PIB Headquarters

কোভিন-১৯ সংক্রান্ত পিআইবি’র সংবাদ

Posted On: 08 APR 2021 5:34PM by PIB Kolkata
নতুন দিল্লি, ০৮ এপ্রিল, ২০২১

 

ভারতে ৯ কোটিরও বেশি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০ লক্ষের কাছাকাছি মানুষকে টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে
বিশ্বজুড়ে অতিমারীর বিরুদ্ধে সঙ্ঘবদ্ধ লড়াইয়ে ভারত টিকাকরণ অভিযানের ক্ষেত্রে এক মাইল ফলক তৈরি করেছে। এবছরের ১৬ জানুয়ারি থেকে ভারতে বিশ্বের বৃহত্তম টিকাকরণ অভিযানের সূচনা হয়। আজ পর্যন্ত দেশে ৯ কোটিরও বেশি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। আজ সকাল ৭টা পর্যন্ত ১৩ লক্ষ ৭৭ হাজার ৩০৪টি টিকাকরণ পর্বের মাধ্যমে ৯ কোটি ১ লক্ষ ৯৮ হাজার ৬৭৩ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৮৯ লক্ষ ৬৮ হাজার ১৫১ জন স্বাস্থ্য কর্মীকে টিকার প্রথম ডোজ, ৫৪ লক্ষ ১৮ হাজার ৮৪ জন স্বাস্থ্য কর্মীকে দ্বিতীয় ডোজ, ৯৭ লক্ষ ৬৭ হাজার ৫৩৮ জন প্রথম সারির কর্মীকে প্রথম ডোজ এবং ৪৪ লক্ষ ১১ হাজার ৬০৯ জনকে প্রথম সারির কর্মীকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ৬০ বছরের বেশি বয়সী ৩ কোটি ৬৩ লক্ষ ৩২ হাজার ৮৫১ জন সুবিধাভোগীকে প্রথম ডোজ এবং ১১ লক্ষ ৩৯ হাজার ৩৯১ জনকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ৪৫ থেকে ৬০ বছর বয়সী ২ কোটি ৩৬ লক্ষ ৯৪ হাজার ৪৮৭ জনকে প্রথম ডোজ ও ৪ লক্ষ ৬৬ হাজার ৬৬২ জনকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে। ৮টি রাজ্যে টিকাকরণের হার ৬০ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০ লক্ষের কাছাকাছি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। টিকাকরণ অভিযানের ৮২ তম দিনে ২৯ লক্ষ ৭৯ হাজার ২৯২ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৩৮ হাজার ৭৬০টি টিকাকরণ পর্বের মাধ্যমে ২৬ লক্ষ ৯০ হাজার ৩১ জন সুবিধাভোগীকে প্রথম ডোজ এবং ২ লক্ষ ৮৯ হাজার ২৬১ জন সুবিধাভোগীকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে। দৈনিক টিকাকরণের নিরিখে ভারত বিশ্বের মধ্যে প্রথম স্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ১ লক্ষ ২৬ হাজার ৭৮৯ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মহারাষ্ট্র, ছত্তিশগড়, কর্ণাটক, উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি, মধ্যপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, গুজরাট, কেরালা এবং কর্ণাটকে – এই ১০টি রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ ক্রমশই বাড়ছে। ১০টি রাজ্যে নতুন করে সংক্রমণের হার ৮৪.২১ শতাংশ। মহারাষ্ট্রে একদিনে ৫৯ হাজার ৯০৭ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ছত্তিশগড়ে ১০ হাজার ৩১০ এবং কর্ণাটকে ৬ হাজার ৯৭৬ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। ১২টি রাজ্যে সংক্রমণের হারের রেখাচিত্র ক্রমশই ঊর্ধ্বমুখী।
বিস্তারিত জানার জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুন – 
https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1710349
কোভিড-১৯ টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী কোভিড-১৯ টিকার দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন। এক ট্যুইট বার্তায় শ্রী মোদী বলেছেন, “আমি আজ এআইআইএমএস-এ কোভিড-১৯ টিকার দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছি। সংক্রমণকে আমাদের পরাস্ত করার কয়েকটি উপায়ের মধ্যে অন্যতম হলো টিকা। যদি আপনি টিকা নেওয়ার যোগ্য হন তাহলে শীঘ্রই তা গ্রহণ করুন। CoWin.gov.in-এ নাম নথিভুক্ত করুন।”
বিস্তারিত জানার জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুন – 
https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1710307
কর্মস্থলে (সরকারি এবং বেসরকারি) কোভিড টিকা কেন্দ্র পরিচালনার জন্য কেন্দ্রের নির্দেশিকা জারি 
৪৫ বছর বা তার বেশি বয়সী নাগরিকদের কোভিড-১৯ টিকা দান প্রক্রিয়া পয়লা এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে। এরই অঙ্গ হিসেবে কর্মস্থলে (সরকারি এবং বেসরকারি) অথবা উৎপাদন ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত ৪৫ বছর বা তার বেশি বয়সী ব্যক্তিদের টিকা দানের জন্য কোভিড টিকাকরণ কেন্দ্র পরিচালনার উদ্দেশে কেন্দ্র নির্দেশিকা জারি করেছে। এই মর্মে স্বাস্থ্যমন্ত্রক সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলকে চিঠি পাঠিয়েছে। চিঠিতে মন্ত্রক জানিয়েছে, সরকারি বা বেসরকারি যে কোন কর্মস্থলে যেখানে ১০০জন কর্মী রয়েছেন, সেখানে ইচ্ছুক সুবিধাভোগীকে টিকা দেওয়ার জন্য কোভিড টিকাকরণ কেন্দ্র খোলা যেতে পারে। আগামী ১১ এপ্রিল থেকে সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে এই ধরনের কর্মস্থলে টিকাকরণ কেন্দ্র চালু হবে। 
বিস্তারিত জানার জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুন – 
https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1710218
‘কিছু ব্যর্থতা থেকে মনোসংযোগ এড়াতে এবং সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য কয়েকটি রাজ্য সরকার কর্তৃক দুর্ভাগ্যজনক প্রচেষ্টা’ বিষয়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী ডাঃ হর্ষ বর্ধন-এর বিবৃতি
বিস্তারিত জানার জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুন – 
https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1710190
উপজাতিদের স্বাস্থ্য সহযোগিতায় ‘অনামায়া’ প্রকল্প চালু করেছেন ডাঃ হর্ষ বর্ধন
উপজাতি সম্প্রদায় মানুষের স্বাস্থ্য সহযোগিতায় গতকাল ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী ডাঃ হর্ষ বর্ধন ‘অনামায়া’ নামে একটি প্রকল্পের সূচনা করেছেন। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আদিবাসি বিষয়ক মন্ত্রী শ্রী অর্জুন মু্ণ্ডা। পিরামল ফাউন্ডেশন এবং বিল অ্যান্ড মিলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন-এর সহযোগিতায় বহু অংশিদারিত্বের উদ্যোগে ভারতের উপজাতি সম্প্রদায় মানুষের স্বাস্থ্য ও পুষ্টি ব্যবস্থার উন্নতি সাধনে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
বিস্তারিত জানার জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুন – 
https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1710231
কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ডক্টর জিতেন্দ্র সিং কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে ডিওপিটি-র পদক্ষেপ নিয়ে পর্যালোচনা করেছেন
কেন্দ্রীয় কর্মী, জন- অভিযোগ এবং পেনশন বিষয়ক মন্ত্রী ডক্টর জিতেন্দ্র সিং আজ কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে কর্মী ও প্রশিক্ষণ বিভাগ, ডিওপিটি-র পদক্ষেপ নিয়ে পর্যালোচনা করেছেন। এই বৈঠকে বিভিন্ন বিভাগের আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন। আজকের বৈঠকে যেসব কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীর বয়স ৪৫ বছরের ওপর, তাঁদের অবিলম্বে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়। এছাড়াও সরকারি কর্মীদের মাস্ক ও স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে পরামর্শ দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে ডক্টর জিতেন্দ্র সিং জানান, প্রতিটি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গুলিকে কঠোরভাবে কোভিড সংক্রান্ত বিধিনিষেধ মেনে চলার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
বিস্তারিত জানার জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুন – 
https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1710182
সিএসআইআর-সিএমইআরআই একটি সম্ভাব্য বহুমুখী জীবন রক্ষক – অক্সিজেন সমৃদ্ধকরণ ইউনিট তৈরি করেছে
অক্সিজেন সমৃদ্ধকরণ ইউনিট হলো এমন একটি যন্ত্র যা বায়ু থেকে নাইট্রোজেনকে অপসারণ করে অক্সিজেন সমৃদ্ধ বাতাস সরবরাহ করে থাকে এবং বাতাসে অক্সিজেনের মাত্রা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এই সমৃদ্ধকৃত অক্সিজেন শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভোগা রোগীদের নাসাল ক্যাননুলার বা অক্সিজেন মাস্কের মাধ্যমে সরবরাহ করা হয়। এই যন্ত্রটি বাড়ি, প্রান্তিক স্থানে অথবা দীর্ঘস্থায়ী প্রতিবন্ধক পালমোনারি রোগ, দীর্ঘস্থায়ী হাই পোক্সেমিয়া এবং ফুসফুসের রোগে আক্রান্ত রোগীদের সুবিধার জন্য হাসপাতালে ব্যবহার করা যেতে পারে।
বিস্তারিত জানার জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুন – 
https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1710350
পিআইবি-র আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য
•	আসাম – আসামে কোভিড-১৯ সক্রিয় রোগীর হার জাতীয় হারের তুলনায় কম। কিন্তু বুধবার ১৯৫জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। এরাজ্যেও ক্রমশই বাড়ছে সংক্রমণের হার। 
•	মণিপুর – বুধবার এখানে আরও ৭৫জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন। আরও ৯৪৮ জন ব্যক্তিকে কোভিড-১৯ টিকা দেওয়া হয়েছে। এই নিয়ে এখানে ৮৯,৫৯০ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে, ৩১,৭৪৪ জন স্বাস্থ্যকর্মী রয়েছেন।
•	সিকিম – গত ২৪ ঘন্টায় এখানে নতুন করে ৩১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। ৬,৩০৬ জন ব্যক্তিকে মঙ্গলবার করোনার প্রথম টিকা দেওয়া হয়। পাশাপাশি ৩৯৬জন ব্যক্তিকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে। সিকিমের দক্ষিণ জেলায় কোভিড টিকা মজুত করে রাখা হয়েছে। ছুটির দিনেও টিকাকরণ কেন্দ্রগুলি খোলা থাকছে।
•	ত্রিপুরা – ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘন্টায় আরও ২১ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন এবং একজনের মৃত্যু হয়েছে। ত্রিপুরায় আগামী শনিবার মাস্ক কার্যকর দিবস হিসেবে পালন করার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। একই সঙ্গে নতুন কোভিড-১৯ নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। 
•	মেঘালয় – রাজ্যে কোভিড-১৯ বিধি কঠোরভাবে মেনে চলার জন্য নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। ১১টি রাজ্য থেকে মেঘালয়ে ফেরত আসা ব্যক্তিদের প্রবেশের জন্য কোভিড বিধি জারি করা হয়েছে। এক্ষেত্রে ব্যক্তিদের রাজ্যে প্রবেশের সময় আরটিপিসিআর নেগেটিভ সংশাপত্র দেখাতে হবে। বুধবার ১,১৫৫ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। 
•	নাগাল্যান্ড – আরও ১১ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। এই নিয়ে ১২,৩৭৬ জন আক্রান্ত হলেন করোনায়। পাশাপাশি ৯৩,৭০৭ জনকে কোভিশিল্ড টিকা দেওয়া হয়েছে। 
•	কেরালা – রাজ্যে আরটিপিসিআর পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। ৩,৫০২ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। পাশাপাশি ৪৫ বছরের বেশি বয়সী মানুষের টিকাকরণের ওপর বিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে। এপর্যন্ত রাজ্যে ৪২ লক্ষ ৩ হাজার ৯৮৪ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। 
•	তামিলনাড়ু – কোভিড-১৯-এর দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ায় রাজ্য সরকার মঙ্গলবার থেকে নতুন বিধি-নিধেষ কার্যকর করেছে। মঙ্গলবার ৩,৬৪৫ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন এবং আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই নিয়ে রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লক্ষ পেরিয়েছে। 
•	কর্ণাটক – ৬,৯৭৬ জন নতুন করে কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়েছেন। বুধবার আরও ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। পাশাপাশি প্রতিদিন রাজ্যে গড়ে ৭০ হাজার মানুষকে টিকা দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করেছে। 
•	অন্ধ্রপ্রদেশ – গত ২৪ ঘন্টায় ২,৩৩১ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। অন্যদিকে, ৮ লক্ষ ৯২ হাজার ৭৩৬ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় তিরুমালা তিরুপতি দেবস্থান পরিদর্শনের জন্য সর্বদর্শন টোকেন দেওয়া বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
•	তেলেঙ্গানা – রাজ্য সরকার সমস্ত সরকারি হাসপাতালগুলিতে কোভিড-১৯ চিকিৎসার জন্য সুবন্দোবস্ত প্রস্তুত রাখার নির্দেশ দিয়েছে। কোভিড-১৯ টিকাকরণের ওপর বিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে। রাজ্যে সমস্ত কোভিড টিকাকরণ কেন্দ্র থেকে অন্ততপক্ষে ১ লক্ষ ২৫ হাজার মানুষকে টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 
•	মহারাষ্ট্র – মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লক্ষ পেরিয়ে গেছে। বুধবার ৫৯,৯০৭ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে এই রাজ্যে প্রতিসপ্তাহে অন্ততপক্ষে ৪০ লক্ষ ডোজ সরবরাহের জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। 
•	গুজরাট – গত দু-সপ্তাহে এই রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বেড়েছে। বুধবার ৩,৫৭৫ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। কোভিড-১৯-এর দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। 
•	মধ্যপ্রদেশ – রাজ্যের মখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহ্বান নগর এলাকায় সপ্তাহের শেষে ৬০ ঘন্টা করে লকডাউনের কথা ঘোষণা করেছেন। এই লকডাউন শুক্রবার সন্ধে ৬টা থেকে সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত কার্যকর থাকবে। চিন্দওয়াড়া জেলায় আজ রাত আটটা থেকে আগামী সাত দিন লকডাউন থাকবে। 
•	ছত্তিশগড় – রাজ্যে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় রাজধানী রায়পুরে আগামী ৯ এপ্রিল থেকে সম্পূর্ণ লকডাউনের কথা ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত এই লকডাউন কার্যকর হবে। তবে, একমাত্র নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকান খোলা এবং জরুরী পরিষেবা চালু থাকবে।

CG/SS/AS/


(Release ID: 1710550) Visitor Counter : 214