পর্যটনমন্ত্রক

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী কোভিড-১৯ অতিমারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পর্যটন ক্ষেত্রকে চাঙ্গা করে তুলতে যে প্রকল্পগুলির কথা ঘোষণা করেছেন তাকে স্বাগত জানিয়েছে পর্যটন শিল্প

Posted On: 01 JUL 2021 4:23PM by PIB Kolkata

নতুন দিল্লি,  ০১ জুলাই, ২০২১

 

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী শ্রীমতী নির্মলা সীতারমন ২৮ জুন কোভিড-১৯ অতিমারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারতীয় অর্থনীতির সহায়তায় ৬ লক্ষ ২৮ হাজার ৯৯৩ কোটি টাকার এক আর্থিক প্যাকেজের কথা ঘোষণা করেছেন। এই আর্থিক প্যাকেজের মাধ্যমে দেশের পর্যটন ক্ষেত্রকে চাঙ্গা করে তোলা হবে। যার ফলে দেশের অর্থনীতিতে পুনরায় গতি আসবে।

ভ্রমণ ও পর্যটন অংশীদার এবং নিবন্ধিত পর্যটক গাইডদের জন্য প্রকল্পের কথা ঘোষণা করা হয়েছে। পর্যটন ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত মানুষদের সুবিধা করে দিতে এই প্রকল্প চালু করা হয়েছে। কোভিডের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষেত্রগুলির জন্য ঋণ নিশ্চয়তা প্রকল্পের আওতায় পর্যটন ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তি ও সংস্থাদের কার্যকরি মূলধন/ব্যক্তিগত ঋণ দেওয়া হবে। কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রক এবং রাজ্য সরকারগুলির অনুমদিত পর্যটকদের গাইড যারা রয়েছেন, এরকম ১০ হাজার ৭০০ জন কেন্দ্রীয় প্রকল্পের আওতায় আসবেন। এছাড়াও কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রকের স্বীকৃত ১০ হাজার সংস্থাও এই প্রকল্পের সুবিধা পাবে। সংস্থাগুলি সর্বোচ্চ ১০ লক্ষ টাকা এবং পর্যটক গাইডরা সর্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকা ঋণ পাবেন। এর জন্য কোনো প্রসেসিং ফি সহ অন্যান্য অর্থ ব্যয় করতে হবে না। এনসিজিএসটি-এর মাধ্যমে কেন্দ্রীয় পর্যটন মন্ত্রক এই প্রকল্প বাস্তবায়িত করবে।

৫ লক্ষ পর্যটকদের জন্য ১ মাস বিনামূল্যে ট্যুরিস্ট ভিসা দেওয়া হবে। পর্যটন ক্ষেত্রে বিকাশের জন্য এই প্রকল্পটি পরিকল্পনা করা হয়েছে। আবারও যখন ভিসা দেওয়া শুরু হবে, তখন ভারতে আসার জন্য যে সমস্ত পর্যটকরা আবেদন করবেন তাদের মধ্যে প্রথম ৫ লক্ষ পর্যটকের ভিসার জন্য কোনো অর্থ নেওয়া হবে না। ২০২২-এর ৩১ মার্চ পর্যন্ত অথবা যতক্ষণ ৫ লক্ষ ভিসা দেওয়া হচ্ছে, সেই সময় পর্যন্ত এই সুবিধা পাওয়া যাবে। এর জন্য সরকারের আর্থিক ব্যয় হবে ১০০ কোটি টাকা। তবে, একেক জন পর্যটক একবারই এই সুযোগ পাবেন। 

এই পদক্ষেপগুলি গ্রহণ করার ফলে অদূর ভবিষ্যতে পর্যটন ক্ষেত্রে গতি আসবে বলে আশা করা যাচ্ছে। সরকারের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে পর্যটন শিল্প। ভারতীয় ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শ্রী রাজীব মেহেরা জানান, ৫ লক্ষ পর্যটকের ভিসা ফি মকুবের সিদ্ধান্ত পর্যটন শিল্পে স্বস্তি এনে দিয়েছে। এর জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এছাড়াও পর্যটক গাইড এবং পর্যটন সংস্থাগুলির সুবিধার্থে যে ঋণ ব্যবস্থাপনার কথা সরকার বিবেচনা করেছে তার জন্যও কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন তিনি। ভারতের পর্যটক গাইড ফেডারেশনের প্রাক্তন সভাপতি শ্রী অশোক সারদা জানান, কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রকের এই প্যাকেজ গত ১৫ মাস ধরে বেকার হয়ে থাকা পর্যটন ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত গাইডদের কাছে কিছুটা স্বস্তির বার্তা এনে দিয়েছে। সরকারের এই পদক্ষেপে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন অ্যাসোসিয়েশন অফ ডোমেস্টিক ট্যুর অপারেটর অফ ইন্ডিয়ার কার্যকরী কমিটির সদস্য শ্রীমতী একতা ওয়াট। তিনি জানান, পর্যটন শিল্পকে পুনরুজ্জীবিত করে তুলতে অর্থ মন্ত্রক যে ইতিবাচক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে তা যথেষ্টই প্রশংসনীয়।

 

CG/SS/SKD/



(Release ID: 1732090) Visitor Counter : 227