ক্রেতা, খাদ্যএবংগণবন্টনমন্ত্রক

আত্মনির্ভর ভারত প্রকল্পের আওতায় রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে বাকি থাকা বরাদ্দকৃত বিনামূল্যের খাদ্যশস্য এবং আস্ত ছোলা বিতরণ প্রক্রিয়া আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে সম্পূর্ণ করতে হবে

Posted On: 09 JUL 2020 6:54PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লী, ৯ জুলাই, ২০২০

 

 


    কেন্দ্রীয় উপভোক্তা বিষয়ক, খাদ্য ও গণবন্টন দপ্তরের মন্ত্রী শ্রী রামবিলাস পাসওয়ান আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সাংবাদিকদের সাথে আলাপচারিতায় প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা এবং আত্মনির্ভর ভারত অভিযানের অগ্রগতি সম্পর্কে ব্যাখ্যা দেন। প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী ‘প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা’র মেয়াদ ৫ মাস বাড়িয়ে নভেম্বর পর্যন্ত করার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাকে স্বাগত জানান শ্রী পাসওয়ান। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী দরিদ্র ও প্রান্তিক মানুষের জন্য দুটি বৃহত্তম খাদ্যশস্য বিতরণ প্রকল্প- প্রধানমন্ত্রী গবির কল্যাণ অন্ন যোজনা এবং আত্মনির্ভর ভারত অভিযান সূচনা করেছিলেন, যাতে কোভিড-১৯ মহামারীর সময় কেউ ক্ষুধার্থ অবস্থায় না ঘুমায়। শ্রী পাসওয়ান ৩১ আগস্ট পর্যন্ত আত্মনির্ভর ভারত অভিযানের আওতায় সুবিধাভোগীদের জন্য বরাদ্দকৃত খাদ্যশস্য বন্টনের সময়সীমা বৃদ্ধির বিষয়ে গতকাল মন্ত্রিসভা যে সিন্ধান্ত নিয়েছিল সে সম্পর্কেও সংবাদ মাধ্যমকে অবহিত করেন। তিনি বলেন, এই দুটি প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে কোভিড-১৯ মহামারীর ফলে দেশে দরিদ্র প্রান্তিক মানুষেরা যে সমস্যা ও অর্থনৈতিক সংকটের মুখোমুখি হয়েছিলেন তা প্রশমিত হবে।

 


    পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য খাদ্যশস্য বিতরণ (আত্মনির্ভর ভারত প্রকল্প):


    ৩১ আগস্ট পর্যন্ত আত্মনির্ভর ভারত প্রকল্পের আওতায় বিনামূল্যে খাদ্যশস্য বিতরণের সময়সীমা সম্প্রসারণের বিষয়ে বলতে গিয়ে শ্রী পাসওয়ান জানান, গত ১৫ মে এই প্রকল্পটি চালু হয়েছিল এবং প্রকৃত সুবিধাভোগীদের চিহ্নিতকরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে কিছুটা সময় লেগে গিয়েছিল। তারপর রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি ইতিমধ্যেই যে ৬.৩৯ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য উত্তোলন করেছে তা বিতরণের জন্য সময়সীমা ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। তিনি বলেন, এই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আত্মনির্ভর ভারত প্রকল্পের আওতায় বরাদ্দকৃত বিনামূল্যের খাদ্যশস্য এবং আস্ত ছোলা বিতরণ প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে।


    আত্মনির্ভর ভারত প্রকল্পের আওতায় পরিযায়ী শ্রমিক, আটকে থাকা ব্যক্তি এবং অভাবী পরিবার পিছু ১ কেজি করে বিনামূল্যে আস্ত ছোলা দেওয়া হবে। একইসঙ্গে ব্যক্তিপিছু ৫ কেজি খাদ্যশস্যও দেওয়া হবে। জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা আইন এবং রাজ্য সরকারের গণবন্টন প্রকল্পের আওতাভুক্ত নন,তাদেরকেও এই খাদ্যশস্য বিতরণ করা হবে।


    ইতিমধ্যেই রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি ৬.৩৯ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য উত্তোলন করেছে। চলতি বছরের জুন মাস পর্যন্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি ২ লক্ষ ৩২ হাজার ৪৩৩ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য বিতরণ করেছে। তিনি আরও বলেন, ৩৩ হাজার ৬২০ মেট্রিক টন আস্ত ছোলা রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে পাঠানো হয়েছে। বিভিন্ন রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি ৩২ হাজার ৯৬৮ মেট্রিক টন আস্ত ছোলা উত্তোলন করেছে। এরমধ্যে ১০ হাজার ৬৪৫ মেট্রিক টন ছোলা বিতরণ করা হয়েছে।

 


    প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা-১


    খাদ্যশস্য (চাল/গম):


    শ্রী পাসওয়ান জানিয়েছেন চলতি বছরের এপ্রিল মাস পর্যন্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি ১১৬.০২ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য উত্তোলন করেছে যারমধ্যে ৩৭.৪৩ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য ৭৪.১৪ কোটি সুবিধাভোগীদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। মে মাসে ৭৩.৭৫ কোটি সুবিধাভোগীদের মধ্যে ৩৭.৪১ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য বিতরণ করা হয়েছে। জুন মাসে ৬৪.৪২ কোটি সুবিধাভোগীদের মধ্যে ৩২.৪৪ লক্ষ মেট্রিকট টন খাদ্যশস্য বিতরণ করা হয়েছে।

 


    ডাল:


    শ্রী পাসওয়ান জানান ইতিমধ্যেই রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে ৫.৮৩ লক্ষ মেট্রিক টন ডাল পাঠানো হয়েছে এবং ৫.৭২ লক্ষ মেট্রিক টন ডাল ইতিমধ্যেই রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে পৌঁছে গেছে। যারমধ্যে ৪.৬৬ লক্ষ মেট্রিক টন ডাল বিতরণ করা হয়েছে।

 


    প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা-২


    বর্তমান সংকট সময়ে ও দরিদ্র ও প্রান্তিক মানুষদের নিরবচ্ছিন্ন সহায়তার প্রয়োজনীয়তার পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী ‘প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা’র মেয়াদ আগামী ৫ মাস বাড়িয়ে নভেম্বর পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানান এই প্রকল্পের মেয়াদ বৃদ্ধির নির্দেশ  ইতিমধ্যেই জারি করা হয়েছে এবং সমস্ত রাজ্য , কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ও এফসিআই-তে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। জুলাই থেকে নভেম্বর পর্যন্ত জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা আইনের আওতায় ৮০.৪৩ কোটি সুবিধাভোগীদের ব্যক্তি/মাস পিছু ৫ কেজি করে খাদ্যশস্য (চাল/গম) বিতরণ করা হবে। এই সময়কালে প্রায় ৮১ কোটি সুবিধাভোগীদের ২০৩ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য বিতরণ করা হবে।


    তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনা-২এর জন্য ২০১.১ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য বরাদ্দ করা হয়েছে। এরমধ্যে ৯১.১৪ লক্ষ মেট্রিক টন গম এবং ১০৯.৯৪ লক্ষ মেট্রিক টন চাল রয়েছে। ৪টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের জন্য গম বরাদ্দ করা হয়েছে। ১৫ রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের জন্য চাল বরাদ্দ করা হয়েছে এই প্রকল্পের আওতায়।

 


    মোট খাদ্যশস্যের মজুত:


    ৮ই জুলাই ফুড কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া (এফসিআই)এর প্রতিবেদন অনুযায়ী ২৬৭.২৯ লক্ষ মেট্রিক টন চাল এবং ৫৪৫.২২ লক্ষ মেট্রিক টন গম মজুত আছে। মোট ৮১২.৫১ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য মজুত আছে এফসিআই-এর হাতে।


    লকডাউন পর্যন্ত ১৩৯.৯৭ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য উত্তোলন করা হয়েছিল এবং ৪৯৯৯টি রেল রেকের মাধ্যমে খাদ্যশস্য রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে পাঠানো হয়েছিল। পয়লা জুলাই পর্যন্ত ২৭৮টি রেল রেকের মাধ্যমে ৭.৭৮ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য পাঠানো হয়েছিল। এছাড়াও সড়ক ও জলপথের মাধ্যমেও খাদ্যশস্য সরবরাহ করা হয়েছে।

 


    খাদ্যশস্য সংগ্রহ:


    ৮ই জুলাই পর্যন্ত মোট ৩৮৯.৪৫ লক্ষ মেট্রিক টন গম এবং ৭৪৮.৫৫ লক্ষ মেট্রিক টন চাল সংগ্রহ করা হয়েছে।

 


    এক দেশ এক রেশন কার্ড:


    শ্রী পাসওয়ান বলেন, ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসের মধ্যে বাকি থাকা সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে এক দেশ এক রেশন কার্ডের আওতায় আনার প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে । তিনি বলেন এর আগে অনেকগুলি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ধীরে নেটওয়ার্ক সংযোগ সম্পর্কিত সমস্যার বিষয় তুলে ধরেছিল। এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানান, মন্ত্রক এই সমস্যা সমাধানে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে এবং প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় এক বছরের জন্য বিনামূল্যে নেট সংযোগ দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে।

 



CG/SS/NS



(Release ID: 1637639) Visitor Counter : 77