মহাকাশদপ্তর

বিএআরসি-তে উন্নতমানের স্বল্প মূল্যের ফেস মাস্ক তৈরি করা হয়েছে : ডঃ জিতেন্দ্র সিং

Posted On: 13 JUN 2020 8:42PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১৩ জুন, ২০২০

 

 


মুম্বাই-এর ভাবা আণবিক গবেষণা কেন্দ্র (ভাবা অ্যাটমিক রিসার্চ সেন্টার- বিএআরসি) একটি উন্নতমানের ফেস মাস্ক উদ্ভাবন করেছে।স্বল্প মূল্যের এই মাস্কে হেপা ফিল্টার ব্যবহার করা হয়েছে। আণবিক শক্তি দপ্তর ইতিমধ্যেই এই মাস্কের অনুমোদন দিয়েছে। 

দপ্তরের গত এক বছরের কাজের সাফল্যের খতিয়ান প্রকাশ করে  উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় উন্নয়ন দপ্তরের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত এবং প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর, কর্মী, জন-অভিযোগ, পেনশন, আণবিক শক্তি এবং মহাকাশ দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী ডঃ জিতেন্দ্র সিং এই তথ্য জানান।

আণবিক শক্তি দপ্তরের অধীনে গবেষণা এবং উন্নয়ন, শিক্ষামূলক প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা সহ প্রায় ৩০টি বিভিন্ন কেন্দ্র রয়েছে। বিশিষ্ট বৈজ্ঞানিক ডঃ হোমি জাহাঙ্গীর ভাবা  আণবিক শক্তি দপ্তরের অধীনে মুম্বাইয়ে বিএআরসি-র প্রতিষ্ঠা করেন।

ডঃ জিতেন্দ্র সিং গত এক বছরের সাফল্যের কথা জানাতে গিয়ে কোভিড-১৯ মহামারীর ফলে উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিজ্ঞানীদের কিছু উদ্যোগের কথা জানান। উন্নতমানের এই ফেস মাস্ক ছাড়াও আণবিক শক্তি দপ্তরের বৈজ্ঞানিকরা তেজষ্ক্রিয় বিকিরণের মাধ্যমে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) পুনর্ব্যবহার করার জন্য বেশ কিছু পন্থা উদ্ভাবন করেছেন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের বিশেষ পরিচালন পদ্ধতি মেনে এটি প্রয়োগ করা যায়। 

রিয়েল টাইম পিসিআর (আরটিপিসিআর)-এর টেস্টিং কিটের প্রসঙ্গও উল্লেখ করে মন্ত্রী জানান, দেশে  আণবিক শক্তি দপ্তরের বিজ্ঞানীরা এগুলি তৈরি করাতে তা বাজারে স্বল্প মূল্যে পাওয়া যাচ্ছে। নমুনা পরীক্ষা করে দ্রুত তার ফলও এই কিটের সাহায্যে জানা যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীকে ধন্যবাদ জানিয়ে ডঃ সিং বলেন, প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগের কারণেই গত ছ’বছর ধরে এই দপ্তরের জন্য বাজেটে প্রচুর অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর ২০ লক্ষ কোটি টাকার আত্মনির্ভর ভারত প্যাকেজের কথা উল্লেখ করে তিনি আরও জানান, শাকসব্জি এবং ফলমূলের পচনশীলতা আটকাতে দেশের নানা প্রান্তে তেজষ্ক্রিয় বিকিরণ কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে। যার ফলে এগুলিকে দীর্ঘদিন ধরে সংরক্ষণ করা যাবে। এতদিন ভারতের দক্ষিণাঞ্চলের কয়েকটি রাজ্য এবং মহারাষ্ট্রেই আণবিক শক্তির বিষয়ে কাজকর্ম হত। কিন্তু মোদী সরকার আসার পর এই দপ্তরটিকে যথেষ্ট গুরুত্ব দেওয়া হয়। তাই দেশের সব জায়গায় এর কাজের ক্ষেত্র বিস্তৃত হয়েছে।  বর্তমানে দিল্লির খুব কাছে উত্তর ভারতের গোরক্ষপুরে প্রথম আণবিক শক্তি কেন্দ্র গড়ে তোলা হচ্ছে বলেও মন্ত্রী জানিয়েছেন। 

 

 


CG/CB/DM



(Release ID: 1631589) Visitor Counter : 12