যুবওক্রীড়াবিষয়কমন্ত্রক

যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক মন্ত্রক গ্রামীণ, আদিবাসী অধ্যুষিত এবং পিছিয়ে পড়া অঞ্চল সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে খেলাধুলার উন্নয়নে বিভিন্ন প্রকল্প প্রণয়ন করেছে: ক্রীড়ামন্ত্রী শ্রী অনুরাগ ঠাকুর

Posted On: 02 AUG 2021 3:23PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ০২ আগস্ট, ২০২১

 

খেলো ইন্ডিয়া প্রকল্পে 'ট্যালেন্ট সার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট'-এর আওতায় নির্বাচিত খেলোয়াড়দের চিহ্নিত করে মাথাপিছু বছরে ৬.২৮ লক্ষ টাকা অনুদান দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে।

মন্ত্রকের পক্ষ থেকে সারা দেশ জুড়ে ১ হাজার খেলো ইন্ডিয়া সেন্টার তৈরি করা হবে। এরমধ্যে ৩৬০ টি কেন্দ্র ইতিমধ্যেই বিজ্ঞাপিত হয়েছে।

সারা দেশ জুড়ে ২৩৬টি স্পোর্টস একাডেমিকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে।

খেলাধুলার ক্ষেত্রে রাজ্যের  ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। খেলাধুলার উন্নয়ন এবং ক্রীড়া বিদ্যালয় স্থাপনের বিষয়টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের উপর নির্ভর করে। কেন্দ্রীয় সরকার কেবল এ বিষয়ে তাদের প্রচেষ্টার পরিপূরক।

যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক মন্ত্রী শ্রী অনুরাগ ঠাকুর জানিয়েছেন, দেশে খেলাধুলার উন্নয়নের জন্য সরকার যেসব প্রকল্প গ্রহণ করেছে তার মধ্যে রয়েছে-১) খেলো ইন্ডিয়া স্কিম। ২) জাতীয় ক্রীড়া ফেডারেশনকে সহায়তা প্রদান করা।

৩) আন্তর্জাতিক খেলাধুলায় বিজয়ী খেলোয়াড় ও তাঁদের প্রশিক্ষকদের জন্য বিশেষ পুরস্কারের ব্যবস্থা।

৪) মেধাবী খেলোয়াড়দের জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার এবং পেনশনের ব্যবস্থা।

৫) পণ্ডিত দীনদয়াল উপাধ্যায় জাতীয় ক্রীড়া কল্যাণ তহবিল।

৬) জাতীয় ক্রীড়া উন্নয়ন তহবিল।

৭) স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার মাধ্যমে ক্রীড়া প্রশিক্ষণ কেন্দ্র পরিচালনা করা।

এইসব প্রকল্প গুলির মাধ্যমে অধিকাংশ খেলোয়াড়রা সুযোগ-সুবিধা পেয়ে আসছেন। বিশেষ করে গ্রামীণ, পিছিয়ে পড়া ও আদিবাসী অধ্যুষিত অঞ্চল গুলিতে।

খেলাধুলার ভিত্তিতে দেশকে পাঁচটি অঞ্চলে ভাগ করা হয়েছে। এগুলি হচ্ছে- উত্তর, পূর্ব, পশ্চিম, দক্ষিণ, এবং উত্তর-পশ্চিম। আট থেকে ১৪ বছর বয়সীদের মধ্যে ক্রীড়াবিষয়ক ২০টি ক্ষেত্রকে চিহ্নিত করা হয়েছে। 

আজ রাজ্যসভায় এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে যুব  ও ক্রীড়া বিষয়ক মন্ত্রী শ্রী অনুরাগ ঠাকুর এই তথ্য জানিয়েছেন।

 

CG/ SB



(Release ID: 1741701) Visitor Counter : 131