কর্পোরেটবিষয়সংক্রান্তমন্ত্রক

প্রধানমন্ত্রীর ‘ডিজিটাল ক্ষমতায়িত ভারত’ গঠনের স্বপ্নপূরণে ডিজিটাল পদ্ধতিতে সমাধানের লক্ষ্য অর্জনে অর্থমন্ত্রী শ্রীমতী নির্মলা সীতারমন সেন্ট্রাল স্ক্রুটনি সেন্টার এবং আইইপিএফএ – এর মোবাইল অ্যাপ চালু করলেন

Posted On: 25 MAR 2021 3:11PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ২৫ মার্চ ২০২১

কেন্দ্রীয় অর্থ তথা কর্পোরেট বিষয়ক মন্ত্রী শ্রীমতী নির্মলা সীতারমন আজ ভার্চ্যুয়াল পদ্ধতিতে কর্পোরেট বিষয়ক মন্ত্রকের প্রযুক্তি-চালিত দুটি উদ্যোগের সূচনা করেছেন। এগুলি হ’ল – সেন্ট্রাল স্ক্রুটনি সেন্টার এবং ইনভেস্টর এডুকেশন অ্যান্ড প্রোটেকশন ফান্ড অথরিটির (আইইপিএফএ) মোবাইল অ্যাপ। প্রধানমন্ত্রীর ‘ডিজিটাল ক্ষমতায়িত ভারত’ গঠনের স্বপ্ন পূরণে এই উদ্যোগ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে। অনুষ্ঠানে কর্পোরেট বিষয়ক মন্ত্রকের সচিব সহ উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন। 


মন্ত্রকের প্রযুক্তি-চালিত এই দুটি উদ্যোগের সূচনা করে শ্রীমতী সীতারমন বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারের ডিজিটাল ইন্ডিয়া অভিযানের উদ্দেশ্যই হ’ল সরকারি বিভিন্ন পরিষেবা বৈদ্যুতিন উপায়ে নাগরিকদের কাছে পৌঁছে দেওয়া এবং এইভাবে দেশের প্রযুক্তি ক্ষেত্রে ডিজিটাল ক্ষমতায়ন ঘটানো। মন্ত্রকের এই দুটি উদ্যোগ এক নতুন কর্পোরেট এবং বিনিয়োগ-বান্ধব পরিবেশ গড়ে তুলবে বলেও তিনি অভিমত প্রকাশ করেন। অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্যের অনুকূল পরিবেশ গড়ে তুলতে এবং সাধারণ মানুষের জীবনযাপনের মান বাড়াতে মন্ত্রক আরও প্রযুক্তি-চালিত পরিষেবা শুরু করবে। 


শ্রীমতী সীতারমন বলেন, কর্পোরেট বিষয়ক মন্ত্রক সমাজ ব্যবস্থা, কর্পোরেট ক্ষেত্র, অর্থনীতি ও পেশাদারদের সুবিধার্থে ডিজিটাল পদ্ধতিতে রূপান্তরণ, স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থার মাধ্যমে কর্মসম্পাদন ও কর্মদক্ষতার মান বাড়ানোর কাজে নিরলস প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে। দেশে ব্যবসা-বাণিজ্যের অনুকূল পরিবেশ গড়ে তুলতে মন্ত্রক গত কয়েক বছরে একগুচ্ছ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। করোনা মহামারীর সময় দেশে বিভিন্ন সংস্থার নাম নথিভুক্তিকরণ এই সমস্ত উদ্যোগের প্রতিফলন বলেও তিনি অভিমত প্রকাশ করেন। 


কেন্দ্রীয় রেজিস্ট্রেশন সেন্টারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত ১ লক্ষ ৩৮ হাজার সংস্থার নাম নথিভুক্ত হয়েছে, যা পূর্ববর্তী বছরের তুলনায় ১৭ শতাংশ বেশি। অর্থমন্ত্রী বলেন, সেন্ট্রাল স্ক্রুটনি সেন্টারটি কর্পোরেট সংস্থার দাখিল করা স্ট্রেট থ্রু প্রসেস (এসটিপি) ফর্মগুলি খতিয়ে দেখবে। কর্পোরেট সংক্রান্ত তথ্যের প্রাথমিক উৎস হিসাবে মন্ত্রকের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা উল্লেখ করে শ্রীমতী সীতারমন বলেন, তথ্যের সঙ্গে যাতে কোনও রকম আপোস না করা হয়, তা যেমন মন্ত্রককে দেখতে হবে, তেমনই তথ্যের অবাধ আদান-প্রদানের বিষয়টিও সুনিশ্চিত করতে হবে। এই উদ্দেশ্যকে বিবেচনায় রেখেই মন্ত্রক সেন্ট্রাল স্ক্রুটনি সেন্টারটি গড়ে তুলেছে। 


অর্থমন্ত্রী আইইপিএফএ – এর মোবাইল অ্যাপের সূচনা করে বলেন, আর্থিক বিষয়ে সাধারণ মানুষকে আরও সচেতন, লগ্নিকারীদের সচেতনতা বৃদ্ধি, বিভিন্ন বিষয়ে তাদের তথ্যাভিজ্ঞ করে তোলা এবং সুরক্ষা কবচ দেওয়ার উদ্দেশ্যগুলি পূরণে এই অ্যাপ চালু করা হ’ল। ‘সহজে জীবনযাপনের মান আরও বাড়ানোই আমাদের প্রাথমিক উদ্দেশ্য’ বলে শ্রীমতী সীতারমন অভিমত প্রকাশ করেন। তিনি আরও বলেন, লগ্নিকারীদের মধ্যে সচেতনতা বাড়িয়ে তথ্য আদান-প্রদানের ক্ষেত্রে এই অ্যাপটি বড় ভূমিকা নেবে। কর্পোরেট ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত নিয়ন্ত্রণমূলক ব্যবস্থা এবং মান্যতাগুলির অভিনবত্ব বিবেচনায় রেখে মন্ত্রক দেশে ব্যবসা-বাণিজ্যের অনুকূল পরিবেশ গড়ে তোলার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সবপক্ষের চাহিদা দূর করে প্রযুক্তি-ভিত্তিক সমাধানের পথা আরও প্রশস্ত করার প্রয়াস অব্যাহত রাখবে বলেও অর্থমন্ত্রী অভিমত প্রকাশ করেন। উল্লেখ করা যেতে পারে, এই মোবাইল অ্যাপটি প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করা যেতে পারে। 

***

 

 

CG/BD/SB



(Release ID: 1707564) Visitor Counter : 149