শ্রমওকর্মসংস্থানমন্ত্রক

সরকার উৎপাদন ক্ষেত্র, খনি ক্ষেত্র এবং পরিষেবা ক্ষেত্রের জন্য একটি খসড়া মডেল প্রকাশ করেছে। এ বিষয়ে অংশীদারদের কাছ থেকে ৩০ দিনের মধ্যে পরামর্শ বা আপত্তির আহ্বান জানানো হয়েছে

Posted On: 02 JAN 2021 10:46AM by PIB Kolkata
নতুন দিল্লি, ০২ জানুয়ারি, ২০২০
 
কেন্দ্রীয় সরকার শিল্প সংযোগ আইনের ২৯ ধারা অনুসারে উৎপাদন ক্ষেত্র, খনি ক্ষেত্র এবং পরিষেবা ক্ষেত্রের জন্য একটি খসড়া মডেল প্রকাশ করেছে। এ বিষয়ে অফিশিয়াল গেজেট প্রকাশ করা হয়েছে। এই মডেলের বিষয়গুলি নিয়ে মতামত এবং আপত্তির ব্যাপারে অংশীদারদের কাছ থেকে পরামর্শ চাওয়া হয়েছে। আগামী ৩০ দিনের মধ্যে সেই পরামর্শ বা আপত্তি জানাতে হবে। পরিষেবা ক্ষেত্রের প্রয়োজনীয়তার কথা বিবেচনায় রেখে এই প্রথম একটি পৃথক মডেল প্রস্তুত করা হয়েছে।
 
 
নতুন এই মডেলের বৈশিষ্ট্যগুলি হচ্ছে-
 
১) যেখানে কোন নিয়োগকর্তা তার শিল্প স্থাপন বা উদ্যোগের সাথে সম্পর্কিত বিষয়গুলি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের মডেল অনুযায়ী প্রয়োগ করবেন তখন তা প্রত্যয়িত নির্দেশ হিসেবেই গণ্য হবে।
 
২) শিল্প সংস্থার ক্ষেত্রে গৃহীত মডেলের নির্দেশগুলি সমস্ত শিল্প ক্ষেত্রের জন্য সর্বত্র প্রযোজ্য হবে।
 
৩) ক্ষেত্র অনুযায়ী প্রয়োজনীয়তার কথা বিবেচনা করে তিনটি মডেলের ক্ষেত্রেই সমতা বজায় রাখা হয়েছে।
 
৪) তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার করে তিনটি মডেলের জন্য গৃহীত নির্দেশগুলি নিয়োগকর্তাদের উৎসাহিত করবে।
 
৫) বাড়ি থেকে কাজ বা ওয়ার্ক ফ্রম হোম এই ধারণাটিও নতুন মডেলে বিধিবদ্ধ করা হয়েছে।
 
৬) নতুন এই মডেলের পরিষেবা ক্ষেত্রে বিশেষত তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে কাজের সময় সীমা নিয়োগকর্তা ও কর্মীর মধ্যে নিয়োগ সংক্রান্ত চুক্তি মেনে হবে।
 
৭) ১২ মাসের মধ্যে কোন শ্রমিক যদি তিন বা ততোধিক বার দুর্ব্যবহারের জন্য দোষী সাব্যস্ত হন সেক্ষেত্রে অনুশাসনের বিষয়ে নির্দিষ্টভাবে সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে।
 
৮) খনি ক্ষেত্রে কর্মরত শ্রমিকদের জন্য রেল ভ্রমণের সুবিধা বৃদ্ধি করা হয়েছে। বর্তমানে কেবলমাত্র কয়লা খনিতে কর্মরত শ্রমিকরা এটি গ্রহণ করছে। 
 
কেন্দ্রীয় শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী শ্রী সন্তোষ কুমার গাংগোয়ার বলেছেন, এই মডেলের স্থায়ী নির্দেশগুলি দেশের শিল্প সম্প্রীতির পথ সুগম করবে। এর পাশাপাশি পরিষেবা ক্ষেত্রে সৌহার্দ্যপূর্ণ কাজের ধারা বজায় থাকবে।
 
***
 
 
 
CG/SB


(Release ID: 1685615) Visitor Counter : 63