স্বাস্থ্যওপরিবারকল্যাণমন্ত্রক

দ্য ইকোনমিক টাইমস্‌ আয়োজিত '‘রিশেপ টুমোরো সামিট’ – এ ডাঃ হর্ষবর্ধনের মূল ভাষণ

Posted On: 26 MAR 2021 12:32PM by PIB Kolkata
নয়াদিল্লি, ২৬ মার্চ ২০২১
 
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডাঃ হর্ষবর্ধন দ্য ইকনোমিক টাইমস্‌ আয়োজিত ‘রিশেপ টুমোরো সামিট’–এ মূল ভাষণ দিয়েছেন। গত বছর সারা বিশ্ব জুড়ে যে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়েছিল এবং তার প্রেক্ষিতে  শক্তিশালী, সংঘবদ্ধ ও প্রাণবন্ত ভারতের আত্মপ্রকাশের কথা উল্লেখ করে ডাঃ হর্ষবর্ধন বলেছেন, ২০২০ সালকে তিনি বিজ্ঞানের বছর হিসাবে মনে করেন। একটি টিকা উদ্ভাবন করতে বহু বছর, এমনকি দশক পর্যন্ত লেগে যায়। অথচ, গত জানুয়ারি মাসে অজ্ঞাত এক ভাইরাসের বিরুদ্ধে টিকা তৈরীর কাজ শুরু হয়েছে, আজ বিভিন্ন গবেষণায় তার অনেকগুলি টিকা পাওয়া গেছে। এ বছরের মধ্যে লক্ষ লক্ষ মানুষকে টিকা দেওয়া হবে। এই মুহূর্তে দুটি টিকা ভারতে তৈরি হচ্ছে এবং ভারত বায়োটেকের কো-ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের মধ্য দিয়ে বিজ্ঞানে আমাদের নজরকাড়া সাফল্য প্রমাণিত হয়েছে। মানুষ ভারতের তৈরি টিকাগুলি আস্থা ও বিশ্বাসের সঙ্গে গ্রহণ করেছেন। মাত্র ৪ দিনে ১ কোটিরও বেশি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে।
 
‘টেস্ট, ট্র্যাক ও ট্রিট’ কৌশলের কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেছেন, কোভিড সংক্রমণ থেকে ভারতে সুস্থতার হার সবচেয়ে বেশি এবং মৃত্যু হারও কম। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী শ্রীমতী নির্মলা সীতারমনের ২০২১-২২ অর্থবর্ষের বাজেটে কোভিড টিকাকরণের জন্য ৩৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের কথা উল্লেখ করে স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেছেন, টিকাকরণের বিষয়ে জাতীয় পরামর্শদাতা গোষ্ঠীগুলি প্রয়োজনীয় পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। ১৬ জানুয়ারি ভারতে কোভিড টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। প্রথমে আমাদের স্বাস্থ্য কর্মী ও সামনের সারিতে থাকা কোভিড যোদ্ধাদের টিকা দেওয়া হয়েছে। এরপর, বিভিন্ন বয়সের মধ্যে শ্রেণী-বিভাগ ঘটিয়ে টিকাকরণের কাজ চলছে। পয়লা মার্চ থেকে বেসরকারি হাসপাতালগুলিতেও কোভিড টিকা দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে। জনসাধারণ এখন তাঁদের সুবিধা মতো সময়ে টিকা নিতে পারছেন। আগামী পয়লা এপ্রিল থেকে ৪৫ বছর বা তার বেশীবয়সী যে কেউ এই টিকা নিতে পারবেন। কোভিড টিকাকরণকে সকলের অংশগ্রহণের আন্দোলনে পরিণত করার জন্য বিভিন্ন মন্ত্রক, দপ্তর, পেশাদার সংগঠন মেডিকেল কলেজ, অসরকারি সংগঠন, স্বেচ্ছাসেবকদের যুক্ত করা হয়েছে। ভ্যাকসিন মৈত্রী উদ্যোগে বিভিন্ন দেশে ভারত টিকা পাঠাচ্ছে। কোভিড সংক্রান্ত সঙ্কীর্ণ জাতীয়তাবাদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী বিশ্বব্যাপী সহযোগিতা গড়ে তোলার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ নিয়েছেন, যা ভারতের ঐতিহ্যগত মূল্যবোধ ‘বসুধৈব কুটুম্বকম্’ অর্থাৎ সারা বিশ্বকে একটি পরিবার হিসাবে বিবেচনা করার সামিল। 
 
***
 
 
 
CG/CB/SB


(Release ID: 1707782) Visitor Counter : 87