ঠানগুলির সুবিস্তৃত নেটওয়ার্ক ব্যবস্থার সঙ্গে যুক্ত হয়ে ট্রাইফেড আদিবাসী মানুষের কল্যাণে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারবে।


আইআইটি দিল্লি এং উন্নত ভারত অভিযানের সঙ্গে অংশীদারিত্ব গড়ে তুলে ট্রাইফেড অরণ্যবাসী মানুষ, যাঁরা গৌণ বনজ সামগ্রী উৎপাদনের সঙ্গে যুক্ত সেই সমস্ত আদিবাসী মানুষের কাছে নতুন ধরনের প্রযুক্তি, উদ্ভাবন ও আধুনিক ডিজিটাল ব্যবস্থা পৌঁছে দিতে সক্ষম হবে। এমনকি, এই সমঝোতার ফলে আদিবাসী মানুষের দৈনন্দিন জীবনযাপনের সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন সমস্যার সমাধানসূত্র পাওয়া যেতে পারে।


এই উপলক্ষে আইআইটি দিল্লির অধিকর্তা শ্রী ভি রামগোপাল রাও বলেন, আইআইটি দিল্লি সমাজের সঙ্গে নিজেদেরকে যুক্ত করার কাজে নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। দৃষ্টান্ত-স্বরূপ তিনি বলেন, আইআইটি দিল্লি এমন একাধিক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে, যার সাহায্যে সাধারণ মানুষের প্রকৃত সমস্যাগুলি সমাধানের জন্য প্রতিষ্ঠানের বিশেষজ্ঞদের মেধা ও অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানো হচ্ছে। ত্রিপাক্ষিক এই সমঝোতার অন্যতম একটি পক্ষ বিজনানা ভারতী দেশে আদিবাসী মানুষের মধ্যে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন অগ্রগতি সম্পর্কে সচেতন করার কাজ করবে। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে সার্বিক কল্যাণের জন্য আত্মনির্ভর ভারতের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে ত্রিপাক্ষিক চুক্তির মতো এই পদক্ষেপ সুদূরপ্রসারী ভূমিকা নেবে।

 



CG/BD/SB



(Release ID: 1641244) Visitor Counter : 229