রেলমন্ত্রক

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শ্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব কবচ পদ্ধতির পরীক্ষা পরিদর্শন করেছেন

Posted On: 04 MAR 2022 5:13PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ০৪ মার্চ, ২০২২

 

রেল, যোগাযোগ এবং ইলেক্ট্রনিক্স ও তথ্য প্রযুক্তি দপ্তরের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শ্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব আজ সাউথ সেন্ট্রাল রেলের সেকেন্দ্রাবাদ ডিভিশনের লিঙ্গামপল্লী-ভিকারাবাদ বিভাগে গুল্লাগুদা-চিটগিড্ডা রেল স্টেশনের মধ্যে ‘কবচ’ পদ্ধতির কাজ পরিদর্শন করেছেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান তথা সিইও শ্রী ভি কে ত্রিপাঠী এবং অন্য উচ্চ পদস্থ আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন। 

‘কবচ’ পদ্ধতির কাজ পরিদর্শনকালে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রেল ইঞ্জিনে চড়ে গুল্লাগুদা থেকে চিটগিড্ডার দিকে রওনা হন। অন্যদিকে, রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান আরেকটি  রেল ইঞ্জিনে চিটগিড্ডা থেকে গুল্লাগুদার উদ্দেশ্য যাত্রা করেন।পরীক্ষা চলাকালীন দেখা যায়,উভয় রেল ইঞ্জিন মুখোমুখী চলে এসে সংঘর্ষের পরিস্থিতি তৈরি করলে ‘কবচ’ পদ্ধতিতে স্বয়ংক্রিয় ব্রেক ব্যবস্থাপনা ৩৮০ মিটার দূরে  ইঞ্জিন দুটিকে থামিয়ে দিয়েছে। একই সঙ্গে রেল ইঞ্জিন লাল সিগন্যাল পার করছে কিনা,তাও পরীক্ষা করা হয়।যদিও দেখা গেছে, স্বয়ংক্রিয় ব্রেক প্রয়োগে অপরিহার্য ‘কবচ’ হিসাবে রেল ইঞ্জিন লাল সিগন্যাল অতিক্রম করছে না।এমনকি গেট সিগন্যালে পৌঁছলে স্বয়ংক্রিয় হুইসেলের শব্দ পরিষ্কারভাবে জোরে বেজে উঠছে। এই পরীক্ষা চলাকালীন রেল কর্মীরা নিজে থেকে হুইসেলের শব্দ ও ব্রেক কষার ব্যবস্থাপনায় স্পর্শ করেননি। লুপ লাইনে যাত্রা করার সময় রেল ইঞ্জিনের গতিবেগ প্রতি ঘণ্টায় ৩০ কিলোমিটারের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকার বিষয়টি পরীক্ষা করা হয়। দেখা গেছে, লুপ লাইনে প্রবেশ করলে  ‘কবচ’ পদ্ধতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে রেল ইঞ্জিনের গতিবেগ প্রতি ঘন্টায় ৬০ থেকে কমে ৩০ কিলোমিটার হয়ে গেছে।উল্লেখ্য আত্মনির্ভর ভারতের অঙ্গ হিসাবে ২০২২-২৩ অর্থবর্ষে নিরাপত্তা এবং দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য ২ হাজার কিলোমিটার রেল নেটওয়ার্ককে এই ‘কবচ’ – এর আওতায় নিয়ে আসা হবে। 

 

CG/SS/SB



(Release ID: 1803139) Visitor Counter : 255