যোগাযোগওতথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রক

আগামী ১ হাজার দিনের মধ্যে প্রত্যেক গ্রামে অপটিক্যাল ফাইবারের সংযোগ পৌঁছে দেওয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী

Posted On: 15 AUG 2020 4:55PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ১৫ আগস্ট, ২০২০

 



আগামী ১ হাজার দিনের মধ্যে প্রত্যেক গ্রামে অপটিক্যাল ফাইবারের সংযোগ পৌঁছে দেওয়া হবে। ৭৪তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে এ কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেছেন ২০১৪ সালের আগে দেশে মাত্র ৫ ডজন গ্রামে অপটিক্যাল ফাইবারের যোগাযোগ ছিল। গত ৫ বছরে দেশে দেড় লক্ষ গ্রাম পঞ্চায়েতে অপটিক্যাল ফাইবারের সংযোগ পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়েছে।দেশের ৬ লক্ষ গ্রামের সবগুলিতেই আগামী ১ হাজার দিনের মধ্যে অপটিক্যাল ফাইবারের সংযোগ পৌঁছে দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এই গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণার জন্য প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বৈদ্যুতিক এবং তথ্য প্রযুক্তি ও যোগাযোগমন্ত্রী শ্রী  রবি শঙ্কর প্রসাদ ট্যুইট করে বলেছেন,  এই ঘোষণা  ডিজিটাল ভারতে পরিবর্তন আনতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। 

প্রধানমন্ত্রী এ দিন লাল কেল্লার প্রাকার থেকে জানিয়েছেন "আমাদের দেশে ১৩০০ বেশি দ্বীপ রয়েছে। দেশের উন্নয়নের গুরুত্বের কথা বিবেচনা করে এই দ্বীপগুলির ভৌগলিক অবস্থান অনুযায়ী কয়েকটি দ্বীপে নতুন উন্নয়নমূলক প্রকল্প শুরু হয়েছে। আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের পর আগামী ১ হাজার দিনের মধ্যে লাক্ষাদ্বীপকেও সমুদ্র  তলদেশে অপটিকাল ফাইবার কেবল দিয়ে যুক্ত করা হবে।"

এই সপ্তাহের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী চেন্নাই এবং আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জকে সংযোগকারী প্রথম সমুদ্র তলদেশ দিয়ে  ফাইবার অপটিক সংযোগের উদ্বোধন করেছিলেন।  ফলস্বরূপ, কেন্দ্রশাসিত ওই অঞ্চলগুলিতে এখন দিল্লি এবং চেন্নাইয়ের সমান দ্রুত ইন্টারনেট  সংযোগ প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে।

 লক্ষদ্বীপে উচ্চ গতির ইন্টারনেট সরবরাহের ঘোষণা প্রসঙ্গে  রবিশঙ্কর প্রসাদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী দ্বীপপুঞ্জগুলিতে সমুদ্র তলদেশ দিয়ে অপটিক্যাল কেবল সংযোগ দেওয়ার জন্য ১০০০ দিনের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছেন। আন্দামান ও নিকোবরে টেলিযোগাযোগ সংযোগ স্থাপনের  পাশাপাশি এই কাজ শীঘ্রই  শেষ হবে।

 এই অপটিক্যাল কেবল সংযোগ স্থাপনের ফলে আগামী দিনে লক্ষ্মদ্বীপে  গ্রামে গ্রামে ইন্টারনেটে  সংযোগ এবং দ্বীপপুঞ্জের লোকেদের সাশ্রয়ী মূল্যে  ভাল সংযোগ প্রদান করা সম্ভব হবে। এর সঙ্গে  শিক্ষা, টেলি-মেডিসিন, ব্যাংকিং ব্যবস্থা, অনলাইন বাণিজ্য, পর্যটন প্রচার এবং দক্ষতা বিকাশের পাশাপাশি  ডিজিটাল ভারতের সুবিধা পৌঁছে দেওয়া  যাবে।

 

 


CG/SS



(Release ID: 1646219) Visitor Counter : 11