গ্রামোন্নয়নমন্ত্রক

কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন, পঞ্চায়েতী রাজ ও কৃষি এবং কৃষক কল্যাণ মন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র সিংহ তোমার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজ্যগুলির গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রীদের সঙ্গে বর্তমান পরিস্থিতি পর্যালোচনা করেন

উভয় পক্ষের মধ্যে মহাত্মা গান্ধী গ্রামীন রোজগার নিশ্চয়তা প্রকল্প(এম জি এন আর ই জি এস), প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা(পি এম এ ওয়াই-জি), প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনা(পি এম জি এস ওয়াই) এবং জাতীয় গ্রামীন জীবিকা মিশন(এন আর এল এম) ইত্যাদি বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শ্রী তোমার, কোভিড-১৯ মোকাবিলার চ্যালেঞ্জ গ্রহন করে গ্রামীন পরিকাঠামো,গ্রামীন অঞ্চলে কর্ম নিযুক্তির পাশাপাশি গ্রামীন সম্পদকে ব্যবহার করে জীবনজীবিকার উন্নয়নের ওপর বিশেষ জোর দেন

Posted On: 24 APR 2020 8:15PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ২৪ এপ্রিল, ২০২০

 

 

কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন, পঞ্চায়েতী রাজ এবং কৃষি ও কৃষক কল্যাণ মন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র সিংহ তোমার গতকাল রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের মন্ত্রী ও আধিকারিকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মহাত্মা গান্ধী গ্রামীণ রোজগার নিশ্চয়তা প্রকল্প, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা গ্রামীণ, প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনা এবং জাতীয় গ্রামীণ জীবিকা মিশনের যাবতীয় সম্ভাবনা খতিয়ে দেখেন। ২০ শে এপ্রিল ২০২০ তারিখে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের পক্ষ থেকে সংক্রমণ হয়নি এমন অঞ্চলে লক ডাউন বাধানিষেধে কিছু ছাড় ঘোষনা করে। সে দিকে নজর দিয়ে সব রকম সম্ভবনা খতিয়ে দেখা হয়।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কোভিড -
১৯ সংক্রমণের এই চ্যালেঞ্জকে গ্রহন করে গ্রামীন অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার বিষয় টির ওপর জোর দেন। তিনি বলেন করোনা সংক্রমণের অতিমারী দেশের সামনে এক বড়ো চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছে। তবে এই চ্যালেঞ্জকে কাজে লাগিয়ে সব কটি রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলগুলি তে গ্রামীন পরিকাঠামো উন্নয়ন, গ্রামীন রোজগারের সুযোগ সৃষ্টি করা বা গ্রামীন সম্পদকে ব্যবহার করে জীবিকা নির্বাহের উপায় খোঁজার পরামর্শ দেন তিনি।

শ্রী তোমার জানান, চলতি আর্থিক বছরে গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রক ইতিমধ্যেই রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল গুলির জন্য ৩৬,০০০ কোটিরও বেশি টাকা মঞ্জুর করেছে। তিনি বলেন মহাত্মা গান্ধী গ্রামীন রোজগার নিশ্চয়তা প্রকল্পে ৩৩,০০০ কোটি টাকা মঞ্জুর করা হয়েছে। তার মধ্যে ২০,২২৫ কোটি টাকা গত বছরের মজুরি ও সামগ্রীর বকেয়া মেটানোর জন্য দেওয়া হয়েছে। যে টাকা মঞ্জুর করা হয়েছে তা ২০২০ সালের জুন মাস অবধি খরচের জন্য পর্যাপ্ত বলে তিনি জানান। মন্ত্রী, রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের প্রশাসনকে নিশ্চিত করেন যে গ্রামীন উন্নয়ন কর্মসূচীতে খরচের জন্য অতিরিক্ত অর্থ মজুত আছে।


শ্রী তোমার, রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের প্রশাসনের কাছে আবেদন করেন যে গ্রামীন উন্নয়ন প্রকল্পের অধীনে দ্রুত কর্ম সংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে। কোভিড-19 সংক্রান্ত বিধিনিষেধ মেনে পরিকাঠামো নির্মাণ এবং জীবনজীবিকার উপায় খুঁজে বের করতে হবে।

মহাত্মা গান্ধী গ্রামীন রোজগার নিশ্চয়তা প্রকল্পের অধীনে জল সংরক্ষণ,সেচের কাজ,জলের পুনর্ব্যবহার ইত্যাদির ওপর শ্রী তোমার জোর দেন। কেন্দ্রীয় জল শক্তি এবং ভূমি সম্পদ মন্ত্রকের নির্দেশিকা অনুযায়ী কাজ করার ওপরও তিনি বিশেষ জোর দেন।


প্রধানমন্ত্রী গ্রামীন আবাস যোজনার অধীনে যে সব উপভোক্তা রা তৃতীয় ও চতুর্থ কিস্তির টাকা পেয়ে গেছেন, এমন ৪৮ লক্ষ গৃহ নির্মাণের কাজ দ্রুত শেষ করার কথা বলেন তিনি। একই ভাবে প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনার বকেয়া কাজ শেষ করার ওপরও তিনি জোর দেন। যে সব সড়ক প্রকল্পগুলি ইতিমধ্যেই অনুমোদিত সেগুলির কাজ শুরু করার কথা বলেন তিনি।


স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা জাতীয় গ্রামীন জীবিকা মিশনের অধীনে মাস্ক, স্যানেটাইজার, সাবান তৈরী করার পাশাপাশি যে রকম যৌথ ভাবে রন্ধনশালা চালাছেন, তাতে শ্রী তোমার সন্তোষ প্রকাশ করেন।


সমস্ত রাজ্য গুলি মন্ত্রকের এই পরামর্শের সঙ্গে সহমত হয়। মহারাষ্ট্র, ঝাড়খন্ড, তামিলনাড়ু এবং পশ্চিম বঙ্গ, এম জি এন আর ই জি এস খাতে ১০০% বকেয়া মিটিয়ে দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয়  সরকারকে বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জানায়।

সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল গুলি নিশ্চিত করে বলে যে, কেন্দ্র সরকারের সহযোগিতায় এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক,স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক এবং গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের পরামর্শ অনুযায়ী তারা গ্রামোন্নয়নে সব রকম প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবে।

 

 


CG/PPM



(Release ID: 1618222) Visitor Counter : 373