যোগাযোগওতথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রক

৫ জি প্রযুক্তি ও স্পেক্ট্রাম নিয়ে পরীক্ষা – নিরীক্ষার জন্য টেলিকম দপ্তরের অনুমতি

Posted On: 04 MAY 2021 4:38PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ৪ই  মে, ২০২১

 

টেলিকম সার্ভিস প্রোভাইডার (টিএসপি) – অর্থাৎ যে সমস্ত সংস্থাগুলি টেলি পরিষেবা দিয়ে থাকে, তাদের কেন্দ্রীয় যোগাযোগ দপ্তর ৫ জি প্রযুক্তির ব্যবহার ও প্রয়োগ সংক্রান্ত পরীক্ষা – নিরীক্ষার অনুমতি দিয়েছে।  ভারতী এয়ারটেল লিমিটেড, রিলায়েন্স জিও ইনফোকম লিমিটেড, ভোডাফোন আইডিয়া লিমিটেড এবং এমটিএনএল – এই সংস্থাগুলি এই পরীক্ষা – নিরীক্ষার জন্য আবেদন করেছে। এরিকশন, নোকিয়া, স্যামসাং এবং সি – ডট –এর মতো সরঞ্জাম নির্মাতা এবং প্রযুক্তি প্রদানকারী সংস্থাগুলির সঙ্গে টিএসপিগুলি পরীক্ষা – নিরীক্ষা করার বিষয়ে জোট বেঁধেছে। রিলায়েন্স জিও ইনফোকম লিমিটেড অবশ্য তার নিজস্ব প্রযুক্তি ব্যবহার করে এই পরীক্ষা – নিরীক্ষা চালাবে। টিএসপিগুলি নিজেরাই তাদের চাহিদা অনুসারে অংশীদার সংস্থাদের চিহ্নিত করবে। বিভিন্ন ব্র্যান্ডের স্পেক্ট্রামের ওপর পরীক্ষা – নিরীক্ষা চালানো হবে। এর মধ্যে রয়েছে, মিড ব্র্যান্ড (৩.২ গিগা হার্ৎজ থেকে  ৩.৭৬ গিগা হার্ৎজ) মিলিমিটার ওয়েভ ব্র্যান্ড (২৪.২৫ গিগা হার্ৎজ থেকে  ২৮.৫ গিগা হার্ৎজ) এবং সাব গিগা হার্ৎজ ব্র্যান্ড (৭০০ গিগা হার্ৎজ)। টিএসপি গুলিকে তাদের নিয়ন্ত্রণে থাকা ৮০০ মেগা হার্ৎজ, ৯০০ মেগা হার্ৎজ, ১৮০০ মেগা হার্ৎজ এবং ২৫০০ মেগা হার্ৎজ –এর স্পেক্ট্রাম ব্যবহার করে ৫ জির পরীক্ষা – নিরীক্ষা করার অনুমতিও দেওয়া হয়েছে। 
৬ মাস ধরে এই পরীক্ষা – নিরীক্ষা চালানো হবে। পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রাংশ কিনতে প্রথম ২ মাস ব্যয় করা হবে। অনুমতিপত্রে স্পষ্টভাবে উল্লেখ করা হয়েছে, শহরাঞ্চলের পাশাপাশি গ্রামাঞ্চল এবং আধা গ্রাম আধা শহর এলাকাতেও এই পরীক্ষা – নিরীক্ষা চালাতে হবে,  যাতে ৫ জি প্রযুক্তির সুফল শহরাঞ্চলের মধ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে সারা দেশে ছড়িয়ে দেওয়া যায়। 
টিএসপি গুলিকে ৫ জি প্রযুক্তির পাশাপাশি ৫ জি আই প্রযুক্তি ব্যবহারে উৎসাহিত করা হচ্ছে। এই প্রসঙ্গে উল্লেখ করা যায়, ইন্টারন্যাশনাল টেলি কমিউনিকেশনস ইউনিয়ন বা আইটিইউ ৫ জি আই প্রযুক্তিকে অনুমোদন দিয়েছে। ভারত, এই প্রযুক্তির প্রয়োগের  বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে দাবী জানিয়ে  আসছে। এই প্রযুক্তি ৫ জি টাওয়ার এবং রেডিও নেটওয়ার্ককে আরো সম্প্রসারিত করতে সাহায্য করে। আইআইটি ম্যাড্রাস, আইআইটি হায়দ্রাবাদ এবং সেন্টার অফ এক্সেলেন্স ইন ওয়ারলেস টেকনোলজি, এই প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছে। ৫ জি সংক্রান্ত পরীক্ষা – নিরীক্ষা করার জন্য ৫ জি স্পেক্ট্রামের বিস্তার, ভারতীয় পরিবেশে তার বৈশিষ্ট,  যে যন্ত্রাংশ ব্যবহার করা হবে౼ সেগুলির মূল্যায়ন, এই যন্ত্রাংশ যাদের কাছ থেকে কেনা হবে ౼ তাদের চিহ্নিতকরণ, দেশীয় প্রযুক্তির পরীক্ষা করা, টেলি মেডিসিন, টেলি এডুকেশন, ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে বিভিন্ন কর্মকান্ড, ড্রোনের সাহায্যে কৃষিকাজের বিষয়ে নজরদারীর মতো বিভিন্ন পরীক্ষা – নিরীক্ষার পাশাপাশি ৫ জি ফোন এবং যন্ত্রপাতিরও মূল্যায়ন করা হবে। 
৫ জি প্রযুক্তি দ্রুতহারে ডেটা ডাউনলোড করবে। ৪ জির থেকে ১০ গুণ দ্রুত বেগে এখানে ডাউনলোড হবে। স্পেক্ট্রামের দক্ষতা তিনগুণ বেশি এবং চতুর্থ পর্যায়ের শিল্পগুলির কাছে এর অতিপ্রচ্ছন্ন প্রভাব থাকবে। কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, পরিবহণ, ট্র্যাফিক ব্যবস্থাপনা, স্মার্ট সিটিজ, স্মার্ট হোম এবং ইন্টারনেট অফ থিংসের প্রয়োগ সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ৫ জি প্রযুক্তির প্রয়োগ করা হবে। 
টেলি যোগাযোগ দপ্তর, স্পষ্ট করে জানিয়েছে, এই পরীক্ষা – নিরীক্ষা হবে নিতান্তই বিচ্ছিন্নভাবে। এক্ষেত্রে টিএসপি গুলির বর্তমান নেটওয়ার্কের সঙ্গে এর কোনো সংযোগ থাকবে না। এই পরীক্ষা – নিরীক্ষা বাণিজ্যিকভাবে করাও যাবে না। পরীক্ষার ফলে যে সব তথ্য পাওয়া যাবে, সেগুলি ভারতেই থাকবে। টিএসপি গুলি দেশীয় প্রযুক্তি নিয়ে পরীক্ষা – নিরীক্ষা চালাবে বলে আশা করা হচ্ছে। সাম্প্রতি ৫ জির প্রয়োগের উপর হ্যাকাথনের আয়োজন করার পর এ সংক্রান্ত পরীক্ষা – নিরীক্ষার জন্য ১০০টি আবেদনপত্র জমা পড়েছে।

 

SDG/CB/SFS



(Release ID: 1716070) Visitor Counter : 72