স্বাস্থ্যওপরিবারকল্যাণমন্ত্রক

ডঃ হর্ষ বর্ধন প্রয়াগরাজে ডেডিকেটেড কোভিড হাসপাতাল হিসেবে মোতিলাল নেহরু মেডিকেল কলেজে সুপার স্পেশালিটি ব্লকের উদ্বোধন করলেন

Posted On: 05 OCT 2020 2:43PM by PIB Kolkata
নয়াদিল্লি, ৫ অক্টোবর, ২০২০
 
 
 
 
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী ডঃ হর্ষ বর্ধন এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ডিজিটাল পদ্ধতিতে প্রয়াগরাজে মোতিলাল নেহরু মেডিকেল কলেজে সুপার স্পেশালিটি ব্লকের উদ্বোধন করেছেন। ২২০ শয্যাবিশিষ্ট এই হাসপাতালটি জাতির উদ্দেশে উৎসর্গ করা হয়েছে। এছাড়াও, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী আইসিএমআর-এর পক্ষ থেকে স্থাপিত রাজ্যের প্রথম হাই থ্রুপুট কোবাস ৬৮০০ মেশিনের উদ্বোধন করেন। কোভিড নমুনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে আঞ্চলিক বৈষম্য এড়াতেই এই যন্ত্রটি স্থাপন করা হয়েছে।
 
প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্য সুরক্ষা যোজনার আওতায় ১৫০ কোটি টাকা খরচে মোতিলাল নেহরু মেডিকেল কলেজে সুপার স্পেশালিটি ব্লকটি গড়ে তোলা হয়েছে। এই ব্লকে নিউরোলজি, নিউরো-সার্জারি, নেফ্রোলজি, ইউরোলজি, প্লাস্টিক সার্জারি, সার্জিক্যাল অঙ্কোলজি এবং ভ্যাসকুলার সার্জারির মতো একাধিক বিভাগ রয়েছে। সুপার স্পেশালিটি ব্লকে ২৩৩টি শয্যার পাশাপাশি,  সাতটি অপারেশন থিয়েটার, ৫২টি আইসিইউ বেড এবং ১৩টি ডায়ালিসিস বেড রয়েছে। স্নাতকোত্তর স্তরের ২৪ জন ছাত্রছাত্রী এই সুপার স্পেশালিটি ব্লকে প্রশিক্ষণ নিতে পারবেন। 
 
কোবাস ৬৮০০ হাই থ্রুপুট যন্ত্রের উদ্বোধন করে ডঃ হর্ষ বর্ধন বলেন, সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় এই যন্ত্রটির সাহায্যে পিসিআর পদ্ধতিতে কোভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষার রিয়েল টাইম ফলাফল জানা যাবে। এই যন্ত্রের সাহায্যে ২৪ ঘন্টায় প্রায় ১,২০০ নমুমা পরীক্ষা করা সম্ভব। এমনকি, কোবাস ৬৮০০ যন্ত্রের সাহায্যে ভাইরাল হেপাটাইটিস 'বি' অ্যান্ড 'সি', এইচআইভি, সাইটোমেগালো ভাইরাস, আইসোমিয়াজাইড প্রভৃতির পরীক্ষা সম্ভব। ন্যূনতম মনুষ্য হস্তক্ষেপে এই যন্ত্রটি কাজ করতে পারে। 
 
প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শ্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর ২০০৩-এর স্বাধীনতা দিবসে জাতির উদ্দেশে প্রদত্ত ভাষণের কথা স্মরণ করে ডঃ হর্ষ বর্ধন বলেন, শ্রী বাজপেয়ী চিকিৎসা ক্ষেত্রে আঞ্চলিক বৈষম্য দূর করতে যে অঙ্গীকার গ্রহণ করেছিলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীজি সেই স্বপ্নকেই এগিয়ে নিয়ে চলেছেন। এক পরিসংখ্যান দিয়ে তিনি জানান, এইমস-এর ধাঁচে চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৬ থেকে বেড়ে ২২ হয়েছে এবং আরও ৭৫টি চালু প্রতিষ্ঠানকে এইমস-এর মতো করে উন্নীত করা হচ্ছে। 
 
উত্তরপ্রদেশে প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্য সুরক্ষা যোজনায় কাজকর্মের অগ্রগতিতে সন্তোষ প্রকাশ করে ডঃ হর্ষ বর্ধন বলেন, আঞ্চলিক বৈষম্য দূর করতে উত্তরপ্রদেশ ও বিহারে দুটি নতুন এইমস-এর মতো চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত হয়েছে। উত্তরপ্রদেশ ও বিহারে ইতিমধ্যেই প্রতিষ্ঠান দুটি গড়ে তোলার কাজ এগিয়ে চলেছে। এমনকি, ওপিডি পরিষেবার কাজ প্রায় শেষ হওয়ার পথে। তিনি আরও জানান, উত্তরপ্রদেশে আরও ১৩টি নতুন মেডিকেল কলেজ স্থাপনের পরিকল্পনা হয়েছে। এর ফলে, রাজ্যে গত আড়াই বছরে মেডিকেল কলেজের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৭। নতুন মেডিকেল কলেজগুলি বিজনৌর, গুন্দা। ললিতপুর, বুলন্দসহর, কৌশম্বী, আমেথি, সুলতানপুর, লক্ষীমপুর প্রভৃতি জেলায় গড়ে তোলা হবে।
 
প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্য সুরক্ষা যোজনার মাধ্যমে উত্তরপ্রদেশে স্বাস্থ্য পরিকাঠামো আরও সুদৃঢ় করতে কেন্দ্রীয় সরকারের সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণের জন্য যোগী আদিত্যনাথ কেন্দ্রের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, মোতিলাল নেহরু মেডিকেল কলেজে সুপার স্পেশালিটি ব্লকটি চালু হওয়ার ফলে আশপাশের কয়েকটি জেলার মানুষ উপকৃত হবেন। তিনি আরও জানান, মহামারীর সংক্রমণ শুরুর দিকে ২৬টি জেলাতে কোনও হাসপাতালেই ভেন্টিলেটরের ব্যবস্থা ছিল না। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের সহায়তায় রাজ্যে কোভিড চিকিৎসা ক্ষেত্রে পরিকাঠামোয় লক্ষ্যণীয় অগ্রগতি হয়েছে। পরিকাঠামো সম্প্রসারণের ফলে কোভিড রোগীদের জন্য ১ লক্ষ ৭৫ হাজার স্বতন্ত্র শয্যার বন্দোবস্ত করা হয়েছে। দৈনিক ভিত্তিতে নমুনা পরীক্ষার হার ১ লক্ষ ৫০ হাজার থেকে ২ লক্ষ হয়েছে। এমনকি, প্রতিটি জেলায় লেভেল-১ ও লেভেল-২ পর্যায়ে কোভিড কেয়ার ফেসিলিটি চালু হয়েছে। 
 
এই উপলক্ষে রাজ্যের একাধিক মন্ত্রী এবং প্রয়াগরাজের সাংসদ শ্রীমতী রীতা বহুগুনা যোশী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 
 
 
 
 
CG/BD/DM


(Release ID: 1661789) Visitor Counter : 30