খনিমন্ত্রক

খনিজ সম্পদ অনুসন্ধানের ব্যাপক সম্ভাবনার সদ্ব্যবহার

Posted On: 06 SEP 2021 3:27PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ০৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

 

খনি ও খনিজ পদার্থ (উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ) সংশোধিত আইন, ২০১৫ লাইসেন্স এবং খনি লিজ দেওয়ার সম্ভাবনার প্রেক্ষিতে খনিজ সম্পদ বন্টনে সুযোগ-সুবিধার ক্ষেত্রে আরও স্বচ্ছতা নিয়ে এসেছে। খনি ও খনিজ সম্পদের বণ্টনে স্বচ্ছতা বজায় রাখার ক্ষেত্রে সংশোধিত এই আইনে গত মার্চ মাসে আরও সরলীকরণ করা হয়। আইন সংশোধনের ফলে খনি ক্ষেত্রে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে এবং বিনিয়োগ বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। একইভাবে, রাজ্যগুলির রাজস্ব বৃদ্ধি পাবে, উৎপাদনশীলতা বাড়বে, খনি থেকে উত্তোলন সময়সীমা অনুযায়ী শুরু হবে। এমনকি, লিজে পরিবর্তনের পর উত্তোলন প্রক্রিয়াও অব্যাহত থাকবে। অন্যদিকে, নতুন খনি অনুসন্ধানে গতি আসবে এবং খনিজ সম্পদ বন্টন ত্বরান্বিত হবে। 

আত্মনির্ভর ভারত গঠনের স্বপ্ন বাস্তবায়নে খনি ও খনিজ পদার্থ আইন সংশোধনের ফলে ভারতীয় ভূতাত্ত্বিক সর্বেক্ষণ ইতিমধ্যেই নিলামের জন্য ১০০টি সম্ভাবনাময় খনি চিহ্নিত করেছে। 

এই ১০০টি খনি নিলামের ব্যাপারে ভূতাত্ত্বিক সর্বেক্ষণ রাজ্যগুলির হাতে ১০০টি প্রতিবেদন তুলে দেবে। এর ফলে, একদিকে যেমন দেশে খনিজ সম্পদের নিরবচ্ছিন্ন যোগান সুনিশ্চিত হবে, অন্যদিকে আরও বেশি সংখ্যক খনি নিলামের মাধ্যমে রাজ্যগুলির রাজস্ব বাড়বে। আগামী ৮ সেপ্টেম্বর দিল্লিতে এক অনুষ্ঠানে রাজ্যগুলির হাতে এই প্রতিবেদন তুলে দেওয়া হবে। এই উপলক্ষে কেন্দ্রীয় খনি, কয়লা ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী শ্রী প্রহ্লাদ যোশী, বিভাগীয় প্রতিমন্ত্রী শ্রী রাওসাহেব পাটিল দানভে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন। 

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মুনাফার সম্ভাবনা রয়েছে, এমন খনিজ সম্পদের অনুসন্ধান গতি মন্থর হয়েছে। প্রযুক্তিগত দিক থেকে অগ্রগতি সত্ত্বেও সারা বিশ্ব জুড়ে এই প্রবণতা লক্ষ্য করা গেছে। তাই, এখন সময় এসেছে প্রচলিত ধ্যান-ধারণা থেকে বেরিয়ে এসে নতুন কিছু ভাবার। অবশ্য, এজন্য সরকারি ও বেসরকারি ক্ষেত্রে উৎসাহ প্রয়োজন। রাজ্যগুলির হাতে ভূতাত্ত্বিক সর্বেক্ষণের যে ১০০টি প্রতিবেদন তুলে দেওয়া হবে, তা খনি ক্ষেত্র, শিল্পোন্নয়ন ও কর্মসংস্থানের দিক থেকে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ হয়ে উঠবে। 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1752637) Visitor Counter : 43