ক্ষুদ্র, অতিক্ষুদ্রওমাঝারিশিল্পমন্ত্রক
azadi ka amrit mahotsav

ক্ষুদ্র, অতিক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ক্ষেত্রে কর্মসংস্থানের সুযোগ-সুবিধা

Posted On: 06 DEC 2021 1:26PM by PIB Kolkata
নতুন দিল্লি, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২১
 
পরিসংখ্যান মন্ত্রক দ্বারা পরিচালিত অসংগঠিত, অ-কৃষি ক্ষেত্রে ৭৩-তম জাতীয় পরিসংখ্যান অনুযায়ী ক্ষুদ্র অতি ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ক্ষেত্রে ১১.১০ কোটি মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কর্মসংস্থান সৃষ্টি কর্মসূচি, প্রাইম মিনিস্টার্স এম্প্লয়মেন্ট জেনারেশন প্রোগ্রাম- এর অধীনে ২০১৬-১৭, ২০১৭-১৮,২০১৮-১৯,
২০১৯-২০,২০২০-২১ এবং ২০২১-২২ ( ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত ) আনুমানিক কর্মসংস্থানের সংখ্যা যথাক্রমে ৪.০৮ লক্ষ, ৩.৮৭ লক্ষ, ৫.৮৭ লক্ষ, ৫.৩৩ লক্ষ, ৫.৯৫ লক্ষ এবং ২.৯০ লক্ষ।
দেশে ক্ষুদ্র, অতিক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ক্ষেত্রে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে সরকার একাধিক প্রকল্প গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে প্রধানমন্ত্রী এম্প্লয়মেন্ট জেনারেশন প্রোগ্রাম, মাইক্রো এন্ড স্মল এন্টারপ্রাইজেস ক্লাস্টার ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম, স্কিম অফ ফান্ড ফর রিজেনারেশন অফ ট্রাডিশনাল ইন্ডাস্ট্রিজ, ক্রেডিট গ্যারান্টি ফান্ড ট্রাস্ট ফর মাইক্রো এন্ড স্মল এন্টারপ্রাইজেস এবং স্কিম ফর প্রমোটিং ইনোভেশন রুরাল ইন্ডাস্ট্রি এন্ড এন্টারপ্রেনারশিপ।
বিশেষ করে করোনা অতিমারির সময় দেশের ক্ষুদ্র অতি ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ক্ষেত্রে সহায়তা করার জন্য সরকার আত্মনির্ভর ভারত অভিযানের মাধ্যমে বেশ কিছু উদ্যোগ নেয়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে-
 
১) ক্ষুদ্র, অতিক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ক্ষেত্রের জন্য ২০ হাজার কোটি টাকা ঋণ।
২) ক্ষুদ্র, অতিক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পক্ষেত্রে ব্যবসা করার জন্য ৩ লক্ষ কোটি টাকার জামানত মুক্ত স্বয়ংক্রিয় ঋণ।
৩) ক্ষুদ্র, অতিক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পক্ষেত্রে ৫০ হাজার কোটি টাকার ইকুইটি ইনফিউশন।
৪) এই ক্ষেত্রে শ্রেণীবিভাগের জন্য নতুন সংশোধিত মানদন্ড।
৫) ব্যবসা করার সুবিধার জন্য 'উদয়ম রেজিস্ট্রেশন'- এর মাধ্যমে
ক্ষুদ্র, অতিক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পক্ষেত্রে নতুন নিবন্ধীকরণ।
৬) ২০০ কোটি টাকা পর্যন্ত ক্রয়ের ক্ষেত্রে কোন বিশ্বব্যাপী দরপত্রের প্রয়োজন নেই। এর ফলে ক্ষুদ্র অতি ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ক্ষেত্রগুলি অনেকটাই সহায়তা পাবে।
গত ১৬ নভেম্বর, ২৯২১-এ মাইক্রো এবং স্মল এন্টারপ্রাইজের জন্য ৭৫৪ ক্রেডিট গ্যারান্টি ট্রাস্টের মাধ্যমে রিপোর্ট করা হয়েছে। এক্ষেত্রে অর্থ অনুমোদনের পরিমাণ ৮১.৪৭ কোটি টাকা। আত্মনির্ভর ভারত অভিযানের অঙ্গ হিসেবে এমার্জেন্সি ক্রেডিট লাইন গ্যারান্টি স্কিম এর মাধ্যমে গত ১২ নভেম্বর, ২০২১ পর্যন্ত মোট ২.৮২ লক্ষ টাকা মঞ্জুর করা হয়েছে।
 
আজ রাজ্যসভায় এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে কেন্দ্রীয় ক্ষুদ্র, অতিক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প মন্ত্রী শ্রী নারায়ন রানে এই তথ্য জানিয়েছেন।
 
 
CG/ SB


(Release ID: 1778652) Visitor Counter : 60


Read this release in: English , Marathi , Tamil , Telugu