কেন্দ্রীয়মন্ত্রিসভা

কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা ২০২৫-২৬ পর্যন্ত অটল মিশন ফর রিজুভিনেশন অ্যান্ড আর্বান ট্রান্সফরমিশন (অম্রুত ২.০) চালু রাখার প্রস্তাব অনুমোদন করেছে

শহরাঞ্চলের পরিবারগুলিতে সুলভে নির্ভরযোগ্য জল সরবরাহ ও নিকাশি পরিষেবা প্রদান করা জাতীয় অগ্রাধিকার

অম্রুত ২.০ কর্মসূচি রূপায়ণে আনুমানিক খরচ ২ লক্ষ ৭৭ হাজার কোটি টাকা

Posted On: 12 OCT 2021 8:35PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ১২ অক্টোবর,  ২০২১

 

আত্মনির্ভর ভারত গঠনের লক্ষ্যে এবং শহরগুলিকে জলসম্পদ সম্পর্কিত চক্রাকার অর্থনীতির মাধ্যমে পানীয় জল সরবরাহে নিরাপদ ও আত্মনির্ভর করে তুলতে প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর পৌরোহিত্যে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা ২০২৫-২৬ পর্যন্ত অটল মিশন ফর রিজুভিনেশন অ্যান্ড আর্বান ট্রান্সফরমিশন ২.০ (অম্রুত ২.০) কর্মসূচি রূপায়ণে সায় দিয়েছে। মন্ত্রিসভা উপলব্ধি করেছে যে, শহরাঞ্চলের পরিবারগুলিকে সুলভে নির্ভরযোগ্য জল সরবরাহ ও নিকাশি পরিষেবা জাতীয় স্তরে একটি অগ্রাধিকারের বিষয়। তাই, শহরাঞ্চলের প্রতিটি পরিবারে পাইপবাহিত জলসংযোগ পৌঁছে দিয়ে জলসম্পদের সংরক্ষণ/জলসম্পদের পরিমাণ বাড়িয়ে, জলাশয় ও কূপগুলির পুনরুজ্জীবন ঘটিয়ে, ব্যবহৃত জল শোধন করে তার পুনর্ব্যবহারে এবং  বৃষ্টির জল সংরক্ষণের মাধ্যমে এই উদ্দেশ্য পূরণ সম্ভব। শহরাঞ্চলে পরিবারগুলিতে পাইপবাহিত জল সরবরাহ ও নিকাশি ব্যবস্থার সুবিধা দিয়ে জীবনযাপনের মানোন্নয়ন করাই এই কর্মসূচির উদ্দেশ্য। উল্লেখ করা যেতে পারে, ২০১৫’র জুন মাসে জাতীয় জল মিশনের ওপর গুরুত্ব দিয়ে অম্রুত কর্মসূচির প্রথম পর্যায়ের সূচনা হয়েছিল। প্রথম পর্যায়ে ৫০০টি শহরবাসীকে পাইপবাহিত জল সংযোগ ও নিকাশি পরিষেবার সুবিধা প্রদান করে জীবনযাপনের মানোন্নয়নে গুরুত্ব দেওয়া হয়। এখনও পর্যন্ত অম্রুত প্রকল্পের প্রথম পর্যায়ে ১ কোটি ১০ লক্ষ পরিবারে পাইপবাহিত জল সংযোগ দেওয়া হয়েছে এবং ৮৫ লক্ষ নিকাশি ব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়েছে। এছাড়াও, দৈনিক ৬ হাজার মিলিয়ন টন বর্জ্য পরিচালনা কেন্দ্র গড়ে তোলা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই দৈনিক-ভিত্তিতে ১ হাজার ২১০ মিলিয়ন লিটার জল শোধন ক্ষমতা গড়ে তোলা হয়েছে। একই সঙ্গে, ১ হাজার ৭০০টি এলাকা বানভাসী হওয়া থেকে মুক্ত করা হয়েছে। 

অম্রুত কর্মসূচির প্রথম পর্যায়ে অর্জিত সাফল্যকে এগিয়ে নিয়ে যেতে দ্বিতীয় পর্যায়ে দেশের ৪ হাজার ৩৭৮টি শহরে পারিবারিক পাইপবাহিত জল সংযোগ সুবিধা পৌঁছে দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও, ৫০০টি অম্রুত শহরে পারিবারিক নিকাশি ব্যবস্থা গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে। কর্মসূচির দ্বিতীয় পর্যায়ে শহরাঞ্চলে ২ কোটি ৬৮ লক্ষ পরিবারে পাইপবাহিত জল সংযোগ এবং ২ কোটি ৬৪ লক্ষ নিকাশি ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্য স্থির হয়েছে।

২০২০-২১ অর্থবর্ষ থেকে ২০২৫-২৬ পর্যন্ত পাঁচ বছরে অম্রুত কর্মসূচির দ্বিতীয় পর্যায়ে ২ লক্ষ ৭৭ হাজার কোটি টাকা খরচ করা হবে। এর মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকার ৭৬ হাজার ৭৬০ কোটি টাকার ব্যয়ভার বহন করবে। 

কর্মসূচির দ্বিতীয় পর্যায়ে শহরাঞ্চলীয় স্বশাসিত সংস্থাগুলির আর্থিক সুস্বাস্থ্য ও পানীয় জল নিরাপত্তার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। জল শোধনের মাধ্যমে ২০ শতাংশ জলের চাহিদা মেটানোর পরিকল্পনা রয়েছে। এমনকি, রাজস্ব বহির্ভূত জলের ক্ষেত্রে খরচের পরিমাণ ২০ শতাংশের নীচে নামিয়ে আনার লক্ষ্য স্থির হয়েছে। অন্যদিকে, জলাধারগুলির পুনরুর্জীবন ও সংস্কারে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। শহরাঞ্চলে সম্পত্তি কর ও ব্যবহার বাবদ মাশুল খাতে সংস্কারের ওপর গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। সংস্কারের ওপর ভিত্তি করে শহরাঞ্চলীয় স্থানীয় স্বশাসিত সংস্থাগুলিকে কর্মসূচির মাধ্যমে উৎসাহভাতা দেওয়ার প্রস্তাব রয়েছে। 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1763626) Visitor Counter : 33