আবাসনএবংশহরাঞ্চলেরদারিদ্র্যদূরীকরণমন্ত্রক

ভারতে মেট্রো রেল পরিষেবার প্রসার স্পষ্ট হয়ে ওঠে ক্রমবর্ধমান যাত্রী সংখ্যা থেকে

দেশের বিভিন্ন প্রান্তের মেট্রো রেলে দৈনিক আরোহীর সংখ্যা ১ কোটি ছাড়িয়ে গেছে

Posted On: 06 JAN 2024 9:37AM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ৬ জানুয়ারি,২০২৪

 

‘দ্য ইকনমিস্ট’ পত্রিকাটি ২৩ ডিসেম্বর, ২০২৩ তারিখে প্রকাশিত তাদের বছর শেষের জোড়া সংখ্যায় ভারতে মেট্রো রেল পরিষেবা বেশি সংখ্যায় যাত্রীর কাজে লাগছে না বলে যে মন্তব্য করেছে তা ঠিক নয়। ঐ পত্রিকায় একটি নিবন্ধে বলা হয়েছে, সাধারণ যাত্রীদের কাছে ভারতের বিপুলায়তন মেট্রো ব্যবস্থা সেভাবে প্রাসঙ্গিক নয় এবং এই বিষয়টি নিয়ে চিন্তাভাবনা করা দরকার।

লেখাটিতে যা বলতে চাওয়া হয়েছে তা হল, ভারতের কোনো মেট্রো রেলপথেই যাত্রীর সংখ্যা অনুমেয় সংখ্যার অর্ধেকেও পৌঁছয়নি। কিন্তু এই বিষয়টি খেয়াল করা হয়নি যে, ভারতে তিন-চতুর্থাংশ মেট্রো রেলপথ চালু হয়েছে মাত্র ১০ বছর আগে। কয়েকটি মেট্রো চালু হয়েছে মাত্র বছর দুয়েক আগে। কিন্তু, এই মেট্রো রেলপথগুলিতে দৈনিক মোট যাত্রী সংখ্যা ১ কোটি ছাড়িয়ে গেছে। বছর দুয়েকের মধ্যে তা ১ কোটি ২৫ লক্ষ ছাড়িয়ে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। তাছাড়া, ভারতে সবক’টি মেট্রোই লাভে চলছে।

দিল্লি মেট্রোর কথাই ধরা যাক। এখানে দৈনিক গড় যাত্রী সংখ্যা ইতিমধ্যেই ৭০ লক্ষ ছাড়িয়ে গেছে, যা ২০২৩-এর শেষে অনুমিত যাত্রী সংখ্যার তুলনায় বেশি। বস্তুত, দিল্লি মেট্রো সেখানকার অন্য পরিবহণ ব্যবস্থার ওপর চাপ কমিয়েছে। কয়েকটি রুটে দিনের ব্যস্ততম সময়ে দিল্লি মেট্রোয় যাত্রীর সংখ্যা ৫০ হাজারের বেশি হয়ে থাকে। এই সংখ্যায় যাত্রী পরিবহণের জন্য প্রতি ঘন্টায় ৭১৫টি বাস চালানোর দরকার হত। অর্থাৎ, প্রতি ৫ সেকেন্ড অন্তর বাস চলতে হত, যা অসম্ভব। তেমনটা হলে রাস্তাঘাটে যানজট কোন মাত্রায় পৌঁছত তা সহজেই বোঝা যায়।

ভারতের মতো বৈচিত্র্যপূর্ণ দেশে সব ধরনের গণ-পরিবহণই গুরুত্বপূর্ণ। ভারত সরকার চায়, গণ-পরিবহণে যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্য এবং পাশাপাশি শক্তির দক্ষ ব্যবহার। এজন্য চালু করা হয়েছে ‘পিএম ই-বাস সেবা প্রকল্প’। ৫ লক্ষ থেকে ৪০ লক্ষ জনসংখ্যাবিশিষ্ট শহরগুলিতে এই প্রকল্পের আওতায় ১০ হাজার ই-বাস চালু করা হবে। যেসব শহরের জনসংখ্যা ৪০ লক্ষের বেশি, তাদের জন্য রয়েছে সরকারের ‘FAME’ প্রকল্প। ই-বাস এবং মেট্রো বিদ্যুৎচালিত, কিন্তু মেট্রো অনেক বেশি শক্তিসাশ্রয়ী। দেশের শহরগুলির পরিসর ও জনসংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রত্যেকটি এলাকায় পরিবহণ ব্যবস্থার যথার্থ প্রসারে মেট্রো রেল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে এবং এতে যাত্রীর সংখ্যাও বাড়বে।

ঐ নিবন্ধে আরও বলা হয়েছে, কাছাকাছি দূরত্বে যাওয়ার জন্য বহু মানুষই মেট্রোর বদলে অন্য ধরনের ব্যবস্থা বেশি পছন্দ করেন। এই মন্তব্যও ভিত্তিহীন। ভারতের শহরগুলি আয়তনে ক্রমেই বেড়ে চলেছে – এই বিষয়টিতে লক্ষ্য রাখা হয়নি। ভারতে মেট্রো রেল ব্যবস্থার পরিকল্পনা এমনভাবে করা হচ্ছে যা আগামী ১০০ বছরে শহুরে এলাকায় গণ-পরিবহণ পরিষেবার চাহিদা মেটাতে পারে। মহিলা এবং তরুণ-তরুণীরা মেট্রোয় যাতায়াত করতেই পছন্দ করেন। 
 

PG/AC/DM



(Release ID: 1994039) Visitor Counter : 62