অর্থমন্ত্রক

১৫টি রাজ্য সহজে ব্যবসা করার জন্য প্রয়োজনীয় সংস্কারসাধন করেছে

গুজরাট, উত্তর প্রদেশ ও উত্তরাখন্ড রাজ্য তালিকায় নতুন সংযোজন
৯৯০৫ কোটি টাকা অতিরিক্ত ঋণ নেওয়ার অনুমতি পাবে

Posted On: 17 FEB 2021 11:18AM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ 

 

১৫টি রাজ্য  সহজে ব্যবসা করার জন্য প্রয়োজনীয় সংস্কার সফলভাবে সম্পন্ন করেছে। আর্থিক ব্যয় সংক্রান্ত দপ্তর সংস্কারের জন্য যে পদক্ষেপগুলি নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে গুজরাট, উত্তর প্রদেশ এবং উত্তরাখন্ড সেগুলি পূরণ করেছে।    


শিল্পোৎসাহ ও অভ্যন্তরীণ বাণিজ্য দপ্তরের সুপারিশ অনুসারে, আর্থিক ব্যয় বরাদ্দ দপ্তর এই ৩টি রাজ্যের জন্য খোলা বাজার থেকে ঋণ সংগ্রহের পরিমাণ বৃদ্ধি করে ৯ হাজার ৯০৫ কোটি টাকা ধার্য করেছে। এর আগে অন্ধ্রপ্রদেশ, আসাম, হরিয়ানা, হিমাচল প্রদেশ, কর্ণাটক, কেরল, মধ্যপ্রদেশ, ওডিশা, পাঞ্জাব, রাজস্থান, তামিলনাডু এবং তেলেঙ্গানা এই শর্তগুলি পূরণ করেছে। এর ফলে, এই ১৫টি রাজ্য মোট ৩৮ হাজার ৮৮ কোটি টাকা অতিরিক্ত ঋণ নিতে পারবে।  


দেশে বিনিয়োগ-বান্ধব বাণিজ্যিক পরিবেশ গড়ে তোলার জন্য সহজে ব্যবসা করা একটি  গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এর ফলে, সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলির ভবিষ্যতে আর্থিক বিকাশ ত্বরান্বিত হবে। যেসব রাজ্য সংস্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তাদের জন্য কেন্দ্র অতিরিক্ত ঋণ নেওয়ার অনুমতি দিয়েছে। মূলত, জেলাস্তরে ব্যবসা-বাণিজ্য সংক্রান্ত সংস্কার কতটা গ্রহণ করা হয়েছে, তার ওপর প্রাথমিক মূল্যায়ন, বিভিন্ন রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট, লাইসেন্স বা অনুমোদন নানা আইনের আওতায় পুনর্নবীকরণের ব্যবস্থা প্রত্যাহার করা এবং কম্প্যুটারের মাধ্যমে পরিদর্শনের ব্যবস্থা করার বিষয়গুলিই বিবেচিত হয় । কম্প্যুটারের মাধ্যমে পরিদর্শনের এই প্রক্রিয়ায় পরিদর্শককে কেন্দ্রীয় স্তর থেকে বাছাই করা হবে। এই পরিদর্শক বছরে  একবারই পরিদর্শন করবেন এবং পরিদর্শনের ৪৮ ঘন্টার মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে হবে। 


কোভিড-১৯ মহামারীর ফলে উদ্ভূত চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে কেন্দ্র রাজ্যগুলিকে ২০২০ সালের ১৭ মে অতিরিক্ত ঋণ নেওয়ার অনুমতি দিয়েছে। রাজ্যগুলি তাদের মোট অভ্যন্তরীণ উৎপাদনের ২ শতাংশ অতিরিক্ত ঋণ নিতে পারবে। এর মধ্যে অর্ধেক পরিমাণ নাগরিক-কেন্দ্রিক সংস্কার বাস্তবায়নের পর সেই ঋণ গ্রহণের অনুমতি দেওয়া হবে। এই সংস্কারগুলি হ’ল : ক) এক দেশ, এক রেশন কার্ড ব্যবস্থা; খ) সহজে ব্যবসা করার জন্য প্রয়োজনীয় সংস্কার; গ) শহরাঞ্চলের প্রশাসনের সংস্কার এবং ঘ) বিদ্যুৎ ক্ষেত্রের সংস্কার। 


এ পর্যন্ত ১৮টি রাজ্য এই ৪টি সংস্কারের মধ্যে যে কোনও একটিকে বাস্তবায়িত করেছে। ১৩টি রাজ্য এক দেশ, এক রেশন কার্ড ব্যবস্থা; ১৫টি রাজ্য সহজে ব্যবসা করার জন্য প্রয়োজনীয় সংস্কার রূপায়ণ; ৬টি রাজ্য শহরাঞ্চলের প্রশাসনিক সংস্কার রূপায়ণ এবং ২টি রাজ্য বিদ্যুৎ ক্ষেত্রে সংস্কারসাধন করেছে। এর ফলে, এই রাজ্যগুলির জন্য মোট ৮৬ হাজার ৪১৭ কোটি টাকা অতিরিক্ত ঋণ গ্রহণের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। 

***

 

 

CG/CB/SB



(Release ID: 1698678) Visitor Counter : 7