প্রধানমন্ত্রীরদপ্তর

প্রধানমন্ত্রী কোয়েম্বাতুরে একগুচ্ছ উন্নয়নমূলক প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস করেছেন

সাগরমালা প্রকল্পের মধ্য দিয়ে বন্দর ভিত্তিক উন্নয়নে ভারতের অঙ্গীকার প্রতিফলিত : প্রধানমন্ত্রী

আজ যে সব উন্নয়নমূলক প্রকল্পের সূচনা হয়েছে, তার ফলে কোয়েম্বাতুর এবং সমস্ত তামিলনাড়ু উপকৃত হবে : প্রধানমন্ত্রী

Posted On: 25 FEB 2021 5:59PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লী, ২৫শে ফেব্রুয়ারী, ২০২১

 

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী আজ ১০০০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন নেভেলি নতুন তাপবিদ্যুৎ প্রকল্প এবং এনএলসিআইএল –এর ৭০৯ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প জাতির উদ্দেশে উৎসর্গ করেছেন। এছাড়া ভিও চিদাম্ববরনার বন্দরে ৫ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন গ্রিডের পরিকল্পনা, সরবরাহ এবং প্রকল্প সূচনার শিলান্যাস করেছেন। এই গ্রিড উৎপাদিত সৌরশক্তি বন্টন করবে। শ্রী মোদী, কোয়েম্বাতুর, মাদুরাই, সালেম, থানজাভুর, ভেলোর, তিরুচিরাপল্লি, তিরুপ্পুর, তিরুনেলভেলী, থুঠুকুড়িতে যে ৯টি স্মার্টসিটি প্রকল্প হচ্ছে, সেগুলির জন্য ইন্টিগ্রেটেড কম্যান্ড অ্যান্ড কন্ট্রোল সেন্টারের শিলান্যাসও করেছেন। এছাড়া  তিনি ৮ লেনের কোরামপাল্লমা সেতু,  ভিও চিদাম্ববরনার বন্দরে রেল লাইনের ওপর একটি উড়ালপুলের উদ্বোধন করেছেন। পাশাপাশি  প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা (শহরাঞ্চল) প্রকল্পের আওতায় শ্রী মোদী বস্তিবাসীদের জন্য ঘরের উদ্বোধন করেছেন। তামিলনাড়ুর রাজ্যপাল, মুখ্যমন্ত্রী ও উপমুখ্যমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শ্রী প্রহ্লাদ যোশী এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

এই উপলক্ষ্যে শ্রী মোদী বলেছেন, শিল্প ও উদ্ভাবনের শহর কোয়েম্বাতুরে আজ যে সব উন্নয়নমূলক প্রকল্পে সূচনা হল, তার সুফল কোয়েম্বাতুর সহ সমস্ত তামিলনাড়ু পাবে। 

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ভবানী সাগর জলাধারের আধুনিকীকরণ প্রকল্পের মাধ্যমে বিভিন্ন জেলার ২ লক্ষ একর জমিতে সেচের জল পৌঁছে দেওয়া হবে। এর ফলে কৃষকরা উপকৃত হবেন। ভারতের শিল্পের উন্নয়নে তামিলনাড়ু যে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে, তিনি তারও প্রশংসা করেছেন। বিভিন্ন বিদ্যুৎ প্রকল্পের উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। কারণ শিল্পের বিকাশের জন্য নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের প্রয়োজন। ৭০৯ মেগাওয়ার্ট ক্ষমতা সম্পন্ন সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্পের নির্মাণে দেশীয় প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। পুরো প্রকল্প নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ৩০০০ কোটি টাকা। এছাড়াও ১০০০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন তাপবিদ্যুৎ প্রকল্পের সুফল তামিলনাড়ু পাবে। ৭৮০০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এই বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদিত বিদ্যুতের ৬৫ শতাংশ তামিলনাড়ুকে দেওয়া হবে।   

থুঠুকড়ির ভিও চিদাম্ববরনার বন্দরে বিভিন্ন প্রকল্পের সূচনা করে শ্রী মোদী বলেছেন, তামিলনাড়ুর সামুদ্রিক বাণিজ্য ও বন্দর ভিত্তিক উন্নয়নে গৌরবজ্জ্বল ইতিহাস রয়েছে। এই প্রকল্পগুলি বন্দরের পণ্য ওঠানো – নামানোর ক্ষমতাকে বাড়াবে। একই সঙ্গে পরিবেশবান্ধব বন্দরের উদ্যোগকে সাহায্য করবে।  আত্মনির্ভর ভারত ও বাণিজ্য এবং লজিস্টিকের কেন্দ্র হয়ে ওঠার ক্ষেত্রে দক্ষভাবে বন্দর পরিচালনা করা প্রয়োজন। প্রধানমন্ত্রী মহান স্বাধীনতা সংগ্রামী ভিও চিদাম্ববরনারের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। তিনি বলেছেন, ভিও চিদাম্ববরনারের প্রাণবন্ত ভারতীয় জাহাজ শিল্প ও সামুদ্রিক ব্যবসা বাণিজ্যের স্বপ্ন আমাদের অনুপ্রাণিত করে। প্রধানমন্ত্রী, ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্পের সঙ্গে ৫ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন গ্রিড সংযোগের বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। ১৪০ কিলোওয়াট রুফটপ সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্যানেল বসানোর কাজও চলছে। পুরো বিষয়টিকে তিনি জ্বালানীর ক্ষেত্রে আত্মনির্ভরতার উদাহরণ বলে উল্লেখ করেছেন।   

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সাগরমালা প্রকল্পের মাধ্যমে বন্দরভিত্তিক উন্নয়নের বিষয়ে ভারত অঙ্গীকারবদ্ধ। ২০১৫ থেকে ২০৩৫ সালের মধ্যে ৬ লক্ষ কোটি টাকার প্রায় ৫৭৫টি প্রকল্প বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছেঃ বন্দরের আধুনিকীকরণ, নতুন বন্দর নির্মাণ, বন্দরের যোগাযোগ ব্য়বস্থার উন্নয়ন, বন্দর ভিত্তিক শিল্পায়ন এবং উপকূলীয় অঞ্চলে বসবাসরত বিভিন্ন সম্প্রদায়ের উন্নয়ন। চেন্নাইয়ের শ্রী পেরুম্বুদুরের কাছে মাপ্পেড়ুতে একটি নতুন মাল্টি মডেল, লজিস্টিক পার্ক শীঘ্রই কাজ শুরু করবে। সাগরমালা প্রকল্পের আওতায় ৮ লেন বিশিষ্ট কোরামপাল্লাম সেতু ও রেললাইনের উপর উড়ালপুল নির্মাণ করা হয়েছে। এই প্রকল্পের ফলে  বন্দরমুখী এবং বন্দর থেকে অন্যত্র যান চলাচলের ক্ষেত্রে যানজট হবে না। ফলে জাহাজের থেকে পণ্য ওঠানো – নামানোর কাজে সময়ও কম লাগবে।   

শ্রী মোদী বলেছেন, যে কোনো উন্নয়নের মূলে রয়েছে ব্যক্তি বিশেষের মর্যাদা নিশ্চিত করা। “মর্যাদা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে সকলের জন্য আবাসের ব্যবস্থা করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। মানুষের স্বপ্ন ও উচ্চাকাঙ্খা পূরণের জন্য প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা শুরু করা হয়।”  আজ বস্তিবাসীদের জন্য ৪১৪৪টি ঘরের উদ্বোধন করে শ্রী মোদী সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও তামিলনাড়ু জুড়ে স্মার্ট সিটিগুলির জন্য ইন্টিগ্রেটেড কম্যান্ড অ্যান্ড কন্ট্রোল সেন্টারের তিনি  শিলান্যাস করেছেন। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার আওতায় এই প্রকল্পের জন্য ব্যয় হয়েছে, ৩৩২ কোটি টাকা। এই ঘরগুলি স্বাধীনতার ৭০ বছর পরেও যারা আশ্রয়হীন, তাদের দেওয়া হবে। ইন্টিগ্রেটেড কম্যান্ড অ্যান্ড কন্ট্রোল সেন্টারের মাধ্যমে স্মার্ট সিটিগুলির জন্য ইন্টেলিজেন্ট অ্যান্ড ইন্টিগ্রেটেড আইটি ব্যবস্থাপনার সাহায্যে বিভিন্ন পরিষেবা নাগরিকদের দেওয়া হবে।

  ***

 

 

CG/CB/SFS



(Release ID: 1700944) Visitor Counter : 141