মানবসম্পদবিকাশমন্ত্রক

কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রকের পরিচালনায় মাধ্যমিক পর্যায়ের উন্নতিসাধনে ৮ সপ্তাহের বিকল্প শিক্ষামূলক নির্ঘণ্ট (অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার) প্রকাশ করা হয়েছে

Posted On: 15 SEP 2020 12:23PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লী, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

 


    কোভিড-১৯ মহামারীর সময় শিক্ষার্থীদের বাড়িতে সময় কাটানোকে অর্থবহ করে তুলতে শিক্ষা মন্ত্রকের পরিচালয় এনসিইআরটি প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর সকল ছাত্রছাত্রী, অভিভাবক এবং শিক্ষক-শিক্ষিকাদের জন্য বিকল্প অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার তৈরি করেছে।প্রথমে ৪ সপ্তাহ এবং  প্রাথমিক ও উচ্চ-প্রাথমিক স্তরের জন্য পরবর্তী ৮ সপ্তাহের  বিকল্প অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রকাশ করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রক আগেই মাধ্যমিক এবং উচ্চ-মাধ্যমিক স্তরের জন্য ৪ সপ্তাহের অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রকাশ করেছিল। এখন মাধ্যমিক স্তরের জন্য পরবর্তী ৮ সপ্তাহের বিকল্প অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রকাশ করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী শ্রী রমেশ পোখরিয়াল নিশাঙ্ক আজ এই বিকল্প অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রকাশ করেন।


    অনুষ্ঠানের ভাষণে শ্রী পোখরিয়াল বলেন, এই অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডারের মাধ্যমে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বিভিন্ন প্রযুক্তিগত সরঞ্জাম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলির ব্যবহার সম্পর্কে নির্দেশিকা তুলে ধরা হয়েছে। এই ক্যালেন্ডারটি শিক্ষক-শিক্ষিকাদের কাছে আরও বেশি আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে। বাড়িতে বসেই শিক্ষার্থী, অভিভাবক এবং শিক্ষক-শিক্ষিকারা খুব সহজেই যাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও প্রযুক্তির বিষয়গুলি বুঝতে পারেন ও ব্যবহার করতে পারেন তা এর মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, অনেকের কাছেই মোবাইল ফোনে ইন্টারনেটের সুবিধা থাকেনা। এমনকি অনেকে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যেমন- ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, ট্যুইটার, গুগল ইত্যাদি ব্যবহারও করতে পারেন না। এই অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং অভিভাবকদের বিশেষভাবে সাহায্য করবে। শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোনে এসএমএস বা ভয়েস কলের মাধ্যমে শিক্ষাদানের সুযোগ থাকবে। আশা করা যাচ্ছে প্রাথমিকভাবে  এই অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার অভিভাবকদের  বিশেষ সহায়তা প্রদান করবে।


    শ্রী পোখরিয়াল আরও বলেন, এই ক্যালেন্ডারে দিব্যাঙ্গ শিশু সহ সকল শিশুর জন্য অডিও বুকস, রেডিও অনুষ্ঠানের সুবিধা  অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। 


    পাঠ্যপুস্তক থেকে নেওয়া বিষয়/অধ্যায়ের উল্লেখ সহ এই ক্যালেন্ডারে সপ্তাহব্যাপি পরিকল্পনা রয়েছে। এই ক্যালেন্ডারে সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হল শিক্ষার্থীরা পাঠ্যপুস্তকের বিষয়বস্তু যাতে ভালোভাবে বুঝতে পারেন তা তুলে ধরা এবং শিক্ষক/অভিভাবকদের শিক্ষা প্রদানের অগ্রগতি মূল্যায়ণ করা। কলা শিক্ষা, শারীরিক অনুশীলন, যোগ ব্যায়াম ইত্যাদির মতো শিক্ষামূলক কার্যকলাপ অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। হিন্দি, ইংরাজী, উর্দু  এবং সংস্কৃত এই চারটি ভাষায় বিষয়বস্তুগুলি রয়েছে। শিক্ষক-শিক্ষিকা, শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের মধ্যে চাপ ও উদ্বেগ হ্রাস করার কৌশলগুলিকেও স্থান দেওয়া হয়েছে এখানে । অধ্যায় ভিত্তিক ই-বিষয়বস্তুগুলি ভারত সরকারের দীক্ষা পোর্টাল, ই-পাঠশালায় উপলব্ধ রয়েছে। এই বিষয়টিকেও ক্যালেন্ডারে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।


    এনসিইআরটি ইতিমধ্যেই স্বয়ংপ্রভা (কিশোর মঞ্চ)টিভি চ্যানেলের মাধ্যমে শিক্ষার্থী, অভিভাবক এবং শিক্ষক-শিক্ষিকাদের সঙ্গে সরাসরি বার্তালাপের অনুষ্ঠান শুরু করেছে। কিশোর মঞ্চ অ্যাপটি গুগল প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যেতে পারে। এনসিইআরটি-র সরকারি ইউটিউব চ্যানেলেও সরাসরি শিক্ষাদানে সুযোগ রয়েছে। প্রতিদিন সোম থেকে শনি প্রথম থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত দুপুর ২ থেকে বিকেল ৪ পর্যন্ত  সাপ্তাহিক লাইভ ক্লাস থাকছে। একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণীর জন্য সপ্তাহে ২ ঘন্টা করে লাইভ অনুষ্ঠান করা হচ্ছে। এমনকি সিবিএসই, নবোদয়া বিদ্যালয় সমিতি, কেন্দ্রীয় বিদ্যালয় সংগঠন, ডিরেক্টরেটস অফ এডুকেশন এবং এসআইই/এসসিইআরটি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শিক্ষা প্রদানের ব্যবস্থা করেছে। মাধ্যমিক পর্যায়ের এই ৮ সপ্তাহের ক্যালেন্ডারটি সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য এনসিইআরটি-র ওয়েবসাইটে তুলে ধরা হয়েছে।


    কোভিড-১৯এর মোকাবিলায় শিক্ষক-শিক্ষিকা, শিক্ষার্থী, বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ এবং অভিভাবকদের অনলাইনে শিক্ষণ পদ্ধতির ব্যবহার সম্পর্কে সচেতন করে তোলা ও ঘরে বসে বিদ্যালয় শিক্ষা গ্রহণ ব্যবস্থাপনার উন্নতিসাধনে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।


মাধ্যমিক পর্যায়ের ৮ সপ্তাহের বিকল্প শিক্ষামূলক নির্ঘণ্ট (অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার) সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন-https://ncert.nic.in/pdf/EightWeekAACSecondaryStage_Eng.pdf ওয়েব সাইটে।



CG/SS/NS



(Release ID: 1654502) Visitor Counter : 15