কেন্দ্রীয়মন্ত্রিসভা
azadi ka amrit mahotsav

জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবিলায় ভারতের অবদান সম্পর্কিত চূড়ান্ত খসড়াটি আজ অনুমোদিত হল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে

জলবায়ুকে দূষণমুক্ত রাখতে প্রধানমন্ত্রীর পঞ্চামৃত ঘোষণার সঙ্গে সাযুজ্য রেখে রচিত হয় এই চূড়ান্ত খসড়াটি

Posted On: 03 AUG 2022 2:33PM by PIB Kolkata

নয়াদিল্লি, ৩  আগস্ট, ২০২২

 

প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত আজ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবিলায় ভারতের অবদান সম্পর্কে যে জাতীয় নীতি ও কর্মসূচী রয়েছে (এনডিসি) তার চূড়ান্ত খসড়াটিতে অনুমোদন দিয়ে বলা হয় যে তা রাষ্ট্রসংঘের জলবায়ু সম্পর্কিত সম্মেলনে তুলে ধরা হবে। প্যারিস চুক্তির আওতায় জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবিলায় আন্তর্জাতিক সহযোগিতার ক্ষেত্রে ভারতের অবদানের প্রসারে এই এনডিসি বিশেষভাবে সহায়ক হবে। দেশের স্বার্থ রক্ষার পাশাপাশি ভবিষ্যৎ উন্নয়ন সম্পর্কিত প্রয়োজন মেটাতেও তা বিশেষ ভাবে কাজ করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

গ্লাসগোয় অনুষ্ঠিত রাষ্ট্রসংঘের জলবায়ু পরিবর্তন সম্মেলনের ২৬-তম অধিবেশনে ভারত জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবিলায় ৫টি বিষয়কে তুলে ধরে। এই ৫টি বিষয় ‘পঞ্চামৃত’ নামে পরিচিত। এর আগে ভারত এনডিসি-র একটি প্রাথমিক খসড়া রাষ্ট্রসংঘের কাছে পেশ করে ২০১৫র অক্টোবরে। সেখানে জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কিত ৮টি লক্ষ্য পূরণের কথা বলা হয়। চূড়ান্ত এনডিসি অনুযায়ী আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে বাতাসে কার্বন নির্গমনের মাত্রাকে ৪৫ শতাংশে কমিয়ে আনতে ভারত প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আজ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই বিষয়টি অনুমোদন লাভের ফলে সুস্থ জীবনশৈলী অক্ষুন্ন রাখতে এবং দরিদ্র মানুষের সুরক্ষায় তা বিশেষ ভাবে কার্যকর হবে। চূড়ান্ত এনডিসি-তে বলা হয়েছে যে সুস্থ ও নিরন্তর জীবনধারাকে সুরক্ষিত রাখতে এনডিসি এক সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, চূড়ান্ত এনডিসি-টি দেশের জাতীয় পরিস্থিতি এবং সাধারণ দায়িত্বশীলতার কথা মাথায় রেখে স্থির করা হয়েছে। বাতাসে কার্বন নির্গমনের মাত্রা কমিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি রয়েছে এটির মধ্যে। কারণ ভারতের লক্ষ্য হল কার্বন নির্গমনের মাত্রা ন্যূনতম মাত্রায় রেখে দেশের অর্থনৈতিক বনিয়াদকে আরও সুদৃঢ় করে তোলা যাতে তার সুফল ভোগ করতে পারে দরিদ্র সাধারণ মানুষ।

 

PG/SKD/NS



(Release ID: 1848048) Visitor Counter : 42