ভূ-বিজ্ঞানমন্ত্রক

বিজ্ঞান নির্ভর অর্থনীতির ওপর ভারতের ভবিষ্যৎ অগ্রগতি নির্ভর করছে : ডঃ জিতেন্দ্র সিং

ভূবিজ্ঞান মন্ত্রক আয়োজিত সাপ্তাহিক আজাদি কা অমৃত মহোৎসব কর্মসূচির সূচনা করলেন ডঃ জিতেন্দ্র সিং

Posted On: 18 OCT 2021 1:06PM by PIB Kolkata

 নতুন দিল্লি, ১৮ অক্টোবর, ২০২১ 

 

কেন্দ্রীয় ভূবিজ্ঞান এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডঃ জিতেন্দ্র সিং বলেছেন, বিজ্ঞান নির্ভর অর্থনীতির ওপর ভারতের ভবিষ্যৎ অগ্রগতি নির্ভর করছে। ডঃ সিং আজ নতুন দিল্লিতে ভূবিজ্ঞান মন্ত্রকের পক্ষ থেকে আয়োজিত সাপ্তাহিক আজাদি কা অমৃত মহোৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নীল অর্থনীতিতে গবেষণাধর্মী প্রযুক্তি ও স্টার্ট-আপ –এর ভূমিকা নিয়ে এক মত বিনিময় সভায় ভাষণ দিচ্ছিলেন। সভায় ডঃ সিং বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সুদক্ষ নেতৃত্বে ভারত যখন স্বাধীনতার ৭৫ তম বার্ষিকী উদযাপন করছে, তখন এটাই সঠিক সময় আগামী ২৫ বছরের রূপরেখা চূড়ান্ত করার। তিনি বলেন, ভারত যখন স্বাধীনতার শততম বার্ষিকী উদযাপন করবে তখন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ভারতের সার্বিক বিকাশের প্রধান ভিত্তি হয়ে উঠবে।

ডঃ সিং আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দূরদৃষ্টি এবং বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় নেতা হিসেবে তার ভাবমূর্তি ভারতকে আজ আন্তর্জাতিক মঞ্চে এমন জায়গায় প্রতিষ্ঠিত করেছে, যা আগের দশকগুলিতে কখনো হয়নি। প্রধানমন্ত্রী স্বয়ং বিজ্ঞান নির্ভর উন্নয়নে অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেন। আর এর ফলশ্রুতি স্বরূপ যাবতীয় বিজ্ঞানমূলক কর্মসূচি সাধারণ মানুষের দৈনন্দিন জীবনযাপনকে আরও সহজ ও সরল করে তুলতে প্রয়োগ করা হচ্ছে। মন্ত্রী বলেন, ভারতের নীল অর্থনীতি জাতীয় অর্থনীতির এমন একটি উপাদান যার সঙ্গে সমস্ত সামুদ্রিক সম্পদ, মনুষ্য-নির্মিত অর্থনৈতিক কাঠামো প্রভৃতি যুক্ত রয়েছে। নীল অর্থনীতির সঙ্গে পণ্য ও পরিষেবা, পরিবেশের স্থায়িত্ব এবং জাতীয় নিরাপত্তার মতো বিষয়গুলির নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। ভারতের মতো সুবিস্তৃত উপকূলবর্তী দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে নীল অর্থনীতি বড় ভূমিকা নিতে পারে। অবশ্য সামাজিক কল্যাণে সামুদ্রিক সম্পদের সদ্ব্যবহার জরুরি বলেও তিনি অভিমত প্রকাশ করেন।

মন্ত্রকের পক্ষ থেকে আয়োজিত সাপ্তাহিক আজাদি কা অমৃত মহোৎসব প্রসঙ্গে ডঃ সিং বলেন, দেশীয় স্টার্ট-আপ ও শিল্প সংস্থাগুলিকে এধরণের কর্মসূচিতে সামিল করা অত্যন্ত জরুরি। এই লক্ষ্যে মন্ত্রক বিজ্ঞান ধর্মী কর্মসূচি ও প্রাকৃতিক সম্পদের সদ্ব্যবহার ঘটিয়ে সাধারণ মানুষের বিভিন্ন চাহিদা পূরণে অনুঘটনের ভূমিকা পালন করছে।

সামুদ্রিক দূষণ সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করে ডঃ সিং বলেন, আগামী দিনে এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে আরও সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণ করতে হবে। তিনি উপকূল এলাকায় ভূমিক্ষয় রোধ সম্পর্কে আরও আধুনিক প্রযুক্তি উদ্ভাবনের ওপর গুরুত্ব দেন।

এর আগে, ভূবিজ্ঞান মন্ত্রকের নব নিযুক্ত সচিব ডঃ এম রবিচন্দ্রন মত বিনিময় সভায় স্বাগত ভাষণ দেন।

 

CG/BD/SKD/  



(Release ID: 1764769) Visitor Counter : 348