প্রতিরক্ষামন্ত্রক
azadi ka amrit mahotsav

ভারত – মার্কিন ২+২ মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকের পর প্রতিরক্ষা মন্ত্রী শ্রী রাজনাথ সিং-এর সংবাদ মাধ্যমের উদ্দেশে বিবৃতি

Posted On: 12 APR 2022 9:17AM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লী, ১২ এপ্রিল, ২০২২

 

“সেক্রেটারি ব্লিংকেন, সেক্রেটারি অস্টিন, ডঃ জয়শঙ্কর, সংবাদ মাধ্যমে সদস্যরা ভদ্র মহোদয়া ও ভদ্র মহাদয়গণ,

আমি সচিবদের, তাঁদের প্রতিনিধিদের এবং কর্মীদের এই সুন্দর মতবিনিময় অনুষ্ঠান ও আন্তরিক আতিথেয়তার জন্য ধন্যবাদ জানাই। আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের প্রতি তাদের দায়বদ্ধতাকে আমি আন্তরিকভাবে প্রশংসা করি।

আজ আমরা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বিষয়গুলি বিস্তারিতভাবে আলোচনা করেছি। ভারত-মার্কিন সম্পর্কের গতি বজায় রাখতে এবং আগামী দিনে আমাদের কাজ অব্যাহত রাখার জন্য এই আলোচনা সহায়ক হবে। আমাদের দুই মহান দেশের পরিপূরক স্বার্থগুলি সুরক্ষিত থাকবে এবং এর মধ্য দিয়ে আমরা অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো।

দ্বিপাক্ষিক, প্রতিরক্ষা ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আমাদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। বিশ্বের দুই গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের প্রতিটি বিষয়ে অভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি থাকার বিষয়টি খুবই আনন্দের । ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র স্বাধীন, মুক্ত, সমন্বিত, ভারত -প্রশান্ত মহাসাগরীয় এবং ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে আইন অনুসারে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে অভিন্ন মনোভাব পোষণ করে। ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় এবং ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে শান্তি, স্থিতিশীলতা ও সমৃদ্ধির জন্য আমাদের অংশীদারিত্ব অত্যন্ত গুরুত্বপূ্র্ণ।

বৈঠকে আমরা আমাদের প্রতিবেশী অঞ্চল এবং ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের পরিস্থিতি নিয়ে আমাদের মূল্যায়ন একে অন্যের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছি। ভারতের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদকে ব্যবহার করার বিষয়টি আলোচনায় বিশেষ গুরুত্ব পেয়েছে। আমাদের দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক যোগাযোগের ফলে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে তার প্রভাব নজরে এসেছে।  ভারতের মহাকাশ দপ্তর এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দপ্তরের মধ্যে  মহাকাশের ক্ষেত্রে স্পেস সিচ্যুয়েশনাল অ্যাওয়ার্নেস চুক্তি স্বাক্ষর; প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে মহাকাশের বিভিন্ন পরীক্ষানিরীক্ষা এবং কৃত্রিম মেধার ব্যবহার অদূর ভবিষ্যতে শুরু করা; বিভিন্ন উদ্যোগ ও চুক্তির বাস্তবায়ন নিয়ে আলোচনা এবং আমাদের সামরিক বাহিনীর মধ্যে যোগাযোগ বৃদ্ধির মতো বিষয়গুলি আলোচনায় গুরুত্ব  পেয়েছে।  

মহামারী সত্ত্বেও আমাদের দুটি দেশের প্রতিরক্ষা বাহিনীর মধ্যে যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে। আমরা অত্যন্ত আনন্দিত যে বাহরিনে বহুপাক্ষিক যৌথ সামুদ্রিক বাহিনীতে ভারত সহযোগী অংশীদার হিসেবে যোগদান করেছে। এর ফলে, ভারত মহাসাগরের পশ্চিমাঞ্চলে আঞ্চলিক সুরক্ষার ক্ষেত্রে সহযোগিতা বৃদ্ধি পাবে। সিওএমসিএএসএ বাস্তবায়নে আমরা সক্রিয় এবং বিইসিএ-র রূপায়ণ সম্পূর্ণ হয়েছে।  

প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে সাইবার জগতের বিভিন্ন উপাদান ব্যবহার, বিশেষ বাহিনী, এলইএমওএ-র অধীনে পণ্য চলাচলের ক্ষেত্রে সহযোগিতা এবং যৌথ মহড়ায় আরও সহযোগিতা বৃদ্ধির বিষয়ে আমরা সহমত হয়েছি।

প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি ও বাণিজ্য উদ্যোগকে আরও ফলপ্রসূ করে তুলতে উভয় পক্ষই সহমত পোষণ করে। এর ফলে, বিভিন্ন যৌথ প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে এবং গুরুত্বপূর্ণ সামরিক প্রযুক্তিগুলিকে দ্রুত কাজে লাগানো যাবে।

মার্কিন সংস্থাগুলির সঙ্গে যৌথভাবে বিভিন্ন পণ্য  উদ্ভাবন এবং উৎপাদনে ভারতের আকাঙ্খার কথা আমি জানিয়েছি। মেক ইন ইন্ডিয়া কর্মসূচির আওতায় মার্কিন প্রতিরক্ষা সংস্থাগুলির ভারতে আরও বিনিয়োগের জন্য আমরা আহ্বান জানাই। মার্কিন শিল্প সংস্থাগুলির সঙ্গে গবেষণা ও উন্নয়নের ক্ষেত্রে অংশীদারিত্বের মাধ্যমে তা বাস্তবায়িত করার মধ্য দিয়ে আত্মনির্ভর ভারত অভিযানকে সফল করে তোলা যাবে ।  

ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে কৌশলগত অংশীদারিত্বকে শক্তিশালী করে তুলতে আজকের ২+২ বৈঠক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এর মাধ্যমে পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট  প্রতিটি ক্ষেত্রে একযোগে কাজ করতে সুবিধা হবে। শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য দুটি দেশের মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এর মাধ্যমে সারা পৃথিবীর মানুষ বাধাহীনভাবে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধে ব্যবহার করতে পারবেন। আরও একবার আমি সেক্রেটারি ব্লিংকেন, সেক্রেটারি অস্টিন-কে তাঁদের আতিথেওয়ার জন্য এবং ভারত-মার্কিন অংশীদারিত্বকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্য ধন্যবাদ জানাই। আগামী ২+২ মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক ভারতে অনুষ্ঠিত হবে। আমরা দুই সচিবকে উভয় পক্ষের সুবিধেজনক সময়ে এই বৈঠকের জন্য ভারতে আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছি।”

 

CG/CB/ SKD/



(Release ID: 1816214) Visitor Counter : 38