শিল্পওবাণিজ্যমন্ত্রক

কৃষি ক্ষেত্রে রপ্তানি বৃদ্ধির সাহায্যর্থে রপ্তানি'র আরও ভালো সম্ভনা রয়েছে এমন ৫০টি কৃষি পণ্যের জন্য কেন্দ্র এক বিশেষ শ্রেণী বিভাগ তৈরি করেছে

Posted On: 09 APR 2022 12:40PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ৯ এপ্রিল, ২০২২

 

কোভিড-১৯ মহামারীর জেরে পরিবহণ খরচ বৃদ্ধি, কন্টেইনার ঘাটতি থাকা সত্ত্বেও ভারতে ২০২১-২২ অর্থ বর্ষে কৃষি পণ্যের রপ্তানি মূল্য ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার  অতিক্রম করেছে।বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রকের আওতাধীন কৃষি ও প্রক্রিয়াজাত খাদ্য পণ্য রপ্তানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (এপিইডিএ) ২৫.৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের কৃষি ও প্রক্রিয়াজাত খাদ্য পণ্য রপ্তানি করে একটি নতুন ইতিহাস রচনা করেছে, যা ভারতের মোট ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের কৃষি রপ্তানির ৫১ শতাংশ।

ডিজিসিআইএন্ডএস -এর প্রকাশিত পরিসংখ্যান অনুসারে, ২০২১-২২ অর্থ বর্ষে কৃষি ক্ষেত্রে রপ্তানি ১৯.৯২ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ৫০.২১ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে পৌঁছেছে।গত দুই বছরের ঐতিহাসিক সাফল্য অর্জন প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর কৃষকদের আয় বৃদ্ধির দৃষ্টিভঙ্গি বাস্তবায়নের পথে অনেক দূর এগিয়ে যাবে।উল্লেখ্য মোট কৃষি পণ্য রপ্তানির তুলনায়, এপিইডিএ-এর রপ্তানি ১৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। ডিজিসিআইএন্ডএস- এর তথ্য অনুযায়ী, ২০২০-২১ অর্থ বর্ষের তুলনায়  চাল রপ্তানি ৯.৩৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ২০২১-২২  অর্থ বর্ষে ভারতের  ৯৬৫৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় হয়েছে।২০২১-২২  অর্থ বর্ষে সর্বকালের সর্বোচ্চ ২১১৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের গম রপ্তানি হয়েছে। অন্য খাদ্যশস্য  রপ্তানির পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০২০-২১ অর্থবর্ষের তুলনায় ২০২১-২২  অর্থ বর্ষে ডাল রপ্তানির পরিমাণ ৩৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ৩৫৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যে পৌঁছছে।এমনকি দুগ্ধজাত দ্রব্য,পোল্ট্রি পণ্য,মহিষের মাংস,গরুর মাংস, ভেড়া/ছাগলের মাংস রপ্তানি বেড়েছে।২০২০-২১ অর্থ বর্ষের তুলনায় ২০২১-২২  অর্থ বর্ষে ফল ও সবজি রপ্তানি ১২ শতাংশ বেড়ে ১৬৭৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যে পৌঁছছে। অন্যান্য প্রক্রিয়াজাত খাদ্য সামগ্রীর রপ্তানি ২০২১-২২  অর্থ বর্ষে ৩৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। উল্লেখ্য এপিইডিএ- এর প্রধান পণ্য রপ্তানির গন্তব্য স্থল গুলি  হল- বাংলাদেশ, সংযুক্ত আরব আমিরশাহী, ভিয়েতনাম, আমেরিকা, নেপাল, মালয়েশিয়া, সৌদি আরব, ইন্দোনেশিয়া, ইরান এবং মিশর। কৃষি পণ্যের পাশাপাশি কৃষি ও প্রক্রিয়াজাত খাদ্য পণ্যের রপ্তানি বৃদ্ধির ফলে কৃষকদের আয় বাড়াবে।

কৃষি ও প্রক্রিয়াজাত খাদ্যপণ্যের এই রপ্তানি বৃদ্ধির মূল কারণ,এপিইডিএর মাধ্যমে কেন্দ্রের বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া, বিভিন্ন দেশে 'বি ২ বি' প্রদর্শনীর আয়োজন, ভারতীয় দূতাবাসগুলির সক্রিয় অংশগ্রহণ, বিপণন প্রচারাভিযানের মাধ্যমে নতুন সম্ভাব্য বাজার অন্বেষণ ইত্যাদি।সরকার কৃষিজাত পণ্যের রপ্তানি বাড়ানোর জন্য রাজ্য সরকারের সহযোগিতায় ৩০০ টিরও বেশি প্রচার কর্মসূচির আয়োজন করেছে।এপিইডিএ-এর চেয়ারম্যান ডঃ এম আঙ্গামুথু বলেছেন কৃষি ক্ষেত্রে রপ্তানি বৃদ্ধির সাহায্যর্থে রপ্তানি'র আরও ভালো সম্ভনা রয়েছে এমন ৫০টি কৃষি পণ্যের জন্য কেন্দ্র এক বিশেষ শ্রেণী বিভাগ তৈরি করেছে। এছাড়াও, কেন্দ্র সারা বিশ্বের প্রধান আমদানিকারক দেশগুলির সঙ্গে কৃষি ও খাদ্য পণ্যের উপর ভার্চুয়াল 'ক্রেতা বিক্রেতা বৈঠক' আয়োজন করেছে। পণ্যের গুণমান নিশ্চিত করতে দেশে ২২০ টি পরীক্ষাগারকে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এপিইডিএ কৃষি পণ্যের রপ্তানি বাড়ানোর জন্য পরিকাঠামো উন্নয়ন, মান উন্নয়ন এবং বাজারের উন্নতিতে আর্থিক সহায়তা প্রকল্পের অধীনে সহায়তা দিয়ে চলেছে। আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় রপ্তানিকারকদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

পিএম গতি শক্তি - জাতীয় মহাপরিকল্পনার অঙ্গ হিসাবে, এপিইডিএ কৃষি পণ্যের দ্রুত পরিবহণের লক্ষ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতির জন্য রেল ও সড়কপথ সহ বিভিন্ন মন্ত্রণকের সঙ্গে সহযোগিতা করে চলেছে। চেয়ারম্যান ডঃ এম আঙ্গামুথু বলেছেন
সরকার পূর্বাঞ্চল, হিমালয়, উওর পূর্ব রাজ্য, জম্মু- কাশ্মীর এবং লাদাখ থেকে রপ্তানি বাড়ানোর দিকে নজর দিয়েছে। সরকারের ডিজিটাল ইন্ডিয়া নীতির সঙ্গে সামঞ্জস্য বজায় রেখে, এপিইডিএ বেশ কয়েকটি নতুন ডিজিটাল প্রযুক্তি-ভিত্তিক উদ্যোগ বাস্তবায়ন করেছে।

প্রাকৃতিক পণ্যের ক্রমবর্ধমান চাহিদা বৃদ্ধি এবং উপভোক্তাদের প্রাকৃতিক উপাদান যুক্ত খাবার, প্রসাধনী ও ওষুধের বেশি পরিমাণের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে, কেন্দ্র কৃষি মন্ত্রকের সঙ্গে পরামর্শ করে প্রাকৃতিক কৃষি পণ্যের রপ্তানির বিষয়ে প্রচারের জন্য একটি কৌশল তৈরি করার উদ্যোগ নিয়েছে।  রপ্তানিকারকদের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য কৃষিজাত পণ্য উৎপাদনকারী সংস্থা (এফপিও), সমবায় এবং মহিলা উদ্যোক্তাদের একটি মঞ্চ তৈরি করে দিতে এপিইডিএ-র ওয়েবসাইটে একটি কৃষকদের সাথে সংযোগরক্ষাকারী পোর্টালও তৈরি করা হয়েছে। এ পর্যন্ত এই পোর্টালে প্রায় ৩,২৯৫ এফপিও এবং ৩,৩১৫ রপ্তানিকারক নাম নথিভুক্ত করেছে। ২৪ লক্ষেরও বেশি জৈব কৃষক এপিইডিএ-তে নাম নথিভুক্ত করেছেন ।  

 

CG/SS



(Release ID: 1815320) Visitor Counter : 324